ঢাকা , ১৬ ২০১৯ ,

শিশুকে এমন পাশবিক নির্যাতনের পর হত্যা!

| ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ৮:০৩ পূর্বাহ্ণ | আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ৮:০৩ পূর্বাহ্ণ
feature-top

রাজশাহীর পবায় ১১ বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণের পর গলা কেটে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার মধ্যরাতে উপজেলার বারইপাড়া এলাকায় পাশবিক নির্যাতনের পর তাকে হত্যা করা হয়।

নিহত শিশু হাসিনা খাতুন গোদাগাড়ীর রিশিকুল ইউনিয়নের বাইপুর গ্রামের হোসেন আলীর মেয়ে। 

নিহতের স্বজনে বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শিশুটি এবার প্রাথমিকের সমাপনী পরীক্ষা শেষে নানার বাড়ি পবার বারইপাড়া এলাকাতে বেড়াতে এসেছিল। রাতে তাকে ঘুমে রেখে নানা-নানী পাশের বাড়িতে মাজারের গান শুনতে যান। এই সুযোগে কে বা কারা শিশুটির নানা আকবর আলীর বাড়িতে ঢুকে শিশুটিকে প্রথমে ধর্ষণ করে। এরপর গলাকেটে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে চলে যায়।

রাজশাহী নগরীর কর্ণাহার থানার ওসি সেলিম বাদশা বিষয়টি নিশ্চিত করে আরও বলেন, শেষ রাতের দিকে নানা-নানী বাসায় ফিরে শিশুটির মৃতদেহ ঘরের মধ্যে পড়ে থাকতে দেখেন। এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে নিহত শিশুটির লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top