ঢাকা , ১৮ ২০১৯ ,

উপজেলা নির্বাচনের শেষ ধাপের ভোট ভালো হয়েছে : ইসি সচিব

| ১৮ জুন, ২০১৯ ৯:৩৯ অপরাহ্ন | আপডেট : ১৮ জুন, ২০১৯ ৯:৩৯ অপরাহ্ন
feature-top

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের শেষ ধাপের ভোট খুব ভালো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীর। তিনি বলেন, ‘ইভিএম ছিনতাই ও জোর করে ভোট দেওয়ার চেষ্টা ছাড়া পঞ্চম উপজেলা পরিষদের শেষ ধাপের ভোট খুব ভালো হয়েছে। দুই-একটা কেন্দ্রে সামান্য একটু গণ্ডগোল করার চেষ্টা করেছে কিছু দুষ্ট লোকজন। কিন্তু তারা সফল হয়নি।’

আজ মঙ্গলবার ২০ উপজেলার ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবনের নিজ কার্যালয়ে ইসি সচিব এসব কথা বলেন।

মো. আলমগীর বলেন, ‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার একটি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) মেশিন ছিনতাই করার অভিযোগে কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। এরপর অল্প কিছুক্ষণের জন্য ভোটগ্রহণ স্থগিত ছিল। ইভিএম রি-ইনস্টল করে আবার ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘একটা উপজেলায় কিছু লোকজন জোর করে ভোট দেয়ার চেষ্টা করেছিল। তারা পাঁচটা ব্যালট পেপারে জোর করে ভোট দিয়েছিল। ওই পাঁচটা ভোট বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। তাদেরকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

মো. আলমগীর বলেন, ‘এই নির্বাচনে ইসি খুব সতর্ক অবস্থানে ছিল। কোনো ধরনের ঝামেলা হলেই আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। সেজন্য ভোট ভালো হয়েছে। এতে ইসি সন্তুষ্ট। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে আমরা অতিরিক্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছিলাম।’

শেষ ধাপে মোট ২০ উপজেলায় ভোটগ্রহণ করে ইসি। উপজেলাগুলো হলো- শেরপুরের নকলা, নাটোরের নলডাঙ্গা, সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ, গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ, পটুয়াখালীর রাংগাবালী, বরগুনার তালতলী, গাজীপুর সদর, নারায়ণগঞ্জের বন্দর, মাদারীপুর সদর, রাজবাড়ীর কালুখালী, হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর ও বিজয়নগর, নোয়াখালী সদর, রাজশাহীর পবা, নেত্রকোনার পূর্বধলা, সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ, কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া, ফেনীর ছাগলনাইয়া ও খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা।

জা/

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top