ঢাকা , ১৯ ২০১৯ ,

ফাঁকা ঢাকা, বিনোদন কেন্দ্রে ভিড়

বায়ান্ন অনলাইন রিপোর্ট | ১৩ Augu, ২০১৯ ৪:৫৭ অপরাহ্ন | আপডেট : ১৩ Augu, ২০১৯ ৪:৫৯ অপরাহ্ন
feature-top

লঘুচাপের কারণে ঈদের দ্বিতীয়  দিন মঙ্গলবার সকাল থেকেই ঢাকায় টিপটিপ বৃষ্টি পড়ছে। আবার রৌদের আলো ঝলমল করছে। সবকিছু নিয়ে আবহাওয়া কিছুটা বৈরি থাকলে ঈদ আনন্দে তেমন ভাটা পড়ছে না বললেই চলে। রাজধানী ফাঁকা থাকায় যানবাহনের তেমন  জটও নেই। ফলে রাজধানীর এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্তে ভিড় করেছে নানা বয়সী মানুষ।  শ্যামলী শিশু মেলা, চিড়িয়াখানা, হাতিরঝিল,  জাদুঘর, সিনেমাহলগুলো বেড়ানো আর আড্ডা হয়েছে জমজমাট। 

বিকালে রাজধানীর বিনোদন কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, রামপুরা হাতিরঝিল বিনোদন কেন্দ্র, শিশুমেলা, চিড়িয়াখানা, ধানমন্ডি লেক, উত্তরার ডিয়াবাড়িতে ফ্রেন্টাসী আইল্যান্ড পার্ক ও ডিয়াবাড়ি বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে দর্শনার্থীদের ভিড়। তবে হাতিরঝিল এলাকাজুড়ে বেশি সমাগম ঘটেছে দর্শনার্থীদের। 

শ্যামলী শিশু মেলায় সকালে তেমন ভিড় না থাকলেও দুপুরে মুখর হয়ে ওঠে শিশুদের আনাগোনায়। ‘টয় ট্রেন’, ‘ম্যাজিক নৌকা’, ‘আনন্দ ঘূর্ণি, ‘ঝুলানো চেয়ার, ‘ফুলদানি আমেজ’, ‘উড়ন্ত নভোযান’- রাইডগুলোতে চড়ার পর শিশুরা উঁকি দিচ্ছিল ‘নাইন-ডি সিনেমার বুথে’।

অন্যদিকে শহরে বেড়ানোর অন্যতম বাহন রিকশার কদর ছিল তুঙ্গে, ভাড়াও বেশি। মৌসুমি রিকশা ও ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চালকরা বিভিন্ন অঞ্চল থেকে এসে বিনোদনকেন্দ্রমুখী মানুষের কাছ থেকে দ্বিগুণেরও বেশি ভাড়া হাঁকিয়েছেন।

গত কয়েক বছরে রাজধানীর পূর্বাচল প্রজেক্ট সংলগ্ন তিনশো ফিট এলাকা, আশুলিয়ায় তুরাগ তীর ঘেঁষে গড়ে ওঠা ছোটখাটো পার্কগুলোতেও দর্শর্নাথীদের ভিড় ছিল এবারও। দিয়াবাড়ি এবং এ সংলগ্ন বৃন্দাবন এলাকাও ঘুরে বেড়িয়েছেন অনেকে।

আর ঢাকার অদূরে জনপ্রিয় থিমপার্ক ফ্যান্টাসি কিংডমে প্রতিবছর ঈদকে কেন্দ্র করে বিশেষ  আয়োজন করে থাকে । এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ঈদের দিন সকাল ১০টা থেকে রাত পর্যন্ত পার্ক খোলা থাকবে পরের সাতদিন পর্যন্ত। এছাড়াও ঈদের ছুটিকে আরো আনন্দঘন করে তুলতে নদন্দপার্ক, সাগুফতায় ঘুরে বেড়াতে গিয়ছেন অনেকে।

তুরাগের চন্ডালভোগ গ্রামের বাসিন্দা সুস্মিতা চৌধুরী জানান, রাস্তাঘাটে তেমন ভিড়ও নেই বলা যায়, অনেকটা ফাঁকা আর পরিবেশটাও দারুণ। বিকেলে দুই সন্তানকে সাথে নিয়ে ডিয়াবাড়ি শিশু বিনোদন কেন্দ্র দেখতে এসেছেন।

শহীদুল ইসলাম শিশির বলেন, 'উৎসবের দিনগুলো ছাড়া বিনোদনগুলোতে সাধারণত আসা সম্ভব হয় না। যান্ত্রিক জীবন ছেড়ে খোলামেলা সবুজ পরিবেশে এসে ভালোই লাগছে।

মিথুন

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top