ঢাকা , ১৫ ২০১৯ ,

নুসরাত হত্যা : বাদী-তদন্ত কর্মকর্তাকে ফের জেরা

বায়ান্ন অনলাইন রিপোর্ট | ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৭:০০ অপরাহ্ন | আপডেট : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৭:১২ অপরাহ্ন
feature-top

ফেনীর সোনাগাজীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান হত্যা মামলার বাদী মাহমুদুল হাসান নোমান ও তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মোহাম্মদ শাহ আলমকে পুনরায় জেরা শেষ করেছেন আসামিদের আইনজীবীরা। 

সোমবার দুপুরে আদালতে ১৬ জন আসামিকে আদালতে তোলা হয়। 

নারী ওশিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক মামুনুর রশীদ এর আদালতে এ মামলায় অভিযুক্তদের সামনে জেরা শেষ হয়েছে।

এ পর্যন্ত ৯২ জন সাক্ষীর মধ্যে ৮৭ জন আদালতে হাজির হয়ে সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামি পক্ষের আইনজীবী জেরা শেষ করেছেন। 

মামলার বাদী, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা, নুসরাতের বান্ধবী নিশাত ও ফুত্তীর পুনরায় জেরা শেষ হয়েছে। 

আসামি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট ফারুক আহমেদ চৌধুরী এদেরকে আদালতে পুনরায় জেরার জন্য আদালতে আবেদন করলে আদালত তা মঞ্জুর করেন। 

৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় পর্যন্ত সকল সাক্ষীর জেরা শেষ হয়েছে। পরবর্তীতে আসামিদের  সনাক্তকরণসহ যাবতীয় কার্যাদি শেষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে মামলার রায় এ মাসের শেষের দিকে ঘোষণা হতে পারে বলে বাদীপক্ষের আইনজীবী এম শাহজাহান সাজু জানান।

গত ৬ এপ্রিল সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার প্রশাসনিক ভবনের ছাদে নিয়ে নুসরাতের হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরোসিন ঢেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। এরপর দেশলাই দিয়ে আগুন লাগিয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। অগ্নিদগ্ধ নুসরাত ১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নুসরাত হত্যার ঘটনায় ৮ এপ্রিল তাঁর ভাই মাহমুদুল হাসান বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে ১০ এপ্রিল মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) হস্তান্তর করা হয়।

এ মামলায় ২১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তদন্ত কর্মকর্তা ও পিবিআইয়ের পরিদর্শক মোহাম্মদ শাহ আলম তদন্ত শেষে ১৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। পাঁচজনকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। অভিযোগপত্রভুক্ত ১৬ আসামির মধ্যে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার বরখাস্তকৃত অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলাসহ ১২ জন ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

মিথুন

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top