ঢাকা , ১৫ ২০১৯ ,

ইন্দিরা গান্ধী-মার্গারেট থ্যাচারের রেকর্ড ভেঙে শীর্ষ নারী শাসক শেখ হাসিনা

বায়ান্ন নিউজ ডেস্ক | ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ | আপডেট : ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১০:১৭ পূর্বাহ্ণ
feature-top

বিশ্বের শীর্ষ নারী নেতৃত্বের তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারপ্রধান হিসেবে তিনি ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী, যুক্তরাজ্যের মার্গারেট থ্যাচার ও শ্রীলঙ্কার চন্দ্রিকা কুমারাতুঙ্গার রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন।

উইকিলিকসের এক জরিপের তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় বার্তাসংস্থা ইউনাইটেড নিউজ অব ইন্ডিয়া এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদন বলা হয়, ইন্দিরা গান্ধী ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ১৫ বছরের বেশি ক্ষমতায় ছিলেন। মার্গারেট থ্যাচার যুক্তরাজ্য শাসন করেছেন ১১ বছর ২০৮ দিন। আর চন্দ্রিকা কুমারাতুঙ্গা শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতায় ছিলেন ১১ বছর ৭ দিন।

জরিপ অনুসারে, ১৯৯৭ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত ২০ বছর ১০৫ দিন দেশ শাসন করেছেন সেন্ট লুসিয়ার গভর্নর জেনারেল ডেম পারলেট লুইজি। তিনি সবচেয়ে বেশি দিন ক্ষমতায় থাকা নারী। আইসল্যান্ডের ভিগডিস ফিনবোগডোটিয়ার ক্ষমতায় ছিলেন ১৯৮০ থেকে ১৯৯৬ পর্যন্ত প্রায় ১৬ বছর। তবে বিশ্ব রাজনীতিতে এ দুই নেতা খুব বেশি পরিচিত ছিলেন না।

এদিকে টানা তৃতীয়বারসহ চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন শেখ হাসিনা। প্রথম মেয়াদে ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় ছিলেন তিনি। পরে ২০০৮ সালে বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে ফের প্রধানমন্ত্রী হন শেখ হাসিনা। এরপর ২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনেও নিরঙ্কুশ জয় পায় তার দল আওয়ামী লীগ।

এ বছরের ৭ জানুয়ারি চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে এ পদে ১৫ বছরেরও বেশি সময় পার করে ফেলেছেন তিনি।

শেখ হাসিনা সরকারের একমাত্র প্রধান, যিনি ব্রিটেনের মার্গারেট থ্যাচারের রেকর্ড অতিক্রম করেছেন। থ্যাচার ১৯৭৯ সালের ২৮ নভেম্বর থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত ১১ বছর ২০৮ দিন ব্রিটেন শাসন করেছিলেন।

বিভিন্ন সময়ে ইন্দিরা গান্ধী ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। শ্রীলঙ্কার চন্দ্রিকা কুমারাতুঙ্গা প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতি উভয়ই দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি ১১ বছর এবং সাত দিন ক্ষমতায় ছিলেন।

জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মের্কেল বর্তমানে বিশ্বের নারী রাষ্ট্রপ্রধানদের শীর্ষে রয়েছেন। ২০০২ সালের ২২ নভেম্বর ক্ষমতা গ্রহণ করে তিনি এখনও জার্মানি চালাচ্ছেন।

জেএইচ

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top