ঢাকা , ১৮ ২০১৯ ,

শীতে কাঁপছে কুড়িগ্রাম

| ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ | আপডেট : ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ
feature-top

কুড়িগ্রামে ঘন কুয়াশা ও কনকনে ঠাণ্ডায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। শীতের শুরুতে নাকাল হয়ে পড়েছে জনজীবন।

গেল দুদিন ধরে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ঘন কুয়াশার সঙ্গে বইছে হিমেল হাওয়ায়। শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় জনজীবনে নেমে এসেছে দুর্ভোগ। বিশেষ করে দুর্ভোগে পড়েছে শিশু, বৃদ্ধ ও নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষ। থেমে গেছে খেটে খাওয়া মানুষের কাজকর্ম।

কুড়িগ্রাম আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে,  মঙ্গলবার সকালে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বিশেষ করে জেলার নদ-নদীর তীরবর্তী এলাকার চর ও দ্বীপ চরে বেশি ঠাণ্ডা পড়ায় এখানকার মানুষজন খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। ঠাণ্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধরা। তীব্র শীতে দুর্ভোগ বেড়েছে গবাদিপশুরও।

শহরের রিকশাচালক মোসলেম উদ্দিন বলেন, শীতোত রিকশা চলা যায় না। কুয়াশায় কিছুই দেখা যায় না।

কুড়িগ্রাম ধরলা নদীর তীর রক্ষা বাঁধের ওপর এলাকার মর্জিনা বেওয়া বলেন, আমরা গরিব মানুষ গরম কাপড়ের অভাবে খুব কষ্ট বাবা।

উলিপুরের সাহেবের আলগা ইউনিয়নের কালীর আলগা চরের হুজুরুন বেওয়া, জামাল শেখ বলেন, হু হু করি বাতাস আসি শরীলোত হানে। খুব কষ্ট গো বাবা।

কুড়িগ্রাম আবহাওয়া দপ্তরের পর্যবেক্ষক এস এম মোফাখখারুল জানান, তাপমাত্রা আরও কমতে পারে এবং বিগত বছরগুলোর চেয়ে এবার শীতের তীব্রতা বাড়তে পারে।

 

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top