Connect with us

তথ্য-প্রযুক্তি

২১ জুন আকাশে দেখা যাবে স্ট্রবেরি মুন

Avatar of author

Published

on

স্ট্রবেরি মুন

জুন মাসে দেখা যাবে স্ট্রবেরি মুন। যা নিয়ে মানুষের মাঝে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। কেননা, এই মহাজাগতিক দৃশ্য সব সময় দেখা যায় না। স্ট্রবেরি মুনের সৌন্দর্য্য সবাইকেই বিমোহিত করে।

এ বছরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আকর্ষণ হচ্ছে স্ট্রবেরি মুন। এছাড়াও বছরটিতে দেখা মিলবে, সুপার মুন, ব্লাড মুন, পূর্ণ চন্দ্র গ্রহণ এবং সূর্যগ্রহণ।

সারা বছরই চাঁদের বিভিন্ন সব রূপ দেখতে আগ্রহী থাকে পৃথিবীবাসী। তার ওপর ২০২৪ সালে জ্যোতির্বিদ্যায় আগ্রহীদের জন্য একটি সুবর্ণ সুযোগ নিয়ে এসেছে। কারণ এ বছর আকাশে উল্কাপাত, সূর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে।

আগামী ২১ জুন, এই ‘স্ট্রবেরি মুন’ দেখা যাবে। সলিসটাইস এরপর ২১ তারিখই প্রথম ‘ফুল মুন’ বা পূর্ণিমা। আর এই দিনই পূর্ণ আকার-আয়তনে পৌঁছাবে চাঁদ।

তবে এবারের ফুল মুনকে কিন্তু সুপারমুন বলা হবে না। যদিও সাধারণ দিনে চাঁদের যে আয়তন থাকে, ২১ জুন তার থেকে কিছুটা বড়ই লাগবে চাঁদকে। স্প্রিং সিজন বা বসন্তের শেষ ফুল মুন কিংবা পূর্ণিমা এবং সামার সিজনের প্রথম পূর্ণিমায় এই ‘স্ট্রবেরি মুন’ দেখা যায়।

Advertisement

গেলো ২১ জুন থেকে উত্তর গোলার্ধে সামার সিজন শুরু হয়েছে। এই বিশেষ দিনে সবচেয়ে বড় দিন দেখা যায় উত্তর গোলার্ধে। সামার সলিসটাইসের সঙ্গে স্ট্রবেরি মুন সংযোগ ঘটে ২০ বছরে একবার।

কেন এই চাঁদের নাম স্ট্রবেরি মুন?

এই স্ট্রবেরি মুন প্রথম আবিষ্কার করেছিলেন প্রাচীন আমেরিকান উপজাতির মানুষরা। স্ট্রবেরি চাষের মৌসুমের শুরুতে প্রথমবার এই চাঁদ দেখেছিলেন আমেরিকার ওই প্রাচীন উপজাতির মানুষরা।

তারপর থেকেই এই চাঁদকে বলা হয় স্ট্রবেরি মুন। অন্যান্য অনেক দেশে জুন মাসের এই ফুল মুনের বিভিন্ন নাম রয়েছে। যেমন- ইউরোপে এই চাঁদকে বলা হয় রোজ মুন।

কারণ এই সময় থেকে ইউরোপে গোলাপের চাষ শুরু হয়। অন্যদিকে উত্তর গোলার্ধে এই চাঁদের নাম ‘হট মুন’। কারণ এই সময় থেকে গরম কাল শুরু হয় উত্তর গোলার্ধে।

Advertisement
Advertisement

তথ্য-প্রযুক্তি

বাজারে এসেছে বেঙ্গল মোবাইলের ইকো সিরিজের প্রথম হ্যান্ডসেট

Published

on

বেঙ্গল-ফোন

সম্প্রতি বাজারে এসেছে বেঙ্গল মোবাইলের নতুন ইকো সিরিজের BG103 BD হ্যান্ডসেট। এটি এই সিরিজের প্রথম হ্যান্ডসেট।

শুক্রবার (১২ জুলাই) রাজধানীর একটি অডিটোরিয়ামে লিনেক্স ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশ লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর জনাব হুমায়ন কবির বাবলু আনুষ্ঠানিক ভাবে হ্যান্ডসেটটি উদ্বোধন করেন।

এসময় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন লিনেক্স ইলেকট্রনিকস বাংলাদেশ লিমিটেড এর চিফ অপারেটিং অফিসার(সিওও) প্রকৌশলী জনাব নাহিদুল ইসলাম, গ্রুপ অফ হেড (এইচআর) জনাব হাসান তৈয়ব ইমাম সহ প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা কর্মচারী বৃন্দ।

বেঙ্গল-মোবাইল

হ্যান্ডসেটটিতে আছে আন্তর্জাতিক মানের মাদারবোর্ড সাথে হাই কোয়ালিটি MTK প্রসেসর। এছাড়াও গ্রাহক আরও পাচ্ছেন ১৮০ দিনের ব্যাটারি ও চার্জার রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি,৩৬৫ দিন LCD পরিবর্তন গ্যারান্টি এবং ৩৬৫ দিন প্রাপ্ত বিক্রয়োত্তর সেবা। ১.৭৭” ইঞ্চি ডিসপ্লের এই হ্যান্ডসেটটি ডুয়েল সিমকার্ড সম্বলিত। তিনটি আকর্ষণীয় কালার সমৃদ্ধ এ মোবাইলটিতে আরোও থাকছে কিং ভয়েস, ওয়্যারলেস এফএম, টর্চ, ১০০০-ফোনবুক, অটো কল রেকর্ডার, স্পিড ডায়াল ফিচার সহ আরও অনেক ফিচার।

বেঙ্গল ফোনের চিফ অপারেটিং অফিসার প্রকৌশলী নাহিদুল ইসলাম জানান, গুণগত মান সম্পন্ন ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের হ্যান্ডসেট গুলো বাংলাদেশে আমাদের নিজস্ব কারখানায় চার্জার ব্যাটারি সহ মোবাইল ফোনের পিসিবএ উৎপন্ন করা হচ্ছে। গুণগত মান সম্পন্ন ইকো সিরিজের এই প্রোডাক্ট আরও সাশ্রয়ী মূল্যে গ্রাহকের কাছে পৌঁছানোই আমাদের মূল লক্ষ্য। তারই ধারাবাহিকতায় BG103 হ্যান্ডসেটটির ডিজাইনে করা হয়েছে। ইকো সিরিজের এই মডেলে আধুনিকতার ছোঁয়া এবং ১০০% কোয়ালিটি নিশ্চিত করা হয়েছে যা ক্রেতা সাধারণকে দিবে দীর্ঘদিন ব্যবহারের নিশ্চয়তা।

Advertisement

 

এসি//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

তথ্য-প্রযুক্তি

আজ কমে যেতে পারে ইন্টারনেটের গতি

Published

on

রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য কক্সবাজারে দেশের প্রথম সাবমেরিন কেবল (সিমিউই-৪) আজ শনিবার (১৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মোট ১২ ঘণ্টা আংশিকভাবে বন্ধ থাকবে।  ফলে সারাদেশে নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট ব্যবস্থাপনায় কিছুটা ধীরগতি হতে পারে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকেলে বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস কোম্পানি লিমিটেড পিএলসি (বিএসসিপিএলসি) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছে এ তথ্য।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাবমেরিন কেবল (সিমিউই-৪) সিস্টেমের সিঙ্গাপুর প্রান্তে কনসোর্টিয়াম কর্তৃক গৃহীত রক্ষণাবেক্ষণ কাজ করার জন্য শনিবার (১৩ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত প্রায় ১২ ঘণ্টা এ কেবলের মাধ্যমে সংযুক্ত সার্কিটগুলো আংশিক বন্ধ থাকবে। এ কারণে দেশের বিভিন্ন জায়গায় নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা ব্যাহত হতে পারে।

এতে গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছে বিএসসিপিএলসি। তবে এই সময় কুয়াকাটায় দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল (সিমিউই-৫) যথারীতি চালু থাকবে বলেও সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

 

Advertisement

 

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

তথ্য-প্রযুক্তি

ফিলিস্তিনিদের জন্য সেবা বন্ধ করলো মাইক্রোসফট

Published

on

মাইক্রোসফটের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ এনেছেন  অভিবাসী ফিলিস্তিনিরা । তারা জানিয়েছেন পূর্ব নির্দেশনা না দিয়েই মাইক্রোসফট তাদের ই-মেইল অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে। অনলাইনের অন্য সব সেবা থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের।

বৃহস্পতিবার ( ১১ জুলাই)এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করে বৃটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ভুক্তভোগী অভিবাসীরা জানান, মাইক্রোসফট তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এবং চাকরির বিজ্ঞপ্তিগুলোর সকল অ্যাক্সেস বন্ধ করে দিয়েছে। অপরদিকে মাইক্রোসফ্টের মালিকানাধীন স্কাইপিও ব্যবহার করতে পারছেন না তারা। ফলে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত গাজায় তাদের আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

তবে মাইক্রোসফটের দাবি যাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে তারা এই সার্ভিসটি ব্যবহারের শর্ত ভঙ্গ করেছেন।

সৌদি আরবে ফিলিস্তিনি অভিবাসী করাইয়াদ হামেতো বিবিসিকে বলেন,মাইক্রোসফট অনলাইনে তাকে মেরে ফেলেছে। তিনি ২০ বছর ধরে যে ই-মেইল অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করতেন, সেটি তারা স্থগিত করেছে। ।

Advertisement

তিনি আরও বলেন, স্কাইপে যোগাযোগ করতে না পারা তার পরিবারের জন্য একটি বড় ধাক্কা। ফিলিস্তিনে ইসরাইলের অভিযানের সময় সবসময় ইন্টারনেট বন্ধ থাকে। তাছাড়া আন্তর্জাতিক কল সেখানে খুবই ব্যয়বহুল। স্কাইপের সাবস্ক্রিপশন কিনে কম খরচে গাজায় মোবাইলে ফোন করা যায়। এমনকি ইন্টারনেট সুবিধা না থাকলেও। তাই এই সুবিধা অনেক ফিলিস্তিনিদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ধারনা করা হচ্ছে , হামাসের সঙ্গে সম্পৃক্ততার সন্দেহে তাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে। কারণ হামাসকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়ে থাকে বিশ্বের অনেক দেশে ।

তবে ইয়াদ হামেতো হামাসের সঙ্গে যোগাযোগ থাকার কথা অস্বীকার করে বলেন,তাদের পরিবারের কোন রাজনৈতিক ব্যাকগ্রাউন্ড নেই। একেবারেই সাধারণ মানুষ । শুধু পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার চেষ্টা করেন।

হামাসের সঙ্গে যোগাযোগ আছে এমন অভিযোগেই অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে কিনা এমন বিষয়ে বিবিসি জানতে চাইলে, মাইক্রোসফ্ট সরাসরি কোন প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

জেড/এস

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত