Connect with us

বলিউড

পুষ্পা: দ্য রুল সিনেমার মুক্তি পেছাল অনির্দিষ্টকালের জন্য

Avatar of author

Published

on

সংগৃহীত ছবি

সবকিছুই ঠিকঠাক ছিলো।  টিজারও প্রকাশ হয়েছে কয়েক মাস আগে। ওই সময় বলা হয়েছিলো ভারতের স্বাধীনতা দিবসে বক্স অফিস কাঁপাতে আসছে জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি ‘পুষ্পা’ ছবির দ্বিতীয় পার্ট -পুষ্পা: দ্য রুল।  তবে ওই তারিখে সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে না।  কবে নাগাদ ছবিটি মুক্তি পেতে পারে তাও নিশ্চিত করতে পারেনি পরিচালক বান্দ্রেদি সুকুমার।  তাই পুষ্পার অগণিত ভক্ত ও অনুরাগীদের অপেক্ষায় থাকতেই হচ্ছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া বোলছে, সিনেমার বেশকিছু কাজ এখনো বাকি রয়েছে। যেগুলো শেষ হতে বেশ সময় লাগবে। মুক্তির তারিখ ডিপছিয়ে যাওয়ার আরও একটি কারণ ছবিটির প্রধান ভিডিও সম্পাদক শ্রীনিবাস সরে গিয়েছেন। যা নিয়েও বিপাকে পড়েছেন নির্মাতা। তাই শেষ মুহূর্তে ভিডিও এডিটিংয়ের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে নবীন নুলিকে।  সবকিছু মিলিয়ে পরিচালক সুকুমার তাড়াহুড়ো করে সিনেমাটি মুক্তির পক্ষে নয়।

সিনেমা বোদ্ধারা বলেন, চলচ্চিত্র শিল্পের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার জন্য একটি সিনেমাই যথেষ্ট। ভারতের তেলেগু ভাষার ছবি বাহুবলী তাদের কথাটাই সত্য বলে প্রমাণ করেছে।  এরপর কেজিএফ, কানতারা ও পুষ্পাসহ দক্ষিণের আরও কয়েকটি সিনেমা বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছে। তেলেগু ভাষার পুষ্পা: দ্যা রাইজ সিনেমার সিকুয়্যেল পুষ্পা: দ্য রুল ছবিটিও ‍বিশ্বখ্যাতি আনবে বলে চলচ্চিত্র বোদ্ধাদের ধারণা।

দক্ষিণের সুপারস্টার আল্লু অর্জুন ও জনপ্রিয় নায়িকা রশ্মিমা মান্দানা অভিনীত ছবিটি মুক্তির চার মাস আগে থেকেই ভীষণরকম শোরগোল ফেলে দিয়েছে। পুষ্পা-দ্য রুল সিনেমাটির প্রকাশিত টিজারে দেখা যায়, গ্ল্যামারের মোড়ক থেকে আগাগোড়া বেরিয়ে, রোদে পোড়া চেহারা নিয়ে ক্যামেরার সামনে হাজির পুষ্পারূপী আল্লু অর্জুন।  আর আইটেম গানে বলিউড অভিনেত্রী দিশা পাটানির দুর্দান্ত কোমর দোলানো নাচ দর্শকদের চোখ আটকে রাখবে ভালভাবে।

শুধুমাত্র টিজার প্রকাশ ছাড়া জোরেসোরে প্রচারেও আসেনি পুষ্পা: দ্য রুল। তারপরও ছবিটি এরইমধ্যে এক হাজার কোটি রুপির ব্যবসা করে ফেলেছে। ভারতের চলচ্চিত্র ইতিহাসে প্রথমবার কোনো ছবি মুক্তির আগে এক হাজার কোটি রুপির ব্যাবসা করলো।

Advertisement

ভারতীয় গণমাধ্যম হ্যানস ইন্ডিয়ার খবর বোলছে, প্রায় ৫০০ কোটি রুপি বাজেটে পুষ্পা:দ্য রুল সিনেমাটি নির্মাণ করা হয়েছে। তবে পুষ্পা-দ্য রুল ছবির হিন্দি ডাবিংয়ের থিয়েট্রিক্যাল সত্ত্ব থেকে আয় হয়েছে ২০০ কোটি রুপি।  দক্ষিণ ভারতের সিনেমা হলে মুক্তির সত্ত্বে ব্যবসা ২৭০ কোটি রুপি। বিদেশ থেকে আসছে ১০০ কোটি রুপির ব্যবসা। পুরো ভারতে ব্যবসা করবে ৫৫০ কোটি রুপি। নেটফ্লিক্সের মতো ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ‘পুষ্পা: দ্যা রাইজ়’ দেখানো হবে। এর জন্য নেটফ্লিক্স থেকে পাচ্ছে ২৭৫ কোটি রুপি। অডিয়ো এবং স্যাটেলাইটের সত্ত্ব বাবদ সিনেমাটি থেকে আয় হবে সাড়ে চারশো কোটি রুপি। ফলে মুক্তির আগেই এই ছবির ব্যবসা ১০০০ কোটি রুপি ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

মৈত্রী মুভি মেকার্স  প্রযোজিত পুষ্পা: দ্য রুল সিনেমায় আল্লু অর্জুন ও রশ্মিকা ছাড়াও আরও অভিনয় করছেন ফাহাদ ফজিল, রাও রমেশ, প্রকাশ রাজ, পাথিপতি অজয় ঘোষ, ইন্দুকুরি সুনীল ভার্মাসহ দক্ষিণী চলচ্চিত্রের এক ঝাঁক অভিনেতা।  চলচ্চিত্রটি তেলেগুর পাশাপাশি হিন্দি, তামিল, কন্নড়, বাংলা ও মালায়ালম ভাষায়ও মুক্তি পাবে।

এমআর//

Advertisement

বলিউড

অবশেষে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন অনন্ত আম্বানি ও রাধিকা মার্চেন্ট

Published

on

এ যেনো এক স্বপ্নের বিয়ে। এমন রাজকীয় বিয়ের সাক্ষী নিকট অতীতে হয়নি গোটা ভারত। রাজনীতি থেকে গ্ল্যামার ইন্ডাস্ট্রি এবং বিশ্বের বড় বড় ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন বিয়ের অনুষ্ঠানে। গেল ১২ জুলাই, শুক্রবার অনন্ত আম্বানির সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়লেন রাধিকা মার্চেন্ট।

বলিউড থেকে শুরু করে পশ্চিমা বিনোদন জগতের সবাই বিয়ের অনুষ্ঠান আলোকিত করেন। এ দিন ছাদনাতলায় যাওয়ার আগে দাদা ধীরুভাই আম্বানির থেকে আশীর্বাদ নেন অনন্ত । পারিবারিক ও ধর্মীয় রীতি-রেওয়াজ মেনে আম্বানি ছেলে ‘শেহেরাবন্দি’ অনুষ্ঠান পালন করেন। দাদা-বউদি আকাশ-শ্লোক এবং বোন-জামাই ইশা-আনন্দ সকলেই অনন্ত-রাধিকার বিয়েতে আগত অতিথিদের আপ্যায়ণে কড়া নজর রেখেছিলেন।

অনন্ত-রাধিকার বিয়ের থিম ছিল ‘অ্যান অড টু বারাণসী। যা উৎসর্গ করা হয়েছে বারাণসীকে। বিয়ের থিমের সঙ্গে মিলিয়ে গোলাপি পোশাকে সেজেছিলো আম্বানি পরিবার। অতিথি আপ্যায়ণে বিশেষ মেন্যুর ব্যবস্থা ছিলো। অনন্তের মা নীতা আম্বানির প্রিয় বারাণসী স্ট্রিট ফুড প্রাধান্য পেয়েছিলো নৈশভোজের তালিকায়। এলাহি বারাণসী স্পেশাল চাট, মিষ্টি, লস্যি, চা, খারি, পান এবং মুখসুদ্ধির মতো নানান পদ ছিল। সোনার মঙ্গল প্রদীপ হাতে ছেলের বরযাত্রীতে দেখা গিয়েছে নীতা আম্বানিকে। গেল দেড় বছর ধরে অনন্ত-রাধিকার স্বপ্নের বিয়ের প্রস্তুতি নিয়েছিল আম্বানি পরিবার। কখনও দেশে কখনও বিদেশে তারকাখচিত পার্টির ঝলক দেখেছে নেট দুনিয়া। এবার জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করলেন অনন্ত-রাধিকা।

এসআই/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

ঢাকা মাতাবেন রাহাত ফাতেহ আলী খান

Published

on

গুণী তারকাদের আগমনে বার বার মুখরিত হয়ে ওঠে রাজধানী। সেই ধারাবাহিকতায় এবার ঢাকায় আসছেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী রাহাত ফাতেহ আলী খান। আগামী ২০ জুলাই ঢাকায় আসবেন এই গুনী সংগীতশিল্পী।

ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে ই-কমার্স সাইট বাই হেয়ার নাউ (বিএইচএন) নিশ্চিত করেছে ফাতেহ আলী খান আসার বিষয়টি।

ওই পোস্টে জানানো হয় , আগামী ২০ জুলাই ২০২৪-এ রাহাত ফাতেহ আলী খানের মায়াবী সুরে মুগ্ধ হতে চলে আসুন। রাহাত ফাতেহ আলী খানের একটি ভিডিও জুড়ে দেয়া হয়েছে ওই স্ট্যাটাসের সঙ্গে। সেখানে প্রি-রেজিস্টেশনের জন্য যোগ করা হয়েছে ইভেন্ট লিঙ্ক। তার গান উপভোগ করতে চাইলে প্রি-রেজিস্টেশন করতে হবে। পরে টিকিট মূল্য ও ভেন্যু জানিয়ে দেয়া হবে।

এর আগেও ব্যাপক সফলতা রয়েছে এই প্রতিষ্ঠানটির। গেলো মাসে বলিউড অভিনেতা অর্জুন রামপালকে দিয়ে রাজধানীতে একটি আয়োজন করেছিল তারা। সংগীতশিল্পী লাকী আলীকেও ঢাকায় এনেছিল তারা।

প্রসঙ্গত, দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম জনপ্রিয় ও সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া গায়ক রাহাত ফাতেহ আলী খান । বলিউডেও বিভিন্ন গানে কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে মুসলিম সুফি হিসেবে ভক্তিমুলক গান গাইতেন। ওস্তাদ নুসরাত ফাতেহ আলী খানের ভাস্তে রাহাত ফাতেহ আলী খান এবং ওস্তাদ ফররুখ ফাতেহ আলী খানের পুত্র।

Advertisement

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

হার্দিক-নাতাশার সম্পর্ক নিয়ে নতুন তথ্য দিলেন দম্পতির ঘনিষ্ঠ বন্ধু

Published

on

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের একেবারে শেষ ওভারে হার্দিক পান্ডিয়ার বোলিং মন জয় করে নিয়েছে তাঁর সমালোচকদেরও। কিন্তু তাঁর পারিবারিক অশান্তি কি মিটেছে? ব্যক্তিগত জীবনে স্ত্রী নাতাশা স্ট্যাঙ্কোভিচের সঙ্গে টানাপড়েন যেন থামছেই না এই ক্রিকেটারের।

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তারকা দম্পতির এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু জানিয়েছেন, হয়তো নাতাশা-হার্দিকের সম্পর্কের ফাটল মেরামত হওয়ার আর কোনো সম্ভাবনা নেই। সেক্ষেত্রে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দেশের জয় কোনো বিশেষ ভূমিকা নিতে পারছে না। ওই বন্ধু জানিয়েছেন, ‘সম্পর্ক সম্ভবত শেষ।’

তাঁর দাবি, নাতাশা এবং হার্দিক তাদের মান-অভিমানের পালা মিটিয়ে একত্রিত হওয়ার মতো অবস্থায় নেই। ফলে এটা স্পষ্ট যে, হার্দিক ও তার স্ত্রী নিজেদের সম্পর্ক শুধরে নিতে রাজি নন। সামাজিকমাধ্যমে তাদের বিবাহবিচ্ছেদের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে বেশ কিছুদিন আগে। ইতিমধ্যেই হার্দিক ও নাতাশা তাদের সামাজিকমাধ্যম থেকে একে অপরের সমস্ত ছবি মুছে দিয়েছেন। বিশ্বকাপ জয়ের পর হার্দিকের উদ্দেশে একটি শুভেচ্ছাবার্তাও জানাননি নাতাশা।

অন্যদিকে, বিশ্বকাপ জয়ের পর ফোনে কাঁদতে দেখা গিয়েছে হার্দিককে। তখন অনুমান করা হয়েছিল, স্ত্রীর সঙ্গেই আনন্দাশ্রু ভাগ করে নিচ্ছেন ভারতীয় ক্রিকেটার। কিন্তু ঘনিষ্ঠ মহল থেকে যে ধরনের কথা শোনা যাচ্ছে তাতে এই সম্ভাবনা ক্ষীণ হচ্ছে। দম্পতির ওই বন্ধু অবশ্য শেষ পর্যন্ত বলেছেন, ‘কেউ জানে না ভবিষ্যতে কী ঘটবে। কিন্তু বর্তমানে যা পরিস্থিতি, তাতে হার্দিক এবং নাতাশার সম্পর্ক ঠিক হওয়ার আশা নেই। সম্ভবত, এটা শেষ হয়ে গিয়েছে।’

২০২০ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন নাতাশা এবং হার্দিক, ২০২৩ সালে রাজস্থানের উদয়পুরে বিয়ের জমকালো অনুষ্ঠান হয়েছিল। হিন্দু এবং খ্রিস্টান মতে বিয়ে করেছিলেন এই দম্পতি।

Advertisement

এসআই/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত