Connect with us

দুর্ঘটনা

অফিসের দরজা ভেঙে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার

Avatar of author

Published

on

রাজধানীর পল্টনের রুপায়ণ তাজ ভবনের ষষ্ঠ তলার একটি অফিসের কক্ষ থেকে দুই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) রাত পৌনে ১০টার দিকে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতরা হলেন- ফরহাদ (২১) ও ইমন (২৩)। ইমন ভোলার লালমোহন থানার চৌকিদার বাড়ি গ্রামের নুর ইসলাম পাটোয়ারীর ছেলে। ফরহাদ একই এলাকার চর কচ্ছপিয়া গ্রামের মো. জলিলের ছেলে। তারা দুজনেই মাতৃভূমি গ্রুপে অফিস সহায়ক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পল্টন থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রাম কানাই সরকার গণমাধ্যমকে বলেন, সংবাদ পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে রূপায়ণ তাজ টাওয়ারের ষষ্ঠ তলার মাতৃভূমি গ্রুপের অফিসে যাই। সেখানে অফিসের দরজা ভেঙে ওই যুবকের অচেতন দেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

এসআই রাম কানাই সরকার আরও জানান, মরদেহ দুটির পাশে কাচের বোতলে অ্যালকোহল জাতীয় পদার্থের আলামত পাওয়া গেছে। প্রাথমিকভাবে আমাদের ধারণা, তারা ওই নেশা জাতীয় পদার্থ খাওয়ায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে মাতৃভূমি গ্রুপের উপদেষ্টা বাপ্পী সরদার গণমাধ্যমকে বলেন, নিহতরা দুজনেই গেলো এক মাস ধরে আমাদের অফিসের অফিস সহায়ক হিসেবে কর্মরত। গতকাল বিকাল থেকে তাদের কোনো খবর না পাওয়ায় স্বজনরা বিষয়টি আমাদের জানায়। পরে আমরা অফিসে গিয়ে পুলিশের সহায়তায় দরজা ভেঙে দেখি দুজনই অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। সেখান থেকে তাদের ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

Advertisement

 

জিএমএম/

 

Advertisement

ঢাকা

মিঠামইন হাওরে নিখোঁজ পর্যটক, মরদেহ উদ্ধার

Published

on

কিশোরগঞ্জের মিঠামইন হাওরে বন্ধুদের সঙ্গে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হওয়া আবির হোসেন (২০) নামে পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গেলো শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়কের মিঠামইন জিরো পয়েন্টে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে যায় ওই যুবক।

শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলার জিরো পয়েন্ট এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

নিহত পর্যটক আবির হোসেন ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার উত্তর মুগদা পাড়ার বাসিন্দা আবদুল আলিমের ছেলে।

ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, গাজীপুর থেকে পরিবার-পরিজনের সঙ্গে আবির মিঠামইন হাওরে ঘুরতে এসেছিলেন। মিঠামইন জিরো পয়েন্টের পাশে ঘোড়াউত্রা নদীতে তিনজন মিলে গোসল করতে নামলে ওই দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষনিক স্থানীয়দের সহযোগিতায় দুজনকে উদ্ধার করতে পারলেও আবিরকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। পরে খবর পেয়ে কিশোরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল বিকেল ৬টায় উদ্ধার অভিযান শুরু করে। আলো স্বল্পতার কারণে রাতে বিরতি শেষে শনিবার দিনব্যাপী উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। সন্ধ্যায় মরদেহ উদ্ধার করে।

মিঠামইন ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ মো. সাইফুল ইসলাম গণমাধ্যমে বলেন, শনিবার দিনব্যাপী উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। সন্ধ্যায় মরদেহ উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Advertisement

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

চট্টগ্রাম

বাসচাপায় প্রাণ গেলো বিএনপি নেতার

Published

on

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বাসচাপায় মো. কামরুল আলম (৪৮) নামে বিএনপির এক নেতার মৃত্যু হয়েছে। তিনি মঘাদিয়া ইউনিয়ন বিএনপির আহ্বায়ক ছিলেন।

শুক্রবার (১২ জুলাই) সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বড়তাকিয়া দক্ষিণ বাইপাস এলাকার চক্ষু হাসপাতালের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত কামরুল উপজেলার মঘাদিয়া ইউনিয়নের কাজীর তালুক গ্রামের মো. খোরশেদ আলমের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, কামরুল বড়তাকিয়া বাইপাস এলাকায় একটি বাস থেকে নেমে সড়কের পাশ দিয়ে হেঁটে বাড়ি যাচ্ছিলেন। পথে একটি দ্রুতগামী বাস আরেকটি কাভার্ডভ্যানকে পেছন থেকে ধাক্কা দিলে তিনি বাসের নিচে চাপা পড়েন। এ ঘটনায় বাসে থাকা ২০ যাত্রী আহত হন।

কুমিরা হাইওয়ে পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. আলমগীর গণমাধ্যমে জানান, কামরুল আলম নামের একজন রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি বাস আরেকটি কাভার্ডভ্যানকে ধাক্কা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয় তার। এ ঘটনায় কাভার্ডভ্যান ও বাস পুলিশ হেফাজতে আছে।

Advertisement

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

দুর্ঘটনা

ট্রাকচাপায় একই পরিবারের তিনজনসহ নিহত ৪

Published

on

বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকচাপায় সিএনজি অটোরিকশায় থাকা চারজন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে  একই পরিবারের তিনজন রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের শেরুয়া বটতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন শেরপুর হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ আবু হাসেম।

এ ঘটনায় নিহতরা হ‌লেন- সিরাগ‌ঞ্জের রায়গঞ্জ উপ‌জেলার সোনাখাড়া ইউনিয়‌নের বান্ধাইল গ্রা‌মের ওলিউজ্জাম‌া‌নের ছে‌লে আরিফুল ইসলাম (৩২), আরিফু‌লের স্ত্রী মৌসুমী আক্তার (২৫) ও ছে‌লে সাইফুল ইসলাম (৪)।

এছাড়া নিহত সিএনজি চালক হলেন, সিরাজগঞ্জ জেলার তারাশ থানার সেলুন গ্রামের বাসিন্দা নাসিম হোসেন (৩০)।

পুলিশ জানায়, নিহতরা সবাই একই সিএনজিচালিত অটোরিকশার যাত্রী ছিল। আইনগত প্রক্রিয়া শে‌ষে লাশ নিহত‌দের প‌রিবা‌রের কা‌ছে হস্তান্ত‌র করা হ‌বে।

Advertisement

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত