Connect with us

জাতীয়

গুজবে কান দেবেন না, বাংলাদেশের অর্থনীতি এখনও স্থিতিশীল : প্রধানমন্ত্রী

Published

on

ডিএমপি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীকে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ এবং ব্যাংকে তারল্য নিয়ে কোনো অপপ্রচারে কর্ণপাত না করার আহবান জানিয়েছেন।

আজ সোমবার (৫ ডিসেম্বর) মিরপুর সেনানিবাসের ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড এন্ড স্টাফ কলেজের (ডিএসসিএসসি) শেখ হাসিনা কমপ্লেক্সে ‘ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স-২০২২ ও ‘আমর্ড ফোর্সেস ওয়ার কোর্স’ এর গ্রাজুয়েশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।

তিনি বলেন, করোনা ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে অনেক উন্নত দেশ বিপদের মধ্যে থাকলেও বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে স্থিতিশীল রয়েছে । আন্তর্জাতিকভাবে মূল্যস্ফীতি বেড়েছে। অনেক উন্নত দেশ অর্থনৈতিকভাবে বিপদে এবং সমস্যার সম্মুখীন, তাদের রিজার্ভ কমছে। সে অবস্থায় আমরা বলতে পারি যে বাংলাদেশকে স্থিতিশীল অবস্থায় রাখতে পেরেছি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের দুর্ভাগ্য হচ্ছে যখনই দেশ একটা শান্তিপূর্ণ অবস্থার মধ্যে অর্থনৈতিক অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যায় তখন সকলের কাছে (স্বার্থান্বেষী মহল) এটা পছন্দ হয়না, এটা হলো বাস্তবতা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা একটি যুদ্ধ বিধ্বস্থ দেশ গড়ে তুলে প্রবৃদ্ধি ৯ ভাগে তুলতে সক্ষম হয়েছিলেন। আর কোভিডের আগে আওয়ামী লীগ তুলেছিল ৮ শতাংশের ওপরে। কিন্তু কোভিড-১৯ ও এর পরবর্তী রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ এবং একে কেন্দ্র করে স্যাংশনে অনেক উন্নত দেশের অর্থনৈতিক অবস্থাও বিপযস্ত হয়ে পড়েছে। বিশ্বব্যাপী মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি পেয়েছে। ধনী দেশগুলোও আজকে বিদ্যুৎ ও জালানি সাশ্রয়ের ব্যবস্থা নিচ্ছে। তাদের খাদ্যপণ্যের দাম বেড়ে যাচ্ছে, রিজার্ভ কমে যাচ্ছে। এই অবস্থায়ও বাংলাদেশকে এখনো আমরা স্থিতিশীল অবস্থায় রাখতে সক্ষম হয়েছি।

Advertisement

তিনি বলেন, যুদ্ধকালীন এই সংকটে অনেক ধনী দেশ জ্বালানি সাশ্রয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে। আমরাও নানা পদক্ষেপ নিই। অথচ জ্বালানি নিয়ে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে মানুষকে পক্ষে টানা হচ্ছে। ৯৬ সালে একুশ বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের সময় রিজার্ভ পেয়েছিল মাত্র ২ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। তখন তাঁর সরকার সেই রিজার্ভ বাড়ানোর উদ্যোগ নেয়। ২০০৯ সালে দ্বিতীয়বার যখন সরকার গঠন করে তখন রিজার্ভ পায় ৫ বিলিয়ন ডলার যেটাকে টানা সরকারে থাকায় তাঁরা ৪৮ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত করতে সক্ষম হন।

তিনি বলেন, করোনার সময় যাতায়াত ও আমদানি বন্ধ ছিল। এ জন্য রিজার্ভ জমে যায়। পরে সব চ্যানেল খুলে গেলে আমাদের আমাদানিতে রিজার্ভ ব্যয় করতে হয়েছে। ভ্যাকসিন কেনা, টিকা গবেষণায় অর্থ দেয়াসহ করোনা চিকিৎসা সরঞ্জম ক্রয় করতে আমাদের অনেক টাকা লেগেছে। এগুলোর জন্য আমাদের ডলার খরচ হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যখন কেবল মাত্র ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা চলছে তখন তাঁর সরকার ১২শ’ কোটি টাকা খরচ করে ভ্যাকসিন আনার জন্য বুকিং দেয় এবং দেশের মানুষের জন্য ঝুঁকি নেয়। অথচ অনেক উন্নত দেশও বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেয়নি। সে সময় দেশের ব্যবসায়ীসহ সকল শ্রেনীকে তাঁর সরকার যে আর্থিক প্রণোদনা দেয় তাতেও অর্থ ব্যয় হয় এবং তৃনমূল পর্যায়ে অর্থসরবরাহ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করে। ফলে করোনা মোকাবেলার পাশাপাশি অর্থনীতিও ধরে রাখতে সক্ষম হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধ এবং স্যাংশনের কারণে ইতোমধ্যে আমদানী ব্যয় বহুলাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। যে গম একসময় ২শ’ ডলারে পাওয়া যেত তা এখন ৬শ’ ডলারে কিনতে হচ্ছে। যে পরিবহন ব্যয় ৮শ’ ডলার ছিল তা ৩ হাজার ৮শ’ ডলারে গিয়ে ঠেকেছে। কিন্তু এখানে রিজার্ভ খরচ করতে হলেও তাঁর সরকার দেশের জনগণের কথা বিবেচনা করে কোন কার্পন্য করেনি। পাশাপাশি সরকারের রপ্তানী এবং বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে উল্লেখ করে তিনি দেশের প্রতি ইঞ্চি জমি কাজে লাগিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধিতে তাঁর সরকারের আহবান পুণর্ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, জাতির পিতা কেবল মাটি ও মানুষকে পুঁজি করেই একটি যুদ্ধ বিধ্বস্থ দেশ গড়ে তুলে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশের পর্যায়ে রেখে যান। সেটা সকলকে মনে রাখার মাধ্যমেই এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান তিনি।

Advertisement

প্রধানমন্ত্রী বিলাসিতা পরিহার করে সকলকে সাশ্রয়ী হওয়ার আহবান জানান। কারণ বিশ্ব অর্থনৈতিক মন্দার ধাক্কা বাংলাদেশেও লেগেছে। বিশ্বটা এখন গ্লোবাল ভিলেজ এবং একে অন্যের ওপর নির্ভরশীল। সেটা মাথায় রেখেই তিনি সকলকে সাশ্রয়ী হবার অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, আমাদের দেশ ও সম্পদ আমাদেরকেই রক্ষা করতে হবে। আমরা কারো কাছে হাত পেতে চলবো না, নিজেরা ফসল উৎপাদন করবো এবং নিজেদের দেশকে গড়ে তুলবো। এই আত্মমর্যাদাবোধ নিয়ে চলতে পারলেই ইনশাল্লাহ বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে, কেউ রুখতে পারবেনা।

শেখ হাসিনা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ করতে নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা দিয়েছিলাম। তখনো অনেকে মুচকি হেসেছিল। আজকে ডিজিটাল বাংলাদেশ সারা বিশ্বের কাছে একটা দৃষ্টান্ত। গ্রামে বসে ছেলে-মেয়েরা ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে ডলার আয় করে। এই সুযোগ আমরা করে দিয়েছি।
তিনি বলেন, আমার ও আমার পরিবারের সবার বিরুদ্ধে পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক অপবাদ দেয়ার চেষ্টা হয়েছিল। কিন্তু প্রমাণ হয়েছে, এখানে কোনো দুর্নীতি হয়নি। তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম নিজের অর্থে পদ্মা সেতু করবো। তখন অনেকে বলেছে, এটা কখনো সম্ভব নয়। অনেক দেশের সরকার প্রধানের সঙ্গে যখন আলোচনা করেছি, তখন বলেছে, এটা সম্ভব নয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অসম্ভবকে সম্ভব করাই বাঙালির চরিত্র। এটা আমরা করতে পারবো। এটা আমরা করেছি। তারা এজন্য দেশে যেমন মানুষের আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করেছে তেমনি বিদেশের শান্তি রক্ষা মিশনে অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে ভূমিকা রাখছে।

তিনি বলেন, এটা সবসময় মনে রাখতে হবে মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে আমাদের সশস্ত্র বাহিনী গড়ে উঠেছে। কাজেই আমাদের দেশের মান মর্যাদা সবসময় সমুন্নত রাখা এবং তাদের পাশে থাকা ও সহযোগিতা করা সবচেয়ে বড় লক্ষ্য।

Advertisement

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ২ কোটি ৫৩ লাখ শিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়ে থাকি। বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছি। ভূমিহীন ৩৫ লাখ মানুষকে ঘর-বাড়ি তৈরি করে দিচ্ছি। এ কাজে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনীর অবদান রয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
আজকের গ্রাজুয়েশন অনুষ্ঠানে সনদপ্রাপ্তদের আন্তরিক অভিনন্দন জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি কোর্স পরিচালনাকারি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের সর্বাঙ্গীন সাফল্য কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রী পরে মিরপুর সেনানিবাসের শেখ হাসিনা কমপ্লেক্স, ডিএসসিএসসিতে অনুষ্ঠিত ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ (এনডিসি) এবং ডিফেন্স সার্ভিসেস কমান্ড অ্যান্ড স্টাফ কলেজের (ডিএসসিএসসি) গভর্নিং বডির ১৯তম যৌথ সভায় যোগ দেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন এনডিসি ও ডিএসসিএসসির চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা।

জাতীয়

ডিএমপি ডিএমপি
বাংলাদেশ7 hours ago

ডিএমপির ৩০ সহকারী কমিশনারকে বদলি

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত সহকারী পুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার ৩০ কর্মকর্তাকে বদলি করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার (৩১ জানুয়ারি)...

ডিএমপি ডিএমপি
আইন-বিচার8 hours ago

প্রথম শ্রেণির ২৫ কর্মকর্তাসহ ৬৯ জনকে শাস্তি দিয়েছে ইসি

অসদুপায়, অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকা, জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) জালিয়াতিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকায় ৬৯ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে চাকরি থেকে বরখাস্তসহ বিভিন্ন ধরনের...

ডিএমপি ডিএমপি
অপরাধ13 hours ago

মানবতাবিরোধী অপরাধ: মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ২ আসামি গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক দুই আসামি নকিব হোসেন আদিল সরকার ও মোখলেসুর রহমান মুকুলকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন...

ডিএমপি ডিএমপি
জাতীয়14 hours ago

বায়ুদূষণ রোধে বিশেষ অভিযান শুরু কাল

পরিবেশ অধিদপ্তরে বর্তমানে তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন। তাদের মাধ্যমে বুধবার (১ ফেব্রুয়ারি) থেকেই বায়ুদূষণকারী প্রতিষ্ঠান ও যানবাহনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত...

ডিএমপি ডিএমপি
জাতীয়14 hours ago

শূন্যরেখায় এখন কোনো রোহিঙ্গা নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনেক বছর ধরে শূন্যরেখায় কিছু রোহিঙ্গা ছিল। তারা মাদক কারবারিদের সঙ্গে জড়িত ছিল। তবে রাখাইনে দুই পক্ষের যুদ্ধের কারণে কিছু...

ডিএমপি ডিএমপি
জাতীয়14 hours ago

১০০ সেকেন্ড পরপর চলবে পাতাল মেট্রোট্রেন

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশের প্রথম পাতাল মেট্রোট্রেন নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই মেট্রোট্রেন (এমআরটি লাইন-১)...

নাসির-তামিমা নাসির-তামিমা
আইন-বিচার16 hours ago

নাসির-তামিমার অভিযোগ গঠনের শুনানি ২৮ ফেব্রুয়ারি

ব্যভিচার, মানহানি ও তালাক যথাযথভাবে হয়নি জেনেও অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগে ক্রিকেটার নাসির হোসাইন ও তার স্ত্রী...

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
জাতীয়16 hours ago

দল বিবেচনায় বরাদ্দ দেয়া হয়নি: প্রধানমন্ত্রী

দল বিবেচনা করে মেয়রদের কোনো বরাদ্দ দেয়নি আওয়ামী লীগ সরকার। মানুষকে মানুষ হিসেবে দেখা হয়েছে এবং দলমত নির্বিশেষে সবার জন্যই...

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিট শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইউনিট
দুর্ঘটনা16 hours ago

পদ্মা অয়েল ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ ৫

নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জে পদ্মা অয়েল লিমিটেডের ডিপোতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দগ্ধ হয়েছেন পাঁচজন। তাদের উদ্ধার করে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও...

ডিএমপি ডিএমপি
জাতীয়17 hours ago

হুমকি মনে করলে পুলিশকে জানান, ব্যবস্থা নেব: ডিএমপি কমিশনার

বইমেলায় কোনো ধরনের নিরাপত্তার হুমকি নেই, জঙ্গি হামলার আশঙ্কা নেই। তবে আমরা এ নিয়ে আত্মতুষ্টিতে ভুগছি না। বললেন ঢাকা মেট্রোপলিটন...

Advertisement

আর্কাইভ

February 2023
MTWTFSS
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728 
ডিএমপি
ফুটবল7 hours ago

ব্লক হয়েছিল মেসির ইনস্টাগ্রাম

ডিএমপি
আওয়ামী লীগ7 hours ago

সাহস থাকলে দেশে আসুন, তারেককে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিএমপি
বাংলাদেশ7 hours ago

ডিএমপির ৩০ সহকারী কমিশনারকে বদলি

ডিএমপি
দেশজুড়ে7 hours ago

অভাবের তাড়নায় সন্তান বিক্রি করলেন মা

ডিএমপি
আওয়ামী লীগ7 hours ago

ভুল তথ্যে র‌্যাবের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ডিএমপি
ক্রিকেট8 hours ago

পাহাড় রান টপকে কুমিল্লার জয়

ডিএমপি
বিএনপি8 hours ago

বিএনপির দুপক্ষের মারামারি, সভা পণ্ড

ডিএমপি
আইন-বিচার8 hours ago

প্রথম শ্রেণির ২৫ কর্মকর্তাসহ ৬৯ জনকে শাস্তি দিয়েছে ইসি

ডিএমপি
ফুটবল8 hours ago

বিশ্বকাপ জয়ের পরেও থাকবে যে আক্ষেপ

ডিএমপি
ক্যাম্পাস9 hours ago

ইবির ঠাকুরগাঁও জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতিতে নতুন নেতৃত্ব

ডিএমপি
আওয়ামী লীগ7 hours ago

সাহস থাকলে দেশে আসুন, তারেককে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিএমপি
জাতীয়14 hours ago

শূন্যরেখায় এখন কোনো রোহিঙ্গা নেই: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ডিএমপি
বিএনপি1 day ago

বিএনপির এ পদযাত্রা ‘গণতন্ত্রের’ জয়যাত্রা : মির্জা ফখরুল

বিএনপি
আওয়ামী লীগ1 day ago

আওয়ামী লীগ কখনো পালিয়ে যায়নি : কাদের

ডিএমপি
জাতীয়2 days ago

গণতন্ত্র ছিল বলেই উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

ডিএমপি
ফুটবল2 days ago

গার্ডিয়ানের তালিকায় বর্ষসেরা ফুটবলার মেসি, শীর্ষে ব্রাজিলিয়ানরা

ডিএমপি
রাজশাহী3 days ago

বগুড়ায় হিরো আলমের প্রচারে নায়িকা মুনমুন

ডিএমপি
ফুটবল3 days ago

মার্টিনেজের আচরণের পর আইন পরিবর্তন যাচ্ছে ফিফা

ডিএমপি
আওয়ামী লীগ3 days ago

বিএনপির সন্ত্রাসের কারণে নতুন প্রজন্ম রাজনীতি করতে চায় না: শেখ পরশ

ডিএমপি
রাজনীতি4 days ago

পদত্যাগ করুন, অন্যথায় পালানোর পথ পাবেন না : মির্জা ফখরুল

সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক : সৈয়দ আশিক রহমান

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বেঙ্গল টেলিভিশন লিমিটেড , ৪৩৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৫
ফোন : 01878-184154, ই-মেইল : contact.bayannotv@gmail.com
© 2022 bayanno.tv