Connect with us

দেশজুড়ে

খাটের নিচ থেকে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

Avatar of author

Published

on

ফরিদপুর শহরের পশ্চিম খাবাসপুর মিয়াপাড়া এলাকার একটি বাসার খাটের নিচ থেকে এক নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

ওই নারীর নাম- ঝুমা আক্তার (৩৫)।তিনি অবসর প্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল মৃত আব্দুল আহাদ তালুকদারের বড় মেয়ে।

আজ রোববার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঘর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে পুলিশ বেলা ১১টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করে।

ফরিদপুর কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম.এ. জলিল জানান, ঘরের ভেতর থেকে মরদেহের দুর্গন্ধ বের হলে স্থানীয়রা পুলিশকে খরব দেয়। পরে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল মৃত আব্দুল আহাদ তালুকদারের টিনের ঘরের একটি খাটের নিচ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মরদেহটি কয়েকদিন আগের বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই বাসা থেকে নিহতের মা মনোয়ারা বেগম ও ছোট বোন সুমা আক্তারকে (২৭) আটক করা হয়। মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Advertisement
Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

বরিশাল

বরিশাল থেকে লঞ্চ ও বাস চলাচল শুরু

Published

on

বরিশালে-লঞ্চ-বাস-চলাচল-শুরু

বরিশালে কারফিউ শিথিলের সময় বাড়ানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত জেলা এবং মেট্রেপলিটন এলাকায় সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করা হয়েছে। এ দিন বরিশাল নদী বন্দর থেকে সব রুটে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে; সড়ক পথেও চলছে যাত্রীবাহী বাস।

বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, নির্দেশনা অনুযায়ী সীমিত পরিসরে বুধবার (২৪ জুলাই) বরিশালের অভ্যন্তরীণ রুটে ছোট লঞ্চ চলাচল করেছে। তবে সন্ধ্যা ৬ টার কারফিউ কঠোর থাকায় ঢাকা-বরিশাল রুটে লঞ্চ চলাচল করেনি।

নগরবাসী জানান, নগরে গণপরিবহন চলছে এবং ব্যাংক-বিমা-অফিস-আদালতের কার্যক্রম স্বাভাবিক হয়েছে। কারফিউ শিথিল হওয়াতে এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়াতে প্রয়োজনীয় কাজে আসা ব্যক্তিরা অনেকটা স্বস্তি পাচ্ছেন তারা। পরিস্থিতি এমনই থাকুক, আর কোনো অস্থির বা অস্থিতিশীল পরিবেশ চান না নগরবাসী।

উল্লেখ্য, কারফিউ শুরুর পর গেলো ২০ জুলাই থেকে বরিশাল নদী বন্দর থেকে সব রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ছিল।

 

Advertisement

জেডএস//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

দেশজুড়ে

ঢাকার বাইরে যতক্ষণ শিথিল থাকবে কারফিউ

Published

on

সংগৃহীত ছবি

ঢাকাসহ ৪ জেলায় আজও সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করা হয়েছে। তবে ঢাকার বাইরে স্থানীয় প্রশাসন কারফিউ শিথিল করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। সে অনুযায়ী অনেক জেলায় কারফিউ শিথিলের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) এসব জেলার জেলা প্রশাসক কারফিউ শিথিলের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

বন্দর নগরী চট্রগ্রামে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল থাকবে। বাকি সময় পরবর্তি নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত কারফিউ বহাল থাকবে।

রাজবাড়ীতে কারফিউ শিথিলের সময়সীমা ৩ ঘণ্টা বৃদ্ধি করা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত শিথিল করা হয়েছে কারফিউ। পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত রাত ৮টা থেকে পরদিন সকাল ৮টা পর্যন্ত কারফিউ বলবত থাকবে।

যশোরে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করা হয়েছে। বাকি সময় কারফিউ বলবত থাকবে।

Advertisement

বরিশাল নগরীতে সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যায় ৬টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল থাকবে।নগরীর বাইরের উপজেলায় শিথিল থাকবে রাত ৮টা পর্যন্ত।

তবে ঢাকার মতই হবিগঞ্জে  বৃহস্পতিবার বেলা ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল থাকবে। বাকি সময় কারফিউ জারি থাকবে। এছাড়া সিলেট ও রংপুরেও কারফিউ সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কারফিউ বহাল থাকবে।

এছাড়া বগুড়ায় সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত কারফিউ শিথিল করা হয়েছে। বাকি সময় পুরো জেলায় কারফিউ জারি থাকবে।

এছাড়া দ্বীপ জেলা ভোলায়ও বাড়ানো হয়েছে কারফিউ শিথিলের সময়।  সকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত থাকবে কারফিউ শিথিল। রাত ৮টার পরে আবার পূণরায় বলবত থাকবে কারফিউ।

আই/এ

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলছে

Published

on

সকাল থেকে স্বাভাবিক হয়েছে চাঁদপুর-ঢাকা নৌপথে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচল। তবে চাঁদপুর টার্মিনাল থেকে সবশেষ লঞ্চ ছাড়বে দুপুর দেড়টায়।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) ভোর থেকে লঞ্চ চলাচল শুরু হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন সংস্থা (বিআইডাব্লিউটিএ)

লঞ্চ কর্তৃপক্ষ জানান, গেলো কয়েকদিনে লঞ্চ বন্ধ থাকায় বিপুল অঙ্কের ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে তাদের। ক্ষতি পুষিয়ে নিতে স্বাভাবিকভাবে নৌপথ সচল রাখার জন্য দাবি জানান তারা। এরইমধ্যে চাঁদপুর থেকে রাজধানী সদরঘাটের উদ্দেশ্যে ৪ টি যাত্রীবাহী লঞ্চ ছেড়ে গেলেও সকাল সাড়ে ১০ টায় বিপরীত দিক থেকে মাত্র ১টি লঞ্চ যাত্রী নিয়ে চাঁদপুর টার্মিনালে পৌঁছেছে।

চাঁদপুর লঞ্চ টার্মিনালে  বিআইডব্লিউটিএ’র পরিদর্শক মো. শাহ আলম জানান,  বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টা পর্যন্ত চাঁদপুর টার্মিনাল থেকে সবশেষ যাত্রী নিয়ে লঞ্চ ছেড়ে যাবে। তবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত সরকারের প্রয়োজনীয় নির্দেশনার ওপর নির্ভর করবে।

এদিকে প্রায় এক সপ্তাহ পর আবারও লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ায় যাত্রীরা স্বস্তি প্রকাশ করেছেন।

Advertisement

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত