Connect with us

চট্টগ্রাম

আপনার পারফরম্যান্স শুধু জিরো নয়ই নেগেটিভও : কক্সবাজারের ডিসিকে হাইকোর্ট

Avatar of বিপ্লব আহসান

Published

on

কক্সবাজারের ডিসি

কক্সবাজারের সৌন্দর্য রক্ষায় আপনার পারফরম্যান্স শুধু জিরো নয় নেগেটিভও। বারবার বলার পরও আপনি সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করেননি। আপনি সর্বোচ্চ আদালতের আদেশ মান্য করুন। আদালতের আদেশ না মানলে আপনার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাবে। আপনি এই ঝুঁকিতে যাবেন না। কক্সবাজারের ডিসিকে বললেন হাইকোর্ট।

আজ বুধবার (১৯ অক্টোবর) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ , সমুদ্র সৈকত এলাকার অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদ সংক্রান্ত সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনা না মানায় কক্সবাজারের ডিসি মামুনুর রশিদকে উদ্দেশ্য করে কঠোরভাবে ভর্ৎসনা করে এ মন্তব্য করেন হাইকোর্ট।

শুনানির শুরুতে কক্সবাজারের ডিসির পক্ষে অ্যাডভোকেট মোমতাজ উদ্দিন ফকিরকে উদ্দেশ্য করে হাইকোর্ট বলেন, আমরা কখনো ঢালাওভাবে কারো বিরুদ্ধে কনটেম্পট করি না। তাকে অনেকবার সুযোগ দেয়া হয়েছে। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাকে আদালতের মনোভাব জানিয়েছেন। এরপরও তিনি সব্বোর্চ আদালতের আদেশ মানেননি। এ কারণে তলব করেছি।

ডিসিকে উদ্দেশ্য করে আদালত বলেন, কক্সবাজারকে সারাবিশ্বের মানুষ চেনে। আপনি সেই কক্সবাজারের ডিসি। কক্সবাজারের সৌন্দর্য রক্ষায় ভূমিকা রাখুন। আপনাকে সারাবিশ্বের মানুষ চিনবে।

আদালত আরও বলেন, উচ্ছেদ করে আমরা তাদের বঙ্গোপসাগরে ফেলে দিতে বলছি না। আপনি সুন্দর ব্যবস্থাপনা করুন। মানুষ আপনাকে মনে রাখবে। আমরা প্রতিদিন পত্রিকা-টিভি খুলে দেখি আপনি কী করছেন। কিন্তু আপনার পারফরমেন্স জিরো তো নয়ই নেগেটিভও।

Advertisement

এ সময় কক্সবাজারের ডিসি আদালতকে বলেন, আমি কিছু অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছি। এখন আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করব।

তখন আদালত বলেন, শুধু করব বললে হবে না। আপনাকে করতেই হবে। আদালতের আদেশ না মানলে আপনার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাবে।

তখন ডিসি মামনুর রশিদ বলেন, আমি আদালতের আদেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করব। পরে আদালত তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন। একইসঙ্গে ৯ নভেম্বরের মধ্যে তাকে আদালতের আদেশ বাস্তবায়ন করে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেন।

এর আগে সকালে সমুদ্র সৈকত এলাকার অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদ সংক্রান্ত উচ্চ আদালতের নির্দেশনা না মানার অভিযোগের বিষয়ে ব্যাখ্যা জানাতে হাইকোর্টে হাজির হন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক। আদালতের আদেশ না মানায় তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

গেলো ২৫ আগস্ট আদালত অবমাননার অভিযোগের এক আবেদনের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট বেঞ্চ রুল জারি করে তাকে তলব করেন। যে ৫ জনের বিরুদ্ধে রুল জারি করেছেন তারা হলেন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান লে. কর্নেল (অব.) ফোরকান আহমেদ, উপ-পরিচালক, টাউন প্ল্যানার তানভির হাসান, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনর রশিদ, পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মজিবর রহমান।

Advertisement

ওই দিন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেছিলেন, কক্সবাজার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে আদালতের নির্দেশনা পর সেটা উচ্ছেদও করা হয়েছিল। কিন্তু ইদানীং একশ’র মতো দোকান স্থাপন করা হয়েছে। এ ঘটনায় চার মাস আগে আমরা আদালত অবমাননার অভিযোগ দায়ের করেছিলাম। এরপর দীর্ঘ শুনানির পর বার বার সময় নেয়ার পরও জেলা প্রশাসক ওইসব স্থাপনা উচ্ছেদ করেননি। যে কারণে জেলা প্রশাসকসহ সকলের উপর আদালত অবমাননার অভিযোগে একটা রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

এর আগে ৭ ফেব্রুয়ারি আইনি নোটিশ দেয়া হয়েছিল। হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) সভাপতি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এ নোটিশ পাঠিয়েছিলেন।

নোটিশে বলা হয় যে, কক্সবাজার সৈকত এলাকার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য অক্ষুণ্ণ রাখতে সেখান থেকে সকল অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদ করার আবেদন জানিয়ে জনস্বার্থে এইচআরপিবি আদালতে রিট মামলা দায়ের করলে আদালত রায় দেন। রায়ে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকার অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য নির্দেশনা দেন। জনস্বার্থ বিবেচনা করে হাইকোর্ট ২০১১ সালের ৭ জুন বিবাদীদের কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এলাকার অবৈধ দখল ও স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ দিলেও এখনও তা সম্পূর্ণ বাস্তবায়ন করা হয়নি।

জাতীয়

হজে হজে
জাতীয়56 mins ago

৬৫ বছরের বেশি বয়সীরাও হজে যেতে পারবেন

এখন থেকে ৬৫ বছরের বেশি বয়সীরাও হজে যেতে পারবেন। বললেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান। আজ মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে...

হজে হজে
জাতীয়1 hour ago

বৃহস্পতিবার থেকে রোহিঙ্গাদের নেয়া শুরু করবে যুক্তরাষ্ট্র: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশের ওপর চাপ কমাতে আগামী বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) থেকে রোহিঙ্গাদের নেয়া শুরু করতে পারে যুক্তরাষ্ট্র। প্রথম তালিকায় জায়গা পেয়েছেন ৬২...

হজে হজে
জাতীয়1 hour ago

বাংলাদেশ ভ্রমণে সতর্কতা জারি করলো যুক্তরাজ্য

১০ ডিসেম্বর রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সংঘাত এবং যানবাহন সংকটের আশঙ্কা করছে যুক্তরাজ্য। রাজনৈতিক সহিংসতার আশঙ্কায় বাংলাদেশে ভ্রমণ সতর্কতা জারি...

হজে হজে
আইন-বিচার2 hours ago

উপসচিবের বাসা থেকে গৃহকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীতে ইস্কাটন এলাকার একটি বাসা থেকে আমেনা আক্তার (১৩) নামে এক গৃহকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গেলো সোমবার (৫...

হজে হজে
করোনা ভাইরাস3 hours ago

দেশে করোনায় শনাক্ত ২২

সবশেষ হিসাব অনুযায়ী দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গেলো ২৪ ঘণ্টায় কেউ মারা যায় নি। এ সময়ে নতুন করে ২২ জনের...

হজে হজে
জাতীয়4 hours ago

করোনা টিকার চতুর্থ ডোজ দেয়া হবে ২০ ডিসেম্বর

করোনা টিকার চতুর্থ ডোজ আগামী ২০ ডিসেম্বর থেকে দেয়া হবে। যাদের বয়স ষাটোর্ধ্ব তারা আগে পাবেন এ ডোজ । মঙ্গলবার...

হজে হজে
অপরাধ5 hours ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৬

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও...

হজে হজে
আওয়ামী লীগ6 hours ago

খালেদা-এরশাদকে আমরা উৎখাত করেছি: প্রধানমন্ত্রী

খালেদা জিয়াকে উৎখাত করেছি। এরশাদকে আমরা উৎখাত করেছি। জিয়াকেও উৎখাত করতে পারতাম কিন্তু সে আগেই মরে গেছে। জিয়া নিজের লোকদের...

প্রতিবেদন প্রতিবেদন
আইন-বিচার7 hours ago

নৃত্যশিল্পী ইভানের মামলার প্রতিবেদন পিছিয়ে ২৬ ডিসেম্বর

মানবপাচার আইনে করা মামলায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার ইভান শাহরিয়ার সোহাগের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পিছিয়ে আগামী ২৬...

হজে হজে
জাতীয়8 hours ago

গাইবান্ধা-৫ আসনের নির্বাচন ৪ জানুয়ারি

গাইবান্ধা-৫ আসনের বন্ধ হওয়া উপনির্বাচনে ভোটের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগামী ৪ জানুয়ারি ভোটের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।...

Advertisement

আর্কাইভ

December 2022
MTWTFSS
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
হজে
ফুটবল7 mins ago

বাংলাদেশেকে এডিবি’র ২১ হাজার কোটি টাকা ঋণ

হজে
ফুটবল37 mins ago

জাবিতে ফুটবল খেলা নিয়ে দুই হলের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ

হজে
জাতীয়56 mins ago

৬৫ বছরের বেশি বয়সীরাও হজে যেতে পারবেন

হজে
জাতীয়1 hour ago

বৃহস্পতিবার থেকে রোহিঙ্গাদের নেয়া শুরু করবে যুক্তরাষ্ট্র: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

হজে
জাতীয়1 hour ago

বাংলাদেশ ভ্রমণে সতর্কতা জারি করলো যুক্তরাজ্য

হজে
ফুটবল2 hours ago

বিএনপি চাইলে টঙ্গী বা পূর্বাচলে সমাবেশ করতে পারবে: ডিএমপি

হজে
আইন-বিচার2 hours ago

উপসচিবের বাসা থেকে গৃহকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

হজে
বিএনপি2 hours ago

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কোনো প্রোগ্রাম করব না:এ্যানী

হজে
রংপুর2 hours ago

মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ জেলের মরদেহ উদ্ধার

গ্যাস থাকবে
ঢাকা3 hours ago

রাজধানীর যেসব এলাকায় ১১ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না

সিদ্ধান্ত
জাতীয়3 days ago

সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে বিএনপির

হজে
ফুটবল3 days ago

ইতিহাস গড়ে প্রথম লাল কার্ড দেখলেন আবু বকর!

স্বস্তিকা মুখোপাধ‍্যায়
বিনোদন6 days ago

স্বস্তিকা মুখোপাধ‍্যায় গর্ভবতী, বাবা কে!

জিএম কাদের
আইন-বিচার6 days ago

জি এম কাদের জাপার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না

হজে
রাজশাহী5 days ago

রাজশাহীর কারাগারে এক আসামির ফাঁসি কার্যকর

হজে
বিএনপি2 days ago

মির্জা ফখরুলের জরুরি সংবাদ সম্মেলন আজ

হজে
জাতীয়6 days ago

বিএনপির নেতাকর্মীদের স্বাচ্ছন্দের ব্যবস্থা করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হজে
ফুটবল5 days ago

মেসির সমালোচনায় তসলিমা নাসরিন

হজে
এশিয়া1 day ago

যজম ২ বোনেরই পছন্দ এক যুবককে, বিয়েও করলেন তাকেই

হজে
ঢালিউড2 days ago

শাকিব-অপুর সম্পর্কে কিছুই জানতেন না বুবলী

হজে
বিএনপি2 hours ago

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কোনো প্রোগ্রাম করব না:এ্যানী

হজে
আওয়ামী লীগ6 hours ago

খালেদা-এরশাদকে আমরা উৎখাত করেছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রেম
আওয়ামী লীগ7 hours ago

‘প্রথম যৌবনের প্রেম ছাত্রলীগ’

হজে
ঢালিউড2 days ago

শাকিব-অপুর সম্পর্কে কিছুই জানতেন না বুবলী

হজে
জাতীয়2 days ago

যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই: প্রধানমন্ত্রী

সিদ্ধান্ত
জাতীয়3 days ago

সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে বিএনপির

হজে
জাতীয়3 days ago

‘জুনের পর ডিজেলভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে না’

হজে
রংপুর4 days ago

বর-কনেপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, বরসহ আটক ১২

হজে
আওয়ামী লীগ4 days ago

এটা কী ছাত্রলীগ? কোনো শৃঙ্খলা নেই : ওবায়দুল কাদের

হজে
জাতীয়6 days ago

বিএনপির নেতাকর্মীদের স্বাচ্ছন্দের ব্যবস্থা করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সর্বাধিক পঠিত