Bayanno Tv
বৃহস্পতিবার, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
×

কখনও পরমাণু যুদ্ধে জড়ানো যাবে না: পুতিন ও বাইডেন

  বায়ান্ন অনলাইন ডেস্ক ১৭ জুন ২০২১, ০৯:৫৯

কখনও পরমাণু যুদ্ধে জড়ানো যাবে না: পুতিন ও বাইডেন

শিগগিরই পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে দ্বিপক্ষীয় কৌশলগত সংলাপ শুরু করতে নিজেদের সম্মতির কথা ঘোষণা করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার দুপুরে সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় উভয় নেতার মধ্যে প্রতীক্ষিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। কয়েক ঘণ্টার সাক্ষাৎ শেষে এক যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য জানান রুশ-মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে ও ইরানের পার্স টুডে জানিয়েছে, সুইজারল্যান্ডের জেনেভার ভিলা লা গ্রেঞ্জে বাইডেন ও পুতিনের মধ্যে প্রায় চার ঘণ্টা বৈঠক হয়। বৈঠকের পর উভয় নেতার যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া এ পর্যন্ত প্রমাণ করেছে যে, চরম উত্তেজনাকর মুহূর্তেও সামরিক সংঘাত ও পরমাণু যুদ্ধ এড়িয়ে যেতে সক্ষম। পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক দ্বিপক্ষীয় স্টার্ট চুক্তি নবায়ণের প্রতি ইঙ্গিত করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ থেকে বোঝা যায় পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ দুই দেশ।

বাইডেন ও পুতিনের যৌথ বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, পরমাণু যুদ্ধে কেউ বিজয়ী হতে পারবে না এবং কখনোই এ ধরনের যুদ্ধ জড়ানো যাবে না।

এ সময় প্রত্যাহার করে নেওয়া দুই দেশের রাষ্ট্রদূতকে পুনর্বহালের বিষয়ে একমত হয়েছেন পুতিন-বাইডেন। বৈঠক শেষে এ কথা জানান রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রুশ রাষ্ট্রপ্রধান বলেন, সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিতে একসঙ্গে কাজ করবে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া।

পুতিন আরো বলেন, জো বাইডেনের সঙ্গে খুবই গঠনমূলক আলোচনা হয়েছে। তিনি পূর্বসুরির চেয়ে একদমই আলাদা এবং পেশাদার। আমার বিশ্বাস দুই দেশের মধ্যকার সংকট ও উত্তেজনা নিরসনে আন্তরিক মার্কিন প্রশাসন। ইতোমধ্যে বহিষ্কৃত কূটনীতিকদের তাদের স্বপদে ফিরিয়ে নিতে যাচ্ছি আমরা। আমাদের সম্পর্ক পারস্পরিক বিশ্বাস ও সম্মানের জায়গায় ফিরে গেছে, এটা নিঃসন্দেহে আনন্দের।

পুতিনের পরপরই সাংবাদিকদের সামনে দাঁড়ান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বলেন, পুতিনের সঙ্গে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন বিষয়ে ইতিবাচক আলোচনা হয়েছে। মানবাধিকার ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র সবসময়ই সোচ্চার থাকবে বলে জানান তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, বিভিন্ন কিছুতে আমাদের মতবিরোধ আছে। তবে তার পরিমাণ সামান্যই। অনেক বিষয়েই একমত হয়েছি। আমাদের মধ্যে আলোচনা ভালো এবং ইতিবাচক হয়েছে। পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকছে।

বাইডেন আরো বলেন, রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্ক ও সহযোগিতার উন্নয়ন শুধু দুটি দেশের স্বার্থই রক্ষা করবে না। সেইসঙ্গে তা পুরো বিশ্বের কল্যাণ বয়ে আনবে। ইরানের পরমাণু সমঝোতা নিয়েও রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আলাপ করার কথা জানান বাইডেন। এ সময় মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার যৌথ স্বার্থে এই নিশ্চয়তা অর্জন করতে চায়, ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরি করছে না।

বহুল প্রতীক্ষিত বাইডেন-পুতিন বৈঠকে চোখ ছিল পুরো বিশ্বের। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর পুতিনের সঙ্গে এবারই প্রথম বাইডেনের বৈঠক হয়। বাইডেন-পুতিনের বৈঠক ঘিরে জেনেভায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয় সুইস সরকার।

 

এসএন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

প্রধান সম্পাদকঃ সৈয়দ আশিক রহমান
বেঙ্গল টেলিভিশন লিমিটেড

৪৩৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।