Connect with us

এশিয়া

ইসরায়েলি বাহিনীর হামলা, ৪ ফিলিস্তিনি নিহত

Avatar of উম্মে রুম্মান ক্রান্তি

Published

on

হত্যা

ফিলিস্তিনের অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে চার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৯ জন।

মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) সকালে পশ্চিম তীরের নাবলুস শহরে ইসরায়েলি বাহিনী আগ্রাসন শুরু করলে সেখানে সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে বলে জানায় ফিলিস্তিনি কর্মকর্তারা। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

ফিলিস্তিনি ফাতাহ আন্দোলনের এক মুখপাত্র জানান, মঙ্গলবার ভোরে ইসরায়েলি বাহিনী নাবলুস শহরে প্রবেশ করার পর, ফিলিস্তিনি নিরাপত্তা বাহিনী ও সশস্ত্র যোদ্ধাদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে নাবলুসে তিনজন নিহত ও অন্তত ১৯ জন আহত হন। এ ছাড়া তাদের গুলিতে একজন বেসামরিক লোকও নিহত হন।

রামাল্লায় ইসরায়েলি বাহিনীর হাতে আরেক ফিলিস্তিনি নিহত হওয়ার কথাও জানায় তারা। তবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলছে যে তাদের সদস্যরা শুধু নাবলুসে কাজ করছে। তবে ঘটনার বিশদ বিবরণ দেয়নি তারা।

Advertisement

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের মুখপাত্র নাবিল আবু রুদেনেহ এক বিবৃতিতে বলেন, প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস নাবলুসে ‘আমাদের জনগণের বিরুদ্ধে এই আগ্রাসন বন্ধ করার জন্য জরুরিভিত্তিতে যোগাযোগ করছেন’।

পূর্ব জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরে প্রাণঘাতী হামলার ঘটনা বেড়েই চলছে। সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটে ২০১৫ সালে। ফিলিস্তিনের হামলাকারীরা কয়েক বছর ধরে পূর্ব জেরুজালেম এবং পশ্চিম তীরে একাধিক ছুরিকাঘাত, গুলি এবং গাড়ি-ঘোড়া নিয়ে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। গত কয়েক মাসে একাধিক গুপ্ত হামলায় প্রাণ যায় ১৯ ইসরায়েলি সেনার। এরপরই ইসরায়েলি বাহিনীর বেড়ে যায় ধরপাকড়।

তেল আবিবের আগ্রাসনে চলতি বছর মৃত্যু হয় ১২০ জনের বেশি ফিলিস্তিনির। নিহতদের তালিকায় রয়েছে জঙ্গি গোষ্ঠীর বন্দুকধারী, কিশোর ও যুবক যারা কথিত পাথর বা পেট্রোল বোমা নিক্ষেপের পরে গুলিবিদ্ধ হয়। নিরস্ত্র বেসামরিক লোক, পথচারী, বিক্ষোভকারী এবং ইসরায়েলি বসতিবিরোধী কর্মীরা। ইসরায়েলি সৈন্যদের ওপর ছুরি হামলা বা অন্য অস্ত্র নিয়ে সন্দেহভাজন হামলাকারী ব্যক্তিরাও রয়েছেন এ তালিকায়।

১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরায়েল যুদ্ধের সময় পশ্চিম তীর দখল করে নেয় ইসরায়েল। এরপর থেকে বিভিন্ন দফায় সেখানে বসতি স্থাপন করেছে দেশটি। পশ্চিম তীরে বর্তমানে প্রায় ছয় লাখ ইসরায়েলি ইহুদির বাস। আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী এটাকে অবৈধ বলে বিবেচনা করা হয়।

Advertisement

এশিয়া

টানা তিন ম্যাচ হার সাকিব বাহিনীর

Published

on

হত্যা

আবু ধাবিতে অনুষ্ঠিত টি-টেন লীগে টানা তিনটি ম্যাচ হারলো সাকিব আল হাসানের বেঙ্গল টাইগার্স। সেই সঙ্গে পয়েট টেবিলে তাদের অবস্থান এখন একদম তলানিতে। জয় দিয়ে সাকিবদের টি-টেন লীগের যাত্রা শুরু করলেও পরের ম্যাচ গুলোতে আর পাত্তাই পেল না সাকিবরা।

সবশেষ রোববার (২৭ নভেম্বর) নর্দার্ন ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে পাত্তাই পায়নি সাকিব আল হাসানের বাংলা টাইগার্স। রভম্যান পাওয়েলের তাগুবে ৬ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছে নর্দার্ন। শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ১০ ওভারে ১১৭ রান করেছিল বাংলা টাইগার্স। জবাবে তিন বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রভম্যানের দল।

চার ম্যাচে তৃতীয় পরাজয়ে পয়েন্ট টেবিলে সবার নিচে রয়েছে বাংলা টাইগার্স। আর ৪ ম্যাচে ৩ জয় নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে ডেকানগ্ল্যাডিয়েটরস।আজ রাতে দিল্লি বুলসে বিপক্ষে আবু ধাবিতে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে মাঠে নামবে সাকিবরা।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

শ্রদ্ধা হত্যা মামলা: আফতাবকে বহনকারী ভ্যানে হামলা

Published

on

হত্যা

দিল্লিতে বান্ধবী শ্রদ্ধা ওয়াকারকে ৩৫ টুকরা করে হত্যায় অভিযুক্ত আফতাব আমিন পুনেওয়ালাকে বহনকারী একটি পুলিশ ভ্যানে একদল তরোয়ালধারী ব্যক্তি হামলা চালিয়েছে।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ ঘটনায় ঘটে। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) এনডিটিভির এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে এবং পুনেওয়ালা নিরাপদে আছেন। পশ্চিম দিল্লির ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরিতে পুনেওয়ালার দ্বিতীয় পলিগ্রাফ পরীক্ষার পর তাকে পুলিশ ভ্যানে করে জেলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। ফরেনসিক সায়েন্স ল্যাবরেটরি ভবনের বাইরে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, পুলিশ ভ্যানের সামনে নিজেদের গাড়ি দাঁড় করিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করে ওই ব্যক্তিরা। এরপর গাড়ি থেকে পাঁচজন বেরিয়ে এসে তলোয়ার নিয়ে ভ্যানটিকে হামলা করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ অস্ত্র বের করে ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়নি এবং দুই হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলো, নিগম গুজ্জর ও কুলদীপ ঠাকুর। তারা গুরুগ্রামের বাসিন্দা। তারা হিন্দু সেনার সদস্য বলে জানিয়েছে। এই বিষয়টি পুলিশ যাচাই করে দেখছে।

Advertisement

উল্লেখ্য, পুনেওয়ালা দাবি করেছে, নিজেদের মধ্যে ঝগড়ার একপর্যায়ে তিনি শ্রদ্ধা ওয়াকারকে হত্যা করে। পরে তিনি মৃতদেহটিকে ৩৫ টুকরা করে ফ্রিজে রেখে দেন এবং দিল্লির বিভিন্ন স্থানে ফেলে দেয়। এরমধ্যে ২০টিরও কম টুকরা উদ্ধার করতে পেরেছে পুলিশ, যেগুলো ডিএনএ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে।

আদালতেও হত্যার কথা স্বীকার করেছে আফতাব পুনেওয়ালা।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

কঠোর কোভিড নীতির বিরুদ্ধে বিক্ষোভে চীন

Published

on

হত্যা

টানা কয়েকদিনের মতো করোনা বিধিনিষেধ বিরোধী বিক্ষোভে বেসামাল চীন। প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের জিরো কোভিড নীতির বিরুদ্ধে একত্র হয়েছেন দেশটির সাধারণ মানুষ। সপ্তাহজুড়ে দেশটির বাণিজ্যিক হাব সাংহাইসহ বিভিন্ন শহরে চলছে বিক্ষোভ। রাস্তায় নেমে আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন করোনা বিধিনিষেধ বিরোধীরা। রাজধানী বেইজিং, সাংহাই, উহান, চেংদু ও উরুমকিতে বিক্ষোভ হচ্ছে কয়েকদিন ধরে। প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে এতো বড় বিক্ষোভ হতে দেখা যায়নি দেশটিতে। বলছেন চীনা বিশ্লেষকরা।

করোনা মহামারি ৩ বছরের কাছাকাছি হলেও এখনও চীনে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ। করোনাভাইরাস সংক্রমণ গত কয়েকদিনে কয়েক দফা বেড়ে গেছে দেশটিতে। তা সত্ত্বেও দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের জিনজিয়াং প্রদেশের একটি আবাসিক ভবনে বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) আগুন লেগে ১০ জন নিহত হওয়ার জেরে বিধিনিষেধ বিরোধী বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা জানান, ওই ভবনের বাসিন্দারা আগুন লাগার সময় দ্রুত বের হতে পারেননি কারণ একটা অংশ লকডাউনের আওতায় ছিল। যদিও নগর কর্মকর্তারা বিষয়টি প্রত্যাখ্যান করেন। এ ঘটনার জেরে রোববার (২৭ নভেম্বর) দেশটির বাণিজ্যিক হাব সাংহাইয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন স্থানীয়রা।

এদিকে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সাংহাইয়ের অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিক্ষোভের জেরে বেশ কয়েকজনকে আটক করার খবরও পাওয়া গেছে। ১৯৮৯ সালে তিয়ানানমেন স্কোয়ারের বিক্ষোভের পর থেকে এতো বেশি চীনা নাগরিক একটি একক ইস্যুতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছে গ্রেফতারের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও।

এশিয়া সোসাইটির একজন চীনা বিশেষজ্ঞ বেতস গিল বলেন, ‘শি জিনপিংয়ের ১০ বছরের ক্ষমতায় থাকার সময়কালে, এটি সরকারি নীতির বিরুদ্ধে নাগরিকদের সবচেয়ে বড় ক্ষোভ প্রকাশের ঘটনা।’

Advertisement

জিরো কোভিড পলিসির বিরুদ্ধে জনসাধারণের অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে, অনলাইন, অফলাইনসহ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে। ২০১৯ সালে হংকং ইস্যুতে করা নিরাপত্তা আইন নিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়ে শি জিনপিংয়ের সরকার। এরপর এবারই অভ্যন্তরীণভাবে এমন বিক্ষোভের মুখোমুখি হচ্ছে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকার।

সূত্র: বিবিসি

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

হত্যা হত্যা
অপরাধ1 hour ago

ফুটবল দ্বন্দ্বে নয়, কোমরের বেল্ট নিয়ে বন্ধুকে হত্যা

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে নয় বরং কোমরের বেল্ট নিয়ে চাঁদপুরে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. বরকত ছুরিকাঘাতে তার বন্ধু মো. মেহেদীকে...

হত্যা হত্যা
বাংলাদেশ2 hours ago

ভারতে আরো একটি ব্যবসা বন্ধ করছে অ্যামাজন

ভারতে পাইকারি বিতরণ ব্যবসাও বন্ধ করে দিচ্ছে অ্যামাজন। বার্ষিক পরিচালন কার্যক্রম পর্যালোচনা এবং খরচ কমানোর অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নিচ্ছে...

হত্যা হত্যা
বাংলাদেশ2 hours ago

বিশ্বকাপসহ টিভিতে যা দেখবেন আজ

ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে আজ (২৯ নভেম্বর) ‘এ’ গ্রুপে রাত ৯টায় নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে কাতার এবং ইকুয়েডরের প্রতিপক্ষ সেনেগাল। অন্যদিকে ‘বি’...

হত্যা হত্যা
জাতীয়3 hours ago

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা: তথ্যমন্ত্রী

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা। বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সচিবালয়ে...

বেসিক ব্যাংক বেসিক ব্যাংক
আইন-বিচার3 hours ago

বেসিক ব্যাংক: ৩ মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ না হলে ব্যবস্থা নিবে হাইকোর্ট

আগামী তিন মাসের মধ্যে বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারির মামলাগুলোর তদন্ত কাজ শেষ করতে হবে দুদককে। অন্যথায় দুদকের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী...

হত্যা হত্যা
আইন-বিচার3 hours ago

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিচার শুরু

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমু হত্যা মামলায় স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল ও তার বন্ধু এস এম ফরহাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন...

সতর্ক সতর্ক
জাতীয়4 hours ago

‘জঙ্গি ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের স্থানান্তরকালে অধিকতর সতর্ক হতে হবে’

কারা অভ্যন্তরে  জঙ্গি, শীর্ষ সন্ত্রাসীরা কোনো ধরনের সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতা চালাতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এমনকি...

হত্যা হত্যা
জাতীয়4 hours ago

টিকিট কেটে চোখের পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

চোখের চিকিৎসা করাতে সাধারণ রোগীদের মতো ১০ টাকায় টিকিট কাটলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তারপর করালেন চোখ পরীক্ষা। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর)...

হত্যা হত্যা
অপরাধ4 hours ago

আয়াত হত্যা: ৩ দিনের রিমান্ডে আবীরের মা-বাবা-বোন

চট্টগ্রাম শহরের ইপিজেডে ৫ বছরের শিশু আলীনা ইসলাম আয়াতকে অপহরণের পর হত্যায় অভিযুক্ত আবীরের মা-বাবা ও বোন ৩ দিনের রিমান্ডে...

জিএম কাদের জিএম কাদের
আইন-বিচার5 hours ago

জিএম কাদেরের দায়িত্ব পালনে নেই বাধা: হাইকোর্ট

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদেরকে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যে দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা ছিল সেটি স্থগিত...

Advertisement

আর্কাইভ

হত্যা
জাতীয়19 hours ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

হত্যা
রংপুর1 day ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ3 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হত্যা
জাতীয়3 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
জাতীয়4 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

হত্যা
বলিউড5 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

হত্যা
জাতীয়5 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

হত্যা
জাতীয়6 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ6 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

হত্যা
বিএনপি6 days ago

‘আদালত থেকে জঙ্গি ছিনতাই সরকারের নতুন নাটক’

সর্বাধিক পঠিত