Connect with us

এশিয়া

এবার ষাঁড়ের সঙ্গে ধাক্কায় ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল

Avatar of জাকির হোসাইন

Published

on

প্রতিবন্ধী

গতিময় ট্রেন বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রায় ফাঁড়া যেনো কাটছেই না। মোষের পাল, গরুর পর এবার ষাঁড়ের সঙ্গে ধাক্কা লাগল এই তীব্র গতিসম্পন্ন ট্রেনের। শনিবার মুম্বাই সেন্ট্রাল থেকে গুজরাটের গান্ধীনগরের উদ্দেশে রওনা দিয়েছিল ট্রেনটি। মাঝপথে মুম্বাই সেন্ট্রাল ডিভিশনে একটি ষাঁড়ের সঙ্গে ধাক্কা লাগে এক্সপ্রেসের। এতে এক্সপ্রেসের ইঞ্জিনের সামনের অংশটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

পশ্চিম রেলের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা সুমিত ঠাকুর এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, মুম্বাই সেন্ট্রাল ডিভিশনে অতুল এলাকার কাছে যখন ট্রেনটি যাচ্ছিল, সে সময়ই ষাঁড়ের সঙ্গে ধাক্কা লাগে।

শনিবার সকাল ৮টা ১৭ মিনিট নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ১৫ মিনিট দাঁড়িয়েছিল ট্রেনটি। বর্তমানে ট্রেনটি নির্দিষ্ট গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। ইঞ্জিনের সামনের অংশটির সামান্য ক্ষতি হয়েছে। বড়সড় বিপত্তি ঘটেনি।

প্রসঙ্গত, এর আগেও একাধিক বার যাত্রাপথে বিপত্তি ঘটেছিল বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের। অতীতে মোষের পালকে ধাক্কা মেরেছিল এই ট্রেন। সেই ঘটনার পর একটি গরুকেও ধাক্কা মেরেছিল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। যার জেরে ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হয়েছিল।

এই জোড়া বিপত্তির পর ট্রেনের চাকায় গোলমাল ধরা পড়ে। চলতে চলতে আচমকাই ট্রেনের চাকা আটকে গিয়েছিল। রেল সূত্রে জানা গিয়েছিল, চাকায় সমস্যা ধরা পড়ার পরই কর্মীরা দিল্লি থেকে বারাণসীগামী ট্রেনটিকে থামিয়ে দেন এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে খবর দেন। মেরামতির পর কর্মীরা ট্রেনটিকে নিয়ন্ত্রিত গতিবেগে ২০ কিলোমিটার দূরে খুরজা স্টেশনে নিয়ে আসেন। সেখানেই বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের যাত্রীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে শতাব্দী এক্সপ্রেসে তুলে দেয়া হয়।

Advertisement

বন্দে ভারত এক্সপ্রেসকে দেশের দ্রুততম ট্রেন বলা হয়। কিছু দিন আগেই গান্ধীনগর-মুম্বাই বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক করুন

রিপ্লাই দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এশিয়া

বৌদ্ধমন্দিরে সব সন্ন্যাসী মাদকাসক্ত

Published

on

প্রতিবন্ধী

থাইল্যান্ডের ফেটচাবুন প্রদেশের বুং সাম ফান জেলায় একটি বৌদ্ধমন্দিরে সন্ন্যাসীরা মাদক গ্রহণ করেন কি না, তা জানতে পরীক্ষা চালানো হয়েছিল। সেখানে মোট চার জন সন্ন্যাসী ছিলেন। ওই পরীক্ষায় কেউ কৃতকার্য হননি। তাই সন্ন্যাসীদের সবাইকে পাঠানো হয়েছে মাদক নিরাময়কেন্দ্রে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) বার্তাসংস্থা এএফপির উদ্ধৃতি দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ওই পরীক্ষায় তাদের সবার শরীরে মেথামফেটামিন নামের এক ধরনের মাদকের উপস্থিতি পাওয়া যায়।

মাদকাসক্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়ার পর ওই চার সন্ন্যাসীর ধর্মীয় আচারে অংশ নেয়ার ক্ষমতা কেড়ে নেয়া হয়েছে।

বুং সাম ফান জেলার কর্মকর্তা বোনলার্ট থিনটাপথই বলেন, ওই মন্দিরে এখন কোনো সন্ন্যাসী নেই। ধর্মীয় আচার কীভাবে পালন করবেন, তা নিয়ে স্থানীয়রা চিন্তায় রয়েছেন। তবে ওই মন্দিরে অন্য সন্ন্যাসীদের পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

Advertisement

থাইল্যান্ডে মাদক বেশ সহজলভ্য। ২০ ভাট (প্রায় ৬০ টাকা) খরচ করলে রাস্তাঘাটেই পাওয়া যায় মেথামফেটামিনের একটি ট্যাবলেট। জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধবিষয়ক দপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, মিয়ানমার থেকে মাদক পাচারের জন্য মূল পথগুলোর একটি থাইল্যান্ড।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

নিজেদের মহাকাশ স্টেশনে নভোচারী পাঠাল চীন

Published

on

মহাকাশ

নিজস্ব মহাকাশ স্টেশন তিয়ানগংয়ে তিন নতুন নভোচারীকে পাঠিয়েছে চীন। মহাকাশে নিজেদের স্টেশনে থাকার জন্য দেশটি প্রথমবার ওই নভোচারীদের ছয় মাসের জন্য পাঠাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর)  শেনঝো-১৫ নভোযানে করে মহাকাশের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তারা ।  আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে।

তিয়ানগং কক্ষপথে থাকা মাত্র দুটি স্টেশনের একটি। ২০১১ সালে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার মহাকাশ কার্যক্রম থেকে চীনকে বাদ দেয়া হয়। এরপর নিজস্ব স্টেশন তৈরিতে মনোযোগ দেয় দেশটি।

যে তিন নতুন নভোচারী মহাকাশ স্টেশনটিতে গেছেন তারা সেখানে ছয় মাস অবস্থান করবেন। চলতি বছরের জুনে তিয়ানগংয়ে গিয়েছিলেন তিন নভোচারী। এখন তারা ফিরে আসবেন। এর আগে একসঙ্গে স্টেশনটিতে ছয়জন নভোচারী থাকার বিষয়টি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে কয়েক সপ্তাহব্যাপী হস্তান্তর প্রক্রিয়া চলবে।

মঙ্গলবার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের গোবি মরুভূমির জিউকুয়ান স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ কেন্দ্র থেকে শেংঝৌ-১৫ নভোযানটি তিন নভোচারীকে নিয়ে যাত্রা শুরু করে। মহাকাশ স্টেশন তৈরির প্রক্রিয়ার সর্বশেষ অংশ ছিল এটি। তিয়ানগং স্টেশনটি প্রায় এক দশক মহাকাশে থাকবে। এই সময়টির মধ্যে শূণ্য-মাধ্যাকর্ষণে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হবে স্টেশনটি থেকে।

Advertisement

এদিকে যে তিন নভোচারী এতদিন স্টেশনটিতে ছিলেন তারা আগামী মাসে পৃথিবীতে ফিরে আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মহাকাশ

চীনের মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান চায়না ম্যানড স্পেস স্টেশনের (সিএমএসএ) প্রশাসন জানিয়েছে, নতুন তিন নভোচারী মহাকাশ স্টেশনটিতে যন্ত্রাংশ প্রতিস্থাপন কাজ করবেন। ধারণা করা হচ্ছে আগামী বছরের মধ্যে স্টেশন তৈরির কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন হবে।

চীনের মহাকাশ সংস্থা এর আগে মঙ্গলগ্রহ এবং চাঁদে রোবোটিক রোভার পাঠিয়েছিল। আর বিশ্বের মাত্র তৃতীয় দেশ হিসেবে কক্ষপথে মানুষ পাঠিয়েছে তারা।

আন্তর্জাতিক মহাকাশচারী ফেডারেশনের নির্বাহী পরিচালক ডক্টর ক্রিশ্চিয়ান ফেচিংগার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিসিটিভিকে বলেছেন, ‘বিশ্ব এখন চীনের ক্রমবর্ধমান মহাকাশ সামর্থ পর্যবেক্ষণ করছে।’

শেংঝৌ-১৫ নভোযানে যে তিন নভোচারী গেছেন তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ৫৭ বছর বয়সী ফি জাংলং। তিনি ২০০৫ সালে শেংঝৌ-৬ মিশনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। সেটি ছিল তার প্রথম মহাকাশ মিশন।

Advertisement

বলা হচ্ছে আগামী এক দশকে চীন প্রতি বছর দুইবার মহাকাশে নভোচারী পাঠাবে।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

৪০০-৫০০ অভিবাসী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে: কাতার বিশ্বকাপ প্রধান

Published

on

প্রতিবন্ধী

কাতার বিশ্বকাপের প্রধান হাসান আল-থাওয়াদি দেশটিতে বিশ্বকাপ আয়োজনে ৪০০ থেকে ৫০০ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ব্রিটিশ ব্রডকাস্টার পিয়ার্স মরগ্যানকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা স্বীকার করেন।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সিএনএনের দেয়া এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা যায়।

হাসান আল-থাওয়াদি বলেন, বিশ্বকাপের কর্মযজ্ঞে ৪০০ থেকে ৫০০ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। তবে সুনির্দিষ্ট সংখ্যা বলতে পারব না।

তিনি আরও বলেন, প্রতি বছর স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তার মান উন্নত হচ্ছে, কমপক্ষে আমাদের বিশ্বকাপের স্থানগুলোকে আরও উন্নত করা হয়েছে।

Advertisement

আন্তর্জাতিক অধিকার গোষ্ঠী এবং সংবাদমাধ্যমগুলোর দাবি, বিশাল এই নির্মাণ কর্মযজ্ঞ চলাকালে কয়েক হাজার শ্রমিক মারা গেছেন। দৈনিক গার্ডিয়ান দাবি করেছে, কাতারে বিশ্বকাপ প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত সাড়ে ছয় হাজার এশিয়ান শ্রমিক মারা গেছেন।

তবে কাতার সরকার এতদিন ধরে এই দাবিকে ‘আপত্তিকর ও উসকানিমূলক’ বলে অভিহিত করে এসেছে। তারা দেশের সুনাম রক্ষার জন্য ‘আইনি’ পদক্ষেপের কথা বিবেচনা করছেও বলে জানায়।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে বিশ্বকাপ আয়োজনের অনুমতি পায় কাতার। এরপর থেকেই বিশ্বকাপ ঘিরে দেশটিতে আকাশচুম্বী সব ভবন ও স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়। এছাড়া সংস্কার চলে বিমানবন্দর এবং অন্যান্য বড় স্থাপনাতেও।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
অপরাধ2 hours ago

প্রতিবন্ধী এক তরুণীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

ঢাকার কেরানীগঞ্জে দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার বাক প্রতিবন্ধী তরুণী মারা গেছেন। পরিবারের অভিযোগ, তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায়...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
করোনা ভাইরাস3 hours ago

করোনার ৪র্থ ডোজ টিকা দেয়ার সুপারিশ

করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় সম্মুখ সারির যোদ্ধা, ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তি, গর্ভবতীদের করোনার ৪র্থ ডোজ টিকা দেয়ার সুপারিশ টিকা সংক্রান্ত কারিগরি কমিটির। বুধবার...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
জাতীয়14 hours ago

সীমান্তে নিরাপত্তায় যৌথ টহল দেবে বিজিবি-বিজিপি

বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের অপতৎপরতা মেনে নেবে না বিজিবি ও বিজিপি। এজন্য যৌথ টহল শুরুর ব্যাপারে একমত হয়েছে দুই দেশের সীমান্তরক্ষী...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
অপরাধ19 hours ago

ফুটবল দ্বন্দ্বে নয়, কোমরের বেল্ট নিয়ে বন্ধুকে হত্যা

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে নয় বরং কোমরের বেল্ট নিয়ে চাঁদপুরে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. বরকত ছুরিকাঘাতে তার বন্ধু মো. মেহেদীকে...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
বাংলাদেশ19 hours ago

ভারতে আরো একটি ব্যবসা বন্ধ করছে অ্যামাজন

ভারতে পাইকারি বিতরণ ব্যবসাও বন্ধ করে দিচ্ছে অ্যামাজন। বার্ষিক পরিচালন কার্যক্রম পর্যালোচনা এবং খরচ কমানোর অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নিচ্ছে...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
বাংলাদেশ20 hours ago

বিশ্বকাপসহ টিভিতে যা দেখবেন আজ

ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে আজ (২৯ নভেম্বর) ‘এ’ গ্রুপে রাত ৯টায় নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে কাতার এবং ইকুয়েডরের প্রতিপক্ষ সেনেগাল। অন্যদিকে ‘বি’...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
জাতীয়20 hours ago

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা: তথ্যমন্ত্রী

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা। বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সচিবালয়ে...

বেসিক ব্যাংক বেসিক ব্যাংক
আইন-বিচার20 hours ago

বেসিক ব্যাংক: ৩ মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ না হলে ব্যবস্থা নিবে হাইকোর্ট

আগামী তিন মাসের মধ্যে বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারির মামলাগুলোর তদন্ত কাজ শেষ করতে হবে দুদককে। অন্যথায় দুদকের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী...

প্রতিবন্ধী প্রতিবন্ধী
আইন-বিচার21 hours ago

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিচার শুরু

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমু হত্যা মামলায় স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল ও তার বন্ধু এস এম ফরহাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন...

সতর্ক সতর্ক
জাতীয়22 hours ago

‘জঙ্গি ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের স্থানান্তরকালে অধিকতর সতর্ক হতে হবে’

কারা অভ্যন্তরে  জঙ্গি, শীর্ষ সন্ত্রাসীরা কোনো ধরনের সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতা চালাতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এমনকি...

Advertisement

আর্কাইভ

প্রতিবন্ধী
জাতীয়14 hours ago

সীমান্তে নিরাপত্তায় যৌথ টহল দেবে বিজিবি-বিজিপি

প্রতিবন্ধী
জাতীয়2 days ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

প্রতিবন্ধী
রংপুর2 days ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ4 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিবন্ধী
জাতীয়4 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবন্ধী
জাতীয়5 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

প্রতিবন্ধী
বলিউড6 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

প্রতিবন্ধী
জাতীয়6 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

প্রতিবন্ধী
জাতীয়7 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ7 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

সর্বাধিক পঠিত