Bayanno Tv
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭
×

ফিনল্যান্ডে সুয়োমুসালমিতে আজীবন রাস্তার দিকে তাকিয়ে নির্বাক মানুষ!

  বায়ান্ন অনলঅইন ডেস্ক ০৫ মার্চ ২০২১, ১৫:০১

ফিনল্যান্ডে সুয়োমুসালমিতে আজীবন রাস্তার দিকে তাকিয়ে নির্বাক মানুষ!

ফিনল্যান্ডের কাইনু প্রদেশের পৌর এলাকা সুয়োমুসালমি। প্রায় সাড়ে সাত হাজার মানুষ থাকে সেখানে। সুয়োমুসালমির একটি বিষয় আজো রহস্যজনক।

ভারতের গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, ওই এলাকায় এমন একটি স্থান আছে যেখানে আজীবন দাঁড়িয়ে থাকে শত শত নির্বাক মানুষ! এদের পা থেকে মাথা রঙিন কাপড়ে মোড়ানো। মুখটাও প্রায় দেখা যায় না। স্থির হয়ে দাঁড়িয়ে থাকে এরা!

কাঠের পুতুলের মতো রাস্তার দিকে তাকিয়ে যেন অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকে তারা! দিন ও রাতের ভ্রুক্ষেপ নেই। সূর্যাস্তের পর ওই পথে শত শত মানুষ দেখে ভয় পেতে পারে অনেকেই।

এরা কারা;

এই নির্বাক মানুষগুলো আসলে কাকতাড়ুয়া। একটি কাঠের লাঠির উপর খড় জড়িয়ে মানুষের আদল দেওয়া হয়েছে। তাতে রঙিন জামা পরিয়ে আস্ত মানুষ বানানো হয়েছে। কারোরই মুখ নেই। দূর থেকে না বোঝাতে মাথাটা কাপড় দিয়ে ঢাকা। এ রকম শত শত কাকতাড়ুয়া রাস্তার দিকে তাকিয়ে দাঁড়িয়ে আছে।

কেন এভাবে দাঁড়িয়ে থাকে;

এদের কেন এবং কে রেখে গেছে তার সঠিক জবাব কারো কাছেই নেই। তবে বছরে দুইবার তাদের পোশাক বদলে দেওয়া হয়।

এই নির্বাক মানুষ নিয়ে অনেক কথা প্রচলিত। অনেকের মতে, এরা আগে অন্য স্থানে ছিল। কাঠামোগুলো মাঠে সাধারণ কাকতাড়ুয়ার মতো রাখা ছিল। কিন্তু পরে সেগুলোকে এই স্থানে আনা হয়। নিয়ে আসার কারণ নিয়েও ভিন্ন মত রয়েছে।

অনেকের মতে, আগে হেলসিঙ্কি শহরের কাছে লাসিলা এলাকায় রাখা ছিল কাঠামোগুলো। তারপর নিয়ে যাওয়া হয় হেলসিঙ্কি সেনেট স্কোয়ারে।

১৯৯৪ সাল নাগাদ কাকতাড়ুয়াগুলোকে ৫ নম্বর হাইওয়ের ধারে আনা হয়। তবে কে বা কারা এবং কেন অন্যত্র নিয়ে গেল তা জানা নেই।

রাস্তার ধারে নির্বাক মানুষগুলোর উপস্থিতি আজও রহস্যই রয়ে গেছে। অনেকের মতে, ইচ্ছাকৃত ভাবে বিষয়টিকে রহস্যে রাখতে চেয়েছে শিল্পী। শিল্পী না কি চান আলাদা আলাদা যুক্তি খুঁজে নিক দর্শনার্থীরাই।

পথচলতি অনেক মানুষের মতে, নির্বাক মানুষগুলোর মুখে কষ্টের ছায়া রয়েছে। অতীতে ঘটে যাওয়া কোনও খারাপ স্মৃতি বয়ে চলেছে তারা। আবার কারও মতে, যুদ্ধে শহিদদের স্মরণেই এই নির্বাক মানুষগুলো দাঁড়িয়ে রয়েছে।

১৯৩৯ থেকে ১৯৪০ সাল নাগাদ ফিনল্যান্ড এবং সোভিয়েত রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ বেধেছিল। সেই যুদ্ধে নিহত হয়েছিলেন অনেক সৈনিক। আজও রাস্তার দিকে তাকিয়ে সেই সব শহিদদের প্রতীক হয়েই দাঁড়িয়ে আছে তারা।

 

এসএন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

প্রধান সম্পাদকঃ সৈয়দ আশিক রহমান
বেঙ্গল টেলিভিশন লিমিটেড

৪৩৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।