Connect with us

ইউরোপ

রাশিয়া ইউক্রেনকে ধ্বংস করতে চায় না: পুতিন

Avatar of অনন্যা চৈতী

Published

on

ডলারের
ভ্লাদিমির পুতিন

রাশিয়া ইউক্রেনকে ধ্বংস করতে চায় না। আর তাই সেখানে আর বড় কোনো হামলা ঘটাবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদন থেকে জানা যায়,ইউক্রেন যুদ্ধে ‘রিজার্ভ সেনা’ হিসেবে দেশের সক্ষম নাগরিকদের বাধ্যতামূলক যোগদানের যে প্রক্রিয়া চলছে, তা আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে।

পুতিন আরও বলেছেন, ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের জন্য তিনি অনুতপ্ত নন।

শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পুতিন বলেন, ইউক্রেনকে ধ্বংস করে দেয়ার কোনো ইচ্ছে বা পরিকল্পনা রাশিয়ার নেই। একটি দেশ ধ্বংস হয়ে যাক এটা তারা চান না। আর তাই সেখানে আর বড় কোনো হামলা ঘটবে না।

Advertisement

এশীয় এবং ইউরেশীয় দেশগুলোর জোট কনফারেন্স অন ইন্টার‌্যাকশন অ্যান্ড কনফিডেন্স বিল্ডিং মেজার্স ইন এশিয়ার (সিআইসিএ) সম্মেলনে যোগ দিতে গেলো ১৩ অক্টোবর কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় গিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট। সেখানেই আয়োজন করা হয়েছিল এই সংবাদ সম্মেলনের।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অন্যতম অঙ্গরাজ্য ইউক্রেন ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ভেঙে যাওয়ার পর স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। দেশটির মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ সরাসরি রুশ বংশোদ্ভূত এবং রুশভাষী। সোভিয়েত আমলে রুশ জনগোষ্ঠীর সঙ্গে ইউক্রেনীয় জনগোষ্ঠীর মোটামুটি সদ্ভাব বজায় থাকলেও ইউক্রেন স্বাধীন হওয়ার পর দ্বন্দ্ব শুরু হয় এই দুই জনগোষ্ঠীর মধ্যে।

ইউক্রেনের রুশভাষী লোকজন বরাবরই নিজেদের রাশিয়ার অংশ হিসেবে বিবেচনা করে। অন্যদিকে ইউক্রেনীয়রা সবসময়ই নিজেদের স্বাধীন ও স্বতন্ত্র জাতি মনে করতে অভ্যস্ত। এটিই মূলত দুই জনগোষ্ঠীল দ্বন্দ্বের মূল কারণ এবং স্বাধীন হওয়ার পর থেকেই ইউক্রেনে এই ইস্যুতে দুই জনগোষ্ঠীর মধ্যে দ্বন্দ্ব-সংঘাত লেগেই ছিল। গত প্রায় ৩ দশকে ইউক্রেনে জাতিগত দ্বন্দ্বে নিহত হয়েছেন ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষ।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের সীমানাভুক্ত ক্রিমিয়া উপদ্বীপ দখল করে রাশিয়া। এক্ষেত্রে ইউক্রেনের রুশভাষী জনগোষ্ঠী রাশিয়ার সেনাবাহিনী ও সরকারকে সরাসরি সহায়তা করেছিল।

এদিকে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে স্বাধীনতা লাভের পর থেকেই রাশিয়ার প্রধান বৈরীপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের রাজনৈতিক বলয়ে ঢুকতে দেন-দরবার করছিল ইউক্রেন। রাশিয়ার কাছে ক্রিমিয়া হারানোর পর এই তৎপরতা আরও বৃদ্ধি পায়। ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন করে ইউক্রেন।

Advertisement

ইউক্রেনের এসব কর্মকাণ্ডে স্বাভাবিকভাবেই ক্ষুব্ধ হয় মস্কো এবং ইউক্রেনকে ন্যাটোর সদস্যপদের জন্য আবেদন প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বানও জানানো হয়। কিন্তু কিয়েভ তাতে কান দেয়নি।

প্রায় চার বছর এই ইস্যুতে ‍দুই দেশের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলার পর অবশেষে ২০২২ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি রুশ বাহিনীকে ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর নির্দেশ দেন পুতিন।

গেলো ৯ মাসের অভিযানে ইউক্রেনের চার প্রদেশ খেরসন, ঝাপোরিজ্জিয়া, দনেৎস্ক ও লুহানস্ক প্রদেশ দখল করে নিজের সীমানভূক্ত করেছে রাশিয়া। হাজার হাজার সামরিক-বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছেন, ছোট-বড় প্রায় সব শহর গোলার আঘাতে বিধ্বস্ত হয়েছে।

অভিযানে অবশ্য রাশিয়ারও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, যুদ্ধে এ পর্যন্ত নিহত হয়েছেন ৬ হাজারেরও বেশি রুশ সেনা। এছাড়া যুদ্ধ শুরুর পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপ একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে রাশিয়ার ওপর। এসব নিষেধাজ্ঞার কারণে বেশ বড় ধাক্কা খেয়েছে রাশিয়ার অর্থনীতি।

Advertisement
Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক করুন

রিপ্লাই দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জাতীয়

ডলারের ডলারের
বাংলাদেশ19 mins ago

এপ্রিলে দেশে ডলারের ঘাটতি থাকবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী

টাকা থাকলেই অপচয় করা যাবে না। বর্তমানে দেশে ডলারের কোনো সংকট নেই, তবে কিছুটা ঘাটতি আছে। আগামী বছরের মার্চ বা...

সিদ্ধান্ত সিদ্ধান্ত
জাতীয়2 hours ago

সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে বিএনপির

নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির সমাবেশের সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে। গণমাধ্যমের কাছে এমনই আশা প্রকাশ করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি)...

ডলারের ডলারের
অপরাধ2 hours ago

‘বাড়াবাড়ি করলে তোকে ১২ টুকরো করবো’

চট্টগ্রামের ইপিজেডে ৫ বছরের শিশু আলীনা ইসলাম আয়াতকে (৫) হত্যার পর এবার তার স্বজনদের হত্যার হুমকি দিয়ে অজ্ঞাত নম্বর থেকে...

ডলারের ডলারের
জাতীয়3 hours ago

‘জুনের পর ডিজেলভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে না’

বেসরকারি খাত চাইলে তেল-গ্যাস আমদানি করতে পারে। আগামী জুনের পর থেকে ডিজেলভিত্তিক কেন্দ্র থেকে ‍বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হবে না। বললেন...

ডলারের ডলারের
জাতীয়5 hours ago

আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস আজ

আজ ৩১তম আন্তর্জাতিক ও ২৪তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস। দিবসটির এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নের জন্য পরিবর্তনমুখী পদক্ষেপ: প্রবেশগম্য ও সমতাভিত্তিক...

ডলারের ডলারের
দুর্ঘটনা22 hours ago

ঢাবি ক্যাম্পাসে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় নারী নিহত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় প্রাইভেটকারের ধাক্কায় রুবিনা আক্তার (৪০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গাড়িচালককে গণপিটুনি দিয়েছে জনতা। আজ...

ডলারের ডলারের
করোনা ভাইরাস23 hours ago

দেশে করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫

সবশেষ হিসাব অনুযায়ী দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গেলো ২৪ ঘণ্টায় একজন মারা গেছে। এ সময়ে নতুন করে ১৫ জনের দেহে...

ডলারের ডলারের
দুর্ঘটনা1 day ago

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাবার হোটেলে কাভার্ড ভ্যান, নিহত ৫

যশোরের মণিরামপুরের বেপারিতলায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাবার হোটেলে কাভার্ড ভ্যান ঢুকে পড়ায় পাঁচজন নিহত হয়েছে। আহতও হয়েছেন বেশ কয়েকজন। নিহতদের মধ্যে...

ডলারের ডলারের
বাংলাদেশ2 days ago

বীরপ্রতীক তারামন বিবির ৪র্থ-তম মৃত্যুবার্ষিকী

একাত্তরের রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা বীরপ্রতীক তারামন বিবির ৪র্থ-তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত। ২০১৮ সালের ১ ডিসেম্বর তিনি কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলায় নিজ বাড়িতে...

ডলারের ডলারের
করোনা ভাইরাস2 days ago

মৃত্যু না থাকলেও আজ ১২ জনের করোনা শনাক্ত

গেলো ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৩৬ হাজার ৫৯৭...

Advertisement

আর্কাইভ

December 2022
MTWTFSS
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
ডলারের
বাংলাদেশ19 mins ago

এপ্রিলে দেশে ডলারের ঘাটতি থাকবে না: পরিকল্পনামন্ত্রী

সমাবেশ
আওয়ামী লীগ22 mins ago

নয়াপল্টনে কোনো সমাবেশ হবে না: কামরুল ইসলাম

ডলারের
ফুটবল34 mins ago

যেমন হতে পারে আর্জেন্টিনার একাদশ

ডলারের
আওয়ামী লীগ40 mins ago

`হামলা হলে পাল্টা হামলা হবে কি-না সময়ই বলে দেবে’

সিদ্ধান্ত
জাতীয়2 hours ago

সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে বিএনপির

ডলারের
আফ্রিকা2 hours ago

সাংসদ মহিলা সহকর্মীকে আঘাত করার পর সেনেগালের পার্লামেন্টে তোলপাড়

স্বর্ণের
আন্তর্জাতিক2 hours ago

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে উত্থান

ডলারের
আওয়ামী লীগ2 hours ago

প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে নতুন করে সাজছে চট্টগ্রাম

ঢাকা
ঢালিউড2 hours ago

‘মেইড ইন চিটাগং’ এবার ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে

ডলারের
অপরাধ2 hours ago

‘বাড়াবাড়ি করলে তোকে ১২ টুকরো করবো’

স্বস্তিকা মুখোপাধ‍্যায়
বিনোদন3 days ago

স্বস্তিকা মুখোপাধ‍্যায় গর্ভবতী, বাবা কে!

ডলারের
বিনোদন5 days ago

১৪ বছর আগের বিয়ের শাড়িতে ‘নতুন লুকে’ রুনা

ডলারের
ব্যাংক6 days ago

ইসলামী ব্যাংক থেকে টাকা আত্মসাৎ, গভর্নরকে চিঠি

ডলারের
রূপচর্চা7 days ago

উজ্জ্বল লাল শাড়িতে কাজল যেনো ২৫ এর তরুণী

ডলারের
ফুটবল5 days ago

আজ মাঠে নামছে ব্রাজিল, নেই নির্ভরযোগ্য ৩ খেলোয়াড়

জিএম কাদের
আইন-বিচার3 days ago

জি এম কাদের জাপার চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন না

ডলারের
এশিয়া7 days ago

কিছু না পরলেও সুন্দর দেখায় মেয়েদের : রামদেব

ডলারের
রাজশাহী2 days ago

রাজশাহীর কারাগারে এক আসামির ফাঁসি কার্যকর

ডলারের
জাতীয়3 days ago

বিএনপির নেতাকর্মীদের স্বাচ্ছন্দের ব্যবস্থা করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডলারের
বিএনপি5 days ago

হামলার শিকার হয়ে বিএনপির সাবেক এমপি শাহজাহান মারা গেলেন

সিদ্ধান্ত
জাতীয়2 hours ago

সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের এখনও সময় আছে বিএনপির

ডলারের
রংপুর1 day ago

বর-কনেপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, বরসহ আটক ১২

ডলারের
আওয়ামী লীগ1 day ago

এটা কী ছাত্রলীগ? কোনো শৃঙ্খলা নেই : ওবায়দুল কাদের

ডলারের
জাতীয়3 days ago

বিএনপির নেতাকর্মীদের স্বাচ্ছন্দের ব্যবস্থা করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডলারের
জাতীয়4 days ago

সীমান্তে নিরাপত্তায় যৌথ টহল দেবে বিজিবি-বিজিপি

ডলারের
জাতীয়5 days ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

ডলারের
রংপুর5 days ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ1 week ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ডলারের
জাতীয়1 week ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

ডলারের
জাতীয়1 week ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

সর্বাধিক পঠিত