Connect with us

লাইফস্টাইল

কর্নফ্লাওয়ারের আছে আরও অনেক গুণ!

Published

on

কর্নফ্লাওয়ার

পাকোড়া মুচমুচে করতেই হোক বা রান্নার গ্রেভি ঘন করতে, কর্নফ্লাওয়ার দিয়ে রান্নাঘরের অনেক সমস্যার সমাধান হয়। শুধু রান্নায় নয়, রান্নাঘরের এই উপকরণটি কিন্তু আরও অনেক কাজেই ব্যবহার করা যেতে পারে। রান্না ছাড়া কর্নফ্লাওয়ার আর কোন কোন কাজে লাগতে পারে রইল তারই হদিস-

ঘরের জানালার কাচ ময়লা হয়েছে? ময়লা কাচে খানিকটা কর্নফ্লাওয়ার লাগিয়ে নিন। তার পরে ভেজা কাপড় দিয়ে ভাল করে মুছে নিন। কাচ পরিষ্কার হয়ে যাবে।

গয়নার হার বা দড়িতে গিঁট লেগে গিয়েছে, সেটা ছাড়াতে পারছেন না? গিঁট লাগা গয়নাকে কর্নফ্লাওয়ার আর পানির মিশ্রণে চুবিয়ে রেখে দিন খানিক ক্ষণ। এবার সেই গিঁট খোলার চেষ্টা করুন। অতি সহজে খুলে যাবে গয়নার গিঁট।

কর্নফ্লাওয়ার

চুলের জট ছাড়াতে অনেক সময় নাজেহাল হতে হয়। যেখানে জট পড়েছে, সেখানে খানিকটা কর্নফ্লাওয়ার লাগিয়ে মোটা দাড়ের চিরুনী দিয়ে ভাল করে আছড়ে নিন। শ্যাম্পু করারও দরকার পড়বে না, জট খুলে যাবে।

 

Advertisement

পোকা কামড়েছে? বা রোদে বেরিয়ে ত্বক জ্বালা করছে? কর্নফ্লাওয়ারের সঙ্গে অল্প পানি মিশিয়ে সেই জায়গায় লাগিয়ে নিন। প্রদাহ কমবে।

নতুন জুতো পরলে পায়ে ফোস্কা পড়বেই। সে ক্ষেত্রেও কাজে আসতে পারে কর্নফ্লাওয়ারের মিশ্রণ। সেটি ফোস্কার উপরে লাগিয়ে নিন। তারপরে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। দ্রুত ভালো হয়ে যাবে ফোস্কা।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক করুন

রিপ্লাই দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

লাইফস্টাইল

শরীরের যে অংশের ক্ষতি করে ‘টয়লেট পেপার’

Published

on

টয়লেট পেপার

বিশ্ব জুড়ে প্রায় সর্বত্রই শৌচাগারে ‘টয়লেট পেপার’ ব্যবহারের প্রচলন রয়েছে। পাশ্চাত্য এবং শীতপ্রধান দেশগুলির মধ্যে এই কাগজ ব্যবহারের প্রচলন বেশি। চিকিৎসকদের মতে, মলত্যাগ করার পর টয়লেট পেপারের মতো জিনিস দিয়ে গায়ের জোরে মলদ্বার পরিষ্কার করার ফলে একাধিক সমস্যা তৈরি হতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ডের এক হাসপাতালের শল্যচিকিৎসক ব্র্যাডলি মরিস বলছেন, “মলদ্বার সংলগ্ন অঞ্চল যথেষ্ট স্পর্শকাতর। পাশাপাশি, দেহের এই অংশের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখাও জরুরি। কিন্তু আমি বুঝতে পারি না, তার জন্য আমরা টয়লেট পেপার ব্যবহার করব কেন? আমরা কি মুখ ধোয়ার ক্ষেত্রে মাটি ব্যবহার করি?’’ মুখে পানির বদলে মাটি ব্যবহার করলে ত্বকে যে পরিমাণ ক্ষতি হয়, দেহের স্পর্শকাতর অংশ পরিষ্কার করতে কাগজ ব্যবহার করলে ঠিক ততটাই ক্ষতি হয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক মরিস।

তিনি আরও বলেন, “আমার মনে হয় বহু দিনের প্রচলিত এই প্রথায় বদল আনা প্রয়োজন। মলদ্বার পরিষ্কার করার জন্য পানির ব্যবহারই সবচেয়ে নিরাপদ।”

শুধু তা-ই নয়, দিনের শুরুতেই অনেকে শৌচাগারে বেশ অনেকটা সময় অতিবাহিত করেন। যদিও তার অন্যতম একটি কারণ হল কোষ্ঠকাঠিন্য। কিন্তু এই কোষ্ঠও মলদ্বারের টিস্যুগুলির উপর চাপ সৃষ্টি করে। ওই অংশের ত্বক ছিড়ে গিয়ে রক্তপাত হওয়াও অস্বাভাবিক নয়।

চিকিৎসকের বক্তব্য, এই সমস্যা যে প্রত্যেকের হবেই, তার কোনও মানে নেই। মলের ধরন এবং ত্বক কতখানি স্পর্শকাতর, তার উপরও অনেক কিছুই নির্ভর করে। যেহেতু শৌচাগারে কাটানো সময়টুকু প্রত্যেকটি মানুষের কাছেই ব্যক্তিগত সময়, তাই অনেকেই এই সময়টা ফোনের পিছনে কাটিয়ে দেন। কিন্তু চিকিৎসকরা বলছেন, এই সময়টুকু একেবারে নিজের, তাই প্রাতঃকৃত্যের উপরই মন দেয়া উচিত।

Advertisement

মরিস বলেন, “আমার এই বক্তব্যের পক্ষে কোনও বৈজ্ঞানিক যুক্তি দেখাতে পারব না। কিন্তু পাশ্চাত্য দেশের নাগরিকদের মলদ্বার সংক্রান্ত সমস্যায় পড়ার বহু উদাহরণ রয়েছে।
শুধু তা-ই নয়, মলদ্বারে সামান্য কেটে বা ছড়ে যাওয়া থেকে পরবর্তী কালে কোলন ক্যানসারের মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার নজিরও রয়েছে।”

সূত্র: হেলথ লাইন

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

পরামর্শ

চায়ে চুমুক দিতেই পুড়ে গেছে জিভ!

Published

on

চা

প্রচন্ড মাথা যন্ত্রণা হচ্ছে! এক পেয়ালা গরম চা বানিয়ে ভাবলেন, যন্ত্রণা কমবে। চুমুক দিতেই জিভ গেল পুড়ে। জিভ পুড়ে গেলে বেশ সমস্যা হয়, জ্বালার পাশাপাশই কোনও খাবারেরই তেমন স্বাদ পাওয়া যায় না। অনেক সময় মুখের ভিতরটা এই কারণে শুকিয়ে যেতেও থাকে। তবে চটজলদি কয়েকটা ঘরোয়া উপায়েই মিলতে পারে সমাধান। জিভ পোড়ার জ্বালা ভাব কমাতে জেনে নিন, কিছু ঘরোয়া সমাধান।

গুঁড়ো দুধ ও চিনি

কমবেশি সবার বাসাতেই গুঁড়ো দুধ থাকে। জিভ পুড়ে গেলে জ্বালা ভাব কমাতে একটু গুঁড়ো দুধ আর চিনি জিভের পোড়া অংশে লাগিয়ে রেখে দিন কিছু ক্ষণ। জ্বালা ভাব কমবে দ্রুত।

মধু

যে কোনও পোড়া জায়গায় প্রদাহ কমাতে মধু ব্যবহার করা হয়। জিভ পুড়ে গেলেও এই উপাদানটি ভীষণ কাজে লাগে। মধুতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান, যা সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচায়। মধু যেহেতু একটু ঠান্ডা, তাই তা লাগালে জিভের জ্বালা ভাব কমে।

বরফকুচি

ফ্রিজ থেকে বরফের টুকরো একটু ভেঙে নিয়ে ছোট ছোট বরফকুচি জিভের পোড়া অংশে আলতো করে ছড়িয়ে দিন। কোনও কারণে বরফ না পেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে কুলকুচি করলেও সমান উপকার পাবেন।

লবণ পানিত কুলকুচি

জিভ পুড়ে গেলে ঈষদুষ্ণ পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে কুলকুচি করলে জ্বালা ভাব কমবে। আরামও মিলবে দ্রুত।

Advertisement

দই

ঘরে অনেকেই টক দই পাতেন। টক দই দিয়েই জিভের জ্বালা ভাব কমাতে পারেন। জিভের পোড়া জায়গায় আলতো করে টক দই লাগিয়ে দিন। জিভ জ্বালা কমে, মিলবে আরাম।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

রূপচর্চা

উজ্জ্বল লাল শাড়িতে কাজল যেনো ২৫ এর তরুণী

Published

on

বিশ্বকাপ

কাজল সেই অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন, যারা এক বা দুই বছর পর পর একটি ছবিতে অভিনয় করেন, কিন্তু তারপরও এখনও লাইমলাইটে থাকেন। বড়পর্দায় সম্পূর্ণ সক্রিয় না হওয়ার পরও কাজলের গ্ল্যামার একটুও কমেনি। বয়স ৪৮ বছর। তারপরও মনেই হয় না, এই সুন্দরী প্রায় ৫০ ছুঁইছুঁই। তার ড্রেসিং সেন্সও কিন্তু দেখার মতোই। বয়সের সঙ্গে মানানসই সাজগোজও করেন অভিনেত্রী।

এদিকে কখনও কখনও মনে হয় যে, তিনি যেন কোনওভাবেই বয়সের কাছে হার মানবেন না। তিনি এভারগ্রিন! সবচেয়ে বড় কারণ হল, কাজল নিজের জন্য এমন পোশাক বেছে নিচ্ছেন, যাতে তার বয়স বোঝাই যায় না, সৌন্দর্য দেখে মানুষও অবাক হচ্ছে।

কাজলের একই লুকটি সত্যিই অসাধারণ। যখন তিনি তার আসন্ন ছবি ‘সালাম ভেঙ্কি’-এর ট্রেলার লঞ্চে পৌঁছেছিলেন। এই সময়, তিনি একটি খুব সাধারণ শাড়ি পরেছিলেন, কিন্তু তার স্টাইলিং এমনই ছিল যে, পাপারাজ্জিরাও তার ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন।

কাজল ভালো করেই জানতেন যে, এই সময়ে সবার চোখ তার দিকেই থাকবে। এই পরিস্থিতিতে তিনি নিজের জন্য এমন একটি লুক বেছে নিয়েছিলেন, যাতে তাকে কেবল সুন্দর দেখাচ্ছিল তাই নয়, বরং সবার থেকে সহজেই লাইমলাইট ছিনিয়ে নিয়েছিলেন তিনি।

কাজল এই সময়ে একটি উজ্জ্বল লাল শাড়ি পরেছিলেন, তাকে ৪৮ বছর বয়সেও মনে হচ্ছিল যেন তিনি ২৫-এর তরুণী।

Advertisement

আঁচলে একই রঙের স্ট্রাইপ দেয়া হয়েছিল, যা আকর্ষণীয় করার জন্য একটি অসাধারণ বর্ডার দেয়া হয়েছিল। শাড়ির হেমলাইনটিও খুব সাধারণ প্যাটার্নে রাখা হয়েছিল, যাতে সামগ্রিক লুকে ফোকাস পয়েন্ট সহজেই সেট করা যায়। তিনি একটি পিনের সাহায্যে তাঁর শাড়িটি সেট করেছিলেন, যা তার ফিগারকে খুব ভালোভাবেই কমপ্লিমেন্ট দিচ্ছিল।

কাজল এই উজ্জ্বল রঙের শাড়ির সঙ্গে একটি ম্যাচিং ব্লাউজ পরেছিলেন। যার উপর আঁচলের মতোই এমব্রয়ডারি করা হয়েছিল। চোলির প্যাটার্নটি ক্রপ লুকে রাখা হয়েছিল।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kajol Devgan (@kajol)

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
বাংলাদেশ33 mins ago

বিশ্বকাপসহ টিভিতে যা দেখবেন আজ

ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে আজ (২৯ নভেম্বর) ‘এ’ গ্রুপে রাত ৯টায় নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে কাতার এবং ইকুয়েডরের প্রতিপক্ষ সেনেগাল। অন্যদিকে ‘বি’...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
জাতীয়48 mins ago

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা: তথ্যমন্ত্রী

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা। বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সচিবালয়ে...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
অপরাধ54 mins ago

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দ্বন্দ্বে বন্ধুকে হত্যা

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. বরকত ছুরিকাঘাতে তার বন্ধু মো. মেহেদীকে হত্যা করে। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার...

বেসিক ব্যাংক বেসিক ব্যাংক
আইন-বিচার58 mins ago

বেসিক ব্যাংক: ৩ মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ না হলে ব্যবস্থা নিবে হাইকোর্ট

আগামী তিন মাসের মধ্যে বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারির মামলাগুলোর তদন্ত কাজ শেষ করতে হবে দুদককে। অন্যথায় দুদকের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
আইন-বিচার1 hour ago

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিচার শুরু

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমু হত্যা মামলায় স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল ও তার বন্ধু এস এম ফরহাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন...

সতর্ক সতর্ক
জাতীয়2 hours ago

‘জঙ্গি ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের স্থানান্তরকালে অধিকতর সতর্ক হতে হবে’

কারা অভ্যন্তরে  জঙ্গি, শীর্ষ সন্ত্রাসীরা কোনো ধরনের সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতা চালাতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এমনকি...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
জাতীয়3 hours ago

টিকিট কেটে চোখের পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

চোখের চিকিৎসা করাতে সাধারণ রোগীদের মতো ১০ টাকায় টিকিট কাটলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তারপর করালেন চোখ পরীক্ষা। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর)...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
অপরাধ3 hours ago

আয়াত হত্যা: ৩ দিনের রিমান্ডে আবীরের মা-বাবা-বোন

চট্টগ্রাম শহরের ইপিজেডে ৫ বছরের শিশু আলীনা ইসলাম আয়াতকে অপহরণের পর হত্যায় অভিযুক্ত আবীরের মা-বাবা ও বোন ৩ দিনের রিমান্ডে...

জিএম কাদের জিএম কাদের
আইন-বিচার3 hours ago

জিএম কাদেরের দায়িত্ব পালনে নেই বাধা: হাইকোর্ট

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদেরকে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যে দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা ছিল সেটি স্থগিত...

হাইকোর্ট হাইকোর্ট
আইন-বিচার3 hours ago

আমাদের লড়াইটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে : হাইকোর্ট

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা থেকে দুর্নীতি নির্মূল করাই আমাদের লক্ষ্য। আমাদের লড়াইটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে। বলেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) দুর্নীতি দমন...

Advertisement

আর্কাইভ

বিশ্বকাপ
জাতীয়18 hours ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

বিশ্বকাপ
রংপুর1 day ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ3 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশ্বকাপ
জাতীয়3 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

বিশ্বকাপ
জাতীয়4 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

বিশ্বকাপ
বলিউড5 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

বিশ্বকাপ
জাতীয়5 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

বিশ্বকাপ
জাতীয়6 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ6 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

বিশ্বকাপ
বিএনপি6 days ago

‘আদালত থেকে জঙ্গি ছিনতাই সরকারের নতুন নাটক’

সর্বাধিক পঠিত