Bayanno Tv
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮
×

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কারিনার ডায়েটিশিয়ানের পরামর্শ

  লাইফস্টাইল ডেস্ক ০৪ জুলাই ২০২১, ২১:৪১

ফাইল ছবি

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান। জিরো ফিগার হিসেবে তার জনপ্রিয়তা জগৎ জোড়া। তবে এই সৌন্দর্য, ফিগার একদিনে তৈরি হয়নি। তার জীবনযাত্রাটাকেই এমনভাবে গড়ে তুলেছেন যে তা অনুসরণযোগ্য হতেই পারে। তার জীবনধারা সম্পর্কে কিছু তথ্য শেয়ার করেছেন কারিনারা ডায়েটিশায়ান রুজুতা দিবাকর।

সুস্থ থাকার জন্য পেট সুস্থ রাখা জরুরি বলে মনে করেন পুষ্টিবিদ রুজুতা দিবাকর। তিনি সব সময়ই প্রাকৃতিক খাবারের উপর জোর দিয়ে আসছেন। করিনা ছাড়া আরো অনেকে তার পরামর্শ মেনে চলেন। তবে কারিনার ডায়েটর্চাট নিয়েই সবচেয়ে বেশি আলোচনায় এসেছেন রুজুতা দিবাকর।

সম্প্রতি ডায়েটিশায়ান রুজুতা দিবাকর এমন পাঁচটি খাবারকে সুপারফুড হিসেবে উল্লেখ করেছেন। আর এই খাবারের সবগুলো বাঙালির রান্নাঘরেই পাওয়া যায়। চলুন জেনে নেয়া যাক এমন কিছু খাবারের কথা।

কাঁঠাল
কাঁঠাল খেলেই হজমের সমস্যা হবে এ ধারণা ভুল পরিণত হয়েছে। কাঁঠালে রয়েছে বিভিন্ন রোগের সমাধান।খাদ্যগুণ ও পুষ্টিগুণে ভরপুর কাঁঠাল ভিটামিন সি ও অ্যান্টি অক্সিড্যান্টে পরিপূর্ণ তাই একে সুপারফুড বলা হয়। কাঁঠালে ভিটামিন সি, এ, বি-১, বি-২, ক্যালশিয়াম, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, বিটা ক্যারোটিন-সহ নানা ধরনের খনিজ উপাদান রয়েছে। এই কাঁঠাল খেলে শরীরে রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

কলা
কলার অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে। আর কলা এমন একটি ফল যা সারা বছর পাওয়া যায়। আবার দামও কম।  কলাতে থাকা পটাশিয়াম রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।এর ফলে রক্ত জমাট বাঁধার কোন সুযোগ পায় না।  এছাড়া কলার মধ্যে থাকা ম্যাগনেসিয়াম স্ট্রোকের হাত থেকে বাঁচায়।  যাদের কোষ্ঠ্যকাঠিন্যের সমস্যা রয়েছে তাদের জন্য কলা ওষুধের মত কাজ করে।

ছোট জাম
জামে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। এ ছাড়া অ্যান্টি–অক্সিডেন্টযুক্ত ফাইবারসমৃদ্ধ জিংক, কপার, গ্লুকোজ, ডেক্সট্রোজ ফ্রুক্টোজ রয়েছে, যা দেহের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বৃদ্ধি করে। হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বাড়াতেও ডায়াবেটিসের মাত্রা কমাতে জামের জুড়ি নেই। এই ফল ক্ষতিকর আলট্রাভায়োলেট রশ্মি থেকে ত্বক ও চুলকে রক্ষা করে। মানুষের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্মৃতিশক্তি কমতে থাকে। স্মৃতিশক্তি বাড়াতে যাদুকরী ভূমিকা পালন করে জাম।

কালো জাম
কালো জামের স্বাস্থ্যো উপকারিতা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। কালো জাম খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা, বিশেষ করে যাদের ডায়াবেটিস ও হার্টের সমস্যা রয়েছে। মৌসুম পরিবর্তনের সময়ের আরেক বড় সমস্যা হল চুল শুষ্ক হয়ে পড়া, অতিরিক্ত চুল পড়া। আবার বর্ষাকালে অনেকের  খুশকির সমস্যা দেখা যায়। এক্ষেত্রে জামের বীজ ব্যবহার করতে পারেন।

আতা
আতার রয়েছে নানা গুণ। শুধু স্বাদের কারণেই নয়, স্বাস্থ্যের জন্য এটি দারুণ উপকারী ফল। ভিটামিন সির মতো নানা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আছে এতে। শরীরে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা সৃষ্টি করে আতা। এছাড়া অরুচি দূর করা, ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ানো ও দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখার জন্য আতা খাওয়া যায়। বিশেষজ্ঞরা বলেন, ভিটামিন ও মিনারেলসমৃদ্ধ এ ফল শরীরের জন্য খুব উপকারী। এ ফলে রয়েছে ভিটামিন এ, যা চোখের কর্নিয়া ও রেটিনাকে সুরক্ষিত রাখে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস  

এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র

প্রধান সম্পাদকঃ সৈয়দ আশিক রহমান
বেঙ্গল টেলিভিশন লিমিটেড

৪৩৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৮

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২১ | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।