Connect with us

পরামর্শ

নবজাতকটি সুস্থ আছে কি না তা জানতে যে টেস্ট করা জরুরি

Published

on

মৃত্যু

সদ্যোজাতর সূক্ষ্ম সূক্ষ্ম ত্রুটি এড়িয়ে গেলে বয়স বাড়লে অনেক সমস্যা হয়। নবজাতকটি সুস্থ আছে কি না তা জানতে কিছু জরুরি টেস্ট রয়েছে। সেগুলি শিশু জন্মের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই করে ফেলতে হয়।

টেস্টের রিপোর্ট আর প্রথম পাঁচটা বছর বেড়ে ওঠার প্রতিটি পর্যায়ে শিশুর ভাব প্রকাশ ঠিক হচ্ছে কিনা সেটা দেখে নেওয়া খুব জরুরি।

জন্মের পর যে টেস্ট করতেই হবে-

শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর করতে হবে ‘টিপ টু টো এক্সামিনেশন’। এর দ্বারা চিকিৎসকের নির্দেশ মেনে মাথার তালু থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়। কী কী টেস্ট রয়েছে?

প্রথমেই আসে মাথার আকার ও ওজনের সঠিক পরিমাপ করা। মাথার তালু খোলা না থাকলে মস্তিষ্কের বিকাশ বাধাপ্রাপ্ত হয়।

Advertisement

চোখে যে পথে আলো প্রবেশ করে তার দ্বারা দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা করা হয়, যাকে ‘রেড রিফ্লেক্স’ বলা হয়।

জন্মের পরই শ্রবণশক্তি পরীক্ষা হয়, যাকে ‘ইউনিভার্সাল নিউবর্ন হিয়ারিং স্ক্রিনিং’ বলা হয়। যে কোনও বয়সেই এই পরীক্ষা করা যেতে পারে।

নবজাতক শিশুর তালু কাটা আছে কি না তা পরীক্ষা করা হয়। অনেকেরই জন্মগত তালু কাটা থাকে। তাই পর্যবেক্ষণ জরুরি।

পরবর্তী ধাপে হার্ট ও ফুসফুসের যথাযথ পরীক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। ফুসফুসের কোনও সমস্যা থাকলে পালস অক্সিমিটার অক্সিজেনের মাত্রা কম থাকে এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের গতি তীব্র হয়। বড় কোনও ত্রুটি জন্মের সময় জানা যায় এবং ছোট ত্রুটি জন্মের পর ২-৩ মাসের মধ্যে প্রকাশ পায়।

পেটের পর্যবেক্ষণে হাত দিয়ে ডাক্তার লিভার ও কিডনির স্বাভাবিক কার্যক্রমের আন্দাজ করতে পারেন। কোনও শিশুর প্রস্রাব কম হলে ও অস্বাভাবিক ফুলে গেলে কিডনির সমস্যা আছে ধরে নেওয়া যায়।

Advertisement

জিনগত সমস্যা নির্ধারণে জন্মের তিন দিনের মাথায় থাইরয়েড টেস্ট করার নির্দেশ দেয়া হয়। থাইরয়েড পরীক্ষা একটি শিশুর জন্য অপরিহার্য হিসেবে গণ্য করা হয়। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত অনেক শিশুর সঠিক সময়ে থাইরয়েড পরীক্ষা না হওয়ায় কারণে তাদের মস্তিষ্কের বিকাশ সম্পূর্ণরূপে নষ্ট হয়।

অটিজম এড়াতে খেয়াল রাখুন-

এক্ষেত্রে প্রথম পর্যায়ে রোগনির্ণয় জরুরি। সর্বদা লক্ষণের ওপর নজর দিতে হবে যা তিন বছর বয়সের আগেই প্রকাশ পায়। কী কী খেয়াল রাখবেন? সাধারণ শিশু স্তনদুগ্ধ পানের সময় মায়ের মুখের দিকে তাকিয়ে খায় কিন্তু অটিজমের শিশুরা নিজের জগতে ব্যস্ত থাকে, মায়ের সঙ্গে মুখোমুখি সংযোগ স্থাপন করে না, সামাজিকীকরণে ব্যর্থ হয়, কারও সঙ্গে স্বাভাবিক বাক্যবিনিময়ে বিরত থাকতে পছন্দ করে। যাদের খুব সামান্য অটিজম থাকে ‌তারা জীবনের সমস্ত পর্যায় পেরিয়ে এলেও নিজের সঙ্গকে বেশি প্রাধান্য দেয়। বন্ধুদের থেকে আলাদা থাকে, একাকীত্ব পছন্দ করে। বাহ্যিক লক্ষণগুলো সম্পর্কে সর্বদা বাবা-মাকে সজাগ থাকতে হবে। তবেই অভ্যন্তরীণ বিষয়ে ডাক্তাররা পর্যবেক্ষণ ও চিকিৎসা করতে পারেন।

জন্মের প্রথম পর্যায়ে শিশুর কোনও অঙ্গের দুর্বলতা বা অসুস্থতা ধরা পড়লে তা চিকিৎসা করা সম্ভব ও সমস্যার সমাধানও তাড়াতাড়ি হয়।

যে বিষয়গুলি নজরে রাখবেন –

Advertisement

জন্মের ১-৩ মাসের মধ্যে কারও কথা শুনে বা কারও দিকে তাকিয়ে হাসছে কি না।

১.৫-৩.৫ মাসের মধ্যে যেকোনও বস্তুর প্রতি আকর্ষণ রয়েছে কি না।

ছ’মাস বয়সে শিশু পিছন থেকে পেট ও বুকে ভর দিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যায় এবং ঘণ্টা জাতীয় শব্দে ঘাড় ঘুরিয়ে দেখে, এটা না করলে সজাগ হোন।

৫ মাসে হাত থেকে হাতে জিনিস দেওয়া-নেওয়া করবে।

৭ মাসে নিজে বসার এবং ফার্নিচারকে অবলম্বন করে দাঁড়াতে চেষ্টা করবে।

Advertisement

১০-১২ মাস বয়সে অন্যের সাহায্যে হাঁটতে শুরু করা এবং ১৫ মাস থেকে সাধারণত পিছনদিকে হাঁটা ও অন্যের সাহায্যে সিঁড়ি দিয়ে ওঠা শুরু করবে।

উপরোক্ত লক্ষণ সমূহ শিশু বিশেষে একটু-আধটু এদিক-ওদিক হতে পারে। যে কোনও একটির বিলম্বে সত্বর ডাক্তারের পরামর্শ নিন কারণ শিশুর অনেক ত্রুটিই তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু করলে সেরে যায়।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক করুন

রিপ্লাই দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জাতীয়

মৃত্যু মৃত্যু
করোনা ভাইরাস42 mins ago

মৃত্যু না থাকলেও আজ ১২ জনের করোনা শনাক্ত

গেলো ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১২ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০ লাখ ৩৬ হাজার ৫৯৭...

মৃত্যু মৃত্যু
জাতীয়2 hours ago

ডিসেম্বরকে বীর মুক্তিযোদ্ধা মাস ঘোষণার দাবি স্বরাষ্টমন্ত্রীর

ডিসেম্বর মাসকে যেন মুক্তিযোদ্ধা মাস ঘোষণা করা হয়। এটা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রাণের দাবি। জানিয়েছেন স্বরাষ্টমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বৃহস্পতিবার (১...

মৃত্যু মৃত্যু
খুলনা3 hours ago

খুলনায় পুলিশ হত্যা ও বিস্ফোরক মামলার ৮ আসামি খালাস

খুলনায় দুই পুলিশ কনস্টেবল হত্যার ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে দায়ের হওয়া মামলায় ৮ আসামিকে খালাস দিয়েছেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কেএম ইকবাল...

মৃত্যু মৃত্যু
অপরাধ3 hours ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও...

মৃত্যু মৃত্যু
জাতীয়3 hours ago

গাইবান্ধা উপনির্বাচনে অবহেলার প্রমাণ মিলেছে, নেয়া হচ্ছে ব্যবস্থা

গাইবান্ধা-৫ উপনির্বাচনে ১২৫ কেন্দ্রের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে অবহেলার প্রমাণ পেয়েছে নির্বাচন কমিশন। এর দায়ে এসব কর্মকর্তাদের সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে...

মৃত্যু মৃত্যু
বাংলাদেশ4 hours ago

রোদে কতক্ষণ থাকলে তৈরি হয় ভিটামিন ডি, জানেন কি!

শরীরে প্রাকৃতিক নিয়মে ভিটামিন ডি তৈরি করতে সূর্যের আলো প্রয়োজন। তবে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রোদে বসে থাকলেই শরীরে ভিটামিন ডি...

মৃত্যু মৃত্যু
আইন-বিচার4 hours ago

আদালত থেকে ২ জঙ্গি ছিনতাই : ১০ আসামি ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পুলিশের চোখে স্প্রে করে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি ছিনিয়ে নেয়ার ঘটনায় করা মামলায় দশ...

মৃত্যু মৃত্যু
জাতীয়4 hours ago

ফায়দা লুটতে অর্থনীতি নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

অনেকেই মূল্যস্ফীতির তথ্য নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। রাজনৈতিক ফায়দা লুটতে অর্থনীতি নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে। বললেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বৃহস্পতিবার...

হাইকোর্ট হাইকোর্ট
আইন-বিচার5 hours ago

চেক ডিজঅনার মামলা করতে পারবে ব্যাংক : আপিল বিভাগ

কোনো ব্যাংক চেক ডিজঅনার মামলা করতে পারবে না, হাইকোর্টের দেয়া এ সংক্রান্ত রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। তাই চেক ডিজঅনার...

বিডিনিউজ বিডিনিউজ
আইন-বিচার5 hours ago

বিদেশ যেতে অনুমতি লাগবে বিডিনিউজ সম্পাদকের

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদীকে বিচারিক আদালতের দেয়া জামিন বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট।...

Advertisement

আর্কাইভ

December 2022
MTWTFSS
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031 
মৃত্যু
রংপুর8 mins ago

মাদক হত্যা মামলায় একজনের ফাঁসি

মৃত্যু
রোগব্যাধি26 mins ago

ডেঙ্গুতে মৃত্যুহীন দিনে হাসপাতালে ভর্তি ৩৬৬

মৃত্যু
করোনা ভাইরাস42 mins ago

মৃত্যু না থাকলেও আজ ১২ জনের করোনা শনাক্ত

মৃত্যু
ক্রিকেট53 mins ago

ভারতের বিপক্ষে ছিটকে গেলেন তাসকিন, শঙ্কায় তামিম

মেসি
ঢালিউড58 mins ago

‘মেসি গো মেসি! আমার দুই চোক্ষে শুধুই মেসিই’

মৃত্যু
বিনোদন1 hour ago

সংসারজীবনে আমি অতিষ্ঠ: সারিকা

মৃত্যু
স্বাস্থ্য1 hour ago

কোষ্ঠকাঠিন্যে কাবু! নিস্তারে হেঁশেলের মশলাই যখন উপায়!

মৃত্যু
চাকরির খবর2 hours ago

অভিজ্ঞ ম্যানেজার চায় বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংক

মৃত্যু
রোগব্যাধি2 hours ago

দেশে এইডসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৩২ জন

মৃত্যু
বিএনপি2 hours ago

১০ ডিসেম্বর শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি:বরকত উল্লাহ বুলু

মৃত্যু
জাতীয়1 day ago

বিএনপির নেতাকর্মীদের স্বাচ্ছন্দের ব্যবস্থা করছে সরকার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মৃত্যু
জাতীয়2 days ago

সীমান্তে নিরাপত্তায় যৌথ টহল দেবে বিজিবি-বিজিপি

মৃত্যু
জাতীয়3 days ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

মৃত্যু
রংপুর3 days ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ5 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মৃত্যু
জাতীয়5 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

মৃত্যু
জাতীয়6 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

মৃত্যু
বলিউড1 week ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

মৃত্যু
জাতীয়1 week ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

মৃত্যু
জাতীয়1 week ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

সর্বাধিক পঠিত