Connect with us

তথ্য-প্রযুক্তি

চাঁদে আবার মানুষ পাঠানোর তোড়জোড় নাসার

Avatar of উম্মে রুম্মান ক্রান্তি

Published

on

বিশ্বকাপ

নাসার ‘আর্টেমিস ১’ মিশনের সফল উৎক্ষেপণ হয়েছে। চাঁদের উদ্দেশে পাড়ি জমালো  যাত্রীবিহীন মহাকাশযান ‘ওরিয়ন’। চাঁদে আবারও মানুষ পাঠানোর পরিকল্পনা করেছে আমেরিকার এই মহাকাশ গবেষণা সংস্থা।

বুধবার (১৬ নভেম্বর) এই পরিকল্পনার প্রথম ধাপ সম্পন্ন হল।

নাসার চাঁদে মানুষ পাঠানোর ‘মিশন’ সম্পন্ন হবে মোট ৩টি ধাপে। যার প্রথম ধাপ ‘আর্টেমিস ১’। এটি যাত্রীবিহীন অভিযান। যার মূল লক্ষ্য, চাঁদের মাটিতে নামার জন্য সম্ভাব্য ‘ল্যান্ডিং সাইট’গুলো চিহ্নিত করা।

একই পরীক্ষা হবে মিশনের দ্বিতীয় ধাপেও। তা সফল হলে তৃতীয় ধাপের অভিযানে চাঁদে পাড়ি দেবে মানুষ। ৫০ বছর পর পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহে আবার মানুষ পাঠানোর জন্য উদ্যোগী হয়েছে নাসা।

এর আগে ‘আর্টেমিস ১’-এর উৎক্ষেপণ বারবার বিলম্বিত হয়েছে। গত ২৯ অগস্ট এই উৎক্ষেপণের দিন ধার্য করা হয়েছিল। নির্ধারিত সময়ে কাউন্ট ডাউন শুরুও হয়ে গিয়েছিল, কিন্তু মাঝপথে তা থামিয়ে দিতে হয়। রকেটের তরল হাইড্রোজেনের লাইনে ছিদ্র ধরা পড়ে শেষ মুহূর্তে। বহু চেষ্টা করেও সমস্যার সমাধান করা যায়নি। অভিযান বাতিল করতে বাধ্য হয় নাসা।

Advertisement

যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে তার পরেও এই অভিযান বাতিল করতে হয়েছিল। ২৯ অগস্টের পর ২ সেপ্টেম্বর উৎক্ষেপণের দিন নির্ধারিত হয়েছিল। সে বার তরল হাইড্রোজেনের ট্যাঙ্কে ছিদ্র ধরা পড়ে। আবার বাতিল হয় অভিযান। বস্তুত, ‘আর্টেমিস ১’-এর উৎক্ষেপণের সময়ে রকেটের নীচে থাকা ৪টি বড় ইঞ্জিনে ৩০ লক্ষ লিটার প্রচণ্ড ঠান্ডা তরল হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন পুড়ে বিপুল শক্তি উৎপাদিত হয়। যার সাহায্যে মহাকাশে পাড়ি দেয় রকেট। অবশেষে বুধবার উৎক্ষেপণ সফল হল।

নাসার আধিকারিকরা জানান, তাদের কাছে এটি একটি ঐতিহাসিক সাফল্য। এর আগে ১৯৬৯ সালে ‘অ্যাপোলো-১১’ মিশনে প্রথম চাঁদে মানুষ পাঠানো হয়েছিল। নাসার সেই অভিযানে চাঁদে পাড়ি দিয়েছিলেন নীল আর্মস্ট্রং এবং এডুইন অলড্রিন। ১৯৭২ সালে নাসার মহাকাশযান ‘অ্যাপোলো-১৭’ মহাকাশচারী জেন সারনানকে নিয়ে নেমেছিল চাঁদে। সেই ঘটনার অর্ধশতক পূর্তিতে আবার চাঁদে মহাকাশচারী পাঠানোর লক্ষ্য নিয়েছে নাসা।

তথ্য-প্রযুক্তি

এবার কর্মী ছাঁটাই করবে অ্যামাজন

Published

on

কর্মী ছাঁটাই

টুইটার, ফেসবুকের পর এবার গণছাঁটাইয়ের পথে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বৃহত্তম ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান অ্যামাজন। কর্পোরেট এবং প্রযুক্তিখাতের আনুমানিক ১০ হাজার কর্মীকে ছাঁটাই করতে পারে প্রতিষ্ঠানটি। তবে কর্মী ছাঁটাইয়ের ব্যাপারে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এখন পর্যন্ত কিছু বলা হয়নি।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা নিউ ইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদন এ তথ্য জানানো হয়।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, ছাঁটাই হতে যাওয়া কর্মীদের বেশিরভাগই অ্যামাজনের ডিভাইস ইউনিটের। এছাড়া সংস্থার রিটেইল বিভাগ এবং মানবসম্পদ বিভাগেও কর্মী ছাঁটাই হবে। শুধু তাই নয়, কর্মী নিয়োগও স্থগিত করা হয়েছে।

অ্যামাজনের সূত্রটি বলছে, মার্কিন অর্থনৈতিক পরিস্থিতি খুব একটা ভালো নয়। এই অবস্থায় অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো অ্যামাজনও অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তার মুখে রয়েছে।

অ্যামাজন মনে করছে, চলতি বছরে উৎসবের সময়গুলোতে, যেমন বড়দিন বা নববর্ষে তাদের ব্যবসা আগের তুলনায় কমে যাবে।

Advertisement

গত মাসে সাংবাদিকদের অ্যামাজনের চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার ব্রায়ান ওলসাভস্কি বলেছিলেন যে, মানুষ কেনাকাটায় তাদের বাজেট কমিয়ে ফেলেছে।

এর আগে ফেসবুকের মূল কোম্পানি মেটা গত সপ্তাহে জানিয়েছে, তারা ১৩ শতাংশ বা ১১ হাজার কর্মী ছাঁটাই করবে। অ্যামাজনও সেই পথেই হাঁটছে। যা এই সংস্থার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় গণছাঁটাই হতে চলেছে। বিশ্বজুড়ে এই সংস্থার সঙ্গে যুক্ত কর্মীর সংখ্যা ১৫ লাখের বেশি।

 

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

তথ্য-প্রযুক্তি

বিনা নোটিশে আরও ৪৪০০ কর্মীকে ছাঁটাই

Published

on

কর্মী

জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম টুইটারের মালিকানা হাতে নেওয়ার পরই সংস্থাটিতে ব্যাপক কর্মী ছাঁটাই করেছিলেন ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মাতা ও প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক। সাম্প্রতিক ওই ছাঁটাই অভিযানে চাকরি হারিয়েছিলেন সংস্থাটির প্রায় অর্ধেক কর্মী।

মাস্কের সেই ছাঁটাই অভিযান এখনও চলছে। আগের মতো এবারও তিনি প্রায় ৪ হাজার ৪০০ জন কর্মীকে বিনা নোটিশে ছাঁটাই করেছেন। গত শনিবার (১২ নভেম্বর) এই ছাঁটাই অভিযানে ভুক্তভোগীরা সবাইই চুক্তিভিত্তিক কর্মী।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি  নিউজ পোর্টাল প্ল্যাটফর্মারের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, টুইটারের নতুন মালিক ইলন মাস্ক গত সপ্তাহান্তে চার হাজারেরও বেশি চুক্তিভিত্তিক কর্মচারীকে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই বরখাস্ত করেছেন। প্ল্যাটফর্মারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রায় ৪ হাজার ৪০০ চুক্তিভিত্তিক কর্মচারী তাদের অফিসিয়াল মেইল, অনলাইন পরিষেবা এবং কোম্পানির অভ্যন্তরীণ যোগাযোগের অ্যাক্সেস হারিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুসারে, মোট সাড়ে পাঁচ হাজার চুক্তিভিত্তিক কর্মচারীর মধ্যে ছাঁটাই করা হয়েছে প্রায় সাড়ে চার হাজার কর্মীকে। কর্মচারীদের বরখাস্ত করার আগে কোনও নোটিশও দেওয়া হয়নি বলেও দাবি করা হয়েছে।

Advertisement

সপ্তাহখানেক আগেই ইলন মাস্ক টুইটারের ৫০ শতাংশ কর্মচারীকে বরখাস্ত করেছেন। ওই ধাপে বরখাস্ত হওয়া কর্মীর সংখ্যাটা প্রায় সাড়ে তিন হাজার। এই ঘটনার কয়েকদিনের মাথায় এবার কোনও নোটিশ ছাড়াই আবারও হাজার হাজার কর্মচারীকে চাকরিচ্যুত করলেন মাস্ক।

মূলত টুইটারের চুক্তিভিত্তিক কর্মীদের এবার বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বিষয়ে টুইটার বা ইলন মাস্কের পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

সংবাদমাধ্যম বলছে, প্রথমে কর্মীদের সংস্থার ইমেইল ও আভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থার সুবিধাগুলো কেড়ে নেওয়া হয়। আর এরপরই তাদের বরখাস্ত করা হয়। দ্বিতীয় দফায় বরখাস্ত হওয়া কর্মীদের মধ্যে মূলত কন্টেন্ট মডারেশন, রিয়েল এস্টেট, বিপণন, প্রযুক্তি বিভাগের কর্মীরা রয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি সারা বিশ্বের টুইটারের কর্মীরা দ্বিতীয় দফার ছাঁটাইয়ের তালিকায় রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত মাসের শেষের দিকে ৪৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে টুইটার কিনে নেন ইলন মাস্ক। এরপর বিশ্বব্যাপী সংস্থাটির অর্ধেক কর্মচারীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ভারতে ৯০ শতাংশ কর্মীকে বরখাস্ত করেছে টুইটার।

আর তাই আগামী দিনগুলো সোশ্যাল মিডিয়ার এই সংস্থাটির কর্মচারীদের জন্য কঠিন হতে পারে বলেই মনে করছেন অনেকে।

Advertisement

 

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

তথ্য-প্রযুক্তি

অর্থের বিনিময়ে ‘ব্লু টিক’, স্থগিত করলো টুইটার

Published

on

বিশ্বকাপ

মাসিক আট মার্কিন ডলারের বিনিময়ে ব্লু টিক সাবস্ক্রিপশন সেবা স্থগিত করেছে টুইটার। ভুয়া অ্যাকাউন্টের অতিমাত্রায় বেড়ে যাওয়ায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি, কিছু অ্যাকাউন্টে ‘অফিসিয়াল’ ব্যাজও ফিরিয়ে এনেছে প্ল্যাটফর্মটি। অর্থাৎ, অর্থের বিনিময়ে যে কাউকে ব্লু টিক দেয়ার ব্যবস্থাটি আপাতত বন্ধই করে দিয়েছে টুইটার।

জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মটিতে এর আগে ব্লু টিক কেবল রাজনীতিদ, বিখ্যাত ব্যক্তি, সাংবাদিকসহ অন্যান্য পাবলিক ফিগারদের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টের জন্যই সীমাবদ্ধ ছিল। ফলে এই চিহ্নটি হয়ে উঠেছিল বিশ্বাসযোগ্যতার একটি প্রতীক।

কিন্তু ইলন মাস্ক টুইটার কিনে নেয়ার পর অর্থ আয়ে বিজ্ঞাপননির্ভরতা কমিয়ে বিকল্প ব্যবস্থা চালুর উদ্যোগ নেন। সেই ধারাবাহিকতায় সবার জন্য মাসিক আট ডলারে বিনিময়ে ব্লু টিক সাবস্ক্রিপশন সেবা চালু করেছিলেন তিনি। কিন্তু তাতে হিতে বিপরীত হয়েছে টুইটারের জন্য।

মাস্কের এ সিদ্ধান্তে ভুয়া অ্যাকাউন্টেও ব্লু টিক যোগ হওয়ার জোয়ার সৃষ্টি হয়। ফলে বিভ্রান্তি ও গুজব ছড়াতে থাকে হু হু করে।

রবলক্স, নেসলে, ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট এলি লিলি, লকহিড মার্টিনের মতো খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানগুলোর নামে ব্লু টিক-যুক্ত ভুয়া অ্যাকাউন্ট ছড়িয়ে পড়ে। বাদ পড়েনি মাস্কের নিজের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান টেসলা এবং স্পেসএক্সও।

Advertisement

এর মধ্যে এলি লিলির ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে ‘ইনসুলিন বিনামূল্য করে দেয়া হবে’ এমন গুজব ছড়িয়ে দেয়া হয়। পরে বিষয়টি পরিষ্কার করে ভুল বোঝাবুঝির জন্য ক্ষমা চায় ওষুধনির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

এলি লিলির ভেরিফায়েড টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বলা হয়েছে, যাদের কাছে একটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকে বিভ্রান্তিকর বার্তা গেছে, তাদের কাছে আমরা ক্ষমা চাচ্ছি।

টেসলার ভুয়া অ্যাকাউন্ট থেকেও বেশ কয়েকটি ভুল বা বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানো হয়েছে। ওই অ্যাকাউন্টের প্রোফাইল পিকচারে ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টের মতো একই ছবি ব্যবহার করেছিল প্রতারকরা।

ফলে বিতর্কের মুখে শেষপর্যন্ত অর্থের বিনিময়ে ব্লু টিক সেবা স্থগিত করেন মাস্ক। শুক্রবার (১১ নভেম্বর) অনেক ব্যবহারকারী জানিয়েছেন, তাদের অ্যাকাউন্ট থেকে ব্লু টিক ভেরিফিকেশন চেক অপশন গায়েব হয়ে গেছে।

এদিন টুইটারের একটি সহযোগী অ্যাকাউন্ট থেকে বলা হয়েছে, ছদ্মবেশের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আমরা কিছু অ্যাকাউন্টে ‘অফিসিয়াল’ লেবেল যোগ করেছি।

Advertisement

এই লেবেল মূলত গত বুধবার (৮ নভেম্বর) চালু করা হয়েছিল। পরে তা বাতিল করেন ইলন মাস্ক। কিন্তু বিতর্কের মুখে সেটি আবারও ফিরিয়ে এনেছেন তিনি।

এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি টুইটার।

ইলন মাস্ক ৪ হাজার ৪০০ কোটি ডলারে টুইটার কেনার চুক্তি সম্পন্ন করার পর গত দু’সপ্তাহ ধরেই চরম বিশৃঙ্খলা চলছে প্রতিষ্ঠানটিতে। তিনি এরই মধ্যে টুইটারের প্রায় অর্ধেক কর্মীকে চাকরিচ্যুত করেছেন, জ্যেষ্ঠ নির্বাহী ও পরিচালনা পর্ষদকে সরিয়ে দিয়েছেন। এমনকি টুইটার দেউলিয়া হয়ে যেতে পারে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিশ্বের শীর্ষধনী।

যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ট্রেড কমিশন গত বৃহস্পতিবার বলেছে, তারা ‘গভীর উদ্বেগের সঙ্গে’ টুইটার ও মাস্কের কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ করছে।

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
বাংলাদেশ35 mins ago

বিশ্বকাপসহ টিভিতে যা দেখবেন আজ

ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে আজ (২৯ নভেম্বর) ‘এ’ গ্রুপে রাত ৯টায় নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হবে কাতার এবং ইকুয়েডরের প্রতিপক্ষ সেনেগাল। অন্যদিকে ‘বি’...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
জাতীয়50 mins ago

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা: তথ্যমন্ত্রী

জঙ্গি তৎপরতা আর বিএনপির কার্যক্রম এক সূত্রে গাঁথা। বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সচিবালয়ে...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
অপরাধ55 mins ago

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দ্বন্দ্বে বন্ধুকে হত্যা

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরে দশম শ্রেণির ছাত্র মো. বরকত ছুরিকাঘাতে তার বন্ধু মো. মেহেদীকে হত্যা করে। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার...

বেসিক ব্যাংক বেসিক ব্যাংক
আইন-বিচার1 hour ago

বেসিক ব্যাংক: ৩ মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ না হলে ব্যবস্থা নিবে হাইকোর্ট

আগামী তিন মাসের মধ্যে বেসিক ব্যাংকের ঋণ কেলেঙ্কারির মামলাগুলোর তদন্ত কাজ শেষ করতে হবে দুদককে। অন্যথায় দুদকের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
আইন-বিচার1 hour ago

চিত্রনায়িকা শিমু হত্যা: স্বামীসহ দুজনের বিচার শুরু

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমু হত্যা মামলায় স্বামী সাখাওয়াত আলী নোবেল ও তার বন্ধু এস এম ফরহাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন...

সতর্ক সতর্ক
জাতীয়2 hours ago

‘জঙ্গি ও শীর্ষ সন্ত্রাসীদের স্থানান্তরকালে অধিকতর সতর্ক হতে হবে’

কারা অভ্যন্তরে  জঙ্গি, শীর্ষ সন্ত্রাসীরা কোনো ধরনের সমাজ ও রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতা চালাতে না পারে সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। এমনকি...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
জাতীয়3 hours ago

টিকিট কেটে চোখের পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

চোখের চিকিৎসা করাতে সাধারণ রোগীদের মতো ১০ টাকায় টিকিট কাটলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তারপর করালেন চোখ পরীক্ষা। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর)...

বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ
অপরাধ3 hours ago

আয়াত হত্যা: ৩ দিনের রিমান্ডে আবীরের মা-বাবা-বোন

চট্টগ্রাম শহরের ইপিজেডে ৫ বছরের শিশু আলীনা ইসলাম আয়াতকে অপহরণের পর হত্যায় অভিযুক্ত আবীরের মা-বাবা ও বোন ৩ দিনের রিমান্ডে...

জিএম কাদের জিএম কাদের
আইন-বিচার3 hours ago

জিএম কাদেরের দায়িত্ব পালনে নেই বাধা: হাইকোর্ট

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদেরকে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী যে দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা ছিল সেটি স্থগিত...

হাইকোর্ট হাইকোর্ট
আইন-বিচার3 hours ago

আমাদের লড়াইটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে : হাইকোর্ট

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা থেকে দুর্নীতি নির্মূল করাই আমাদের লক্ষ্য। আমাদের লড়াইটা দুর্নীতির বিরুদ্ধে। বলেছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) দুর্নীতি দমন...

Advertisement

আর্কাইভ

বিশ্বকাপ
জাতীয়18 hours ago

সরকারকে জ্বালানির মূল্য নির্ধারণে সংশোধনী অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা

বিশ্বকাপ
রংপুর1 day ago

পা দিয়ে লিখে গোল্ডেন জিপিএ-৫ পেয়েছে সেই মানিক

সতর্ক
আওয়ামী লীগ3 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিশ্বকাপ
জাতীয়3 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

বিশ্বকাপ
জাতীয়4 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

বিশ্বকাপ
বলিউড5 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

বিশ্বকাপ
জাতীয়5 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

বিশ্বকাপ
জাতীয়6 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ6 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

বিশ্বকাপ
বিএনপি6 days ago

‘আদালত থেকে জঙ্গি ছিনতাই সরকারের নতুন নাটক’

সর্বাধিক পঠিত