Connect with us

আওয়ামী লীগ

‘ফখরুল সাহেব পদ্মা সেতু ব্যবহার করতে লজ্জা পাবেন না’

Published

on

কয়েকদিন আগে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব বরিশাল গেলেন। কিন্তু তিনি বরিশালে পদ্মা সেতু দিয়ে যাননি বরং প্লেনে গেছেন। আপানারা সবাই জানেন বরিশালে আমার নানা বাড়ি। তিনি বরিশালে গিয়ে অনেক বড় বড় কথাও বলেছেন। আমি ফখরুল সাহেবকে বলতে চাই, পদ্মা সেতু ব্যবহার করতে লজ্জা পাবেন না। শেখ হাসিনার উন্নয়ন সবার জন্য। বললেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ।

আজ শুক্রবার (১১ নভেম্বর) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যুবলীগের সমাবেশে দেয়া ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, আপনারা, আপনার অনুসারীরা কী মেট্রোরেলে উঠবে না? পদ্মা সেতুতেও উঠবে না। তারা কী চারলেন হাইওয়ে এভয়েড করবে। আসলে আপনি তো শেখ হাসিনার উন্নয়ন ব্যবহার করতে বাধ্য। কারণ, আপনাদের নেতা বসবাস করেন বিলাতে। আপনি যখন থার্ড টার্মিনাল দিয়ে লন্ডনে যাবেন অগ্নি সন্ত্রাসের ষড়যন্ত্র করতে, পরিকল্পনা করতে, তখন কী দিয়ে যাবেন। ওই উন্নয়নটাও শেখ হাসিনার। তাই আপনাদের বলতে চাই, সংকীর্ণ মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসুন।

তিনি বলেন, উন্নয়ন কোনো এক্সিডেন্ট না। উন্নয়ন ইজ প্রডাক্ট অব ভিশন, শেখ হাসিনা উন্নয়ন দিতে পেরেছেন। তার ভিশনের জন্য, তার দেশপ্রেমের জন্য এবং তার দূরদর্শিতার নেতৃত্বের জন্য। এই উন্নয়ন কিন্তু আমরা আওয়ামী লীগ করি বলে বলছি না।

তিনি আরও বলেন, বিএনপির সময় বাংলাদেশকে বলা হতো ‘ব্রিডিং গ্রাউন্ড অব টেরোরিজম’। সেখান থেকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশকে এখন বলা হচ্ছে ‘নেক্সট এশিয়ান টাইগার’। উন্নয়নের পুরোটাই নেতৃত্বের দূরদর্শিতার ওপর নির্ভর করে এবং শেখ হাসিনা তার প্রমাণ রেখে চলেছেন।

Advertisement

দলীয় নেতাকর্মীদের অসুস্থ প্রতিযোগিতা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে সংগঠনের চেয়ারম্যান বলেন, আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনাকে আবার ক্ষমতায় আনতে আগামী ১৪ মাস নিরলস কাজ করতে হবে।

আওয়ামী লীগ

সম্মেলন পরিবর্তন বিএনপির আন্দোলনে নয়, শেখ হাসিনার উদারতা

Published

on

নৌযান

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন ৮ ডিসেম্বরের পরিবর্তে ৬ ডিসেম্বর করা বিএনপির আন্দোলনের ফসল নয়, এটা শেখ হাসিনার উদার নৈতিকতার ফসল বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আজ সোমবার (২৮ নভেম্বর) ওবায়দুল কাদের দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

১০ ডিসেম্বরের সমাবেশে কোনো দুর্ভোগ সৃষ্টি না করতে বিএনপি নেতাদের আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপির সমাবেশে আওয়ামী লীগের একজন নেতা–কর্মীও তাদের সমাবেশের ধারে-কাছেও যাবে না।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের মে মাসে ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন হয়। ওই বছরের জুলাইয়ে সংগঠনের সভাপতির দায়িত্ব পান রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান গোলাম রাব্বানী। আর্থিক কেলেঙ্কারির অভিযোগে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে তাঁদের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

পরে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেয়া হয় আল নাহিয়ান খান জয় ও লেখক ভট্টাচার্যকে। ২০২০ সালের ৪ জানুয়ারি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জয় ও লেখককে পূর্ণাঙ্গ দায়িত্ব দেয়া হয়। এরপর থেকে তাঁরা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন।

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

আওয়ামী লীগ

প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফর বাংলাদেশই স্থগিত করেছে : মোমেন

Published

on

নৌযান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাপান সফর বাংলাদেশের পক্ষ থেকে স্থগিত করা হয়েছে। বললেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

আজ রোববার (২৭ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত ওয়ার্কশপ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, দেশটির রাজনৈতিক অস্থিরতা ও করোনার প্রকোপ বিবেচনায় ঢাকা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফর কার পক্ষ থেকে স্থগিত করা হয়েছে, এমন প্রশ্নের জবাবে ড. মোমেন বলেন, আমরা স্থগিত করেছি। তারা প্রস্তুত আছে। আমরা একাধিক কথা চিন্তা করে সফর স্থগিত করেছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী আমাদের দাওয়াত দিয়েছেন। এ দাওয়াতটা আমরা দুই বছর আগে পেয়েছিলাম। কোভিডের কারণে দুই বছরের অধিক সময় হলেও যাওয়া যায়নি। এবার সব ফাইনাল হলো। কিন্তু সম্প্রতি জাপান সরকারের মধ্যে একটা অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। পরপর তিনজন প্রভাবশালী মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন।

Advertisement

মোমেন বলেন, এর মধ্যে আমরা খবর পেয়েছি জাপানের সংসদে কিছু প্রস্তাব আসবে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে। তিনি (জাপান প্রধানমন্ত্রী) খুব ব্যস্ত আছেন। দ্বিতীয়ত কোভিডের কারণ। জাপানের এখনও কোভিডের জন্য কোয়ারেন্টাইন করতে হয়। তারা ১০ জনের মতো অনুমতি দেবে। আমরাতো বিরাট দল যাব। ব্যবসায়ীরা যাবে। আমরা ব্যবসায়ীদের নিয়ে যেতে চাই, যেন আমাদের দেশে বিনিয়োগ বাড়ে।

তিনি বলেন, জাপানের সঙ্গে আমাদের বিনিয়োগ বাড়ছে। কিন্তু আমরা আরও বিনিয়োগ চাই। আমরা অবশ্যই জাপানে যাব।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী সফর স্থগিত নিয়ে অন্য কোনো চিন্তা-ভাবনা করবেন না। জাপানের সঙ্গে আমাদের গভীর সম্পর্ক। জাপান আমাদের ভালো বন্ধু।
জাপানের রাষ্ট্রদূত সাদাসিধে মানুষ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় নির্বাচন নিয়ে ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাও‌কির সাম্প্রতিক বক্তব্যে নিয়ে ঢাকা উদ্বিগ্ন নয়। তাকে কোনো দুষ্টু লোক ভুল তথ্য দিয়েছি। তিনি সাদাসিধে মানুষ। তিনি বাংলাদেশের ভালো বন্ধু। তাকে বলা হয়েছে, পুলিশ এসে ভোট দিয়েছে। সেই কথা তিনি বলে ফেলেছেন। রাষ্ট্রদূত ভালো মানুষ। এটা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন নই।

উল্লেখ্য, গেলো ৪ নভেম্বর সেন্টার ফর গভর্ন্যান্স স্টাডিজ (সিজিএস) আয়োজিত ‘মিট দ্য অ্যাম্বাসেডর’ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে খোলামেলা মন্তব্য করেন জাপানের রাষ্ট্রদূত।

Advertisement

রাষ্ট্রদূত বলেন, নির্বাচন নিয়ে বৈশ্বিক মতামতের একটা গুরুত্ব আছে। জাপান ২০১৮ সালের নির্বাচনের পরপর উদ্বেগ জানিয়েছিল। আমরা নির্বাচনের আগের রাতে ব্যালট বাক্স ভরে রাখার কথা শুনেছি, যা পৃথিবীর আর কোথাও শুনিনি। আমি আশা করব, এবার তেমন সুযোগ থাকবে না বা এমন ঘটনা ঘটবে না।

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

রাজশাহী

ফুটপাতে বসেই কালাই রুটি খেলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

Published

on

নৌযান

রাজশাহীর বাঘায় ফুটপাতে বসে কালাই রুটি খেয়েছেন রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

গেলো শনিবার (২৬ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের দিঘাবাজারে মান্নান-নেহেরা দম্পতির দোকানে বসে তিনি রুটি খান।

জানা যায়, বাউসা ইউনিয়নের দিঘাবাজারের স্থানীয় বাসিন্দা মান্নান-নেহেরা দম্পতি দীর্ঘদিন ধরে ফুটপাতে বসে কালাই রুটি বিক্রি করেন। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাউসায় একটি রাজনৈতিক কর্মসূচি থেকে ফেরার পথে দিঘাবাজারে ফুটপাতে কালাই রুটির দোকান দেখতে পেয়ে তার দোকানে গিয়ে পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে রুটি খান।

এ বিষয়ে মান্নান-নেহেরা দম্পতি বলেন, কখনো ভাবিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আমার দোকানে বসে রুটি খাবেন। আমার খুব ভালো লেগেছে। তিনি আমার দোকানে বসে রুটি খাবেন কখনো স্বপ্নেও কল্পনা করিনি। তার জন্য দোয়া করি তিনি যেন আরও বড় মানুষ হন।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর রাজনৈতিক এপিএস সিরাজুল ইসলাম বলেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাউসায় একটি রাজনৈতিক প্রোগ্রাম থেকে ফেরার পথে দিঘাবাজারে ফুটপাতে কালাই রুটির দোকান দেখতে পেয়ে তার দোকানে গিয়ে পরিবারের খোঁজখবর নিয়ে রুটি খেয়েছেন।

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

নৌযান নৌযান
জাতীয়2 hours ago

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সঙ্গে বৈঠক শেষে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ সোমবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার3 hours ago

স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করলেন সারিকা

যৌতুকের দাবিতে মারধরের অভিযোগে স্বামী জি এস বদরুদ্দিন আহমেদ রাহীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মডেল, অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা সারিকা সাবরিন। আজ...

নৌযান নৌযান
বাংলাদেশ5 hours ago

ফের পেছালো শিক্ষক নিয়োগের ফল

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল আজ সোমবার (২৮ নভেম্বর) প্রকাশ করার কথা থাকলেও তা পেছানো হয়েছে। আগামী...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার6 hours ago

প্রেমের ফাঁদে নগ্ন ভিডিও করে প্রেমিকের চাঁদা দাবি

নোয়াখালী সদরে প্রেমের ফাঁদে কলেজছাত্রীর (১৮) নগ্ন ভিডিও করে চাঁদা দাবির ঘটনায় প্রেমিকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রোববার (২৭...

নৌযান নৌযান
শিক্ষা7 hours ago

৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় সারা দেশের ২ হাজার ৯৭৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাসের হার শতভাগ। আর ৫০টি...

নৌযান নৌযান
অপরাধ10 hours ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৪০

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও...

নৌযান নৌযান
জাতীয়11 hours ago

‘শান্তিরক্ষা মিশনে নারীরা দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে’

আমাদের দেশের মেয়েরা শান্তিরক্ষা মিশনে বিশাল ভূমিকা পালন করছে। জাতিসংঘ কর্তৃক পরিচালিত বিশ্বব্যাপি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের সেনা, নৌ, বিমান এবং...

নৌযান নৌযান
জাতীয়1 day ago

তৃতীয়বারের মতো সরকারকে ইসির চিঠি

জাতীয় নির্বাচন সংক্রান্ত আইন গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে (আরপিও) সংশোধনী বিলের অগ্রগতি জানতে আবারও সরকারকে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ নিয়ে...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার1 day ago

জঙ্গি ছিনতাইয়ে আত্মসমর্পণের পর রিমান্ডে ঈদী আমিন

ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পুলিশের চোখে স্প্রে করে প্রকাশক দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি ছিনিয়ে নেয়ার...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার1 day ago

স্ত্রী হত্যায় ১৭ বছর পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূ বিবি ফাতেমা আক্তার পলিকে (২২) হত্যার দীর্ঘ ১৭ বছর পর তার স্বামী মঈন উদ্দিনের (৪২) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন...

Advertisement

আর্কাইভ

নৌযান
আওয়ামী লীগ2 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নৌযান
জাতীয়2 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

নৌযান
জাতীয়3 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

নৌযান
বলিউড4 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

নৌযান
জাতীয়4 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

নৌযান
জাতীয়5 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ5 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

নৌযান
বিএনপি5 days ago

‘আদালত থেকে জঙ্গি ছিনতাই সরকারের নতুন নাটক’

নৌযান
শিক্ষা6 days ago

অভিন্ন গ্রেডিং পদ্ধতি মানছে না বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

নৌযান
ফুটবল1 week ago

‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ টি-শার্ট কাতার মাঠে

সর্বাধিক পঠিত