Connect with us

অন্যান্য

জামায়াত নতুন দল করলে ইসির নজরে আসবে: তথ্যমন্ত্রী

Avatar of আসাদ ভূঁইয়া

Published

on

নৌযান

জামায়াতে ইসলামীর লোকজন ভিন্ন খোলসে নতুন দল হিসেবে নিবন্ধনের জন্য আবেদন করলে তা নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নজরে আসবে। বললেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

আজ বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

হাছান মাহমুদ বলেন, নির্বাচন কমিশনে যেকোনো রাজনৈতিক দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করতে পারে। নিবন্ধন দেওয়া বা না দেওয়া নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার। জামায়াতের লোকজন যদি ভিন্ন খোলসে আবেদন করেন, নিশ্চয়ই তা নির্বাচন কমিশনের নজরে আসবে, নির্বাচন কমিশন বিষয়টি দেখবে।

হাছান মাহমুদ আরো বলেন, ‘আমরা চাই বিএনপি সমাবেশ করুক। ঢাকা শহরেও সমাবেশ হচ্ছে। বিএনপি নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করুক, সভা-সমাবেশ করুক, গণতন্ত্রকে সংহত করুক। তবে বিএনপি যেহেতু অতীতে বাস পুড়িয়েছে, ট্রাক পুড়িয়েছে, লঞ্চ পুড়িয়েছে, সেজন্য বাস মালিক-শ্রমিকরা ধর্মঘট ডেকেছেন খুলনায়। বরিশালেও যদি ডাকেন, একই কারণে ডাকবেন। রংপুরের কথা আমি জানি না। সেখানেও যদি সেরকম হয়, সেটি বাস শ্রমিক-মালিকদের বিষয়। তারা তো ইন্ডিপেন্ডেন্ট (স্বাধীন) বডি, পেশাজীবীদের সংগঠন বা মালিকদের সংগঠন।’

মন্ত্রী,‘বাস শ্রমিকদের যে সংগঠন, সেখানে বিএনপি নেতারা আছেন, মালিকদের যে সংগঠন, সেখানেও বিএনপি-জাতীয় পার্টির সবাই আছেন। বিএনপি নেতারাসহ সবাই মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ধর্মঘট করার। কারণ তাদের বাস যদি আবার পুড়ে যায়, মানুষকে যদি আবার পুড়িয়ে দেওয়া হয়! সেখানে (ধর্মঘট) আমাদের করার কী আছে?’

Advertisement

অন্যান্য

মুক্তিযুদ্ধবিরোধীদের নিবন্ধন না দিতে সিইসিকে স্মারকলিপি

Avatar of বিপ্লব আহসান

Published

on

নৌযান

জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট পার্টিসহ অন্যান্য মুক্তিযুদ্ধবিরোধীদের নিবন্ধন না দেয়ার জন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে স্মারকলিপি দিয়েছে মুক্তিযুদ্ধে শহীদ সন্তানদের সংগঠন ‌প্রজন্ম ’৭১।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালের কাছে এ সংক্রান্ত একটি স্মারকলিপি দেয় সংগঠনটি।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী ৩০ লাখ শহীদ পরিবারের পক্ষ থেকে আমরা আপনাকে এই স্মারকলিপি দিতে এসেছি। আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শিক কিছু সংকট আমাদের নজরে পড়েছে, আর তাই আমরা আজ নির্বাচন কমিশনে এসেছি। আমরা উদ্বেগের সঙ্গে সম্প্রতি বিভিন্ন গণ মাধ্যমে লক্ষ্য করছি যে, আসন্ন সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রায় একশ নতুন রাজনৈতিক দল নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধনের আবেদন করেছে। তার মধ্যে বিশেষ করে বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট পার্টি (বিডিপি) নামে সদ্য প্রকাশিত রাজনৈতিক দল সম্পর্কে ইতোমধ্যেই একাধিক বিশ্বস্ত সংবাদ মাধ্যম বলছে, এই দলের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর যোগসূত্র আছে।

আমাদের প্রাণপ্রিয় মাতৃভূমিকে মুক্ত করতে যে মহাত্মারা ১৯৭১ সালে তাদের জীবনের শ্রেষ্ঠতম সম্পদ জীবনখানাই সমর্পণ করেছিলেন– আমরা তাদেরই সন্তান। আমরা মনে-প্রাণে বিশ্বাস করি শহীদের রক্তে ভেজা এই বাংলাদেশ প্রকৃতপক্ষে এক বিশাল বধ্যভূমি। তাদের শোণিতধারায় এদেশের মাটি পবিত্র হয়েছে। অথচ অবিশ্বাস্য হলেও সত্য এই পবিত্র মাটিতেই ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যার সময় থেকে আমরা দেখেছি আমাদের আপন স্বজনের হন্তারকদের উত্থানের ভয়ানক অধ্যায়। দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের হত্যা পরিকল্পনা এবং বাস্তবায়নের সঙ্গে জড়িতরা দেশের মন্ত্রী হয়েছে, সংসদ সদস্য হয়েছে, রাষ্ট্রের অনেক দায়িত্বশীল পদ কলঙ্কিত করেছে।

প্রজন্ম ’৭১ এর কার্যক্রম বিস্তারিত তুলে ধরে উল্লেখ করা হয়, আমরা জানি যে, বাংলাদেশের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক গঠনতন্ত্রের কারণে ২০১৩ সালে জামাতে ইসলামী নিবন্ধন বাতিল করেন হাইকোর্ট। নিবন্ধন হারিয়ে নির্বাচনে অযোগ্য জামায়াতে ইসলামীর সংশ্লিষ্ট একটি অংশ শুধু ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট পার্টি’ নয়, জামায়াত থেকে বেরিয়ে আসা আরেকটি অংশ ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি’ নামে দল গঠন করে নিবন্ধনের আবেদন করে রেখেছে নির্বাচন কমিশনে। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে যেভাবেই হোক প্রকাশ্য রাজনীতিতে নামার দুরভিসন্ধি নিয়ে জামায়াত ভিন্ন নামে নিবন্ধন করার এই উদ্যোগ নিয়েছে- সে বিষয়টি ইতোমধ্যে দায়িত্বশীল একাধিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত।

Advertisement

আমরা উদ্বেগের সঙ্গে জেনেছি যে, উচ্চ আদালতের রায়ে নিবন্ধন বাতিল হওয়া জামায়াত ইসলামের নেতৃত্বে থাকা ব্যক্তিদের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে বিডিপি– এমন অভিযোগের কথা বলা হলে নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আলমগীর সাংবাদিকদের জানিয়েছে যে, শর্ত পূরণ করে ভিন্ন নামে জামায়াত নির্বাচন কমিশনের নিবন্ধন পেতেই পারে। তিনি সংবাদ মাধ্যমকে আরও বলেছেন, জামায়াতের কেউ যদি যুদ্ধাপরাধী না হয় এবং তাদের গঠনতন্ত্র যদি সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক না হয় তাহলে শর্ত পূরণ করে ভিন্ন নামে তাদের নিবন্ধন পেতে কোনো বাধা নেই। অথচ মাত্র দুমাস আগে ২৯ আগস্ট নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ আলমগীর বলেছিলেন, যুদ্ধাপরাধীর দায়ে অভিযুক্ত রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামের নিবন্ধন আদালতের আদেশে বাতিল হয়েছে তাই দলের ব্যক্তিরা ভিন্ন নামে আবেদন করলেও নিবন্ধন পাওয়ার সুযোগ নেই। তবে আদালত কোনো আদেশ দিলে ভিন্ন কথা। নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ আলমগীরের সাংবাদিকদের দেওয়া বিভিন্ন বক্তব্যের বৈপরীত্য আমাদের স্বাভাবিকভাবেই চিন্তিত ও শঙ্কিত করছে।

শাহরুখ লিপিকার উল্লেখ করা হয়, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতা করায় বঙ্গবন্ধুর শাসনামলে জামায়াতে ইসলামসহ ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধ ঘোষিত ছিল। কিন্তু ১৯৭৫ সালের পরে জামায়াতের নেতা মাওলানা আব্দুর রহিমের নেতৃত্বে ইসলামিক ডেমোক্রেটিক লীগ নামে আত্মপ্রকাশ করে ১৯৭৯ সালের নির্বাচনে মুসলিম লীগের সঙ্গে জোট গঠন করে এবং ছয়টি আসন জয়লাভ করে। পরে দেশের পরিস্থিতি আরও তাদের অনুকূলে গেলে একাত্তরের চিহ্নিত শীর্ষ যুদ্ধাপরাধী গোলাম আযমকে নেপথ্যে রেখে আব্বাস আলী খানকে ভারপ্রাপ্ত আমির করে নিজ নামে (জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ) নির্বাচনে ফিরে আসে জামায়াত। তাই এবারেও আগত নির্বাচনে অংশ নিতে জামায়াতের নেতারা কৌশলের আশ্রয় নিয়ে আবারও রাজনীতিতে ফিরে আসার পাঁয়তারা করছে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

এই পর্যায়ে আমরা আপনাকে বিনয়ের সঙ্গে স্মরণ করিয়ে দিতে চাই- ১৯৭১ সালে জামায়াতে ইসলামী এবং এর ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র সংঘ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর জেনোসাইড সংঘটনে শুধু সহায়তাই করেনি, সজ্ঞানে জেনোসাইডের মতো আন্তর্জাতিক অপরাধের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিল। বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পরে জামায়াতের ছাত্র সংগঠন নাম পরিবর্তন করে ইসলামী ছাত্র শিবির হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে এবং ঘৃণা, গুম, হত্যাসহ তাদের চরম সাম্প্রদায়িক নৃশংসতাভিত্তিক রাজনীতির চর্চা অব্যাহত রাখে।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের সন্তানদের সংগঠন প্রজন্ম ’৭১ মনে করে – আজ নির্বাচন কমিশনকে দেশ মাতৃকার প্রশ্নে কঠিন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হবে। আমরা মনে করি নির্বাচন কমিশনের এই সংক্রান্ত সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করছে আমাদের প্রাণপ্রিয় বাংলাদেশে স্বাধীনতাবিরোধী, যুদ্ধাপরাধী ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধকারীদের রাজনৈতিক দর্শন পুনঃপ্রতিষ্ঠার ক্ষেত্র আরও বিস্তৃত হবে, নাকি শহীদের রক্তে অর্জিত বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সমাজ গড়ে তোলার প্রশ্নটি গুরুত্ব পাবে, অব্যাহত থাকবে। মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতাবিরোধী ভূমিকা পালনকারী যেকোনো ব্যক্তি ও তাদের সমর্থক ব্যক্তি বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার অধিকার রহিত করা নির্বাচন কমিশনের অবশ্য কর্তব্য বলে আমরা শহীদদের উত্তরসূরিরা মনে করি। সর্বশেষে আমরা বলতে চাই, সাধুবেশী ধর্ম ব্যবসায়ীর দল একাত্তরে যে আন্তর্জাতিক অপরাধ করেছে- স্বাধীন বাংলাদেশ সেই একই ভাবাদর্শে বিশ্বাসী নব্য স্বাধীনতাবিরোধীদের, এমন কি যারা অনেকেই একাত্তরের পরে জন্মগ্রহণ করেছে, তাদের প্রেত-নৃত্য দেখেছে এবং দেখছে।

আমরা মনে করি, গণতন্ত্রের দোহাই দিয়ে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় দেশবিরোধী শক্তিকে বৈধতা দানের যে অপচেষ্টা চালাচ্ছে নানা দৃশ্যমান ও অদৃশ্য সংগঠন এবং ব্যক্তিবর্গ– তার অবসান হওয়া জরুরি। তাই বিডিপিকে ঘিরে জামায়াত সংশ্লিষ্টতার, জামায়াত নেতাদের নেয়া সিদ্ধান্তের ফসল বিডিপি ইত্যাদি সম্পর্কে প্রচারিত তথ্য গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে যথাযথ তদন্ত করার জন্য আমরা আপনাকে সবিনয় অনুরোধ করছি। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, এই সব দেশবিরোধী শক্তি শাখায়-প্রশাখায় যেন আর বাড়তে না পারে সেবিষয়ে আপনি যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

অপরাধ

জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ‘জামায়াতের আমিরে ছেলে’ গ্রেপ্তার

Avatar of জাকির হোসাইন

Published

on

নৌযান

জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ততার অভিযোগে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশের বর্তমান আমির ডা. মো. শফিকুর রহমানের ছেলে ডা. রাফাত চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করেছে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের (সিটিটিসি) বোম ডিসপোজাল ইউনিট।

আজ বুধবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে সিলেট থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সিটিটিসির দাবি, গ্রেপ্তার ডা. রাফাত সাদিক সাইফুল্লাহ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সিলেট অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়কের ভূমিকা পালন করছিল।

সিটিটিসি জানায়, ২০২১ সালে আরাকানে রোহিঙ্গাদের পক্ষে জিহাদের জন্য রাখাইনের সশস্ত্র সংগঠন ‘আরসা’ ও ‘আরএসও’ উভয় সংগঠনের সঙ্গে যোগাযোগ করে তিনি হিজরত (একটি উদ্দেশ্য নিয়ে এক স্থান থেকে আরেক স্থানে গমন) করেন। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্ত ‘আরএসও’ নেতাদের সঙ্গেও বৈঠক করেন ডা. রাফাত।

সিটিটিসি প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, গেলো ১ নভেম্বর রাজধানীর সায়েদাবাদ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের তিন সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা প্রত্যেকেই উগ্রবাদী জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলাম সিলেট অঞ্চলের প্রধান সমন্বয়ক ডা. রাফাত চৌধুরীর মাধ্যমে দাওয়াতপ্রাপ্ত হন।

Advertisement

 

পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

অন্যান্য

ইভিএমের চেয়ে বড় সমস্যা নির্বাচন কমিশন : বদিউল আলম মজুমদার

Avatar of মেঘ হাসান

Published

on

নৌযান

ইভিএমের চেয়ে বড় সমস্যা নির্বাচন কমিশন নিয়ে। নির্বাচন কমিশনের ওপর মানুষের আস্থা নেই। সুতরাং তাদেরকে যদি ইভিএম দেয়া হয় তাহলে সেটা আমাদের আরও বড় সংকটের দিকে ঠেলে দেবে। ইভিএম এমন একটা দুর্বল যন্ত্র যে এটা দিয়ে স্যুট-কোট-টাই পরে ভদ্রলোকরা জালিয়াতি করতে পারে। বললেন সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার।

আজ শুক্রবার (৪ নভেম্বর) বিকেলে রংপুর নগরীর আরডিআরএস বেগম রোকেয়া মিলনায়তনে নাগরিক সংলাপে যোগ দিতে গিয়ে গণমাধ্যমকে তিনি এসব কথা বলেন।

বদিউল আলম বলেন, নির্বাচন কমিশন বলছে যে ইভিএম দিয়ে জালিয়াতি করা যায় এটা কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। আমরা কমিশনকে বারবার বলছি, কেউ কিন্তু অভিযোগ করেনি যে বাইরের কেউ ইভিএমে জালিয়াতি করতে পারে। যদিও নির্বাচন কমিশনের যোগসাজশে তা অসম্ভব। আমরা বলছি যে, ইভিএম এমন একটা দুর্বল যন্ত্র, নিকৃষ্ট যন্ত্র।

তিনি বলেন, এটা দিয়ে জালিয়াতি করতে পারে মূলত নির্বাচন কমিশন, তাদের কর্মকর্তা, তাদের কারিগরি টিম এবং নির্বাচন কেন্দ্রে বা বুথে দায়িত্বে থাকা প্রিসাইডিং অফিসাররা। ইভিএমের বড় আরেক দুর্বলতা হলো, ভোট হয় ইলেকট্রিক্যাল আর ফলাফল তৈরি হয় ম্যানুয়ালি। এখানে অনেক সুযোগ আছে কারসাজির।

তিনি আরও বলেন, আমরা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পক্ষে। আমরা এমন একটা আইনি কাঠামো চাই। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিলের মাধ্যমে আমাদের আইনকে অস্ত্রে পরিণত করা হয়েছে। আমাদের সংবিধানকে অস্ত্রে পরিণত করা হয়েছে।

Advertisement
পুরো প্রতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

নৌযান নৌযান
জাতীয়54 mins ago

নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ানের সঙ্গে বৈঠক শেষে নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার করা হয়েছে। আজ সোমবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার2 hours ago

স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করলেন সারিকা

যৌতুকের দাবিতে মারধরের অভিযোগে স্বামী জি এস বদরুদ্দিন আহমেদ রাহীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন মডেল, অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা সারিকা সাবরিন। আজ...

নৌযান নৌযান
বাংলাদেশ4 hours ago

ফের পেছালো শিক্ষক নিয়োগের ফল

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল আজ সোমবার (২৮ নভেম্বর) প্রকাশ করার কথা থাকলেও তা পেছানো হয়েছে। আগামী...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার4 hours ago

প্রেমের ফাঁদে নগ্ন ভিডিও করে প্রেমিকের চাঁদা দাবি

নোয়াখালী সদরে প্রেমের ফাঁদে কলেজছাত্রীর (১৮) নগ্ন ভিডিও করে চাঁদা দাবির ঘটনায় প্রেমিকসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আজ রোববার (২৭...

নৌযান নৌযান
শিক্ষা6 hours ago

৫০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কেউ পাস করেনি

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় সারা দেশের ২ হাজার ৯৭৫টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাসের হার শতভাগ। আর ৫০টি...

নৌযান নৌযান
অপরাধ9 hours ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৪০

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও...

নৌযান নৌযান
জাতীয়10 hours ago

‘শান্তিরক্ষা মিশনে নারীরা দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে’

আমাদের দেশের মেয়েরা শান্তিরক্ষা মিশনে বিশাল ভূমিকা পালন করছে। জাতিসংঘ কর্তৃক পরিচালিত বিশ্বব্যাপি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের সেনা, নৌ, বিমান এবং...

নৌযান নৌযান
জাতীয়1 day ago

তৃতীয়বারের মতো সরকারকে ইসির চিঠি

জাতীয় নির্বাচন সংক্রান্ত আইন গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে (আরপিও) সংশোধনী বিলের অগ্রগতি জানতে আবারও সরকারকে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ নিয়ে...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার1 day ago

জঙ্গি ছিনতাইয়ে আত্মসমর্পণের পর রিমান্ডে ঈদী আমিন

ঢাকার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণ থেকে পুলিশের চোখে স্প্রে করে প্রকাশক দীপন হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি ছিনিয়ে নেয়ার...

নৌযান নৌযান
আইন-বিচার1 day ago

স্ত্রী হত্যায় ১৭ বছর পর স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূ বিবি ফাতেমা আক্তার পলিকে (২২) হত্যার দীর্ঘ ১৭ বছর পর তার স্বামী মঈন উদ্দিনের (৪২) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন...

Advertisement

আর্কাইভ

নৌযান
আওয়ামী লীগ2 days ago

বিএনপির সম্মেলন নিয়ে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নৌযান
জাতীয়2 days ago

খেতে খেতে চীনের প্রধানমন্ত্রীকে টানেলের প্রস্তাবটা দেই: প্রধানমন্ত্রী

নৌযান
জাতীয়3 days ago

ময়দার বস্তায় আটা বিক্রি

নৌযান
বলিউড4 days ago

উরফি এবার মদের গ্লাস দিয়ে শরীর ঢাকলেন

নৌযান
জাতীয়4 days ago

‘রাজনীতি করতে চাই না, রাজনীতিবীদদের সহযোগিতা চাই’

নৌযান
জাতীয়5 days ago

বিশ্বকাপে আমাদের টিম নেই এটা আসলে কষ্ট দেয় : প্রধানমন্ত্রী

হত্যা
অপরাধ5 days ago

প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে নানাকে হত্যা

নৌযান
বিএনপি5 days ago

‘আদালত থেকে জঙ্গি ছিনতাই সরকারের নতুন নাটক’

নৌযান
শিক্ষা6 days ago

অভিন্ন গ্রেডিং পদ্ধতি মানছে না বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়

নৌযান
ফুটবল1 week ago

‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ টি-শার্ট কাতার মাঠে

সর্বাধিক পঠিত