ঢাকা , ১৮ ২০১৯ ,

মশা নিধনে ডিএনসিসি’র বরাদ্দ ৪৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা

বায়ান্ন অনলাইন রিপোর্ট | ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৯:২৭ অপরাহ্ন | আপডেট : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৯:৫৭ পূর্বাহ্ণ
feature-top

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে মশা নিধনের জন্য ৪৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। গত অর্থ বছরের তুলনায় প্রস্তাবিত বাজেটে এই বরাদ্দের পরিমাণ প্রায় তিন গুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের বাজেটে এখাতে সাড়ে ১৭ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে নগর ভবনে সংবাদ সম্মেলনে ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বাজেট ঘোষণায় এই তথ্য জানান।

উল্লেখ্য, ডিএনসিসি ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য ৩ হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করেছে।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, বিগত যেকোন অর্থবছরের তুলনায় মশক নিধন কার্যক্রমে সর্বোচ্চ বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এবারের বাজেটে এই খাতে ৪৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

মৌলিক নাগরিক সেবা খাতসমূহের ২০১৮-১৯ অর্থ বছরের সংশোধিত বরাদ্দের সাথে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বরাদ্দের তুলনামূলক চিত্রে দেখা যায়, মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে এবার বরাদ্দ বৃদ্ধির হার ১৮২ শতাংশ।’

তিনি বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের বাজেটে মশক ঔষধ কেনার জন্য ৩০ কোটি টাকা, কচুরিপানা বা আগাছা পরিষ্কার ও পরিচর্যা কাজে আড়াই কোটি টাকা, ফগার বা হুইল বা স্প্রে মেশিন পরিবহনের জন্য ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা, মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমে বিশেষ কর্মসূচির জন্য এক কোটি টাকা এবং আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের জন্য ১২ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

আতিক বলেন, মশক নিয়ন্ত্রণে বিশেষজ্ঞ পরামর্শের আলোকে ইতোমধ্যে অধিকতর কার্যকর মশার কীটনাশক প্রয়োগ শুরু করা হয়েছে। মশক নিধনে কীটনাশক প্রয়োগ কার্যক্রম মনিটরিং করার লক্ষ্যে আধুনিক ট্রাকিং পদ্ধতি অবলম্বন করা হচ্ছে। মশক নিধন কার্যক্রম সারা বছর চলমান থাকবে। প্রয়োজনে এখাতে বরাদ্দ বাড়াবে সিটি করপোরেশন।

মেয়র আরও বলেন, ডেঙ্গু প্রতিরোধে এখন সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেক চলমান চিরুনি অভিযান শেষ পর্যায়ে রয়েছে।

জেএইচ

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top