ঢাকা , ১৬ ২০১৯ ,

আবরার হত্যার স্বচ্ছ তদন্ত ও বিচার চায় জাতিসংঘ

বায়ান্ন অনলাইন রিপোর্ট | ৯ অক্টোবর, ২০১৯ ৩:০৬ অপরাহ্ন | আপডেট : ৯ অক্টোবর, ২০১৯ ৩:০৬ অপরাহ্ন
feature-top

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি জানিয়েছে জাতিসংঘ। 

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরারের হত্যা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পো। তিনি এ ঘটনার  সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি জানিয়েছেন। 

তিনি আজ বুধবার ‘ডিকাব টক’ অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের এ প্রতিক্রিয়া জানান।

জাতিসংঘ আবাসিক প্রতিনিধি আরো বলেন, আমার প্রতিক্রিয়া হচ্ছে—এটি একটি আতঙ্কজনক ঘটনা। আমার দুই সন্তান বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ে। এধরনের ঘটনা ক্যাম্পাসে কীভাবে ঘটে, সেটি চিন্তা করাও একটি আতঙ্কের বিষয়। আমরা একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছি, যেন এ ঘটনার দ্রুত ও স্বচ্ছ তদন্ত হয়। বিবৃতিতে আমরা আহ্বান জানিয়েছি—এই হত্যাকাণ্ডের যেন বিচার হয় এবং শাস্তি না হওয়ার যে প্রবণতা রয়েছে, সেটিও যেন বন্ধ হয়। এধরনের সহিংস ঘটনা বন্ধ করার জন্যও আমরা আহ্বান জানাচ্ছি।

মিয়া সেপ্পো বলেন, বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সহিংসতার যে প্যাটার্ন রয়েছে, সেটি বন্ধ করার জন্য আমরা আহ্বান জানাই। কারণ, এটি উদ্বেগজনক। বাবা-মায়েরা যেন নিশ্চিত থাকতে পারেন ক্যাম্পাসে তাদের সন্তানরা নিরাপদে আছে।  প্রকাশ্য স্থানে জনগণ বিশেষ করে কিশোরী, নারী, তরুণ, পুরুষসহ সবাই যাতে নিরাপদে থাকতে পারে, তা নিশ্চিত থাকতে হবে।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে জনগণের মনে ক্ষোভ আছে। আমি প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি দেখেছি। এধরনের প্রতিক্রিয়া থাকতে হবে যাতে করে এমন ঘটনা আর না ঘটে। তিনি মনে করেন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন যেন এ বিষয়টি তদন্ত করে। এবং এ বিষয়ে তাদের সক্ষমতা কতটুকু, সেটা তারা জানতে পারে।

ঢাকায় জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারীর দপ্তর থেকে বুধবার দুপুরে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অবাধ মতপ্রকাশের অভিযোগে বুয়েটের এক তরুণ শিক্ষার্থী হত্যার ঘটনায় জাতিসংঘ নিন্দা জানাচ্ছে। বছরের পর বছর ধরে অভিযুক্তদের বিচার না করায় বাংলাদেশের ক্যাম্পাসগুলোতে সহিংসতায় অনেকেই প্রাণ দিয়েছেন। জাতিসংঘের বাংলাদেশ দপ্তর লক্ষ করছে অভিযুক্তদের ধরার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিয়েছে। এর ফলে স্বাধীন তদন্তকারীরা একটি স্বচ্ছ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে স্বচ্ছ বিচারের পথে যাবেন, যা ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সহায়ক হবে।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ডিক্যাবের সভাপতি রাহীদ এজাজ। তাকে সহায়তা করেন ডিক্যাবের সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাফিজ।

মিথুন

feature-top
feature-top

আরও খবর »

feature-top