Connect with us

ক্যাম্পাস

ভাঙছে ২ কোটি টাকার রাস্তা: সংস্কারের উদ্যোগ নেই প্রশাসনের

Avatar of author

Published

on

প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) অভ্যন্তরীণ সড়কে ফাঁটল দেখা দিয়েছে। ফলে কাজের মান এবং সচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যরা। তবে সড়কের এমন বেহাল অবস্থায় ভ্রুক্ষেপহীন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদিকে অভ্যন্তরীণ রাস্তাগুলোর নিয়মিত তদারকির অভাব, নিয়ম ভঙ্গ করে অতিরিক্ত ওজনের ট্রাক প্রবেশসহ রাস্তার জন্য যে শিডিউল করা হয়েছিল, সে মোতাবেক দায়িত্বরত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজ করেনি বলে অভিযোগ সংশ্লিষ্টদের। তারা নিজের মতো করে কাজ করেছেন, এতে রড- সিমেন্টের আস্তরণ ক্ষয় হয়ে রাস্তার বিভিন্ন স্থানে উঁচু-নিচু তৈরি হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তারা।

সম্প্রতি সড়কটির অন্তত ৩০ টি স্থানে ছোট বড় ফাঁটল দেখা যায়। এরমধ্যে ক্ষয় ও ফাঁটলের বিরাট একটা অংশ রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ার সামনে। এ ছাড়া মুক্তমঞ্চ, কেন্দ্রীয় মসজিদ, শহীদ মিনারসহ বিভিন্ন স্থানে এ ফাটল দেখা দিয়েছে। এর আগেও এসব ফাঁটল স্থানে সংস্কার করে কর্তৃপক্ষ । তবে সেটি তেমন সুফল বয়ে আনেনি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটক হতে প্রশাসনিক ভবন, গ্যারেজের সড়ক, গোল চত্বর পর্যন্ত সড়কে ৭ ইঞ্চি করে ঢালাই, গোল চত্বর হতে ক্যাফেটেরিয়া পর্যন্ত সড়কে ৬ ইঞ্চি করে ঢালাই এবং অবশিষ্ট শহীদ মিনার পর্যন্ত সড়কে ৫ ইঞ্চি ঢালাইয়ের মাধ্যমে ৮২৭ দশমিক ৪৬ কিউবিক মিটার আরসিসি সড়ক নির্মাণ, ৩টি কালভার্ট, আরসিসি ও ব্রিকস ড্রেন, পূর্বের পরিবহন মাঠের পাশে বসার সিঁড়ি, সড়কের নীচে পাইপ স্থাপন এবং রাস্তার সাপোর্টিং গার্ডওয়াল নির্মাণের জন্য মোহাম্মদ ইউনুস এন্ড ব্রাদার্স (প্রা.) লিমিটেড নামক একটি কোম্পানীকে ১ কোটি ৯৪ লাখ ৭৮ হাজার ৭৭৬ টাকার কার্যাদেশ দেয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্য বর্ধনের যে সড়কটি নির্মাণের এত সল্প সময়ের মধ্যে ফাঁটল দেখা দেয়ায় কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

Advertisement

এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের  কয়েকজন শিক্ষক-শিক্ষার্থী-কর্মকর্তা অভিযোগ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার কারণে আজকে সড়কের এই বেহালদশা। এছাড়া যথাযথ পরিকল্পনা না করে, নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। যার কারণে এত তাড়াতাড়ি সড়কটির বিভিন্ন স্থানে ফাঁটল সৃষ্টি হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়ার এস. এম. শহীদুল হাসান বলেন, আমরা এ বিষয়টা নিয়ে ঈদের আগে ফাইল জমা দিয়েছি। আমরা বাজেট বরাদ্দ ফেলে কাজ করতে পারবো। যদি কর্তৃপক্ষ মনে করে এসব সংস্কারের কাজ গুলো করা গুরুত্বপূর্ণ তাহলে বরাদ্দ ফেলে কাজ শুরু করা যাবে।

এত অল্প সময়ের মধ্যে রাস্তার এমন অবস্থা কেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আসলে আমাদের ব্যবহারের একটি মাত্র রাস্তা। এই রাস্তাটির কাজ শেষ হওয়ার সাথে সাথে ইট, বালি ও রড ভর্তি ট্রাক ঢুকে আরও বেশি বেহাল অবস্থা হয়ে গেছে।

বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এফ এম আবদুল মঈনের সাথে কথা বলতে দপ্তরে গেলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

 

Advertisement

 

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

শিক্ষা

এইচএসসির আরও চার পরীক্ষা স্থগিত

Published

on

এইচএসসি-পরীক্ষা

চলমান এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষায় আগামী সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া আরও চার পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। পরীক্ষাগুলো আগামী ২৮, ২৯, ৩১ জুলাই ও ১ আগস্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। এ নিয়ে চলমান এইচএসসি পরীক্ষার ৮টি পরীক্ষা স্থগিত করা হলো।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) দুপুরে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দেশের উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পরীক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।  স্থগিত হওয়া সব পরীক্ষা আগামী ১১ আগস্টের পর অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সহিংস ঘটনায়  শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিবেচনায় প্রথমে ১৮ জুলাইয়ের, পরে ২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত করে আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় কমিটি।

আই/এ

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

শিক্ষা

স্থগিত হওয়া এইচএসসি পরীক্ষা ১১ আগস্টের পরে

Published

on

এইচএসসি-পরীক্ষা

কোটা আন্দোলনকে ঘিরে দেশের চলমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা বিবেচনায় ২০২৪ সালের এইচএসসি ও সমমানের চার দিনের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত হওয়া পরীক্ষাগুলো আগামী ১১ আগস্টের পর থেকে নতুন সময়সূচিতে অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) সকালে এ তথ্য জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

তিনি বলেন, ৯টি সাধারণ এবং মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে চলমান এইচএসসি ও সমমানের স্থগিত হওয়া সব পরীক্ষা ১১ আগস্টের পর অনুষ্ঠিত হবে।

আর কোনো পরীক্ষা স্থগিত হতে পারে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখনও নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। কোনো সিদ্ধান্ত হলে সেটা আজ জানানো হবে।’

ঢাকা বোর্ড সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৮ জুলাই থেকে যথারীতি সূচি অনুযায়ী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সূচি অনুযায়ী ১১ আগস্ট এইচএসসির তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা ছিল।

Advertisement

 

এসি//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

শিক্ষা

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ প্রাথমিক বিদ্যালয়

Published

on

প্রাথমিকে-টিফিন

কোটা সহিংসকতা ঘিরে চলা সহিংসতার জেরে বন্ধ রয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। কার্যত অচল হয়ে যাওয়া জনজীবন আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। এ অবস্থায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বুধবার (২৪ জুলাই) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন থাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান) এবং পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটগুলোর কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধের ঘোষণা দিয়েছেলো শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত