Connect with us

আইন-বিচার

ড. ইউনূসের প্যানেল আইনজীবীকে মোবাইলে হত্যার হুমকি

Avatar of author

Published

on

ড. ইউনুসের আইনজীবী

ড. ইউনূসের আইনজীবী প্যানেলের সদস্য ব্যারিস্টার খাজা তানভীর আহমেদকে মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকির অভিযোগে একটি জিডি দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ জুন) রাতে মোহাম্মদপুর থানায় তিনি নিজেই জিডিটি দায়ের করেন।

জিডিতে বলা হয়, একটি অপরিচিত নাম্বার থেকে রাত ৮টা ৩০ মিনিটে ব্যারিস্টার খাজা তানভীর আহমেদের ব্যক্তিগত নাম্বারে একটি মিসড কল আসে। পরে তিনি কল ব্যাক করলে অপর প্রান্তের যুবক তার সঙ্গে দেখা করবে বলে চেম্বারের ঠিকানা চান। কে বলছেন, পরিচয় জানতে চাইলে সে বলে, ব্যারিস্টার রুবেল বলছেন?

আমার ডাক নাম ব্যারিস্টার রুবেল উল্লেখ করে জিডিতে তিনি আরও বলেন, আমি বলি জি বলছি। সে আমাকে বলে “পারিবারিক মামলার বিষয়ে কথা বলব” এ কথা বলে সে বলতে থাকে “শুয়োরের বাচ্চা তোকে মেরে ফেলব, তুই বেশি বাড়াবাড়ি করছিস, কুত্তার বাচ্চা……. মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আমার মাকে নিয়ে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। আমি কল রেকর্ডিং এর জন্য যখন আমার মোবাইলে বাটন প্রেস করি তখনি সে লাইন কেটে দেয়। ঘটনার আকস্মিকতায় আমি ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে যাই এবং জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে থাকি।

পরবর্তীতে অনেকবার তাকে ফোন করা হলেও মোবাইল ফোন নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায় বলে জানান ব্যারিস্টার খাজা তানভীর আহমেদ।

শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে শান্তিতে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ও গ্রামীণ টেলিকমের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ ইউনূসের আইনজীবী প্যানেলের একজন সদস্য ব্যারিস্টার খাজা তানভীর আহমেদ।

Advertisement

এদিকে গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ ইউনূস পাঁচ বছরে প্রায় ১২শ’ কোটি টাকা কর ফাঁকি ও ইনকাম ট্যাক্স সংক্রান্ত ১৩ মামলার শুনানি করতে নতুন বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। বিচারপতি খুরশীদ আলম সরকারের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে এটির শুনানি হবে।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

আইন-বিচার

আবেদন খারিজ, ড. ইউনূসের বিরুদ্ধে মামলা চলবে

Published

on

গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের লভ্যাংশ আত্মসাতের মামলায় অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বুধবার (২৪ জুলাই) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকতার ও বিচারপতি কাজী ইবাদত হোসেনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এসময়ে হাইকোর্ট এ মামলা এক বছরের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি করতে বিচারিক আদালতকে নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গেলো ১২ জুন গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের লভ্যাংশ আত্মসাতের মামলায় প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

গ্রামীণ টেলিকমের শ্রমিক-কর্মচারীদের লভ্যাংশ আত্মসাতের মামলায় অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস। আবেদনে অভিযোগ গঠনের আদেশ বাতিল চাওয়া হয়।

Advertisement

উল্লেখ্য, আদালতে ড. ইউনূসের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মামুন। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আইন-বিচার

রোববার কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের শুনানি, বিশেষ চেম্বার আদালতের আদেশ

Published

on

হাইকোর্টে

কোটা নিয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে আগামী রোববার শুনানি হবে ।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সন্ধ্যায় বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের বিশেষ চেম্বার জজ আদালত শুনানির জন্য এদিন ধার্য করেন।

এর আগে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন জানান, কোটা বাতিল চেয়ে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানি করতে সরকারের পক্ষ থেকে তাকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রপক্ষ রোববার সকালেই আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানির জন্য আবেদন করবে।  জনগুরুত্ব বিবেচনায় আদালত আবেদন গ্রহণ করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষ হাইকোর্টের রায় বাতিল চাইবে।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আইন-বিচার

রোববার সকালেই আপিল বিভাগে দ্রুত শুনানির মেনশন করবো : অ্যাটর্নি জেনারেল

Published

on

অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন

কোটা বাতিল চেয়ে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানি করতে সরকারের পক্ষ থেকে আমাকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আমরা রোববার সকালেই আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানির জন্য মেনশন করব। আশা করছি জনগুরুত্ব বিবেচনায় আদালত আমাদের আবেদন গ্রহণ করবেন। শুনানিতে আমরা হাইকোর্টের রায় বাতিল চাইব। বললেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।
আজ বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সুপ্রিম কোর্টে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।
এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিলের পরিপত্র অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল দায়ের করেছে দুই শিক্ষার্থী। আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় দুই শিক্ষার্থীর পক্ষে অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক লিভ টু আপিল দায়ের করেন।
দুই শিক্ষার্থী হলেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আল সাদী ভূঁইয়া ও উর্দু বিভাগের শিক্ষার্থী আহনাফ সাঈদ খান।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত