Connect with us

ঢাকা

জয়দেবপুরে ট্রেন লাইনচ্যুত

Avatar of author

Published

on

ট্রেনের ইঞ্জিন লাইনচ্যুত

ঢাকা-ময়মনসিংহ রেলপথের জয়দেবপুর স্টেশনে তুরাগ কমিউটার ট্রেন লাইনচ্যুত হয়েছে।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে জয়দেবপুর স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

স্টেশন মাস্টার হানিফ আলী বলেন, ট্রেনটি ঢাকায় যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। লাইনম্যান সিগন্যাল দেয়ার আগেই চালক ট্রেন চালাতে শুরু করেন। এতে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়।

তিনি বলেন, ট্রেনের গতি খুবই কম ছিল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই হঠাৎ ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়ে পড়ে।

জয়দেবপুর জংশনের ধীরাশ্রম এলাকা থেকে ট্রেন ঘুরে জংশনে আসার কথা ছিল। ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক আছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

Advertisement

 

Advertisement

ঢাকা

রাজধানীতে বৃষ্টির সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই নারীসহ নিহত ৪

Published

on

বৃষ্টি, জলাবদ্ধতা

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে দেশের অন্যান্য জেলার মতো রাজধানী ঢাকাতে ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। বৃষ্টির মধ্যে পৃথক তিন স্থানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার (২৭ মে) সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে ৯টার মধ্যে খিলগাঁও, যাত্রাবাড়ী, রামপুরা ও বাড্ডা থানা এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- খিলগাঁও রিয়াজবাগ এলাকার রিকশার গ্যারেজে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া রাকিব (২৫), খিলগাঁও সিপাহীবাগে রাস্তায় জমে থাকা পানির মধ্যে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া মরিয়ম বেগম (৪৫), যাত্রাবাড়ীতে টিনের প্রাচীর স্পর্শ করে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়া লিজা আক্তার (১৬) ও অন্যজন বাড্ডার বাসিন্দা। তার নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সোমবার (২৭ মে) তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

মৃত মরিয়মকে হাসপাতালে নিয়ে আসা প্রতিবেশি মো. নাহিদ নামে এক যুবক জানান, রাত ৯টার দিকে খিলগাঁও সিপাহীবাগ আইসক্রিম গলির মক্কা টাওয়ারের পাশে একটি রাস্তায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন মরিয়ম নামে ওই নারী। রাস্তাটিতে বৃষ্টির কারণে হাঁটুসমান পানি জমেছিল। তাদের ধারণা, সেখানে বিদ্যুতের কোন তার ছিড়ে পড়েছিল বা বৈদ্যুতিক খুঁটি বিদ্যুতায়িত হয়েছিল। আর সেখান থেকেই ওই নারী বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন।

Advertisement

তিনি জানান, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ওই নারীকে পানিতে পড়ে থাকতে দেখে তিনি এবং স্থানীয়রা উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। একই স্থানে কিছুদিন পরপরই এমন দুর্ঘটনা ঘটে বলে দাবি করেন তিনি।

মৃত মরিয়মের ছেলের বন্ধু তুহিন জানান, মরিয়মের বাড়ি বরগুনার বেতাগী উপজেলায়। পরিবার নিয়ে থাকেন খিলগাঁও মেরাদিয়া কবরস্থান গলিতে। স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন তিনি। রাতে গার্মেন্টস থেকে বাসায় ফিরেন। এরপর ছেলে ইয়ামিনকে খুঁজতে বাসা থেকে বের হয়েছিলেন তিনি। এরপরই রাস্তায় এই দুর্ঘটনার শিকার হন।

এদিকে, রাকিবকে হাসপাতালে নিয়ে আসা তার সহকর্মী খোকন মিয়া জানান, রাকিবের বাড়ি ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলায়। তারা খিলগাঁও রিয়াজবাগ ৬ নম্বর গলিতে একটি রিকশার গ্যারেজে থাকেন। ওই এলাকায় তারা রিকশা চালান। রাতে বৃষ্টির কারণে তাদের রিকশার গ্যারেজে পানি জমে ছিল। সেই পানির মধ্যে রিকশা রেখে ব্যাটারি চার্জ করছিলেন রাকিব। সেই চার্জার খুলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি।

অপরদিকে, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লিজার বোন মরিয়ম জানান, লিজা আক্তার যাত্রাবাড়ী থানাধীন দরবার শরীফ সামেদ ভূইয়ার বাসার ভাড়া থাকেন। তিনি বাসার পাশে টিনের প্রাচীর স্পর্শ করলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে অচেতন হয়ে পড়েন। পরে তাকে রাত সাড়ে ১০টায় ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লিজা নোয়াখালী জেলার চরজব্বার উপজেলার মো. সিরাজ খানের মেয়ে।

Advertisement

ঢামেক হাসপাতালের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া এসব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সবার লাশ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হয়েছে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

রাজধানীর পান্থপথে ভেঙে পড়েছে গাছ

Published

on

পান্থপথে-ভেঙে-পরেছে-গাছ

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে একটি গাছ ভেঙে পড়েছে রাজধানীর পান্থপথে। গাছ পাড়ার কারণে আপাতত পান্থপথ এলাকায় যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট ঘটনাস্থলে যাচ্ছে।

সোমবার (২৭ মে) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে গাছটি সড়কে পড়ার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার লিমা খানম।

তিনি বলেন, রাজধানীর পান্থপথ এলাকায় একটি গাছ পড়ে গেছে রাস্তায়, এমন সংবাদ আমরা পেয়েছি। ঘটনাস্থলে আমাদের একটি ইউনিট যাচ্ছে।

রাজধানীর দোয়েল চত্বর এলাকায় একটি গাছ ভেঙে পড়ে রয়েছে ঘূর্ণিঝড়ের কারণে। সেটিও রাস্তা থেকে সরানোর জন্য ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট যাচ্ছে বলে জানান তিনি।

Advertisement

এছাড়া ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে রাজধানীর একাধিক জায়গায় গাছ ভেঙে রাস্তায় পড়ে গেছে। এতে রাস্তায় যানচলাচল কিছু সময়ের জন্য ব্যাহত হচ্ছে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

ক্যাসিনো ডন সেলিমের বিরুদ্ধে আড়ত ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

Published

on

ক্যাসিনো

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে অনলাইন ক্যাসিনো ডন, মানি লন্ডারিং কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্ত আসামী সেলিম প্রধান জোর পূর্বক ও হুমকি ধামকি দিয়ে আড়ত ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আদায়কৃত দুই কোটি টাকা চাঁদা ফেরত ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেছেন বিসমিল্লাহ আড়ৎ নামে একটি পাইকারী বাজারের ব্যবসায়ীরা।

রোববার (২৬ মে) দুপুরে উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের সাওঘাট এলাকার বিসমিল্লাহ আড়তের সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে এ কর্মসূচি পালন করে তারা।

মানববন্ধনের ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে জানান,তারা ২০১৯ সালের ২২ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনো ডন ও মানি লন্ডারিং মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী সেলিম প্রধানের কাছ থেকে আড়তের প্রায় ১৬ বিঘা জমি ভাড়া নেন ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান। বিঘায় ৫০ হাজার টাকা  প্রতিমাসে জমির ভাড়া দিয়ে আসছেন ৮ লাখ টাকা।

এছাড়া বায়নাসহ ডোবা ও নিচু এসব জমি ভরাট করে সাড়ে ৩’শ দোকান নির্মাণ করতে ব্যয় হয়েছে প্রায় সাড়ে ১০ কোটি টাকা। সেলিম প্রধান জেল থেকে ছাড়া পেয়ে প্রভাব খাটিয়ে আড়তের ব্যবসায়ীদের হুমকি-ধামকি ও জোরপুর্বক প্রায় দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। শুধু তাই নয়, তার গুন্ডা বাহিনী দিয়ে আড়ত দখলের পায়তারা করে আসছেন। তার জন্য আড়তের সকল ব্যবসায়ীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে জোর পূর্বক ও হুমকি ধামকি দিয়ে আড়ত ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে আদায়কৃত দুই কোটি টাকা চাঁদা ফেরত ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেন।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত