Connect with us

এশিয়া

সোনিয়া গান্ধী কত সম্পদের মালিক জানা গেলো

Avatar of author

Published

on

নিজের স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির হিসাব দিলেন সোনিয়া গান্ধী। আর দেখা গেল গেলো পাঁচ বছরে কংগ্রেস ক্ষমতায় না থাকলেও সম্পত্তির পরিমাণ বেড়েছে কংগ্রেসের সাবেক সভানেত্রীর। সোনার গহনা থেকে শুরু করে ইতালির বাড়ির ভাগ এবং উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া সম্পত্তি সব মিলিয়ে ২০১৯ থেকে ২০২৪ সালে সম্পত্তি ৫.৮৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে সোনিয়ার।

রাজ্যসভার প্রার্থী হিসেবে বুধবারই নিজের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন সোনিয়া। সাত বার লোকসভা ভোটে জেতার পর এই প্রথম সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় প্রার্থী হচ্ছেন তিনি। কংগ্রেস সভানেত্রী একটি চিঠি লিখে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যের জন্যই দীর্ঘ দিনের লোকসভা কেন্দ্র রায়বরেলী ছাড়তে হচ্ছে তাকে। তবে রাজ্য সভার সাংসদ হিসেবে দেশের কাজ করবেন।

গেলো বুধবার অর্থাৎ ১৪ ফেব্রুয়ারি সোনিয়া তার মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন রাজস্থানের রাজ্যসভার প্রার্থী হিসাবে। তার জমা দেয়া সেই হলফনামা থেকেই প্রকাশ্যে এসেছে তার বর্তমান আর্থিক অবস্থার কথা। এমনকি, সোনিয়ার বিরুদ্ধে থাকা আইনি মামলার সবিস্তার তথ্যও জানা গেছে সেই হলফনামা থেকে।

হলফনামার তথ্য অনুযায়ী সনিয়া গান্ধীর মোট সম্পত্তির মূল্য ১২ কোটি ৫৩ লাখ ৭৬ হাজার ৮২২ টাকা। যার মধ্যে অস্থাবর সম্পত্তি ছয় কোটি ৩৮ লাখ ১১ হাজার ৪১৫ টাকার। এই অস্থাবর সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে নগদ অর্থ, সোনার গহনা, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাওয়া রয়্যালটি, নানা রকম বিনিয়োগ থেকে প্রাপ্য অর্থ, এ ছাড়া বন্ড, ব্যাংকে জমা টাকা।

অস্থাবর সম্পত্তির একটা বড় অংশ হল সোনিয়ার গহনা। কংগ্রেস সাংসদকে সে ভাবে গহনার সাজে দেখা না গেলেও তার মোট ১ কোটি ৭ লাখ ১৫ হাজার ৪৯০ টাকার গহনা রয়েছে বলে লেখা রয়েছে হলফনামায়। এর মধ্যে ১ কেজি ৩০০ গ্রাম সোনার গহনা। যার মূল্য ৪৯.৯৫ লাখ টাকা। রয়েছে ৮৮ কেজির রুপোর গহনা এবং বাসনপত্রও। যার মূল্য ৫৭.২ লাখ টাকা। এর পাশাপাশি ৯০ হাজার টাকা নগদ অর্থেরও হিসাব দিয়েছেন সোনিয়া।

Advertisement

সোনিয়ার মোট স্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ ৬.১৫ কোটি টাকার। এর মধ্যে রয়েছে উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া সনিয়ার ইটালির বাড়িও। ওই বাড়িতে সনিয়ার ভাগের মূল্য ২৬.৮৪ লাখ টাকা।

এর আগে লোকসভা নির্বাচনেও নিজের সম্পত্তির হিসাব দিয়েছিলেন সোনিয়া। দেখা যাচ্ছে তার সম্পত্তির পরিমাণ প্রতি পাঁচ বছর অন্তর বেড়েছে। তবে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৪ সালে সনিয়ার সম্পত্তি যেখানে ৫৭৪.১৮ শতাংশ বেড়েছিল। সেখানে কংগ্রেস ক্ষমতা থেকে সরে আসার পর সনিয়ার সম্পত্তি বৃদ্ধির হার অনেকটাই কমেছে। ২০১৯ সালে ২৭.৫৯ শতাংশ সম্পত্তি বেড়েছিল সনিয়ার। ২০২৪ সালে এই হার আরও কমে দাঁড়িয়েছে ৫.৮৯ শতাংশ।

হলফনামায় সোনিয়ার সম্পত্তি ছাড়াও তার শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং তার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া আইনি মামলার হিসাব রয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, তিনি ১৯৬৪ সালে সিয়েনার ইনস্টিটিউটো সান্টা টেরেসা থেকে বিদেশি ভাষায় (ফরাসি এবং ইংরেজি) তিন বছরের পাঠক্রম করেছেন। কেমব্রিজের লেনক্স কুক স্কুল থেকে ১৯৬৫ সালে ইংরেজি ভাষার উপর একটি সার্টিফিকেট কোর্স করেছেন। আর জানানো হয়েছে, সোনিয়ার বিরুদ্ধে একটিও ফৌজদারি মামলা দায়ের করা হয়নি।

Advertisement

এশিয়া

গাজায় মৃতের সংখ্যা ছাড়ালো ৩৪ হাজার

Avatar of author

Published

on

ছয়মাস ধরে ফিলিস্তিনের গাজায় চালানো ইসরায়েলের হামলায় মৃত্যুর মিছিল যেন থামছেই না। গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলের হামলায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৪ হাজার। নিহতদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। আহতদের সংখ্যাও প্রায় ৭৭ হাজার।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়।

কাতার ভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে বলছে, ইসরায়েলের হামলায় সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন ৪২ জন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও ৬৩ জন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলের হামলায় সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় আরও অর্ধশত ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ৬৩ জন। এ নিয়ে গত ৭ অক্টোবর থেকে ইসরায়েলি হামলায় গাজায় ৩৪ হাজার ১২ জন ফিলিস্তিনি নিহত হলেন। আহত মানুষের সংখ্যা ঠেকেছে ৭৬ হাজার ৮৩৩ জনে।

ইসরায়েলের বিভিন্ন অবৈধ বসতি লক্ষ্য করে গত ৭ অক্টোবর হামলা চালায় ফিলিস্তিনি সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাস। তাদের হামলায় ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলি নিহত হন। এরপরই গাজায় গেলো ছয় মাস ধরে ব্যাপক হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল।

Advertisement

টিআর/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আন্তর্জাতিক

ক্ষেপনাস্ত্র হামলার দাবি নাকচ করলো ইরান, পরমাণু স্থাপনা নিরাপদ

Avatar of author

Published

on

এবার ইসরায়েলের ক্ষেপনাস্ত্র হামলার দাবি সরাসরি প্রত্যাখ্যান করলো ইরান। ইসফান শহরে কোন হামলা হয়নি বলে জানিয়েছে দেশটি। একই সঙ্গে অক্ষত আছে ইরানের পরমাণু স্থাপনা।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দেশটির জাতীয় সাইবার স্পেস এজেন্সির মুখপাত্র হোসেইন দালিরিয়ান এর বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বৃটিশ বার্তা সংস্থা বিবিসি।

বিবিসি জানায়,  দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিছু সন্দেহভাজন ড্রোনকে ধ্বংস করে। এটিই ছিল আকাশে বিস্ফোরণের শব্দ শোনার কারণ।  কিন্তু এতে কোন ক্ষতি হয়নি।

হোসেইন দালিরিয়ান এক্স বার্তায় জানান, ইরানের বাইরে থেকে ইসফান কিংবা দেশের কোথায় কোন হামলা হয়নি। কয়েকটি ড্রোন দেশটির আকাশে উড়ছিল এবং সেগুলো ধ্বংস করা হয়।

ইরানীর রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমও বলছে, দেশটির আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কয়েকটি অঞ্চলে সক্রিয় আছে। কিন্তু এখনো কোন ক্ষেপনাস্ত্র আঘাতের খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা তাসনিম নিউজ এজেন্সি একটি ভিডিও পোস্ট করে জানায়, ইসফানের পরমাণু স্থাপনা সম্পূর্ণ নিরাপদ রয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায় একজন ব্যক্তি পরমাণ স্থাপনের কাছে তাঁর ঘড়ি দেখছেন। স্থাপনার বাইরে একাধিক সৈনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার পাশে সতর্ক অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে।

প্রসঙ্গত, ছয় ঘন্টা বন্ধ থাকার পরে ইরানের বিমান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

আই/এ

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

পরমাণু নীতিতে পরিবর্তন আসতে পারে: ইরান

Avatar of author

Published

on

ইরানের পারমাণবিক নীতি ও ডকট্রিনে পরিবর্তন এবং এর আগে ঘোষিত এ সংক্রান্ত আপত্তিকে উপেক্ষা করার সম্ভাবনা রয়েছে। জানালেন ইরানের পারমাণবিক কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বিভাগের কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আহমাদ হাক তালাব।

ইরানের পরমাণু কেন্দ্র ও স্থাপনাগুলোতে হামলার ইসরাইলি হুমকির প্রতিক্রিয়ায় তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) এ কথা বলেন।

জেনারেল আহমাদ হাক তালাব আরও বলেছেন, এ ধরণের হুমকি নতুন কিছু নয়। অবৈধ ইহুদিবাদী ইসরাইল বহু বছর ধরেই এ ধরণের হুমকি দিয়ে আসছে। তারা এর আগে ইরানের পারমাণবিক শিল্পের বিরুদ্ধে নাশকতা চালিয়েছে এবং সন্ত্রাসী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

তিনি আরো বলেন, যদিও আন্তর্জাতিক প্রটোকল ও নীতিমালা এবং আন্তর্জাতিক পরমাণু সংস্থার আইন ও বিধি অনুযায়ী বিশ্বের যেকোনো দেশের পারমাণবিক স্থাপনায় হামলা থেকে বিরত থাকার কথা বলা হয়েছে। এরপরও ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান প্রথম থেকেই এসব হুমকি মোকাবেলায় জন্য সব সময় প্রস্তুত ছিল এবং এখনও প্রস্তুত আছে।

জেনারেল হাক তালাব বলেন, সম্প্রতি ইহুদিবাদী শাসক গোষ্ঠী সিরিয়ায় ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের দূতাবাসের কনস্যুলার বিভাগে হামলা চালিয়ে সব ধরণের আন্তর্জাতিক আইন ও নীতিমালা লঙ্ঘন করেছে। এরপর তারা পরমাণু কেন্দ্রে হামলার মতো কোনো পদক্ষেপ নিলে আল্লাহর রহমতে আমরা সর্বোচ্চ নেতা ও সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়কের দিক-নির্দেশনায়, সশস্ত্র বাহিনীর সাহসী সন্তানদের প্রচেষ্টায়, প্যাসিভ ডিফেন্স পরিকল্পনা বাস্তবায়ন এবং অতি উন্নত অস্ত্র ও সরঞ্জাম ব্যবহারের পাশাপশি পারমাণবিক কেন্দ্র ও স্থাপনাগুলোর অবস্থানগত সুবিধাকে কাজে লাগিয়ে যেকোনো হুমকি মোকাবেলা করব ও আমরা এ জন্য পূর্ণ প্রস্তুত আছি।

Advertisement

শত্রুর যেকোনো আগ্রাসনের জবাব দিতে সশস্ত্র বাহিনী সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে উল্লেখ করে ইরানের পরমাণু কেন্দ্রগুলোর নিরাপত্তা ও সুরক্ষায় নিয়োজিত ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির এ সংক্রান্ত কমান্ডার জোর দিয়ে বলেছেন,  ইসরাইলের পরমাণু কেন্দ্রগুলোকে আমরা চিহ্নিত করে রেখেছি এবং চরম আঘাত হানার জন্য প্রয়োজনীয় সব রকম তথ্য-উপাত্ত আমাদের হাতে রয়েছে। তাই, ইসরাইল যদি ইরানে হামলা চালানোর দুঃসাহস দেখায় তাহলে তাদের নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তু ধ্বংস করার জন্য শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার ট্রিগারে আঙ্গুল রাখা আছে।

তিনি আরো বলেছেন, ইসরাইল যদি আমাদের পারমাণবিক স্থাপনায় কোনো ধরনের  হামলা চালায় তাহলে তাদের জেনে রাখা উচিত যে, আমাদের অত্যাধুনিক অস্ত্র  দিয়ে ইসরাইলের পরমাণু স্থাপনাগুলোতে বড় ধরনের হামলা চালানো হবে। তিনি এও বলেন, ইসরাইল যদি পারমাণবিক কেন্দ্রে হামলার হুমকিকে ইরানের ওপর চাপ সৃষ্টির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চায়, তাহলে পরমাণু ইস্যুতে ইরানের নীতিতে পরিবর্তন আসতে পারে এবং পূর্ব ঘোষণা থেকে সরে আসা অসম্ভব কিছু নয়। ‘আঘাত করে পার পাওয়ার যুগ শেষ হয়ে গেছে’ সর্বোচ্চ নেতার এই বক্তব্যকে তুলে ধরে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হাক তালাব বলেছেন, ইসরাইল যদি ইরানের বিরুদ্ধে কোনো আগ্রাসন চালায়, তাহলে ইরানের সশস্ত্র বাহিনী এর উপযুক্ত জবাব দেবে। এ ব্যাপারে তারা নিশ্চিত থাকতে পারে যে, ‘সত্য প্রতিশ্রুতি’ সামরিক অভিযানের মতো আমাদের সশস্ত্র বাহিনী এবারও তাদের ওপর এমন আঘাত হানবে যা ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

তিনি তার বক্তব্যের শেষ অংশে বলেছেন, আমরা ইরানের প্রিয় ও সম্মানিত জনগণকে এ নিশ্চয়তা দিচ্ছি যে, আইআরজিসিতে নিয়োজিত আপনাদের বিপ্লবী সন্তানেরা, আপনাদের সেনাবাহিনী, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা, নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা বিভাগ উন্নত প্যাসিভ ডিফেন্স পরিকল্পনা এবং অত্যাধুনিক সুরক্ষা সরঞ্জাম ব্যবহার করে পরমাণু কেন্দ্রগুলো রক্ষায় তৎপর রয়েছে। তাই আমাদের দেশের পারমাণবিক কেন্দ্রগুলো সম্পূর্ণ নিরাপদ রয়েছে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসনিা প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসনিা
বাংলাদেশ43 mins ago

দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী

যেকোনো বহিঃশত্রুর আক্রমণ থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত ও দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, আমাদের বৈদেশিক...

দেশজুড়ে3 hours ago

সব ধরনের কোচিং সেন্টার বন্ধ ঘোষণা

প্রচন্ড তাপদাহে পুড়ছে চুয়াডাঙ্গা। জেলাটিতে আজ রোববার (২১ এপ্রিল) বিকাল ৩ টায়  সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪২ দশমিক ২...

দুর্ঘটনা3 hours ago

ঈদযাত্রায় সড়কে ঝরলো ৩২০ প্রাণ : বিআরটিএ

এবার ঈদযাত্রার ১৭ দিনে সারা দেশে ২৬৮টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৩২০ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ)।...

আমির আমির
জাতীয়4 hours ago

কাতারের আমির আসছেন কাল, সই হবে ৬ চুক্তি ও ৫ সমঝোতা

আগামীকাল সোমবার (২২এপ্রিল ) দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে বাংলাদেশে আসছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল-থানি। একটি বিশেষ বিমানে...

অপরাধ4 hours ago

যেকোন সময় কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ : ডিবি

তথ্য-উপাত্তে যদি জাল সার্টিফিকেট তৈরির সঙ্গে বাংলাদেশ কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর খানের সংশ্লিষ্টতা থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়। তাহলে...

ব্যারিস্টার-সুমন ব্যারিস্টার-সুমন
আইন-বিচার4 hours ago

বেনজীরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে যা বললেন ব্যারিস্টার সুমন

দুদকে ধাক্কা না দিলে কোনো কাজ হয় না। সাবেক পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজির আহমেদের বিরুদ্ধে ওঠা দুর্নীতির তদন্ত না হলে...

বাংলাদেশ4 hours ago

আজ দেশের আকাশে দেখা যাবে শিংওয়ালা ধূমকেতু

প্রায় ৭১ বছর পর আজ রোববার (২১ এপ্রিল) সূর্যের সবচেয়ে কাছে অবস্থান করবে ধূমকেতু ১২পি/পনস–ব্রুকস- যা ডেভিল ধূমকেতু বা শিংওয়ালা...

জাতীয়5 hours ago

হাসপাতাল প্রস্তুত রাখার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

তীব্র দাবদাহের কারণে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সারা দেশের হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। রোববার (২১ এপ্রিল)...

জাহাজ-এমভি-আবদুল্লাহ জাহাজ-এমভি-আবদুল্লাহ
জাতীয়6 hours ago

বিকালে দুবাই পৌঁছাবে এমভি আবদুল্লাহ

হরমুজ প্রণালি অতিক্রম করেছে সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাত থেকে মুক্ত জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ। রোববার (২১ এপ্রিল) বিকেলে দুবাইয়ের আল হামরিয়া বন্দরের...

চীফ-মেট্রোপলিটন-ম্যাজিস্ট্রেট-কোর্ট-ঢাকা চীফ-মেট্রোপলিটন-ম্যাজিস্ট্রেট-কোর্ট-ঢাকা
আইন-বিচার6 hours ago

ট্রান্সকমের ৩ কর্মকর্তা রিমান্ডে

অর্থ আত্মসাৎ, সম্পত্তি দখল এবং অবৈধভাবে কোম্পানির শেয়ার হস্তান্তর করার অভিযোগে গুলশান থানার পৃথক দুই মামলায় ট্রান্সকম গ্রুপের ৩ কর্মকর্তার...

Advertisement
চট্টগ্রাম10 mins ago

অনুপ্রবেশ করতে নাফ নদীর ওপাড়ে রোহিঙ্গাদের ঢল

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসনিা
বাংলাদেশ43 mins ago

দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় বাংলাদেশ সর্বদা প্রস্তুত : প্রধানমন্ত্রী

টুকিটাকি50 mins ago

একমাস ধরে তরুণীকে ধর্ষণ, বুলডোজারে গুঁড়িয়ে দিলো অভিযুক্তের বাড়ি

রাজশাহী1 hour ago

ডুবতে থাকা বন্ধুকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেলো দুজনের

দেশজুড়ে2 hours ago

পাগলা কুকুরের কামড়ে নারী-শিশুসহ আহত-১০

শহীদ-কাপুর,-মিরা
বলিউড2 hours ago

শাহিদ কাপূরের বিলাসবহুল ভ্রমণের তালিকা ফাঁস!

গরমে-ত্বকের-যত্ন
রূপচর্চা2 hours ago

তীব্র দাবদাহে ত্বকের যত্নে সাথে রাখুন এই ৫ প্রসাধনী

সিএনজি
রাজশাহী2 hours ago

পাবনায় সিএনজি-অ্যাম্বুলেন্স মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

মানববন্ধন
রাজশাহী2 hours ago

বিড়ির শুল্ক প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

অর্থনীতি2 hours ago

১৯ দিনে প্রবাসী আয় ১৪ হাজার কো‌টি টাকা

ব্যারিস্টার-সুমন
আইন-বিচার4 hours ago

বেনজীরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে যা বললেন ব্যারিস্টার সুমন

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়4 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল4 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি1 month ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল2 months ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

সর্বাধিক পঠিত