Connect with us

রংপুর

পঞ্চগড়ে নতুন স্বপ্ন জাগাচ্ছে কফি চাষ

Avatar of author

Published

on

কফি

উত্তরের পঞ্চগড় দেশে চা উৎপাদনে দ্বিতীয় অঞ্চল হিসেবে পরিণত হয়েছে। চা চাষের পর পঞ্চগড়ে কৃষিতে নতুন স্বপ্ন জাগাচ্ছে কফি চাষ। গেল আড়াই বছর আগে সুপারি বাগানে সাথী ফসল হিসেবে রোপন করা কফির চারাগুলোতে এবারে এসেছে কফি ফল। বাগান থেকে কফি ফল পরীক্ষামূলক ভাবে কর্তন শুরু করেছেন কৃষকরা।

সহজে ছায়াযুক্ত স্থানে স্বল্প খরচে কফি চাষ করে কয়েকগুন লাভের আশা করছে চাষীরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আগামীতে কফি চাষ করে বাড়তি আয় করে স্বাবলম্বি হওয়ার নতুন স্বপ্ন দেখচ্ছেন পঞ্চগড়ের কফি চাষী ও বাগান মালিকরা।

কৃষি বিভাগ সুত্রে জানা গেছে,পঞ্চগড়ের ক্ষুদ্র,মাঝারি বাগানগুলোর গাছের ডালে থোকায় থোকায় ঝুলে আছে কফি ফল। রোবাস্টা জাতের কফি চাষ শুরু হয়েছে পঞ্চগড়ে। জেলার মাটি ও আবহাওয়া কফির জন্য উপযোগী হওয়ায় সুপারীসহ বিভিন্ন বাগানের ছায়াযুক্ত ফাঁকা জায়গায় চাষীরা গড়ে তুলেছেন কফি বাগান। আড়াই বছর আগে এই জেলার তিনটি উপজেলায় ৪৭ জন কৃষক কফি চাষ শুরু করেন। চারা রোপনের পর দুই থেকে আড়াই বছরের মধ্যেই ফল আসা শুরু হয় কফি গাছগুলোতে। এখন অনেক বাগানে ফল পাকা শুরু হয়েছে। প্রতি বিঘা বাগানে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা খরচ করে,বছরে দেড় থেকে দুই লাখ টাকার কফি বিক্রির সম্ভাবনা দেখচ্ছেন চাষীরা।

পঞ্চগড় সদর উপজেলার হাড়িভাসা এলাকার কফি চাষী আব্দুল হালিম জানান,২০২১ সালের শেষের দিকে কৃষি বিভাগের কফি ও কাজু বাদাম গবেষণা উন্নয়ন সম্প্রসারণ প্রকল্পের আওতায় চাষীদের কফি বীজ ও নানা পরামর্শ দেয়া হয়। কফি চাষের জন্য ছায়াযুক্ত স্থানের প্রয়োজন হয়। যেখানে ছায়া থাকে সেখানে কফি ভাল হয়। বাড়তি কোন জমি প্রয়োজন হয় না। অন্য যেসব বাগান রয়েছে সেখানে সাথী ফসল হিসেবে কফি চাষ করা যায়। কফি চাষে তেমন কোন পরিচর্যারও প্রয়োজন হয় না। পঞ্চগড়ে কফি চাষের সম্ভাবনা থাকায়,কৃষি বিভাগের উদ্যোগে এই কফি চাষ করা হয়। এই কফি ফল কারখানায় প্রক্রিয়াজাত করে কফি তৈরী করা হয়।

পঞ্চগড় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মো: শাহ আলম জানান, পঞ্চগড়ে চা চাষের সাফল্য অর্থনৈতিক ভাবে জেলার চাষীদের এনে দিয়েছে প্রেরণা। মাটি ও আবহাওয়া অনুকুলে থাকা এই জেলায় কফি চাষ সফলতা পেলে কৃষি অর্থনীতিতে উম্মোচিত হবে আরেকটি নতুন দিগন্ত।

Advertisement

 

Advertisement

রংপুর

কুড়িগ্রামে বড়াইবাড়ী দিবস পালিত

Avatar of author

Published

on

বড়াইবাড়ী

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বড়াইবাড়ী সীমান্ত সংঘর্ষের ২৪তম বর্ষপূর্তি দিবস পালিত হয়েছে। প্রতিবছর এ দিনটি ‘বড়াইবাড়ী দিবস’ হিসেবে পালন করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে বড়াইবাড়ী গ্রামে স্থাপিত স্মৃতিসৌধে পুষ্পমাল্য অর্পণ,আলােচনা সভা এবং মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

আলােচনায় সভায় বক্তব্য রাখেন, কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য রুহুল আমিন,রৌমারী উপজেলা চেয়ারম্যান ইমান আলী,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হােরায়রা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা আক্তার স্মৃতি, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বঙ্গবাসী, রৌমারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক, রৌমারী সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম শালু, চর শৌলমারী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান কেএম ফজলুল হক মন্ডলসহ শহীদ পরিবারের স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় বড়াইবাড়ী দিবসটি রাষ্ট্রীয়ভাব স্বীকৃতির দাবি জানান বক্তারা।

উল্লেখ,২০০১ সালে ১৮ এপ্রিল ভারতের সীমান্ত রক্ষী বিএসএফ বাংলাদেশের সীমান্তে অনধিকার প্রবেশ করে বড়াইবাড়ী গ্রামের ঘুমন্ত মানুষের উপর হামলা চালায় ও নির্বিচারে বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেয় । ওই দিন হামলার দাঁতভাঙ্গা জবাব দিয়েছিল বিডিআর (বর্তমান বিজিবি) এবং স্থানীয় জনতা। যৌথ সেই প্রতিরােধে বিএসএফ’র ১৬ জােয়ান নিহত হয়। ওই ঘটনায় শহীদ হয়ে ছিলেন বিডিআর এর ৩৩ রাইফেলস্ ব্যাটালিয়নের ল্যান্স নায়ক ওহিদুজ্জামান, সিপাহী মাহফুজার রহমান এবং ২৬ রাইফলস্ ব্যাটালিয়নের সিপাহী আব্দুল কাদের।

Advertisement

আহত হন হাবিলদার আব্দুল গনি, নায়ক নজরুল ইসলাম, ল্যান্স নায়ক আবু বক্কর সিদ্দিক, সিপাহী হাবিবুর রহমান ও সিপাহী এসএম জাহিদুনবী। এছাড়াও বিএসএফর তান্ডব ওই ঘটনায় পুড়ে ছাই হয়ে ছিল বড়াইবাড়ী গ্রামের ৮৯টি বাড়ি। এতে সরকারি হিসেবে ক্ষতির পরিমাণ ছিল ৭২ লাখ টাকা।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

রংপুর

প্রধান শিক্ষকের মনগড়া ম্যানেজিং কমিটি গঠনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

Avatar of author

Published

on

মানববন্ধন

কুড়িগ্রামে বিদ্যালয়ে নির্বাচন ছাড়াই প্রধান শিক্ষকের মনগড়া ম্যানেজিং কমিটি গঠনের প্রতিবাদে মানববন্ধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুর ১২টায় কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের খামার বড়াইবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে অংশ নেয় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী।

বিদ্যালয়ের বর্তমান ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ আগামী ৮ মে ২০২৪ তারিখে শেষ হবার প্রাক্কালে প্রধান শিক্ষক মো. রেজাউল হক গোপনে মনগড়া কমিটি গঠন করে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জমা দেন। অন্যদিকে নির্বাচনের মাধ্যমে ম্যানেজিং কমিটি গঠনের জন্য স্থানীয়রা  প্রধান শিক্ষকের সাথে দফায় দফায় যোগাযোগ করলে তার ইতিবাচক সাড়া পান নি। পরবর্তীতে প্রায় ৮০ভাগ অভিভাবক স্বাক্ষরিত আবেদনপত্র দিয়ে নির্বাচনের মাধ্যমে কমিটি গঠনের জন্য তাকে অনুরোধ জানানো হয়। তাতেও গুরুত্ব না দিয়ে প্রধান শিক্ষক গোপনে কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখেন। বিষয়টি জানাজানি হলে শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও স্থানীয়দের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। ফলে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করেন বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন অভিভাবক সফিকুল ইসলাম, শাহাবুদ্দিন, তাজুল ইসলাম, আব্দুল হামিদ প্রমুখ। ১৯৯৩ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে নির্বাচন ছাড়াই প্রধান শিক্ষকের ইচ্ছে মাফিক কমিটি গঠিত হয়ে আসছে। ডিজিটাল প্রযু্ক্তির যুগে আর মনগড়া কমিটি চান না বলে জানান বক্তারা।

এসময় প্রধান শিক্ষকের মনগড়া কমিটি বাতিল ও নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কমিটি গঠনের দাবী জানান তারা। অন্যথায় পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করার ঘোষণা দেন বক্তারা। মানববন্ধন শেষে তারা কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি প্রদান করেন।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

রংপুর

জমির জন্য ছোট ভাইকে কুপিয়ে মারলেন বড় ভাই

Avatar of author

Published

on

জমি

দিনাজপুর পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম বালুয়াডাঙ্গায় জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে ছোট ভাইকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ওঠেছে বড় ভাই ও সঙ্গীয়দের বিরুদ্ধে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকাল ৮টার দিকে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন কোতয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. ফরিদ হোসেন।

নিহত ছোট ভাইয়ের নাম রাসেল। তিনি  বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কনস্টেবল মো. হাসান আলীর ছেলে। ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

ওসি মো. ফরিদ হোসেন জানান, বুধবার সকালে বাড়ির ভিটাসহ জায়গা-জমি নিয়ে মতবিরোধে জড়িয়ে পড়ে বড় ভাই মো. মাসুদ রানা ও ছোট ভাই রাসেল রেজা বাবু। কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে বড় ভাই মাসুদ রানা, রিমা বেগম ও ভাতিজা ফারহান আলী রনক কুড়াল দিয়ে মাথায় ও পায়ে আঘাত করে গুরুতর জখম করে রাসেল রেজা বাবুকে। তাৎক্ষণিকভাবে রাসেলকে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থা অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। পরে বিকেল ৫টার দিকে রাসেল মারা যায়।

তিনি জানান, এ ঘটনায় অভিযুক্ত কাউকে পুলিশ এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি। আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলানো হচ্ছে।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহে ট্রাফিক সদস্যদের স্বস্তি দিতে অনন্য উদ্যোগ

প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে সারা দেশ। এই তীব্র গরমের মাঝেও খোলা আকাশের নিচে ঢাকা মেট্রোপিলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরা যানজট নিরসনে...

জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহের মধ্যে ৭ দিন স্কুল বন্ধের দাবি

টানা ২৬ দিন ছুটি কাটিয়ে রোববার (২১ এপ্রিল) খুলছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এমন একসময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে যখন দেশের ওপর দিয়ে তীব্র...

জাতীয়9 hours ago

১৫০ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে ২৮৫ সেনাসহ ফিরবে মিয়ানমারের জাহাজ

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ ও সেনাবাহিনীর ২৮৫ জন সদস্যকে মিয়ানমারের জাহাজে নৌপথে ফেরত যাওয়ার ক্লিয়ারেন্স দেয়া হয়েছে।...

বাংলাদেশ9 hours ago

ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে তাপমাত্রা

সারাদেশে চলছে তাপপ্রবাহ। জনজীবন হয়ে উঠেছে অতিষ্ঠ। যশোর-চুয়াডাঙ্গায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তিন দিনের...

জনদুর্ভোগ11 hours ago

২ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে যেসব এলাকায়

গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি কাজের জন্য শনিবার (২০ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের বেশ কিছু এলাকায় দুই ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। এছাড়াও ওই...

চট্টগ্রাম11 hours ago

ট্রেনের ধাক্কায় স্ত্রী-সন্তানদের সামনেই প্রাণ গেলো স্বামীর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নোয়াখালী মেইল ট্রেনের ধাক্কায় স্ত্রী-সন্তানদের সামনেই প্রাণ হারিয়েছেন রায়হান মিয়া (৩৫) নামের এক যুবক। ঈদের ছুটিতে স্ত্রী, দুই মেয়ে...

দুর্ঘটনা12 hours ago

হাসপাতালের আইসিইউ পুড়ে ছাই, রক্ষা পেল ৭ শিশু

রাজধানীর শ্যামলীতে অবস্থিত শিশু হাসপাতালের কার্ডিয়াক ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) এসি বিস্ফোরণে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পুড়ে গেছে বেড,...

বাংলাদেশ13 hours ago

ধেয়ে আসছে তীব্র ঝড়

দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়সহ শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা করছে আবহওয়া অফিসে। এর মধ্যে সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে তীব্র ঝড় বয়ে যেতে পারে...

দুর্ঘটনা13 hours ago

ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

রাজশাহীতে ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল পৌনে ৫টার...

জাতীয়13 hours ago

হিট অ্যালার্ট জারি, চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ৩ ডিগ্রি

দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহের তীব্রতা আরও বাড়ার শঙ্কায় তিন দিনের জন্য হিট অ্যালার্ট (তাপমাত্রা সর্তকতা) জারি করেছে আবহাওয়া...

Advertisement
জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহে ট্রাফিক সদস্যদের স্বস্তি দিতে অনন্য উদ্যোগ

জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহের মধ্যে ৭ দিন স্কুল বন্ধের দাবি

ঢাকা8 hours ago

হেলিকপ্টারে নববধূ নিয়ে এলেন ছাত্রলীগ নেতা

অন্যান্য8 hours ago

মারামারি করে মাঠ ছাড়ল মোহামেডান, আবাহনীকে জয়ী ঘোষণা

জাতীয়9 hours ago

১৫০ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে ২৮৫ সেনাসহ ফিরবে মিয়ানমারের জাহাজ

বাংলাদেশ9 hours ago

ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে তাপমাত্রা

ফুটবল9 hours ago

সমর্থকদের কারণে জরিমানার মুখে বার্সেলোনা

ফুটবল10 hours ago

দুটি হলুদ কার্ড দেখেও মাঠ ছাড়তে হলো না মার্টিনেজকে

ঢালিউড10 hours ago

কাবিলাকে পেয়েই ভোটকেন্দ্রে নাচলেন নাসরিন

আন্তর্জাতিক10 hours ago

ভোটের সময় ছত্তিশগড়ে বিস্ফোরণে নিহত ১, পশ্চিমবঙ্গে সহিংসতা 

সৌদি-পতাকা
আন্তর্জাতিক3 days ago

ইরান-ইসরায়েল প্রসঙ্গে অবস্থান স্পষ্ট করলো সৌদি

ডাকসুর-সাবেক-ভিপি-নুরুল-হক
আইন-বিচার4 days ago

নুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ইসলাম3 days ago

ঈদুল আযহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা

টুকিটাকি5 days ago

অপ্রাপ্তবয়স্ক ছাত্রকে যৌন নির্যাতন করলেন শিক্ষিকা

বাংলাদেশ7 days ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

বাংলাদেশ2 days ago

নিজ বাহিনীতে ফিরে গেলেন খন্দকার আল মঈন

বাংলাদেশ4 days ago

সন্যাসী হতে ২০০ কোটি রুপির সম্পত্তি দান করলেন দম্পতি

সৌন্দর্য
লাইফস্টাইল2 days ago

চড়-থাপ্পড়েই বাড়বে নারীদের সৌন্দর্য!

আন্তর্জাতিক6 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: ভূমধ্যসাগরে ঢুকলো রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল4 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি4 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল2 months ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত