Connect with us

চট্টগ্রাম

সেন্টমার্টিনগামী দুইটি জাহাজকে জরিমানা

Avatar of author

Published

on

জরিমানা

কক্সবাজারের ইনানী জেটিঘাট হয়ে সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকবাহী দুইটি জাহাজকে এক লাখ ৩০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের কারণে এই জরিমানা প্রদান করা হয়। যেখানে ‘বার আউলিয়া’ নামের জাহাজকে এক লাখ টাকা এবং কর্ণফুলী জাহাজকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা প্রদান করে।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে উখিয়া উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সালেহ আহমেদ এ অভিযান পরিচালনা করেন।

সহকারী কমিশনার (ভূমি) সালেহ আহমেদ জানিয়েছেন, বার আউলিয়া জাহাজে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত আড়াইশ যাত্রী এবং কর্ণফুলি জাহাজে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত একশ যাত্রী পরিবহণ করছিল। একই সঙ্গে বার আউলিয়া জাহাজের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আগত পর্যটকদের হয়রানী-নাজেহালের অভিযোগ ছিল। ফলে জরিমানা প্রদান করা হয় এবং সর্তক করা হয়েছে।

কর্ণফুলি জাহাজের কক্সবাজারের ইনচার্জ এবং জাহাজ মালিক সমিতির নেতা হোসাইন ইসলাম বাহাদুর ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, বার আউলিয়া নামের জাহাজের ধারণ ক্ষমতা ৮৫০ জন, যেখানে যাত্রী ছিল ১০৭০ জন। ফলে ২২০ জন অতিরিক্ত যাত্রী ছিল। কর্ণফুলি জাহাজের ধারণ ক্ষমতা ৭৫০ জন, যেখানে যাত্রী ছিল ৮৫০ জন। ওখানে ১ শত অতিরিক্ত যাত্রী ছিল।

তিনি বলেন, মিয়ানমারের সীমান্ত পরিস্থিতির কারণে ১০ ফেব্রæয়ারি থেকে টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনগামি সকল জাহাজ বন্ধ করা হয়েছে। এখন পর্যটন মৌসুম এবং পর্যটকের চাপ রয়েছে। এতে অতিরিক্ত পর্যটক সেন্টমার্টিনে যেতে আগ্রহী।

Advertisement

যে কারণে কিছু অতিরিক্ত টিকেট বিক্রি করে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট কাউন্টারগুলো। এটা না করতে বলে দেয়া হয়েছে।

Advertisement

চট্টগ্রাম

পালিয়েছেন দুই স্ত্রী, পুড়িয়ে মারলেন তৃতীয় স্ত্রীকে

Avatar of author

Published

on

মৃত্যু

যৌতুকের জন্য অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে পালিয়েছেন আগের দুই স্ত্রী। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি তৃতীয়জনের। স্বামীর অর্থলোভের কাছে জীবন দিতে হয়েছে হতদরিদ্র বাবার মেয়ে খাদিজা আক্তারকে (২৩)।

শ্যালো ইঞ্জিনচালিত সেচপাম্প চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে ইব্রাহিম প্রধান। বাড়ি চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার নায়েরগাঁও ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বকচর গ্রামে। যৌতুকের জন্য স্ত্রী খাদিজা আক্তারের (২৩) গায়ে শ্যালো ইঞ্জিনের ডিজেল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) ঈদুল ফিতরের দিন সকাল ৭টার দিকে ইব্রাহিম স্ত্রীর শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাতে ঢাকার শেখ হাসিনা বার্ন ইনস্টিটিউটে মারা যান খাদিজা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, চার বছর আগে একই গ্রামের দিনমজুর খোকন মিয়ার মেয়ে খাদিজাকে বিয়ে করে ইব্রাহিম (৩৮)। এর পর থেকেই যৌতুক হিসেবে টাকা দাবি করে নির্যাতন শুরু করে সে। প্রতিবেশীদের ভাষ্য, এটি ইব্রাহিমের তৃতীয় বিয়ে। যৌতুকের জন্য নির্যাতন সইতে না পেরে আগের দুই স্ত্রী পালিয়ে বেঁচেছেন। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি খাদিজার। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে খাদিজার শরীরে ডিজেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় ইব্রাহিম। দ্রুত এগিয়ে আসেন মনির ও মহসিন নামের দুই প্রতিবেশী। তারা পাটের বস্তা ভিজিয়ে আগুন নেভান। সঙ্গে সঙ্গেই খাদিজাকে উদ্ধার করে স্থানীয় লোকজন নিয়ে যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে।

চিকিৎসকরা জানান, ওই তরুণীর শরীরের প্রায় ৯০ শতাংশ পুড়ে যায় আগুনে। একদিন পর শুক্রবার (১২) এপ্রিল রাত দেড়টার দিকে বার্ন ইনস্টিটিউটে মারা যান খাদিজা।

Advertisement

বিষয়টি গোপন করে খাদিজার স্বজনদের না জানিয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তড়িঘড়ি করে লাশ দাফন করেন। আজ রোববার মেয়ের এমন মৃত্যুর সংবাদ পান খোকন মিয়া। তিনি বলেন, বিয়ের পর থেকেই খাদিজাকে যৌতুকের জন্য মারধর করতো ইব্রাহিম। এসব নিয়ে অনেকবার সালিশ-বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু তার যৌতুক দেয়ার সামর্থ্য নেই দেখে মেয়েটা মুখ বুঝে সবকিছু সহ্য করে গেছে। তিনি এ ঘটনায় জামাতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

খোকন মিয়া এ ঘটনায় রোববার মতলব দক্ষিণ থানায় মামলা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিপন বালা বলেন, খাদিজার শাশুড়ি যায়েদা খাতুনকে (৬৭) বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। তাকে খোকন মিয়ার মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়েছেন। মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে খাদিজার স্বামী ইব্রাহিম প্রধান পলাতক। তাকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

চট্টগ্রাম

মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা

Avatar of author

Published

on

আখাউড়া

মাদকাসক্ত ছেলের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন বৃদ্ধ বাবা-মা। আদালতে দ্বারস্থ হওয়ার পর পুলিশ তাকে আটক করে। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায়।

রোববার (১৪ এপ্রিল) নাদিম নামের ওই ছেলেকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আখাউড়া থানার ওসি নূরে আলম।

এর আগে শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতের দিকে আসামির অবস্থান শনাক্ত করে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়। আটক নাদিম মোগড়া ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বাউতলা এলাকার মো. রেনু মিয়ার ছেলে।

বৃদ্ধ বাবা রেনু মিয়া জানান, ছেলের অত্যাচার আর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে পুরো রমজান মাস স্ত্রীকে নিয়ে কেউ বাড়িতে থাকতে পারি নাই। এ সময় অন্যের বাড়ি বাড়ি গিয়েও রাত্রিযাপন করতে হয়েছে। এমনকি কয়েকবার আমাকে সে হত্যার চেষ্টা ও করছে। এলাকায় কয়েকদিন পর পর ঝামেলা সৃষ্টি করে বেড়ায় সে। মাদকাসক্ত এই ছেলের অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে আদালতের দ্বারস্থ হয়। পরে পুলিশ তাকে আটক করে।

আখাউড়া থানার ওসি নূরে আলম জানান, নাদিম গ্রেফতারী পরোয়ানাভুক্ত আসামি ছিলেন। আদালতের নির্দেশে আমরা তাকে আটক করি।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

চট্টগ্রাম

কেএনএফের আরও ৪ সহযোগী গ্রেপ্তার

Avatar of author

Published

on

বান্দরবান  থেকে কুকি-চীন ন্যাশনাল ফ্রন্টের (কেএনএফ) ৪ সহযোগীকে গ্রেপ্তার করেছে যৌথবাহিনী। রুমা সোনালী ব্যাংকে হামলা, টাকা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

রোববার (১৪ এপ্রিল) গ্রেপ্তার আসামিদের কারাগারে প্রেরণ করে বান্দরবান চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এএসএম এমরান।

পুলিশ জানায়, গত ২ এপ্রিল বান্দরবানের রুমা সোনালী ব্যাংকে হামলা, টাকা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় দায়েরকৃত ৫টি মামলার প্রেক্ষিতে কেএনএফর সহযোগী হিসেবে যৌথবাহিনীর সদস্যরা তাদের রুমা উপজেলা এবং বান্দরবানের সদর উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করে।

বান্দরবান জেলা পুলিশের তথ্য মতে বান্দরবানের রুমা ও থানচিতে ঘটনার পর এ পর্যন্ত ৯টি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং ঘটনায় জড়িত থাকার অপরাধে এ পর্যন্ত ৬০ এর অধিক আসামিকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

বাংলাদেশ4 hours ago

মুক্তিপণ নিয়ে যা জানালো এমভি আব্দুল্লাহর মালিকপক্ষ

ছিনতাইয়ের ৩১ দিন পরে মুক্তিপণের বিনিময়ে মুক্ত হয়েছে বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ। তবে মুক্তিপণ নিয়ে নানা গুঞ্জন উঠলেও মালিকপক্ষ...

জাতীয়5 hours ago

আবারও মিয়ানমারের ৯ বিজিপি সদস্য আশ্রয় নিলো বাংলাদেশে

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মি ও দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সঙ্গে চলমান সংঘাতের কারণে  কক্সবাজারের...

এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ
জাতীয়6 hours ago

দেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে দস্যুমুক্ত এমভি আবদুল্লাহ

অপহরণের ৩১ দিন পর মুক্ত হয়েছেন এমভি আবদুল্লাহ’র ২৩ নাবিক। সোমালিয়ার জলদস্যুদের কবল থেকে মুক্তির পর আগামী ১৯ এপ্রিলের দিকে...

নববর্ষে-ঢাবিতে-শ্লীলতাহানি,-বিচার-অসমাপ্ত নববর্ষে-ঢাবিতে-শ্লীলতাহানি,-বিচার-অসমাপ্ত
আইন-বিচার6 hours ago

নববর্ষে ঢাবিতে শ্লীলতাহানি, ৯ বছর ধরে ঝুলে আছে বিচার

গেলো ৯ বছরে শেষ হয়নি নববর্ষের উৎসবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় বেশ কয়েকজন নারীকে শ্লীলতাহানি করায় মামলার বিচার। ২০১৫ সালের...

বর্ষবরণ বর্ষবরণ
জাতীয়7 hours ago

সুরের মুর্ছনায় বর্ষবরণ

ভোরের আলো ফুটতেই রমনার বটমূলে শুরু হয় বাঙালির চিরায়ত বর্ষবরণ অনুষ্ঠান। নতুন ১৪৩১ এর প্রথম সকালটিকে এক কণ্ঠে বরণ করে...

এমভি-আব্দুল্লাহর-২৩-নাবিক এমভি-আব্দুল্লাহর-২৩-নাবিক
জাতীয়8 hours ago

কত ডলার মুক্তিপণে ছাড়া পেলেন ২৩ নাবিক?

অবশেষে সোমালিয়ান জলদস্যুদের হাত থেকে মুক্তি পেয়েছেন এমভি আব্দুল্লাহর ২৩ নাবিক। ৩১ দিন জিম্মি থাকার পর সোমালিয়ার উপকূল থেকে মুক্ত...

মঙ্গল-শোভাযাত্রা মঙ্গল-শোভাযাত্রা
জাতীয়9 hours ago

শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা

বাংলা নতুন বছরকে বরণ করে নিতে মানুষের ঢল নেমেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে। ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা। রোববার (১৪...

জাতীয়19 hours ago

পহেলা বৈশাখ আজ, উদযাপনে মেতে উঠবে গোটা দেশ

আজ রোববার, ১৪ এপ্রিল- পহেলা বৈশাখ। শুভ বাংলা নববর্ষ। ষড়ঋতুর বাংলাদেশে বছর ঘুরে আসলো বাংলা নববর্ষ। পুরনোকে বিদায় করে এলো...

জাতীয়21 hours ago

জিম্মি নাবিকদের নিয়ে শীঘ্রই সুখবর : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে ছিনতাই হওয়া জাহাজ ও নাবিকদের উদ্ধারে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি আছে। খুব সহসাই আপনারা সুখবর পাবেন। বললেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী...

জাতীয়22 hours ago

বাঙালির মুক্তি সাধনায় পহেলা বৈশাখ এক অবিনাশী শক্তি : রাষ্ট্রপতি

বাঙালি সংস্কৃতির বিকাশ,আত্মনিয়ন্ত্রণ ও মুক্তি সাধনায় পহেলা বৈশাখ এক অবিনাশী শক্তি। বাংলাদেশের অভ্যুদয় ও গণতন্ত্রের বিকাশে সংস্কৃতির এই শক্তি রাজনৈতিক...

Advertisement
আন্তর্জাতিক2 mins ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: প্রতিক্রিয়া জানালো ভারত ও চীন

ঢাকা50 mins ago

আলপনায় রঙিন হাওরের ১৪ কিলোমিটার সড়ক

বিএনপি1 hour ago

সরকারের লোকজন বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে : রিজভী

মৃত্যু
চট্টগ্রাম1 hour ago

পালিয়েছেন দুই স্ত্রী, পুড়িয়ে মারলেন তৃতীয় স্ত্রীকে

আখাউড়া
চট্টগ্রাম2 hours ago

মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা

দেশজুড়ে2 hours ago

বর্ণাঢ্য আয়োজনে পাবনায় বর্ষবরণ উদযাপিত

আবহাওয়া
আবহাওয়া3 hours ago

তাপমাত্রায় নিজের আগমনী বার্তা দিলো গ্রীষ্ম

চট্টগ্রাম3 hours ago

কেএনএফের আরও ৪ সহযোগী গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক3 hours ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: ভূমধ্যসাগরে ঢুকলো রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ

আন্তর্জাতিক4 hours ago

ইরানে পাল্টা হামলার বিষয়ে যা জানালো বাইডেন

সৌদি আরব
আন্তর্জাতিক7 days ago

সৌদি আরবে ঈদ কবে- যা জানা গেলো

সৌদি আরব
আন্তর্জাতিক6 days ago

সৌদিতে ঈদ বুধবার

আন্তর্জাতিক4 days ago

বিড়াল বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

আন্তর্জাতিক6 days ago

ঈদের তারিখ জানালো অস্ট্রেলিয়া

বিএনপি6 days ago

ব্যারিস্টার খোকনকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত পাঠানো হয়েছে লন্ডনে

আন্তর্জাতিক7 days ago

৬ মাসে হামাসকে কতটুকু ধ্বংস করতে পেরেছে ইসরায়েল

বাংলাদেশ4 days ago

যাত্রীদের মারধরে নয়, চালক-কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয় যেভাবে

আন্তর্জাতিক6 days ago

এবার পাকিস্তান জানালো কবে হতে পারে ঈদ

আন্তর্জাতিক5 days ago

রাতে নয়, দেশটিতে দিনে দেখা গেলো ঈদের চাঁদ!

বাংলাদেশ1 day ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল3 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি3 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল1 month ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি1 month ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত