Connect with us

ক্রিকেট

বিপিএলের সূচিতে পরিবর্তন

Avatar of author

Published

on

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দশম আসরের দুটি কোয়ালিফায়ার ও একটি এলিমিনেটর ম্যাচের সূচিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

পূর্বের সূচি অনুযায়ী, প্রথম কোয়ালিফায়ার ও এলিমিনেটরের ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ২৫ ফেব্রুয়ারি। আর দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ মাঠে গড়াতো ২৭ ফেব্রুয়ারি।

তবে নতুন সূচিতে, একদিন পিছিয়ে ২৬ ফেব্রুয়ারি হবে প্রথম কোয়ালিফায়ার ও এলিমিনেটরের এবং ২৭ ফেব্রুয়ারি থাকবে রিজার্ভ ডে।  দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার অনুষ্ঠিত হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি। সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরে বাংলায়।

Advertisement

ক্রিকেট

রাদারফোর্ডের উচ্ছ্বাস, নিউজিল্যান্ড শঙ্কায়

Published

on

দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এই জয়ে সুপার এইট নিশ্চিত হয়ে গেছে তাদের। ম্যাচের আগেই বলছিলেন উইন্ডিজ অধিনায়ক; নিউজিল্যান্ডকে হারানোর এটাই সময়। আর এই হারে বেশ চাপেই পড়েছে কিউইরা। দলটির পক্ষে পরের রাউন্ডে যাওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে শঙ্কা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অনেকটা বাঁচিয়ে দিয়েছেন শার্ফেন রাদারফোর্ড। প্রয়োজনের মুহূর্তে তার ব্যাটিংয়ের প্রশংসা আপনাকে করতেই হবে। দলের রান যখন ৭৬, পতন ঘটেছে ৭ উইকেটের। সেই সময় থেকে ম্যাচটি টেনে নিয়ে গেলেন। এক পর্যায়ে তা ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রানে শেষ হয়।

আর রাদারফোর্ডের ঝুলিতে তখন ৩৯ বলে ৬৮ রানের ইনিংস। যেখানে ৬ টি ছক্কা ২ টি চারের মার ছিল। এই রান পেরোতে পারেনি নিউজিল্যান্ড। নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৩ রানের পরাজয় স্বীকার করে নিতে হয়েছে কিউইদের।

রাদারফোর্ড ম্যাচ শেষে জানান, ‘আমার দলকে সাহায্য করতে পারা, এটা ভালো একটা অনুভূতি।’

‘একটা বিশ্বকাপ ম্যাচ খেলা আমাদের স্বপ্নের মধ্যে থাকে। এর জন্যই আমাদের বেঁচে থাকা, কঠোর ভাবে কাজ করা, আমি দলের প্রতি অবদান রাখতে পেরে অনেক খুশি।’

Advertisement

নিউজিল্যান্ড দলের সামনে ১৫০ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছিল। যা পেরোতে ব্যর্থ হয় তারা। আলজারি জোসেফের ৪ উইকেট, গুদাকেশ মোতির ৩ উইকেট আর বাকিদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ১৩৬ রানে শেষ হয়েছে কেন উইলিয়ামসনদের ইনিংস।

 

এম/এইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ক্রিকেট

সুপার এইটের স্বপ্ন নিয়ে সাগরপাড়ে ডাচদের মুখোমুখি বাংলাদেশ

Published

on

আর্নোস ভেল, ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে ক্যারিবিয়ানদের মাঠে। প্রতিপক্ষ সেখানে নেদারল্যান্ডস। সহযোগী দেশ হিসেবে ডাচদের সহজ হিসেবে নেওয়ার সুযোগ কি আছে? পরিষ্কার করে এর উত্তর দেওয়া যায়, না। এই দেশটির সাথে টাইগারদের ক্রিকেটের ইতিহাস যে খুব সুখকর, এমনটি তো নয়।

বাংলাদেশ সময় আজ (১৩ জুন) রাত সাড়ে ৮ টায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডস। দুই দলই দুইটি করে ম্যাচ খেলেছে। একটি করে ম্যাচ জিতেছে, একটি হেরেছে। নেট রান রেটে কিছুটা এগিয়ে থাকায় বাংলাদেশ আছে টেবিলের দুইয়ে আর নেদারল্যান্ডস তিনে।

আজকের ম্যাচটি বাংলাদেশ জয় ছিনিয়ে নিতে পারলে, অনেককিছুই সহজ হয়ে যাবে। অনেককিছু বলতে সুপার এইটের সমীকরণ। যা নিয়ে এখন সবচেয়ে বড় চিন্তা বা আকাঙ্ক্ষা। বাংলাদেশের সামনে সুযোগ আছে। দুই দেশের মধ্যে শক্তিশালী হিসেবে তো বাংলাদেশ দলকেই এগিয়ে রাখতে হবে।

নেদারল্যান্ডসের সাথে সর্বশেষ দেখায় অবশ্য পুড়তে হয়েছে বাংলাদেশকে। ওডিআই বিশ্বকাপ ২০২৩, ডাচদের বিপক্ষে পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছিল লাল সবুজের দল। টি-টোয়েন্টি’তে অবশ্য যে চার বার দেখা হয়েছে, প্রতিবারই জিতেছে বাংলাদেশ। আর সংক্ষিপ্ত সংস্করণের বিশ্বকাপে ২ বার সাক্ষাৎ হয় দুই দলের, ২০১৬ ও ২০২২; যার দুইটিই বাংলাদেশ জিতে যায়।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঠ আর্নোস ভেল নিয়ে নিশ্চিতভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। এই মাঠে প্রায় ১০ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে। এখানে কোনো ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) ম্যাচও আয়োজন করা হয়নি এখন পর্যন্ত।

Advertisement

এই মাঠের শেষ ম্যাচটিতে বাংলাদেশ খেলেছিল। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সে ম্যাচটি ২০১৪ সালে অনুষ্ঠিত হয়, আর বাংলাদেশ দল সেখানে পরাজিত হয়। সেই দলের একমাত্র মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবারের বিশ্বকাপ স্কোয়াডে আছেন।

বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বলেন, ‘আমরা এই মাঠ নিয়ে কথা বলেছি। আমার মনে হয়, সাকিব ভাই আমাকে বলছিল সে তার অধিনায়কত্বের অভিষেক করে এই মাঠে। রিয়াদ ভাইয়ের টেস্টে ৫ উইকেট আছে এখানে।’

বাংলাদেশ দল এখন চাইবে ম্যাচটি জিততে। এই ম্যাচে জয় নিশ্চিত করতে পারলে, নেপালের বিপক্ষে পরের ম্যাচটিতে অনেকটাই নির্ভার হয়ে খেলতে পারবে তারা। এদিকে নেদারল্যান্ডসের ভাবনাতেও জয় থাকবে। সুপার এইটে যাওয়ার সুযোগ আছে তাদের হাতেও রয়েছে।

 

এম/এইচ

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ক্রিকেট

অলরাউন্ডারের শীর্ষস্থান থেকে পাঁচে নামলেন সাকিব

Published

on

বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এখন অলরাউন্ডার র‍্যাংকিংয়ে ৫ নম্বরে অবস্থান করছেন। শীর্ষস্থান থেকে পাঁচে যাওয়ার এই ঘটনা সবশেষ হালনাগাগকৃত আইসিসি র‍্যাংকিং থেকে পাওয়া। সেখানে তার রেটিং পয়েন্ট বলছে ২১৬। আর তালিকায় সবার উপরে উঠেছেন মোহাম্মদ নবী। তার রেটিং দাঁড়িয়েছে ২৩১ এ।

বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত দুইটি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার প্রথমটিতে জয়, দ্বিতীয়টিতে পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছে তারা। আর দুই ম্যাচের একটিতেও সাকিব দেখাতে পারেননি তার কোনো অলরাউন্ডিং নৈপুণ্য। ব্যাটিং বা বোলিং; কোথাও থেকেই সুবিধা করতে পারেননি তিনি।

দুই ম্যাচ মিলে ৪ ওভার বল করেছিলেন উইকেট-বিহীন, আর ব্যাট হাতে করেছেন মাত্র ১১ টি রান। এই পারফরম্যান্স নিশ্চিতভাবেই তার র‍্যাংকিংয়ে প্রভাব পড়েছে। স্বাভাবিকভাবেই হালনাগাদকৃত যে র‍্যাংক করেছে আইসিসি, সেখানে পতন হয়েছে সাকিবের।

শীর্ষে উঠেছেন আফগান তারকা নবী। আর দুই নম্বর জায়গাটি দখল করেছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার মার্কাস স্টইনিস, তার রেটিং দাঁড়িয়েছে ২২৫ এ। দুইয়ে থাকা শ্রীলঙ্কা অলরাউন্ডার ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা নেমে গেছেন তিনে। আর চার নম্বরে নিজের জায়গাতেই আছেন জিম্বাবুয়ে অলরাউন্ডার সিকান্দার রাজা।

শুধু অলরাউন্ডার হিসেবে সাকিবের পতন ঘটেছে তাই নয়। ব্যাটিংয়েও পিছিয়ে গেছেন তিনি। পাঁচ ধাপ পিছিয়ে তিনি এখন ৮৪তম অবস্থানে। আর বোলিংয়ের অবনতি দেখাচ্ছে ৬ ধাপ পিছিয়ে তিনি ৩৬ নম্বরে অবস্থান করছেন এই অলরাউন্ডার।

Advertisement

 

এম/এইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত