Connect with us

রাজনীতি

সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যর্থ : রিজভী

Avatar of author

Published

on

বাজার

সরকার মানুষের জীবন দুর্বিষহ করতেই বিদ্যুৎ ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গণবিরোধী সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। সামনে রমজান, অথচ চিনি, খেজুরের দাম দফায় দফায় বাড়ছে। সঞ্চয় ভেঙে খাচ্ছে মানুষ। ঋণের চাপে মানুষ আত্মহত্যা করছে। এ মৃত্যুর দায় সরকারকে নিতে হবে। বললেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ডামি সরকারের ব্যর্থতা উন্মোচিত হলেই তারা মিথ্যার নানা রঙে বোনা বক্তব্য দিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করে জনগণের দৃষ্টিকে ঝাঁপসা করার জন্য। অযথা বিতর্ক সৃষ্টি করে নিজেদের ব্যর্থতা আড়াল করতে বিএনপির দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তোলে। আওয়ামী লুটেরা চক্রের কারণে ডামি সরকার সাধারণ মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে বাজার স্থিতিশীল রাখতে সম্পূর্ণভাবে ব্যর্থ হয়েছে। আওয়ামী বাজার সিন্ডিকেটের পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে ডামি সরকারের ডামি মন্ত্রীরা। অথচ নির্লজ্জভাবে বিএনপির ওপর দায়ভার চাপিয়ে দেয়ার পর নেত্রীর অনুসরণে ওবায়দুল কাদের এবং হাছান মাহমুদ সাহেবরা একই সুরে গান গাইছে।

তিনি বলেন, সরকারের কাজ অভিযোগ তোলা নয়। বাজার সিন্ডিকেট করে যারা জনজীবনে দুর্বিষহ পরিস্থিতি তৈরি করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া। এরই মধ্যে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ১ মার্চ থেকে আবারও বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছেন। জনজীবনকে ভয়াবহ দুর্বিষহ করতেই গণবিরোধী সরকার সর্বনাশা পথে হাঁটছে।

পবিত্র রমজান মাস সমাগত। সিয়াম-সাধনার এই মাসে দেশের জনগণ একটু স্বস্তি চায়, কিন্তু প্রতিদিন রকেট গতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বেড়েই চলছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রতিটি জিনিসপত্রের দাম জনগণের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে। রমজান উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) গত ৮ ফেব্রুয়ারি আলাদা প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে চাল, চিনি, তেল ও খেজুর আমদানিতে শুল্ক কর কমানোর ঘোষণা দেয়। সেদ্ধ ও আতপ চালের আমদানি শুল্ক পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে গেলো ১৯ দিনে বাজারে এসব পণ্যের দর এক আনাও কমেনি। বরং খোলা খাতায় প্রতিদিন দাম বৃদ্ধির ঘটনা দেখা যাচ্ছে। দফায় দফায় বাড়ছে চিনি ও খেজুরের দাম।

Advertisement

রিজভী বলেন, প্রতিবছর রমজানকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের কতিপয় চিহ্নিত অসাধু আমদানিকারক ও ব্যবসায়ী নানা ছুতোয় ভোক্তার পকেট কেটে ফতুর করে দিচ্ছে। মানুষ এখন সঞ্চয় ভেঙে খাচ্ছে। যাদের সঞ্চয় নেই, তারা ঋণ করছে। ফলে মানুষের ওপর চাপ বেড়ে যাচ্ছে। অনাহার, অর্থ কষ্ট আর ঋণের চাপ সহ্য করতে না পেরে মানুষ পরিবার নিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে। গতকাল মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় সায়মা বেগম (৩৫) তার মেয়ে ৯ বছরের ছাইমুনা এবং সাত বছরের ছেলে তাওহীদকে নিয়ে ঋণের জ্বালা সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন। এই মৃত্যুর দায় সরকার এড়াতে পারে না।

রিজভী আরও বলেন, আমরা অতি গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, প্রত্যেকটি বিষয় নিয়েই ডামি ভোটের সরকার দেশ এবং জনগণের ওপর মিথ্যার বৃষ্টি বর্ষণ করছে। এদের মিথ্যার বিষয়বৈচিত্র্য ও ব্যাপ্তি বিস্ময়কর। মিথ্যার ক্রমবিন্যাসের ক্ষেত্রে তারা অভাবিত দক্ষতা অর্জন করেছে। পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের নামে পরিকল্পিতভাবে ৫৭ জন চৌকস সেনাকর্মকর্তাকে হত্যা করা হয়েছে। ১৫ বছর পরও বিচার হয়নি, অথচ সরকার এখন বলছে সে ঘটনায় না কি বিএনপি জড়িত। পিলখানার ঘটনার নেপথ্যে কারা ছিল তা দেশ বিদেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে এসেছে। বিডিআরের সাবেক ডিজির বক্তব্যে পিলখানা হত্যাকান্ডের আসল ঘটনা বের হয়ে এসেছে। নির্বাচনে না এসে বিএনপি নয়, ডামি নির্বাচন করে আওয়ামী লীগই খেসারত দেবে। আমি বলতে চাই পিলখানা ট্র্যাজেডির রহস্য ধামাচাপা দেয়া যাবে না, একদিন এর প্রকৃত রহস্য উদঘাটিত হবে এবং প্রকৃত অপরাধীদের বিচার হবেই।

Advertisement

বিএনপি

উপজেলা নির্বাচন সরকারের আরেকটা ধাপ্পাবাজি: খসরু

Avatar of author

Published

on

নৌকা বাদ দিলেও সরকার ভোট চুরির প্রকল্প থেকে সরে আসেনি। যেখানে ভোটই নেই, সেখানে বিএনপির নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়ার তো কোন প্রশ্নই আসে না। উপজেলা নির্বাচনের মাধ্যমে মানুষদের আরেকটা ধাপ্পাবাজির দিকে নিয়ে যাচ্ছে সরকার। বললেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ১০ এপ্রিল কে প্রজাতন্ত্র দিবস ঘোষণার দাবিতে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

আমীর খসরু বলেন, সরকার একটা প্রকল্পের মাধ্যমে দেশের জনগণকে জিম্মি করে রেখেছে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে সরকার ক্ষমতা দখল করলেও রাজনৈতিকভাবে পরাজিত হয়েছে। ৯৫ শতাংশ জনগণ এই নির্বাচন ব্যবস্থাকে বর্জন করেছে।

তিনি আরও বলেন, যারা ক্ষমতা দখল করে আছে, আজ তারা ইতিহাসও দখল করতে চায়, এটাকে মূলধন বানাতে চায়। তারা শুধু জনগণের রাজনৈতিক অধিকার কেড়ে নিয়েছে এমন নয়, প্রতিটা পদে পদে জনগণের অধিকার হরণ করেছে। মানুষের জীবনের নিরাপত্তা বলতে বাংলাদেশে এখন কিছুই নেই। যারা ক্ষমতায় আছে, তাদের টিকে থাকার একমাত্র অস্ত্র হচ্ছে ভয়ভীতি।

বিএনপির এ নেতা বলেন, নৌকা নিয়ে জনগণের কাছে যাওয়ার সাহস নেই বলেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নৌকাকে বাদ দিয়েছে। তারা দেখেছে, নৌকা যেখানে আছে জনগণ সেখানে নেই।

Advertisement

টিআর/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

রাজনীতি

ওবায়দুল কাদেরের মস্তিষ্ক অলস-হৃদয় দুর্বল: রিজভী

Avatar of author

Published

on

মস্তিষ্ক

ওবায়দুল কাদের সাহেব বিএনপির কাছে তালিকা চেয়ে চিৎকার করছেন। ওবায়দুল কাদের সাহেব কিসের তালিকা চাইছেন?  এর আগেও তালিকা দেয়া হয়েছিল। আর তালিকা-তো আপনাদের কাছেই রয়েছে। বললেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেছেন, আইন-আদালত, থানা-পুলিশ আপনাদের কব্জায়। ওবায়দুল কাদের সাহেবের স্নায়ু শিথিল, মস্তিষ্ক অলস ও হৃদয় দুর্বল হওয়ার কারণে বেশি বেশি অবান্তর কথা বলেন। শেখ হাসিনার বিনাভোটের সরকার অসংখ্য মানুষকে গুম, খুন, অপহরণ করেছে। জাতিসংঘ গুমের একটি তালিকা দিয়েছিল। আজ পর্যন্ত বিনাভোটের সরকার এর কোনো জবাব দিতে পারেনি।

রিজভী বলেন, এম ইলিয়াস আলীর নিখোঁজের আজ ১২ বছর পূর্ণ হলো। তাকে ফিরে পাওয়ার অধীর অপেক্ষায় আজও প্রহর গুনছেন তার স্ত্রী-সন্তানসহ দেশের অগণিত নেতাকর্মী।

তিনি আরো বলেন, সমাজে মানুষের মধ্যে ভয়, আতঙ্ক ও নিরাপত্তাহীনতার বোধ সৃষ্টির জন্যই গুমকে কৌশল হিসেবে ব্যবহার করছে আওয়ামী শাসকগোষ্ঠী। মূল লক্ষ্য বিরোধী কণ্ঠকে নির্মূল করা, দীর্ঘ মেয়াদে ফ্যাসিবাদী শাসনকে নিষ্কণ্টক করা। এ সরকারের গোটা আমলটায় অপহরণ, গুম, খুন, ক্রসফায়ার এবং বন্দুকযুদ্ধের নামে বিচারবহির্ভূত হত্যা জ্যামিতিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

Advertisement

তিনি বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি, এম ইলিয়াস আলীসহ সরকারের গুমের শিকার সবাইকে অক্ষত অবস্থায় যার যার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিন। অন্যথায় একদিন প্রতিটি গুম-খুনের দায়ে বিচারের জন্য তৈরি থাকুন।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আওয়ামী লীগ

অপশক্তিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিহত করতে হবে: কাদের

Avatar of author

Published

on

বাংলাদেশের বিজয়কে সুসংহত করার প্রধান বাধা সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। যার মদদদাতা বিএনপি। এই অপশক্তিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় প্রতিহত করতে হবে। বিএনপিসহ সন্ত্রাসী শক্তিকে পরাজিত করেই বিজয়ের পথে এগিয়ে যাবে দেশ। বললেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) সকালে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজকের দিনে বিএনপিসহ স্বাধীনতা বিরোধী সন্ত্রাসী শক্তি, সকল অপশক্তি যারা আমাদের সমৃদ্ধির পথে প্রতিবন্ধক এদের আমরা পরাজিত করব, পরাভূত করব, প্রতিহত করব এবং আমাদের লড়াইকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাব। বিজয়ের স্বপ্ন তোরণ অভিমুখে।

ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের অঙ্গ, সহযোগী ও ভাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে তার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ দলটির কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

Advertisement

এছাড়াও ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

টিআর/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

জাতীয়25 mins ago

‘কুকি-চিন সদস্যরা আত্মসমর্পণ না করা পর্যন্ত অভিযান চলবে’

কেএনএফ (কুকি-চিন ন্যাশনাল ফ্রন্টের) সদস্যরা শান্তির পথে ফিরে না আসা পর্যন্ত পাহাড়ে যৌথ অভিযান অব্যাহত থাকবে। তবে আলোচনার পথ এখনও...

জাতীয়39 mins ago

১ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল

দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল (সি-মি-উই-৫) রক্ষণাবেক্ষণ কাজের জন্য জন্য এক ঘণ্টা বন্ধ থাকবে। এজন্য ইন্টারনেটের ধীরগতির কারণে ভোগান্তিতে পড়বেন গ্রাহকরা।...

গর্ভবতী মহিলা গর্ভবতী মহিলা
বাংলাদেশ53 mins ago

গরমে গর্ভবতীদের পেট ফেঁপে যেতে পারে, যা করনীয়

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে সারা দেশ। আর এমন তাপদাহ পরিস্থিতিতে একটু উল্টোপাল্টা খাবার খেলে যে অচিরেই পেট ফেঁপে যাবে, তা তো...

দুর্ঘটনা1 hour ago

টোলপ্লাজায় অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারকে ট্রাকের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১৪

ঝালকাঠির গাবখান সেতুর টোল প্লাজায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ জনে। নিহত ১৪ জনের মধ্যে ৭ জন পুরুষ,...

পররাষ্ট্রমন্ত্রী পররাষ্ট্রমন্ত্রী
জাতীয়1 hour ago

জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিবিএনজে চুক্তি অনুমোদন এবং মহাসাগরের জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল বরাদ্দের জন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ। গ্রিসের...

জাতীয়1 hour ago

ইরান-ইসরায়েল হামলা : প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতির নির্দেশ

ইরান-ইসরায়েল হামলার সম্ভাব্য প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতির ঘটনা প্রবাহের দিকে সংশ্লিষ্টদের...

জাতীয়2 hours ago

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা

তৃতীয় ধাপের ১১২টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব উপজেলা পরিষদে আগামী ২৯ মে নির্বাচন অনুষ্ঠিত...

জনদুর্ভোগ2 hours ago

জলাবদ্ধতা নিরসনে নতুন প্রকল্প ডিএসসিসির

আশা করি এবার আর জলাবদ্ধতা থাকবে না। নিউমার্কেট এলাকার জন্য নতুন প্রকল্প নিয়েছি। নিউমার্কেট এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে নতুন প্রকল্প গ্রহণ...

নির্বাচন-কমিশন নির্বাচন-কমিশন
জাতীয়3 hours ago

উপজেলা নির্বাচনে ৩য় ধাপের তফসিল ঘোষণা

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ধাপের তফসিল ঘোষণা করছেন নির্বাচন কমিশন। বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে দ্বিতীয়...

দুর্ঘটনা4 hours ago

ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ১২

ঝালকাঠিতে ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে ১২ নিহত হয়েছেন। সিমেন্টবাহী ওই ট্রাকের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কয়েকটি গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পাশে চলে যায়।...

Advertisement
জাতীয়25 mins ago

‘কুকি-চিন সদস্যরা আত্মসমর্পণ না করা পর্যন্ত অভিযান চলবে’

সৌন্দর্য
লাইফস্টাইল25 mins ago

চড়-থাপ্পড়েই বাড়বে নারীদের সৌন্দর্য!

জাতীয়39 mins ago

১ ঘণ্টা বন্ধ থাকবে দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল

শিল্পী
বিনোদন43 mins ago

শিল্পীদের নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা

গর্ভবতী মহিলা
বাংলাদেশ53 mins ago

গরমে গর্ভবতীদের পেট ফেঁপে যেতে পারে, যা করনীয়

সালমান-খান,-রাখি
বলিউড1 hour ago

সালমানের জন্য কেঁদেই চলেছেন রাখি

দুর্ঘটনা1 hour ago

টোলপ্লাজায় অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারকে ট্রাকের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১৪

প্রিয়াঙ্কা
বিনোদন1 hour ago

শুটিং ফ্লোর থেকে রক্তাক্ত ছবি পোস্ট প্রিয়াঙ্কার!

পররাষ্ট্রমন্ত্রী
জাতীয়1 hour ago

জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়1 hour ago

ইরান-ইসরায়েল হামলা : প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতির নির্দেশ

আন্তর্জাতিক7 days ago

বিড়াল বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

সৌদি-পতাকা
আন্তর্জাতিক6 hours ago

ইরান-ইসরায়েল প্রসঙ্গে অবস্থান স্পষ্ট করলো সৌদি

ডাকসুর-সাবেক-ভিপি-নুরুল-হক
আইন-বিচার2 days ago

নুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

বাংলাদেশ4 days ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

ফায়ার-সার্ভিস
জাতীয়5 days ago

নিয়ন্ত্রণে এসেছে বাড্ডার আগুন

দেশজুড়ে4 days ago

যুবকের পায়ুপথ থেকে বের করা হলো ৬ ইঞ্চি ডাব

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: ভূমধ্যসাগরে ঢুকলো রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইরানে পাল্টা হামলার বিষয়ে যা জানালো বাইডেন

বাংলাদেশ7 days ago

যাত্রীদের মারধরে নয়, চালক-কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয় যেভাবে

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: প্রতিক্রিয়া জানালো ভারত ও চীন

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল3 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি4 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল1 month ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত