Connect with us

টুকিটাকি

আম্বানির ছেলের বিয়েতে ২৫০০ পদ রাধঁবেন ২১ বাবুর্চি, মেনুতে যা থাকছে

Avatar of author

Published

on

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্যে বসতে চলেছে মুকেশ আম্বানির কনিষ্ঠ পুত্রের। শোনা যাচ্ছে, সেই আসরে উপস্থিত অতিথিদের আপ্যায়নও করা হবে প্রধানমন্ত্রীরই পছন্দের খাবারদাবার দিয়েই! ইনদওরের চাট, কচুরি, জিলিপি খেতে ভালোবাসেন মোদী। মাঝেমধ্যেই তার মুখে প্রশংসা শোনা যায় মধ্যপ্রদেশের রাস্তার ধারের এই সমস্ত খাবারদাবারের। তিন দিনের অনুষ্ঠানে গুজরাতে উপস্থিত দেশ-বিদেশের মান্যগণ্য অতিথিদের পাতেও পড়বে ইনদওরের বিশেষ চাট, কচুরি এবং জিলিপি। তার জন্য খাস ইনদওর থেকেই রাঁধুনি আনানোর বন্দোবস্ত করেছে আম্বানি পরিবার।

ইনদওরের জার্ডিয়ান্স হোটেলের ২১ জন শেফকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে এই রান্নার। হোটেলের ডিরেক্টর প্রবীর শর্মা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তিন দিনের অনুষ্ঠানে ১২ ধরনের মেনু প্রস্তুত করা হচ্ছে। আর সেই মেনুতে থাকবে আড়াই হাজার পদ। ইনদওরের ওই হোটেলের রাঁধুনিদের বলা হয়েছে, ইনদওর থেকে খাঁটি মশলাপাতি নিয়ে অনুষ্ঠানে আসতে। যাতে গুজরাটে গেলেও ইনদওরের খাবারের স্বাদ একই থাকে। কী কী থাকবে ওই খাবারের তালিকায়?

ইনদওরের কচুরি থেকে শুরু করে ভুট্টেকা কীস, খোপরা প্যাটিস, উপমা, ইনদওরের চিঁড়ের পোলাও, জিলিপি, নানা ধরনের চাট, কুলফি- এই সবই থাকবে মেনুতে।

আম্বানির কনিষ্ঠ পুত্র অনন্ত আম্বানি এবং তার বাগ্‌দত্তা রাধিকা মার্চেন্টের বিয়ে আগামী ১২ জুলাই। তার আগে আগামী ১ মার্চ থেকে ৩ মার্চ প্রাক্‌-বিবাহ অনুষ্ঠানের আসর বসবে গুজরাটের জামনগরে।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিতি থাকার কথা ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ, গুগলের মূল সংস্থা অ্যালফাবেটের সিইও সুন্দর পিচাই, মাইক্রোসফ্‌ট প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, ওয়াল্ট ডিজ়নির সিইও বব আইগার, মর্গান স্ট্যানলির সিইও টেড পিকসহ বহু বিদেশ সংস্থার শীর্ষকর্তারা। একই সঙ্গে দেশের ক্রীড়া তারকা, বিনোদন জগতের অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও অতিথি হয়ে আসবেন ওই অনুষ্ঠানে। মোট আমন্ত্রিতের সংখ্যা হাজারখানেক।

সূত্রের খবর, তাদের জন্য আড়াই হাজার পদ বানাতে ডাকা হয়েছে ৬৫ জন রাঁধুনিকে। ইনদওরের বিশেষ খাবার ছাড়াও তারা অতিথিদের জন্য বানাবেন জাপানি, থাই, মেক্সিকান এবং পারসি পদ।

কী নিয়মে সেই খাবার অতিথিদের দেয়া হবে, তার বিশদ জানিয়েছেন শর্মাই। তিনি জানান, শুধু প্রাতরাশের জন্যই থাকবে ৭৫ রকমের পদ। মধ্যাহ্নভোজে ২২৫ রকমের, নৈশাহারে ২৭৫ রকম পদ এবং মধ্যরাতে অর্থাৎ রাত ১২টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত অতিথিদের জন্য থাকবে ৮৫ রকমের পদ। তিন দিনের এই মেনু এমন ভাবে সাজানো হবে, যাতে একটি পদও দ্বিতীয় বার না খেতে হয় অতিথিদের।

Advertisement

তবে প্রধানমন্ত্রী মোদীর পছন্দের ইনদওরের খাবারের জন্য থাকবে বিশেষ দু’টি কাউন্টার। সেখান থেকে যখন খুশি অতিথিরা ইনদওরের ভারতীয় খাবার চেখে দেখতে পারবেন।

Advertisement

টুকিটাকি

বিশ্বের সবচেয়ে দামি ৫ ব্যাগ কোনগুলি, দাম জানলে অবাক হবেন

Avatar of author

Published

on

অনেকই বিলাসবহুল জিনিসের শখ থাকে। কেউ ভালোবাসেন দামি ঘড়ি, কারও বা পছন্দের জিনিস জুতো অথবা কারও শখ থাকে দামি ব্যাগের। তেমনি সব বয়সের নারীর কাছে পছন্দের জিনিস হচ্ছে হাতব্যাগ। ভালো লাগার জন্য কেউ কেউ পছন্দের হাতব্যাগ সংগ্রহ করে রাখেন। কিন্তু জানেন কি, বিশ্বের সবচেয়ে দামি হাতব্যাগের দাম কত?

বিশ্বের সবথেকে দামি ৫ হাতব্যাগ

অনেক নারীরই হাতব্যাগ সংগ্রহে রাখার স্বভাব রয়েছে। অনেকেই লাক্সারি হাতব্যাগ সম্পর্কে রীতিমতো পড়াশোনা করে নিজেকে ‘আপডেট’ রাখতে পছন্দ করেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বের সবচেয়ে দামি ব্যাগ বদলে যায়। রমি টিসার অফিশিয়াল ওয়েবসাইট অনুসারে দেখে নেয়া যাক বিশ্বের সবচেয়ে দামি পাঁচ হাতব্যাগ এবং জেনে নেওয়া যাক এগুলির সম্পর্কে।

বিশ্বের সবচেয়ে দামি ব্যাগ: ডেবি উইন্যাম ব্যাগ

ডিম আকৃতির হওয়ায় ডেবি উইন্যাম এগ ব্যাগ নামেও এটি পরিচিত। ডেবি উইন্যাম মূলত একজন ব্রিটিশ কেক আর্টিস্ট, দুবাইয়ের ধনীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে দামি দামি লাক্সারি জিনিসপত্রের ডিজাইন করে। ব্যাগটি বানানোর জন্য অত্যন্ত ধনী এক নারী ডেবিকে নিজের সংগ্রহ থেকে ৪০ হাজার ডলারের দুটি কানের দুল, ৮ হাজার ছোট ছোট হীরার টুকরা, ৩টি পিঙ্ক ডায়মন্ড, ২টি সাদা ডায়মন্ড, প্লাটিনাম ও ২৪ ক্যারেট সোনা দেন।

Advertisement

ইমু পাখির নীল ডিম থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে ব্যাগটির ডিজাইন করা হয়েছে। ভেতরের দিকটা তৈরি হয়েছে আরমেজের সিল্কের স্কার্ফ দিয়ে। এসব উপকরণের দাম, ডিজাইন খরচ, মজুরি—সব মিলিয়ে ব্যাগটির দাম ধরা হয় ৬.৭ মিলিয়ন ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭৩ কোটি ৭০ লাখ টাকা। ২০১৯ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী এটিই বিশ্বের সবচেয়ে দামি ব্যাগ।

দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি ব্যাগ: মুয়াওয়াড ১০০১ নাইটস ডায়মন্ড পার্স

Advertisement

আমিরাতি লাক্সারি গুডস কোম্পানির যে পাঁচ পণ্য দামের কারণে গিনেস বুক অব রেকর্ডসে নাম তুলেছে, তার একটি এই ব্যাগ। হৃদয় আকৃতির এই ব্যাগ তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১৮ ক্যারেট সোনা, ১০৫টি হলুদ হিরে, ৫৬টি গোলাপি হিরে ও ৪ হাজার ৩৫৬টি বিবর্ণ হিরে। ব্যাগটি তৈরিতে সময় লেগেছে ৮ হাজার ৮০০ ঘণ্টা। এই ব্যাগ মাত্র একটিই তৈরি করা হয়েছে। ২০১১ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত এটিই ছিল বিশ্বের সবচেয়ে দামি ব্যাগ। ব্যাগটির দাম দেড় মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

তৃতীয় সর্বোচ্চ দামি ব্যাগ: আরমেজ বারকিন ব্যাগ

এটির নকশা করেছে জাপানি ডিজাইনার জিনজা তানাকা। ব্যাগটির সারা শরীরে ২ হাজার হিরে ব্যবহার করা হয়েছে। মাঝখানে রয়েছে ১৮ ক্যারেটের চকচকে আলো–ছড়ানো একটা হিরে। চাইলে এটি ব্রচ হিসেবেও ব্যবহার করা যাবে। এটি দিয়ে নেকলেস বা অন্য কোনো গয়নাও বানিয়ে নিতে পারবেন। ব্যাগটির দাম ১.৫ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা।

চতুর্থ সর্বোচ্চ দামি ব্যাগ: আরমেজ চেইনড অ্যাঙ্কর ব্যাগ

প্যারিসভিত্তিক লাক্সারি ব্র্যান্ড আরমেজের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দামি ব্যাগ। এই ব্যাগের চেইনে ১ হাজার ১৬০ টুকরো ছোট ছোট হিরে ব্যবহার করা হয়েছে। ডিজাইন করেছেন ৬৭ বছর বয়সী বিশ্বখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার পিঁয়ে আরডি। এ রকম ব্যাগ তৈরি হয়েছে মাত্র ৪টি। হুক আকৃতির এই ব্যাগের দাম ১.৪ মিলিয়ন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

Advertisement

পঞ্চম সর্বোচ্চ দামি ব্যাগ: নিলোটিকাস ক্রোকোডাইল হিমালয় বারকিন ব্যাগ

নীল নদের বিশেষ কুমিরের চামড়া থেকে তৈরি এই ব্যাগ। দাম ৩ লাখ ৭৯ হাজার ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪১ লাখ ৭০ হাজার টাকা। এই চামড়ার স্বাভাবিক রং ধরে রাখার জন্য একটা নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় সুদীর্ঘ সময় ধরে শুকোতে হয়। এই ব্যাগের বাইরের ডিজাইন বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু পর্বতশৃঙ্গ হিমালয়ের ল্যান্ডস্কেপ থেকে অনুপ্রাণিত।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

টুকিটাকি

মুরগির এক ডিম যে কারণে বিক্রি হলো আড়াই লাখ টাকা

Avatar of author

Published

on

এটা সোনার ডিম নয়, বাজার থেকে মাত্র ১০ টাকায় কেনা যায় সাধারণ একটা মুরগির ডিম। সেই ডিমটাই নিলামে চড়ানো হয়েছিল। আর তার দাম উঠেছে সোয়া দুই লাখ ভারতীয় টাকা। যা বাংলাদেশি টাকায় ২ লাখ ৬২ হাজার টাকা (১ রুপি ১.৩১ টাকা হিসেবে)।

এই ঘটনা ভারত শাসিত কাশ্মীরের।

মাত্র ১০ টাকা দামের ডিমটার এত দাম কী করে হলো? কেনই বা নিলামে চড়ানো হয়েছিল একটা ডিম?

কাহিনীর শুরু সোপোর জেলার মাল মাপানপুরা গ্রামের একটি মসজিদ থেকে। মসজিদ কমিটি সিদ্ধান্ত নেয় যে ঈদ উপলক্ষে বাড়ি বাড়ি ঘুরে তারা নগদ অর্থ আর বিভিন্ন সামগ্রী দান হিসেবে সংগ্রহ করবে।এতে কেউ নগদ অর্থ দিয়েছেন, কেউ থালা বাসন, মুরগি বা চাল দান করেছেন।

মসজিদ কমিটির সদস্য নাসির আহমেদ জানান, আমরা দান সংগ্রহ করছিলাম। তার মধ্যেই একটা ছোট বাড়ি থেকে এক নারী মাথা নিচু করে বেরিয়ে আসেন। আমার কাছে এসে তিনি একটা ডিম দিয়ে বলেন তার দানটা যেন আমি গ্রহণ করি।

Advertisement

আহমেদ জানান, ওই নারী খুবই গরীব। একটা ভাঙাচোরা ছোট্ট ঘরে একমাত্র ছেলের সঙ্গে বাস করেন।

ডিম নিয়ে কী করা হবে?

নাসির আহমেদ জানান, অন্যান্য জিনিষগুলো তো বিক্রি করার জন্য দেয়া গিয়েছিল। কিন্তু আমার দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে উঠল ওই ডিমটা নিয়ে কী করা যায়!

তিনি বলেন, ভারতীয় ছয় টাকা দামের একটা সাধারণ ডিম ওটা। কিন্তু অত্যন্ত গরীব ওই নারী যে আবেগ নিয়ে খোদার নামে দান করেছিলেন, সেটাই ওই ডিমটাকে অমূল্য করে তুলেছে। কমিটির অন্য সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে ডিমটাকে নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তিনদিন পরে ডিমটা ফেরত নিয়ে নেয়া হবে, এরকম সিদ্ধান্তও জানানো হয়। তিনি নিজেই দশ ভারতীয় টাকা নিয়ে নিলামে প্রথম দর হাঁকেন। প্রথমেই ডিমটার দাম উঠেছিল দশ হাজার ভারতীয় টাকা। তারপরে দর বাড়ানো হয়।

গ্রামের সাবেক পঞ্চায়েত প্রধান তারিক আহমেদ বলছেন, “আড়াইশো মানুষের এই গ্রামে বড় জামাতের মসজিদ ছিল না। সেজন্যই একটা বড় মসজিদ বানানোর কাজ শুরু করেছিলাম আমরা।। কিন্তু তহবিলের অভাবে ছাদ পর্যন্ত বানিয়ে আর কাজ এগোনো যায়নি।”

Advertisement

তিনি বলছিলেন যে এটা তারা ভাবতেও পারেননি যে একটা ডিম নিলামে তুলে সোয়া দুই লাখ ভারতীয় টাকা তারা সংগ্রহ করতে পারবেন।

মসজিদের কমিটি সিদ্ধান্ত নেয় যে ডিমটা তিনদিন পর্যন্ত নিলাম করা হবে।

নাসির আহমেদ বলছিলেন, প্রথম দুদিনে ১০, ২০, ৩০ আর ৫০ হাজার ভারতীয় টাকা পর্যন্তও দর উঠেছিল। প্রতিবারই ডিমটা ফেরত নিয়ে নেয়া হতো।

এরপর শেষ দিনে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত নিলাম চলবে, এরকম একটা ঘোষণা করা হয়।

ফ্রেমে বাঁধানো থাকবে ডিম

Advertisement

সবচেয়ে বেশি দর যিনি দিতে পারবেন শেষ পর্যন্ত, তার হাতেই ডিমটা দেয়া হবে বলেও জানানো হয়। শেষ দিনের নিলামে হাজির ছিলেন সোপোরের ব্যবসায়ী দানিশ হামিদ।

নিলামে দুবার হাঁক দেয়া হয়েছিল ৫৪ হাজার ভারতীয় টাকার। একেবারে শেষ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা হামিদ দর হাঁকেন ৭০ হাজার।

এভাবেই মোট দুই লাখ ২৬ হাজার ৩৫০ ভারতীয় টাকা জমা হয়।

নাসির আহমেদ বলেন যে এটা এখন আর একটা সাধারণ ডিম নয়। প্রতীকী হয়ে উঠেছে ওই ডিমটা।

দানিশ হামিদ বলেন, আমি এখন ওই ডিমটাকে সুন্দর করে সাজিয়ে রাখার জন্য একটা ভালো ফ্রেম বানাচ্ছি। সামলিয়ে রাখতে হবে এটা।

Advertisement

তিনি চাইছেন যে এই ডিমের ব্যাপারটা যেন তার পরিবার, অথবা যারাই দেখতে আসবেন, তাদের কাছে স্মরণীয় হয়ে ওঠে যে কীভাবে এক নারী খোদার জন্য দামের কথা না ভেবেই একটা ডিম দান করে দিয়েছিলেন। সূত্র -বিবিসি

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

টুকিটাকি

মদপানে বাধা দেয়ায় স্ত্রী ও ২ মেয়েকে কুপিয়ে খুন

Avatar of author

Published

on

মত্ত অবস্থায় স্ত্রী ও দুই নাবালিকা কন্যাকে কুড়ুল দিয়ে খুন করলেন এক তরুণ। এ খুনের অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এই ঘটনাটি ভারতের ঝাড়খণ্ডের পশ্চিম সিংভূম জেলার লুদ্রাবাসা গ্রামে ঘটেছে। অভিযুক্তের নাম গুরুচরণ পাড়িয়া। মঙ্গলবার খুনের অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ঝাড়খণ্ড পুলিশ জানায়, অতিরিক্ত মদ্যপান করেন বলে গুরুচরণের সঙ্গে অধিকাংশ সময় তার স্ত্রীর অশান্তি হত। সোমবার রাতেও মদ খেয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন গুরুচরণ। পুলিশ জানায়, রাত আড়াইটে নাগাদ গুরুচরণ এবং তার স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়।

ঝগড়া চলাকালীন রাগের বশে হাতের নাগালে থাকা কুড়ুল দিয়ে তার স্ত্রীকে খুন করেন গুরুচরণ। বাড়িতে সেই সময় ছিল তাঁ এক বছর এবং পাঁচ বছর বয়সি দুই মেয়ে। দুই মেয়েকেও কুড়ুল দিয়ে গুরুচরণ খুন করেন বলে পুলিশের দাবি।

মঙ্গলবার স্ত্রী এবং দুই নাবালিকা কন্যাকে খুনের অভিযোগে গুরুচরণকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তিন জনের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ঝাড়খণ্ড পুলিশ।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

জাতীয়7 hours ago

তীব্র দাবদাহে ট্রাফিক সদস্যদের স্বস্তি দিতে অনন্য উদ্যোগ

প্রচণ্ড খরতাপে পুড়ছে সারা দেশ। এই তীব্র গরমের মাঝেও খোলা আকাশের নিচে ঢাকা মেট্রোপিলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরা যানজট নিরসনে...

জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহের মধ্যে ৭ দিন স্কুল বন্ধের দাবি

টানা ২৬ দিন ছুটি কাটিয়ে রোববার (২১ এপ্রিল) খুলছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এমন একসময় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে যখন দেশের ওপর দিয়ে তীব্র...

জাতীয়9 hours ago

১৫০ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে ২৮৫ সেনাসহ ফিরবে মিয়ানমারের জাহাজ

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ ও সেনাবাহিনীর ২৮৫ জন সদস্যকে মিয়ানমারের জাহাজে নৌপথে ফেরত যাওয়ার ক্লিয়ারেন্স দেয়া হয়েছে।...

বাংলাদেশ9 hours ago

ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে তাপমাত্রা

সারাদেশে চলছে তাপপ্রবাহ। জনজীবন হয়ে উঠেছে অতিষ্ঠ। যশোর-চুয়াডাঙ্গায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তিন দিনের...

জনদুর্ভোগ11 hours ago

২ ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে যেসব এলাকায়

গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি কাজের জন্য শনিবার (২০ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের বেশ কিছু এলাকায় দুই ঘণ্টা গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। এছাড়াও ওই...

চট্টগ্রাম11 hours ago

ট্রেনের ধাক্কায় স্ত্রী-সন্তানদের সামনেই প্রাণ গেলো স্বামীর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নোয়াখালী মেইল ট্রেনের ধাক্কায় স্ত্রী-সন্তানদের সামনেই প্রাণ হারিয়েছেন রায়হান মিয়া (৩৫) নামের এক যুবক। ঈদের ছুটিতে স্ত্রী, দুই মেয়ে...

দুর্ঘটনা11 hours ago

হাসপাতালের আইসিইউ পুড়ে ছাই, রক্ষা পেল ৭ শিশু

রাজধানীর শ্যামলীতে অবস্থিত শিশু হাসপাতালের কার্ডিয়াক ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউ) এসি বিস্ফোরণে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। পুড়ে গেছে বেড,...

বাংলাদেশ12 hours ago

ধেয়ে আসছে তীব্র ঝড়

দেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়সহ শিলাবৃষ্টির আশঙ্কা করছে আবহওয়া অফিসে। এর মধ্যে সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে তীব্র ঝড় বয়ে যেতে পারে...

দুর্ঘটনা12 hours ago

ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

রাজশাহীতে ট্রাকচাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকেল পৌনে ৫টার...

জাতীয়13 hours ago

হিট অ্যালার্ট জারি, চুয়াডাঙ্গায় তাপমাত্রা ৪১ দশমিক ৩ ডিগ্রি

দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া তাপপ্রবাহের তীব্রতা আরও বাড়ার শঙ্কায় তিন দিনের জন্য হিট অ্যালার্ট (তাপমাত্রা সর্তকতা) জারি করেছে আবহাওয়া...

Advertisement
জাতীয়7 hours ago

তীব্র দাবদাহে ট্রাফিক সদস্যদের স্বস্তি দিতে অনন্য উদ্যোগ

জাতীয়8 hours ago

তীব্র দাবদাহের মধ্যে ৭ দিন স্কুল বন্ধের দাবি

ঢাকা8 hours ago

হেলিকপ্টারে নববধূ নিয়ে এলেন ছাত্রলীগ নেতা

অন্যান্য8 hours ago

মারামারি করে মাঠ ছাড়ল মোহামেডান, আবাহনীকে জয়ী ঘোষণা

জাতীয়9 hours ago

১৫০ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে ২৮৫ সেনাসহ ফিরবে মিয়ানমারের জাহাজ

বাংলাদেশ9 hours ago

ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে তাপমাত্রা

ফুটবল9 hours ago

সমর্থকদের কারণে জরিমানার মুখে বার্সেলোনা

ফুটবল9 hours ago

দুটি হলুদ কার্ড দেখেও মাঠ ছাড়তে হলো না মার্টিনেজকে

ঢালিউড9 hours ago

কাবিলাকে পেয়েই ভোটকেন্দ্রে নাচলেন নাসরিন

আন্তর্জাতিক9 hours ago

ভোটের সময় ছত্তিশগড়ে বিস্ফোরণে নিহত ১, পশ্চিমবঙ্গে সহিংসতা 

সৌদি-পতাকা
আন্তর্জাতিক3 days ago

ইরান-ইসরায়েল প্রসঙ্গে অবস্থান স্পষ্ট করলো সৌদি

ডাকসুর-সাবেক-ভিপি-নুরুল-হক
আইন-বিচার4 days ago

নুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে আবারও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ইসলাম3 days ago

ঈদুল আযহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা

টুকিটাকি5 days ago

অপ্রাপ্তবয়স্ক ছাত্রকে যৌন নির্যাতন করলেন শিক্ষিকা

বাংলাদেশ7 days ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

বাংলাদেশ2 days ago

নিজ বাহিনীতে ফিরে গেলেন খন্দকার আল মঈন

বাংলাদেশ4 days ago

সন্যাসী হতে ২০০ কোটি রুপির সম্পত্তি দান করলেন দম্পতি

সৌন্দর্য
লাইফস্টাইল2 days ago

চড়-থাপ্পড়েই বাড়বে নারীদের সৌন্দর্য!

আন্তর্জাতিক6 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: ভূমধ্যসাগরে ঢুকলো রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল4 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি4 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল2 months ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত