Connect with us

ঢালিউড

ঢাকায় আসছেন জাভেদ আলী

Avatar of author

Published

on

জাভেদ-আলী

তার কণ্ঠে ‘শ্রীভাল্লি’ শিরোনামের গান নেট দুনিয়ায় ঝড় তুলেছিল।  তেলুগু সিনেমা ‘পুষ্পা: দ্য রাইজ’র গান এটি। তাও সেটা বছর দুয়েক আগের কথা। এই গানের মাধ্যমে নতুন করে আলোচনার কেন্দ্রে এলেও তিনি ভারতের অত্যন্ত গুণী ও সফল এক শিল্পী। নাম জাভেদ আলি। তার কণ্ঠে বহু গান হয়েছে শ্রোতাপ্রিয়।

নন্দিত এই শিল্পী এবার আসছেন ঢাকায় গান গাইতে। আগামী ২৬ এপ্রিল পূর্বাচলে ঢাকা এরিনায় গাইবেন জাভেদ। ‘আরবান নাইট উইথ থ্রি নেশনস’ শীর্ষক এই কনসার্টের মূল চমক তিনি।

নাম থেকে আঁচ করা যায়, এই কনসার্তে তিনটি দেশের সমন্বয় ঘটবে। হ্যাঁ, ভারতের জাভেদ আলির পাশাপাশি পাকিস্তান থেকেও আসছেন একজন শিল্পী। তার নাম আবদুল হান্নান। এছাড়া বাংলাদেশ থেকে পারফর্ম করবেন কোক স্টুডিও দিয়ে পরিচিতি পাওয়া ঈশান মজুমদার।

কনসার্টের আয়োজন করছে অ্যাসেন, আর্কলাইট ইভেন্টস ও জির্কুনিয়াম। আয়োজনটি নিয়ে অ্যাসেনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আনন্দ চৌধুরী বলেন, ‘কনসার্টের প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে। টিকিট বিক্রিতেও ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। এ কনসার্টে তিন দেশের সংগীতের মেলবন্ধন ঘটবে। দর্শকরা চমৎকার একটি সন্ধ্যা উপভোগ করতে পারবেন।’

জাভেদ,-ঈশান

অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে হলে সংগ্রহ করতে হবে টিকিট । যেটা পাওয়া যাচ্ছে ‘গেট সেট রক’-এ। সাধারণ টিকিটের দাম সাড়ে তিন হাজার এবং ভিআইপি টিকিটের দাম ধরা হয়েছে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা।

Advertisement

উল্লেখ্য, জাভেদ আলি হিন্দির পাশাপাশি বাংলা, কন্নড়, তেলুগু, তামিল, মালায়লাম, গুজরাটি, মারাঠিসহ বহু ভাষায় গান করেন। তার গাওয়া কয়েকটি জনপ্রিয় গান হলো- ‘কুন ফায়া কুন’, ‘তু হি হাকিকত’, ‘আরজিয়া’, ‘গালে লাভ যা’, ‘দিওয়ানা কার রাহা হ্যায়’, ‘তু জো মিলা’ ইত্যাদি।

 

Advertisement

ঢালিউড

সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রাখি সাওয়ান্ত

Published

on

হৃদরোগ সংক্রান্ত জটিল সমস্যার  কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলিউডের আলোচিত মডেল ও অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্ত। বর্তমানে ভারতের মুম্বাইয়ের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে  রাখি সাওয়ান্ত বলেন, ‘আমার হার্টে সমস্যা দেখা দিয়েছে। আমি এখন কথা বলার অবস্থায় নেই। আগামী ৫-৬ দিন আমাকে বিশ্রামে থাকতে হবে।’

তবে রাখি কোন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন কিংবা তাঁর শারীরিক অবস্থা কি তা নিয়ে কোনো তথ্য দেননি। গেল বছর রাখির মা ব্রেন টিউমার ও ক্যানসারে ভুগে মারা যান। এরপর থেকে মানসিকভাবে প্রচণ্ড ভেঙ্গে পড়েন রাখি।

হাতে উল্লেখযোগ্য কোন কাজ না থাকলেও ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সব সময় আলোচনায় থাকেন রাখি সাওয়ান্ত।  সম্প্রতি তার প্রাক্তন স্বামীর দায়ের করা মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরওয়ানা জারি করেন আদালত।  ওই সময়ে রাখি দুবাই ছিলেন। সেখান  থেকে মুম্বাই  ফিরতে না ফিরতেই অসুস্থ হয়ে পড়লেন এই বলিউডের এই আইটেম গার্ল।

এমআর//

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢালিউড

মিশা-ডিপজলের বিরুদ্ধে আদালতে নিপুণ, যা বললেন রিটে

Published

on

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদের নির্বাচনের ফলাফল বাতিল চেয়ে রিট করেছেন ওই নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে হেরে যাওয়া প্রার্থী চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তার। একই সঙ্গে ওই রিটে মিশা-ডিপজলের নেতৃত্বাধীন কমিটির দায়িত্ব পালনে নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি কাজী জিনাত হকের হাইকোর্ট বেঞ্চে নিপুণের পক্ষে তাঁর আইনজীবী অ্যাডভোকেট পলাশ চন্দ্র রায় এ রিট আবেদন করেন।

নির্বাচনে ভোট কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ এনে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশনাসহ নতুন করে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

আবেদনে সমাজ কল্যাণ সচিব, তথ্য ও সম্প্রচার  সচিব, সংস্কৃতি সচিব, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, সমাজসেবা অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে বিবাদী করা হয়েছে। বিবাদীর তালিকায় আরো রযেছেন,  ভলান্টারী সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার এজেন্সি,ঢাকার কর্তৃপক্ষ, শিল্পী সমিতি নির্বাচনের আপিল বোর্ড, শিল্পী সমিতির নির্বাচন কমিশন, খল অভিনেতা মিশা সওদাগর ও মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

নিপুণের আইনজীবী পলাশ চন্দ্র রায় গণমাধ্যমকে জানান, কিছু অনিয়ম  ও জালিয়াতির অভিযোগ এনে নির্বাচনী আপিল বোর্ডের কাছে আবেদন করেছিলেন নিপুণ আক্তার। কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। তাই তিনি ১৪ মে হাইকোর্টে রিট করেছেন। আবেদনে নির্বাচনের ফলাফল বাতিল, নতুন নির্বাচন, অনিয়মের অনুসন্ধান এবং নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হয়েছে।

Advertisement

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২৪-২৬ মেয়াদি নির্বাচনে জয়ী হয় মিশা-ডিপজল প্যানেল। চলতি বছরের ২০ এপ্রিল শিল্পী সমিতি নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম খসরু।

এমআর//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢালিউড

ঋণ শোধ না করে আউডি গাড়ি কেনা প্রসঙ্গে যা বললেন রাফসান

Published

on

রাফসান

বিলাসবহুল গাড়ি কিনে বাবা-মাকে চমকে দিয়ে সম্প্রতি আলোচনায় এসেছেন দেশের জনপ্রিয় ফুড ব্লগার ও ইউটিউবার ইফতেখার রাফসান ওরফে রাফসান দ্যা ছোটভাই। প্রায় ৪ বছর আগের পরিকল্পনাকে বাস্তবে পরিণত করতে পেরে নিজের ফ্যানবেজকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন তিনি। তবে এরপরই শুরু হয় নানা সমালোচনা ও বির্তক। যার প্রতিক্রিয়ায় রাফসান তার অনুসারী ও ভক্তদের পরামর্শ দিলেন বাবা-মায়ের জন্য কিছু করে ফেসবুকে পোস্ট না করতে।

বাবা-মায়ের জন্য আউডি গাড়ি কেনার পর সামনে আসে তার বাবা-মায়ের কোম্পানির নামে নেওয়া ঋণের তথ্য। বাবা-মায়ের সে ঋণ শোধ না দিয়ে বিলাসবহুল গাড়ি কেনায় তাকে নিয়ে শুরু হয় তীব্র সমালোচনা। অবশেষে ঋণের টাকা ফেরত না দেয়া নিয়ে মুখ খুললেন এ ইউটিউবার, দিলেন সমালোচনার জবাব।

রাফসানের দাবি, ঋণের টাকা ও বন্ধকী জমি নিয়ে ব্যাংকের সঙ্গে ঝামেলা চলায় বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে। আদালতের সিদ্ধান্ত না পাওয়ায় সেই ঋণ এখনো শোধ করা হয়নি।

রাফসান

সেই সঙ্গে সমালোচকদের গল্পের একপাশ শুনে তাকে মূল্যায়ন করার অধিকার নেই বলেও মন্তব্য করেন। দিয়েছেন আইনি ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় নিজের অবস্থান পরিষ্কার করেন রাফসান দাবি করেন, উপহার দেয়া গাড়িটি দাম ২ কোটির আশপাশেও না। তবে তিনি বাবা-মায়ের লোন নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেননি ।

রাফসান জানান, ঋণের বিপরীতে বন্ধক দেয়া জমি নিয়ে ব্যাংকের সঙ্গে কিছু ঝামেলা চলছে। তাই তার পরিবার আদালতের দারস্ত হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে আদালত বিষয়টি স্থগিত রেখেছে বলে দাবি এ ইউটিউবারের। আদালতের সিদ্ধান্ত না পাওয়ায় ঋণ শোধ দেয়া যায়নি বলেও দাবি করেন তিনি।

Advertisement

রাফসান আরও দাবি করেন, টাকা মেরে দেয়ার জন্য ঋণ নেয়া হয়নি, ব্যবসা খারাপ চলায় ঋণ শোধ দেয়া যায়নি। তবে আদালত সিদ্ধান্ত দিলে ঋণের টাকা শোধ করে দেয়া হবে বলেও জানান। শেষ পরামর্শ হিসেবে এই ইনফ্‌লুয়েন্সার বলেন, ‘এই দেশে আপনি যদি আপনার বাবা-মায়ের জন্য কিছু করতে চান সেটা পোস্ট দিয়েন না।’

 

এসআই//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত