Connect with us

আওয়ামী লীগ

বিএনপি পাকিস্তানি কায়দায় ভারত বিরোধিতা শুরু করেছে : কাদের

Avatar of author

Published

on

ওবায়দুল-কাদের

কোনো ইস্যু না পেয়ে পুরোনো পাকিস্তানি কায়দায় ভারতের বিরোধিতা করছে বিএনপি। বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (২৩ মার্চ) তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আবারও চিরাচরিত পাকিস্তানি কায়দায় আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অপপ্রচারে নেমেছে। সরকারের সঙ্গে যাদের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। রাজনৈতিক ইস্যু না পেয়ে তারা ভারতবিরোধী ইস্যু সামনে আনছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, পাকিস্তান আমল থেকে যে অপপ্রচার শুনেছি, কোনো রাজনৈতিক ইস্যু যখন থাকে না তখন একটাই ইস্যু আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে নিয়ে আসে। আগে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে আনতো আর এখন শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে আনে, সেটা হচ্ছে ভারত বিরোধীতার ইস্যু।

বিএনপি অবাক করা দল এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, এক নেতা বলে বাংলাদেশকে স্বাধীন করার জন্য আপনারা সহযোগিতা করেছেন। আরেকজন বলে ভারতীয় পণ্য বর্জন করুন। এখন এই দলের নেতায় নেতায় মতের কোনো মিল নেই। মঈন খান বলেন এক কথা, রিজভী বলেন আরেক কথা। আবার সিঙ্গাপুর থেকে ফখরুল সাহেব বলেন আরেক কথা।

Advertisement

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিএনপি ইফতার খাওয়ার পার্টি করে আর আমরা ইফতার দেয়ার পার্টি করি। এটাই বিএনপি ও আওয়ামী লীগের মাঝে পার্থক্য।’

নির্বাচনের সময় ভারতের পাশে থাকার কথা তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিদেশিরা যখন নির্বাচন বানচালে ষড়যন্ত্র করে, তখন ভারত পাশে ছিল। ভারতসহ যেসব বন্ধুদেশ আছে তারা আমাদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেনি, তারা ভোট বানচালের ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।

দ্রব্যমূলের দাম নিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, কিছু কিছু পণ্যের মূল্য কমতে শুরু করেছে। ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে। সাধারণ মানুষের কাছে সহনীয় হয়ে উঠবে।

এ সময় ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণের এই কর্মসূচি সারাদেশে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজীর আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুনের সঞ্চালনায় ইফতার বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাড. কামরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান প্রমুখ।

Advertisement
Advertisement

আওয়ামী লীগ

বিএনপি বাঙালির সংস্কৃতি চেতনার শত্রু : কাদের

Avatar of author

Published

on

ওবায়দুল-কাদের

বিএনপিকে বাঙালির সংস্কৃতি চেতনা ও মুক্তিযুদ্ধের শত্রু বলেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এই সাম্প্রদায়িক শত্রুকে প্রতিহত ও মোকাবিলা করতে হবে।

রোববার (১৪ এপ্রিল) সকালে বাংলা নববর্ষ-১৪৩১ উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভা ও বর্ণাঢ্য র‌্যালির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই দিন বাঙালি জাতি পরম ভালোবাসায় তাদের হৃদয়ে ধারণ করে, চেতনায় ধারণ করে। আজকের এই দিনে বেশি কথা বলার নেই। এটা আজ প্রতিষ্ঠিত সত্য, কারা বৈশাখের চেতনা বিরোধী, কারা বাঙালি সংস্কৃতির বিরুদ্ধে স্বৈরাচারী কায়দায় ’১৪ সালে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনার শোভাযাত্রাকে বন্ধ করে দিতে চেয়েছিল। সেই অপশক্তি আজও বাংলার মাটিতে আছে।

তিনি বলেন, আজকে ঐতিহাসিক বাহাদুর শাহ পার্ক। এখানে আমাদের ইতিহাসের অনেক স্মৃতি। বাহাদূর শাহ পার্কটি, ঐতিহাসিক স্থানটি সংরক্ষণ করার জন্য কর্তৃপক্ষকে বলব এখানে বাঙালির ইতিহাসের অনেক স্মৃতি, অনেক লড়াই সংগ্রামের স্মৃতি। এই স্মৃতি ধরে রাখতে হবে এবং স্মৃতি সংরক্ষণের জন্য কর্মসূচি হাতে নিতে হবে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আমি আজকে এই ঐতিহাসিক স্থানটিতে বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠানে আসতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। আজকে বাংলাদেশকে বাঁচিয়ে রাখতে হলে বাঙালি সংষ্কৃতিকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্যকে আমাদের চেতনায় ধারণ করে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। হাজার বছরের সবার সেরা বাঙালি বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিধন্য এই বাংলায় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি সংস্কৃতির বহমান ধারাকে আমরা বহতা নদীর মতো এগিয়ে নিয়ে যাব বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার অভিমুখে।

Advertisement

আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি হচ্ছে বাঙালি সংস্কৃতির, বাংলাদেশ রাষ্ট্রের, চেতনার, মুক্তিযুদ্ধের প্রতিপক্ষ, শত্রু। আসুন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়, বাঙালির ঐহিত্যবাহী চেতনায় এই শত্রুপক্ষকে আমরা প্রতিহত করি, পরাজিত করি এবং বিজয়ের লক্ষ্য অভিমুখে এগিয়ে যাই।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের যে শিশু আজও সমুদ্রের মুখ দেখেনি, বাংলাদেশের যে শিশু অকালে ঝরে যায়, বনফুলের মত ফুটে বনফুলের মত অদৃশ্য হয়ে যায়, বাংলাদেশের যে শিশু কমলা রঙের অপরাহ্নের রোদ দু-হাতে গালে মাখেনি পরমানন্দে, সেই শিশুদের জন্য বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা আমরা নির্মাণ করব। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের শিশুদের জন্য। গাজায় ইহুদিরা রক্তস্রোতে ভাসিয়ে দিচ্ছে, ১৪ হাজার শিশুকে এ পর্যন্ত হত্যা করেছে। আসুন আমরা সেই শিশুদের জন্য বাংলাদেশকে নিরাপদ আবাসভূমি হিসেবে গড়ে তুলি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফীর সভাপতিত্বে সংসদ সদস্য আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাসিম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবিরসহ নেতারা বক্তব্য রাখেন। পরে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ অভিমুখে যায়। এতে নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আওয়ামী লীগ

‘নির্লজ্জ মিথ্যাচার করে বিএনপি’

Avatar of author

Published

on

ওবায়দুল-কাদের

বিএনপি তথাকথিত গুম-নির্যাতনের কাল্পনিক তথ্য দিয়ে দেশের জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের নিন্দা জানিয়ে তিনি এ কথা জানান।

বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেশের সর্বস্তরের জনগণ যখন ঈদ উদযাপন করছে, নিরাপদ ও আনন্দময় পরিবেশে প্রতিটি গৃহকোণ পরিবার-পরিজন নিয়ে উৎসবে মাতোয়ারা ঠিক সে সময় বিএনপি তথাকথিত গুম-নির্যাতনের কাল্পনিক তথ্য দিয়ে দেশের জনগণকে বিভ্রান্ত করছে। মির্জা ফখরুলের দেয়া বিরোধীদলের নেতা-কর্মীদের গুম, হত্যার ঘটনা এবং দায়েরকৃত মামলার সংখ্যার তথ্য সম্পূর্ণ বানোয়াট। দেশের গণতন্ত্র ও নির্বাচনী প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করতে বিএনপির সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হওয়ার পর তারা এখন মনগড়া তথ্য দিয়ে নির্লজ্জ মিথ্যাচার করছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তথাকথিত গুম, খুন ও মামলার সংখ্যা নিয়ে বিদেশি প্রভুদের কাছ থেকে করুণা ও রাজনৈতিক সমর্থন লাভের আশায় বিএনপি নেতারা ধারাবাহিকভাবে সরকারবিরোধী এ অপপ্রচার চালাচ্ছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম ঢালাওভাবে অপপ্রচার না চালিয়ে রাজনৈতিক কারণে তথাকথিত নিপীড়ন-নির্যাতনের কোনো ঘটনা ঘটলে সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ বিএনপি নেতাদের সম্পূর্ণ তালিকা জনসম্মুখে প্রকাশ করুক। ঠাকুরগাঁওয়ে মৃত্যুবরণকারী যুবদল নেতা একজন স্থানীয়ভাবে চিহ্নিত মাদকসেবী এবং তার বিরদ্ধে মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে একাধিক মামলা বিচারাধীন। কোনো প্রকার আইনের ব্যত্যয় ঘটলে সরকার গুরুত্ব সহকারে বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। কিন্তু মির্জা ফখরুল একজন মাদকাসক্ত এবং মাদক ব্যবসায়ীর মতো একজন অপরাধীর স্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনাকে ‘বিরোধীদলের ওপর সরকারের নির্যাতন’-এর অভিযোগ এনে অপপ্রচার চালিয়ে রাজনৈতিকভাবে ফায়দা নেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি যখন রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় ছিল তখন ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট নারকীয় গ্রেনেড হামলা চালিয়ে আওয়ামী লীগকে সম্পূর্ণভাবে নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র চালায়। ২০০১ থেকে ২০০৬ সালে অপারেশন ক্লিনহার্টসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মাধ্যমে মোট ১ হাজার ২২৩ জন আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীকে ক্রসফায়ার এবং পুলিশ হেফাজতে হত্যা করে। আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ সরকার যেকোনো মূল্যে দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বদ্ধ পরিকর।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আওয়ামী লীগ

কেএনএফের মদদদাতাদের খুঁজছে গোয়েন্দারা : হানিফ

Avatar of author

Published

on

কুকি-চীন বা কেএনএফ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকে যারা পেছন থেকে মদদ দিচ্ছে তাদের খুঁজে বের করতে সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। বললেন, আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুব উল আলম হানিফ।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সকালে কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের প্রাক্তন শিক্ষর্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে  এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, কুকিচীন বা কেএনএফ যে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীই হোক না কেন, তাদের জায়গা এই বাংলার মাটিতে হবে না। এই সন্ত্রাসী গোষ্ঠীদের কঠোরভাবে দমন করা হবে। এদেশে একসময় বাংলা ভাইসহ বড় বড় সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর জন্ম হয়েছিল। তাদেরকে যেভাবে নির্মূল করা হয়েছে। এসব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীকেও সেভাবে দমন করা হবে।

বিরোধী দলকে উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন, যারা আজকে সরকারের বিরোধীতা করছে তারা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকার সময় দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা কেমন রেখে গিয়েছিল?

তিনি আরও বলেন, মাথাপিছু আয় ৫৩৫ মার্কিন ডলার থেকে বর্তমান সরকারের প্রচেষ্টায় এখন ২৮০০ মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে। আজ বাংলাদেশ চরম ব্যর্থ রাষ্ট্র থেকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রের স্বীকৃতি পেয়েছে আন্তর্জাতিকভাবে। এটা যাদের ভালো লাগে না, তারাই এসব আবোল তাবোল কথা বলে।

Advertisement

প্রসঙ্গত, কুষ্টিয়া পলিটেকনিক ইনিস্টিটিউটের অধ্যক্ষ রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

জাতীয়1 hour ago

‘জাহাজে আর্মড গার্ড থাকলে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটত না’

আর্মড গার্ড ভাড়া করে নিয়ে গেলে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটত না। যারা জলদস্যু তারাও খবর রাখে কোন জাহাজের মধ্যে আর্মড গার্ড...

বাংলাদেশ6 hours ago

মুক্তিপণ নিয়ে যা জানালো এমভি আব্দুল্লাহর মালিকপক্ষ

ছিনতাইয়ের ৩১ দিন পরে মুক্তিপণের বিনিময়ে মুক্ত হয়েছে বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজ এমভি আব্দুল্লাহ। তবে মুক্তিপণ নিয়ে নানা গুঞ্জন উঠলেও মালিকপক্ষ...

জাতীয়7 hours ago

আবারও মিয়ানমারের ৯ বিজিপি সদস্য আশ্রয় নিলো বাংলাদেশে

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সশস্ত্র গোষ্ঠী আরাকান আর্মি ও দেশটির সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সঙ্গে চলমান সংঘাতের কারণে  কক্সবাজারের...

এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ
জাতীয়8 hours ago

দেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে দস্যুমুক্ত এমভি আবদুল্লাহ

অপহরণের ৩১ দিন পর মুক্ত হয়েছেন এমভি আবদুল্লাহ’র ২৩ নাবিক। সোমালিয়ার জলদস্যুদের কবল থেকে মুক্তির পর আগামী ১৯ এপ্রিলের দিকে...

নববর্ষে-ঢাবিতে-শ্লীলতাহানি,-বিচার-অসমাপ্ত নববর্ষে-ঢাবিতে-শ্লীলতাহানি,-বিচার-অসমাপ্ত
আইন-বিচার8 hours ago

নববর্ষে ঢাবিতে শ্লীলতাহানি, ৯ বছর ধরে ঝুলে আছে বিচার

গেলো ৯ বছরে শেষ হয়নি নববর্ষের উৎসবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় বেশ কয়েকজন নারীকে শ্লীলতাহানি করায় মামলার বিচার। ২০১৫ সালের...

বর্ষবরণ বর্ষবরণ
জাতীয়9 hours ago

সুরের মুর্ছনায় বর্ষবরণ

ভোরের আলো ফুটতেই রমনার বটমূলে শুরু হয় বাঙালির চিরায়ত বর্ষবরণ অনুষ্ঠান। নতুন ১৪৩১ এর প্রথম সকালটিকে এক কণ্ঠে বরণ করে...

এমভি-আব্দুল্লাহর-২৩-নাবিক এমভি-আব্দুল্লাহর-২৩-নাবিক
জাতীয়10 hours ago

কত ডলার মুক্তিপণে ছাড়া পেলেন ২৩ নাবিক?

অবশেষে সোমালিয়ান জলদস্যুদের হাত থেকে মুক্তি পেয়েছেন এমভি আব্দুল্লাহর ২৩ নাবিক। ৩১ দিন জিম্মি থাকার পর সোমালিয়ার উপকূল থেকে মুক্ত...

মঙ্গল-শোভাযাত্রা মঙ্গল-শোভাযাত্রা
জাতীয়11 hours ago

শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা

বাংলা নতুন বছরকে বরণ করে নিতে মানুষের ঢল নেমেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে। ইতোমধ্যেই শুরু হয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা। রোববার (১৪...

জাতীয়21 hours ago

পহেলা বৈশাখ আজ, উদযাপনে মেতে উঠবে গোটা দেশ

আজ রোববার, ১৪ এপ্রিল- পহেলা বৈশাখ। শুভ বাংলা নববর্ষ। ষড়ঋতুর বাংলাদেশে বছর ঘুরে আসলো বাংলা নববর্ষ। পুরনোকে বিদায় করে এলো...

জাতীয়23 hours ago

জিম্মি নাবিকদের নিয়ে শীঘ্রই সুখবর : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সোমালিয়ার জলদস্যুদের হাতে ছিনতাই হওয়া জাহাজ ও নাবিকদের উদ্ধারে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি আছে। খুব সহসাই আপনারা সুখবর পাবেন। বললেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী...

Advertisement
প্রবাস26 mins ago

নিউইয়র্ক টাইমস স্কয়ারে হাজারো কণ্ঠে বাংলা বর্ষবরণ

আন্তর্জাতিক1 hour ago

ইরানি হামলা ঠেকাতে ইসরাইলকে সাহায্য করেছে যেসব দেশ

জাতীয়1 hour ago

‘জাহাজে আর্মড গার্ড থাকলে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটত না’

আন্তর্জাতিক2 hours ago

মুক্তিপণ আদায়ের পর আট সোমালিয়ান জলদস্যু আটক

আন্তর্জাতিক2 hours ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: প্রতিক্রিয়া জানালো ভারত ও চীন

ঢাকা3 hours ago

আলপনায় রঙিন হাওরের ১৪ কিলোমিটার সড়ক

বিএনপি3 hours ago

সরকারের লোকজন বাজার নিয়ন্ত্রণ করছে : রিজভী

মৃত্যু
চট্টগ্রাম3 hours ago

পালিয়েছেন দুই স্ত্রী, পুড়িয়ে মারলেন তৃতীয় স্ত্রীকে

আখাউড়া
চট্টগ্রাম4 hours ago

মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা

দেশজুড়ে5 hours ago

বর্ণাঢ্য আয়োজনে পাবনায় বর্ষবরণ উদযাপিত

সৌদি আরব
আন্তর্জাতিক6 days ago

সৌদিতে ঈদ বুধবার

আন্তর্জাতিক4 days ago

বিড়াল বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

আন্তর্জাতিক6 days ago

ঈদের তারিখ জানালো অস্ট্রেলিয়া

বিএনপি6 days ago

ব্যারিস্টার খোকনকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত পাঠানো হয়েছে লন্ডনে

বাংলাদেশ4 days ago

যাত্রীদের মারধরে নয়, চালক-কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয় যেভাবে

আন্তর্জাতিক6 days ago

এবার পাকিস্তান জানালো কবে হতে পারে ঈদ

বাংলাদেশ1 day ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

আন্তর্জাতিক5 days ago

রাতে নয়, দেশটিতে দিনে দেখা গেলো ঈদের চাঁদ!

জয়পুরহাটে-প্রেমিক-প্রেমিকার-বিষপান
রাজশাহী5 days ago

একসঙ্গে বিষপান, ২২ ঘন্টার ব্যবধানে প্রেমিক প্রেমিকার মৃত্যু

আন্তর্জাতিক6 hours ago

ইরানে পাল্টা হামলার বিষয়ে যা জানালো বাইডেন

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল3 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি3 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল1 month ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি1 month ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত