Connect with us

ঢাকা

বায়ুদূষণে শীর্ষে দিল্লি, দশম স্থানে ঢাকা

Avatar of author

Published

on

বায়ুদূষণে

বায়ুদূষণের কারণে বিশ্বে দূষিত শহরের তালিকায় আজ দশম স্থানে রয়েছে ঢাকা।

বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকালে বায়ু মানের সূচক (একিউআই) অনুযায়ী ঢাকায় বাতাসের মান ছিল ১৩৫। বায়ুর মান বিচারে এ মাত্রাকে ‘সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’ বলা হয়।

বিশ্বের দূষিত শহরের তালিকায় ১৯৮ স্কোর নিয়ে শীর্ষে রয়েছে ভারতের দিল্লি শহর। এ ছাড়া ১৬৮ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মিসরের কায়রো সিটি, ১৬৬ স্কোর নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে থাইল্যান্ডের চিয়াং মাই, নেপালের কাঠমান্ডু ১৬২ স্কোর নিয়ে দূষিত শহরের তালিকায় চতুর্থ স্থানে রয়েছে। এ ছাড়া পাকিস্তানের লাহোর ১৬২ স্কোর নিয়ে পঞ্চম স্থানে রয়েছে।

ঢাকায় বায়ু দূষণের জন্য ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলোকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। বায়ুদূষণের ফলে বাড়ছে শ্বাসকষ্ট, কাশি, নিম্ন শ্বাসনালির সংক্রমণ এবং বিষণ্ণতার ঝুঁকি।

বায়ু বিশেষজ্ঞরা বলেন, শূন্য থেকে ৫০ পর্যন্ত ‘ভালো’। ৫১ থেকে ১০০ ‘মোটামুটি’, ১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর’ বলে ধরা হয়। ১৫১ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে ‘অস্বাস্থ্যকর’ বলে মনে করা হয়। ২০১ থেকে ৩০০ একিউআই স্কোরকে ‘খুব অস্বাস্থ্যকর’ এবং ৩০১ থেকে ৪০০ একিউআই স্কোরকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে থাকে।

Advertisement
Advertisement

আবহাওয়া

ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে বৃষ্টি ঝরছে রাজধানীতে

Published

on

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় রেমালে রূপ নিয়েছে। পায়রা ও মঙ্গলা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এছাড়া কক্সবাজার ও চট্টগ্রামকে ৬ নম্বর বিপদসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। এদিকে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় রেমালের প্রভাবে রাজধানীর বেশ কয়েকটি এলাকায় বৃষ্টি ঝরছে। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় ঝোড়ো হাওয়াসহ বাতাস বইছে।

শনিবার (২৫ মে) রাত ৮টার পর থেকে তেজগাঁও, বাড্ডা, ভাটারা, বারিধারা, গুলশান-২, বনানী ও শ্যামলী এলাকায় বৃষ্টি এবং আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, পূর্বমধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন পশ্চিমমধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি শনিবার সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ৫৬৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৯৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে, মোংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ৫৪০ কিলোমিটার দক্ষিণে এবং পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৪৯০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছিল।

এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও ঘনীভূত হতে পারে। গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার, যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এসময়ের মধ্যে সারা দেশে দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। তবে জলীয় বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিভাব বিরাজমান থাকতে পারে।

Advertisement

উল্লেখ্য, তবে আগামীকাল (রোববার) সকাল ৯টা পর্যন্ত ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের ওপর দিয়ে যে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে তা অব্যাহত থাকতে পারে বলেও জানানো হয়েছে।

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

এমপি আজিম হত্যা: শিলাস্তির বিচার চেয়েছেন তার দাদা সেলিম মিয়া

Published

on

সংগৃহীত ছবি

ভারতের কলকাতায় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ‍মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের কথিত বান্ধবী  শিলা‌স্তি রহমানের বিচার চেয়েছেন তার দাদা মু‌ক্তি‌যোদ্ধা সেলিম মিয়া।

শনিবার(২৫মে) দুপুরে টাঙ্গাইলের নাগরপু‌র উপ‌জেলায় ধুব‌ড়িয়া ইউনিয়নে শিলা‌স্তি রহমানের দাদা সেলিম মিয়া গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিচার চান।

শিলাস্তি রহমানের জন্ম টাঙ্গাইলের নাগরপু‌র উপ‌জেলায় ধুব‌ড়িয়া ইউপির পাইসানা গ্রা‌মে। তার বাবার নাম  আরিফুর রহমান। তবে জন্ম‌ নাগরপু‌রে হ‌লেও তিনি ঢাকার উত্তরায় বড় হ‌য়ে‌ছেন।

শিলা‌স্তির দাদা সেলিম মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘শিলাস্তির বাবার ঢাকায় জুটের ব্যবসা থাকায় ছোট থেকেই তারা উত্তরায় বসবাস করে। মাঝে মধ্যে গ্রামে আসলেও দুই একদিনের বেশি থাকে না তারা। শিলা‌স্তির উচ্ছৃঙ্খল চলাফেরা ও দিনের পর দিন বাড়ির বাইরে সময় কাটানোর কারণে তাদের সঙ্গে কথা বলা বাদ দিয়েছি । প‌রিবা‌রের কেউ তাদের সঙ্গে যোগা‌যোগ ক‌রে না। এমপি আনার হত্যার ঘটনা‌টি প্রকাশ হওয়ার পর শিলা‌স্তির জড়িত থাকার কথা জানতে পেরেছি। এতে আমরাও বিব্রত অবস্থায় আছি। আমরাও তার বিচার চাই।’

প্রসঙ্গত,কলকাতায় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের পাশাপাশি শিলাস্তি রহমান নামে এক তরুণী উঠে এসেছেন আলোচনায়। কলকাতার নিউটাউনে যেখানে খুন হন এমপি আজিম সেই সঞ্জিভা গার্ডেনের বি ইউ ব্লকের ৫৬ নম্বর ফ্ল্যাটে শিলাস্তি রহমানের সক্রিয় উপস্থিতি ছিল।

Advertisement

গোয়েন্দা তথ্যমতে, শিলাস্তি রহমান আজিম হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের বান্ধবী। অথচ ঘটনার আগে ১০ মে শাহীন কলকাতা থেকে দেশে ফিরলেও শিলাস্তি থেকে গিয়েছিলেন কলকাতায়। হত্যা মিশন শেষ করে গত ১৫ মে মূল কিলার আমানুল্লাহর সঙ্গে ঢাকায় ফিরে আসেন শিলাস্তি। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কিলিং মিশনে ‘হানি ট্র্যাপ’ হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে তাকে। এরই মধ্যে শিলাস্তিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

এমআর//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

রায়পুরায় প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা, প্রধান আসামি প্রতিদ্বন্দ্বী রুবেল

Published

on

আসামি

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে হামলায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়া নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ মে) দিবাগত রাতে নিহতের পিতা চরসুবুদ্ধি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি করেন। রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাফায়েত হোসেন পলাশ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওসি জানান, মামলায় প্রতিদ্বন্দ্বী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলার মেথিকান্দা এলাকার আবিদ হাসান রুবেলকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। এছাড়া মামলায় ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৪০-৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। মামলায় এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনী প্রচারনায় গেলো বুধবার (২২ মে) বিকালে রায়পুরার চরাঞ্চলের পাড়াতলী ইউনিয়নের মামদেরকান্দি এলাকায় যান তালা প্রতিকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া ও তার কর্মী সমর্থকরা।

এসময় প্রতিদ্বন্দ্বী অপর ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী চশমা প্রতিকের আবিদ হাসান রুবেল ও তার কর্মী সমর্থকরা মোঃ সুমন মিয়ার গাড়ি ভাংচুর করাসহ কর্মী সমর্থক ও তার ওপর হামলা করে। এসময় প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয়ার পর স্থানীয়রা আহত সুমন মিয়াকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে পরীক্ষা নিরিক্ষার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Advertisement

ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়ার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। পরে দুই দফা জানাজা নামাজ শেষে তাকে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদের সব পদের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছিলেন।

 

 

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত