Connect with us

ঢাকা

‘মা আমার পাশে রোকেয়ার কবর দিও’ লিখে দম্পতির আত্মহত্যা

Avatar of author

Published

on

গাজীপুরের শ্রীপুরে মা কে চিরকুট লিখে আত্মহত্যা করেছেন স্বামী স্ত্রী। পুলিশ ধারণা করছে প্রথমে স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। স্ত্রীকে হারানোর ব্যথা সইতে না পেরে পরবর্তীতে স্বামীও গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) সকালে শ্রীপুর উপজেলার মুলাইদ গ্রামের মো. ফারুক খানের বহুতল ভবনের নিচ তলার একটি কক্ষ থেকে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সাখাওয়াত হোসেন গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

স্থানীয়রা জানান,প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে সাত-আট মাস আগে পরিবারের অমতে বিয়ে করে তারা। শ্রীপুরের মুলাইদ গ্রামের মো. ফারুক হোসেনের বহুতল ভবনে ভাড়া থেকে ইসরাফিল স্থানীয় একটি ওয়ার্কশপে ও রোকেয়া স্থানীয় একটি কারখানায় কাজ করতেন।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বাবা-মায়ের পাশাপাশি ফ্ল্যাটে বসবাস করত ইসরাফিল ও তার স্ত্রী রোকেয়া। সম্প্রতি ইসরাফিল তার বাবা-মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। গত ২৫ এপ্রিল তাদের বুঝিয়ে বাসায় আনা হয়েছিল। শুক্রবার সকালে ইসরাফিলের ফ্ল্যাটের দরজা খোলা দেখতে পেয়ে ভেতরে যান বাবা মফিজুল। এ সময় ইসরাফিলকে ওড়নায় পেঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় এবং রোকেয়ার মরদেহ খাটের ওপর বিছানায় দেখতে পান তিনি। পরে সেখানে একটি চিরকুটও পান মুফিজুল।

মা কে উদ্দেশ্য করে চিরকুটে ইসরাফিল লেখেন, “মা-বাবা আমাকে মাফ করে দিও, আমি তোমাদের সঙ্গে থাকতে পারলাম না। আমার জান আমার জন্য ফাঁসিতে ঝুলেছে। তাই আমি থাকতে পারলাম না। আমি কাউকে দোষারোপ করি না। কারও কোনো দোষ নাই। আমার জান আমার জন্য অপেক্ষা করতাছে। সবাই ভালো থাকবা। মো. ইসরাফিল।

Advertisement

এতে আরও লেখা হয়  ‘মা আমার পাশে রোকেয়ার কবর দিও মা। মা আমি জানি না আমার জান কেন ফাঁস দিলো। তার জন্য আমি দায়ী। এতে কারও কোনো দোষ নাই।’

আই/এ

 

Advertisement

ঢাকা

এমপি আজিম হত্যা: শিলাস্তির বিচার চেয়েছেন তার দাদা সেলিম মিয়া

Published

on

সংগৃহীত ছবি

ভারতের কলকাতায় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনারকে নৃশংসভাবে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ‍মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের কথিত বান্ধবী  শিলা‌স্তি রহমানের বিচার চেয়েছেন তার দাদা মু‌ক্তি‌যোদ্ধা সেলিম মিয়া।

শনিবার(২৫মে) দুপুরে টাঙ্গাইলের নাগরপু‌র উপ‌জেলায় ধুব‌ড়িয়া ইউনিয়নে শিলা‌স্তি রহমানের দাদা সেলিম মিয়া গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বিচার চান।

শিলাস্তি রহমানের জন্ম টাঙ্গাইলের নাগরপু‌র উপ‌জেলায় ধুব‌ড়িয়া ইউপির পাইসানা গ্রা‌মে। তার বাবার নাম  আরিফুর রহমান। তবে জন্ম‌ নাগরপু‌রে হ‌লেও তিনি ঢাকার উত্তরায় বড় হ‌য়ে‌ছেন।

শিলা‌স্তির দাদা সেলিম মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘শিলাস্তির বাবার ঢাকায় জুটের ব্যবসা থাকায় ছোট থেকেই তারা উত্তরায় বসবাস করে। মাঝে মধ্যে গ্রামে আসলেও দুই একদিনের বেশি থাকে না তারা। শিলা‌স্তির উচ্ছৃঙ্খল চলাফেরা ও দিনের পর দিন বাড়ির বাইরে সময় কাটানোর কারণে তাদের সঙ্গে কথা বলা বাদ দিয়েছি । প‌রিবা‌রের কেউ তাদের সঙ্গে যোগা‌যোগ ক‌রে না। এমপি আনার হত্যার ঘটনা‌টি প্রকাশ হওয়ার পর শিলা‌স্তির জড়িত থাকার কথা জানতে পেরেছি। এতে আমরাও বিব্রত অবস্থায় আছি। আমরাও তার বিচার চাই।’

প্রসঙ্গত,কলকাতায় সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের পাশাপাশি শিলাস্তি রহমান নামে এক তরুণী উঠে এসেছেন আলোচনায়। কলকাতার নিউটাউনে যেখানে খুন হন এমপি আজিম সেই সঞ্জিভা গার্ডেনের বি ইউ ব্লকের ৫৬ নম্বর ফ্ল্যাটে শিলাস্তি রহমানের সক্রিয় উপস্থিতি ছিল।

Advertisement

গোয়েন্দা তথ্যমতে, শিলাস্তি রহমান আজিম হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের বান্ধবী। অথচ ঘটনার আগে ১০ মে শাহীন কলকাতা থেকে দেশে ফিরলেও শিলাস্তি থেকে গিয়েছিলেন কলকাতায়। হত্যা মিশন শেষ করে গত ১৫ মে মূল কিলার আমানুল্লাহর সঙ্গে ঢাকায় ফিরে আসেন শিলাস্তি। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কিলিং মিশনে ‘হানি ট্র্যাপ’ হিসেবে ব্যবহার করা হতে পারে তাকে। এরই মধ্যে শিলাস্তিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)।

এমআর//

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

রায়পুরায় প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা, প্রধান আসামি প্রতিদ্বন্দ্বী রুবেল

Published

on

আসামি

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে হামলায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়া নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ মে) দিবাগত রাতে নিহতের পিতা চরসুবুদ্ধি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন বাদী হয়ে হত্যা মামলাটি করেন। রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাফায়েত হোসেন পলাশ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ওসি জানান, মামলায় প্রতিদ্বন্দ্বী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলার মেথিকান্দা এলাকার আবিদ হাসান রুবেলকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। এছাড়া মামলায় ২৬ জনের নাম উল্লেখসহ ৪০-৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। মামলায় এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনী প্রচারনায় গেলো বুধবার (২২ মে) বিকালে রায়পুরার চরাঞ্চলের পাড়াতলী ইউনিয়নের মামদেরকান্দি এলাকায় যান তালা প্রতিকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সুমন মিয়া ও তার কর্মী সমর্থকরা।

এসময় প্রতিদ্বন্দ্বী অপর ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী চশমা প্রতিকের আবিদ হাসান রুবেল ও তার কর্মী সমর্থকরা মোঃ সুমন মিয়ার গাড়ি ভাংচুর করাসহ কর্মী সমর্থক ও তার ওপর হামলা করে। এসময় প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয়ার পর স্থানীয়রা আহত সুমন মিয়াকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে পরীক্ষা নিরিক্ষার পর চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Advertisement

ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়ার মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে পুলিশ। পরে দুই দফা জানাজা নামাজ শেষে তাকে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদের সব পদের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন।

রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছিলেন।

 

 

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

ফের মেট্রোরেলের পিলারে ট্রাকের ধাক্কা

Published

on

মেট্রোরেল

রাজধানী ঢাকার আগারগাঁওয়ে একটি ড্রাম্প ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের পি-৩৬৪ নম্বর পিলারে আঘাত করেছে। বাস ও মাটি ভর্তি ড্রাম্প ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার (২৫ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাফরুল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন।

তিনি বলেন, গতকাল দিবাগত রাতে আগারগাঁওয়ে বাস ও একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। পরে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের একটি পিলারে ধাক্কা দেয়। ঘটনার পর পরই ট্রাকচালক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় বাস চালক ও হেল্পার আহত হয়েছেন। তারা বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গেলো ৯ এপ্রিল দুপুর ২টার দিকে আগারগাঁও বিমান যাদুঘরের সামনে দুই বাসের রেষারেষিতে সেফটি পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের ৭৪ নং পিলারে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ দুর্ঘটনায় বাসের ১০ জন যাত্রী আহত হন। ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই বাস থেকে নেমে পালিয়ে যান চালক ও হেলপার।

কেএস/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত