Connect with us

বলিউড

সিনেমায় চুমু প্রতি স্ত্রীকে দিতে হতো একটি ব্যাগ: ইমরান হাশমি

Avatar of author

Published

on

সংগৃহীত ছবি

বলিউড চলচ্চিত্রে তাকে বলা হয়ে থাকে ‘সিরিয়াল কিসার’। কেউ বা আবার তকমা দিয়েছেন ‘বলিউডের কিসিং স্টার’ বা ‘চুমু দেবতা’। অভিনয় ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই এসব তকমা ইমরান হাশমির গায়ে লেগে আছে। একটা সময় সিনেমায় ইমরান হাশমির অভিনয় করা মানেই দর্শক বুঝে যেতেন ওই ছবিতে তার বিপরীতে কাজ করা অভিনেত্রীর সঙ্গে একাধিক দৃশ্যে  তাঁর রগরগে চুমুর দৃশ্য থাকবেই। ওই সময় তাঁর ভক্তরা অন্তত তেমনই সমীকরণে বিশ্বাসী ছিলেন।

ইমরান হাশমি যখন বিয়ে করেন তখন একট গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে তিনি আর ছবিতে নায়িকাকে চুমু খাবেন না। ওইসময় শোনা গিয়েছিলো-বিয়ের শর্তই ছিলো চুমুর দৃশ্যে আর  অভিনয় করা যাবে না। তবে ওই গুঞ্জন একটা ঘটনায়  মিথ্যে বলে প্রমাণিত হয়। আর ওই ঘটনা ঘটান অভিনেতা নিজেই এবং তাও আবার নিজের স্ত্রীর হাতে চড় খেয়ে।

একবার গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ইমরান হাশমি বলেছিলেন, ২০১০ সালে মুক্তি পাওয়া ক্রুক ছবির প্রিমিয়ার শো দেখতে গিয়েছিলেন স্ত্রীকে নিয়ে। ওই ছবিতে অভিনেত্রী নেহা শর্মাকে একাধিকবার চুমুর দৃশ্য দেখে রীতিমতো তাজ্জব বনে যান ইমরানের স্ত্রী পারভীন শাহানি। রেগে গিয়ে ইমরান খানের গালে মারেন একাধিক চড়-থাপ্প্ড়।  স্ত্রীর সঙ্গে ছবি দেখতে গিয়ে রীতিমত বিপত্তিতে পড়ে যান  ইমরান হাশমি। আর ওই খবর ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছিল।

এ ঘটনার পরবর্তীতে পারভীন শাহানি নিজের ভুল বুঝতে পারেন। তিনি বুঝতে পারেন পর্দায় ইমরান হাশমি চুমু খেতে বাধ্য হচ্ছেন কাজের সূত্রে। ছবির প্রয়োজনেই চুমু খাওয়ার দৃশ্যে অভিনয় করতে হচ্ছে ইমরান হাশমিকে। তখন থেকেই ইমরানের সঙ্গে তার একটি সুন্দর বোঝাপড়া তৈরি হয়। তারপরও ছবিতে অভিনেত্রীকে চুমু খাওয়ার ব্যাপারে ইমরান হাশমিকে একটি শর্ত দেন স্ত্রী  পারভীন শাহানি। শর্তটি হচ্ছে ছবিতে ইমরান খান চুমু খেতে পারবেন তবে প্রতিটি চুমুর জন্য একটি করে হ্যান্ডব্যাগ বা ভ্যানিটি ব্যাগ তাকে কিনে দিতে হবে।

 

Advertisement

ইমরান হাশমি ওই গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাতকারে আরও বলেছিলেন, একটা একটা করে নতুন ব্যাগ কিনতে কিনতে একটা ব্যগের আস্ত আলমারি তৈরি হয়েছে তাঁর বাড়িতে। বর্তমানে তাঁর স্ত্রী নাকি বলে থাকেন, ‘তুমি ছবি করো, আর ব্যাগ কেন।’।

প্রসঙ্গত, ২০০৩ সালে ফুটপাত ছবির মাধ্যমে বলিউড চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে ইমরান হাশমির। তবে প্রথম ছবিটি বক্স অফিসে খুব একটা সাড়া ফেলেনি। পরের বছর মার্ডার ছবিটি বক্স অফিসে তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি করে। এই ছবিতে ইমরান হাশমির বিপরীতে অভিনয় করেন অভিনেত্রী মল্লিকা শেরওয়াত।তারপর অনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন। ২০১২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘রাজ থ্রি’ ছবিতে ইমরানের সঙ্গে বিপাশা বসুর ছিল এক দীর্ঘ চুম্বনদৃশ্য। বলিউডে এত দীর্ঘ চুম্বনদৃশ্য আগে কখনো দেখা যায়নি।

সবশেষ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পাল্টে গিয়েছে ইমরান হাসমির ছবির ধাঁচ আর চরিত্রের উপস্থাপনা। ২০২৩ সালে মুক্তি পাওয়া  ‘টাইগার থ্রি’ ছবিতে খলনায়ক রূপে দেখা গেছে ইমরান হাশমিকে।

এমআর

Advertisement
Advertisement

বলিউড

শাহরুখ কেমন মহিলাদের সঙ্গে বেশি মেলামেশা করতেন জানালেন প্রীতি

Published

on

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান নাকি অসুন্দর মহিলাদের সঙ্গে বেশি মেলামেশা করতে পছন্দ করেন। এক সাক্ষাৎকারে এই দাবি করেছিলেন অভিনেত্রী প্রীতি জিনতা। একাধিক ছবিতে জুটি বেঁধেছেন শাহরুখ ও প্রীতি।

সংবাদমাধ্যমের সামনেই একাধিক বার প্রীতি জানিয়েছেন, তিনি শাহরুখকে কতটা পছন্দ করেন! সম্প্রতি শাহরুখ ও প্রীতির একটি ভিডিও-সাক্ষাৎকার নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

সাক্ষাৎকারে প্রীতি দাবি করেছেন, অসুন্দর নারীদের সঙ্গে শাহরুখ বেশি কথা বলেন।

প্রীতি বলেছেন, ‘‘একটি জিনিস আমায় অবাক করত। আমরা কোথাও গেলে তুমি কোনও মহিলাকে ডাকতে, কিন্ত কেন শুধু অসুন্দর মহিলাদেরই তুমি ডেকে আনতে?’’

জবাবে শাহরুখ বলেন, ‘‘আমার তাঁদের সুন্দর লাগত। আমার সব নারীদের সুন্দর লাগে। আমি চাই, সারা জীবন নারীরা আমায় ঘিরে থাকুন। নারীরা সচেতন, ভদ্র, নম্র, সুন্দরী। নারীদের গায়ের গন্ধ সুন্দর, তাঁদের কণ্ঠস্বর সুন্দর, তাঁরা সুন্দর। আমার নারীদের খুব খুব ভাল লাগে। আর আমি এটা লুকোই না। কিন্তু আমার এই ভালবাসায় কোনও শারীরিক টান নেই। বা সম্পর্ক তৈরি করারও কোনও উদ্দেশ্য নেই। আপনারা যেমন, তেমন থাকুন। আমি আপনাদের ভালবাসি। আমি আপনাদের ভালবেসে যাব।’’

Advertisement

তবে প্রীতির এই মন্তব্যে চটেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

কেউ বলছেন, ‘‘প্রীতিকে খুবই ক্ষুদ্রমনার মতো লাগছে। যাঁরা দেখা করতে আগ্রহী, শাহরুখ নিশ্চয়ই তাঁদেরই ডাকতেন। সৌন্দর্যের কথা ভেবে মনে হয় না তিনি কাউকে ডাকতেন বা ডাকেন। সেই সব মহিলারা শাহরুখকে ভালবাসেন। তাই তাঁদের ডাকতেন বা ডাকেন।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

জরায়ুতে কত বড় টিউমার ধরা পড়েছে জানালেন রাখি

Published

on

গত কয়েক দিন ধরেই হাসপাতালে ভর্তি রাখি সাওয়ান্ত। হাতে স্যালাইনের নল, হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে থাকা রাখির ছবি ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। তবে অবশেষে জানা গেলো এ অভিনেত্রীর অসুস্থতার কারণ।

সম্প্রতি তাঁর অসুস্থতার কারণ জানিয়েছেন তাঁর সাবেক স্বামি রিতেশ সিংহ।

রিতেশ জানান,  প্রায় ১০ সেন্টিমিটার সাইজের একটি বিরাট টিউমার বাসা বেঁধেছে তাঁর জরায়ুতে। রাখি নিজেই জানিয়েছেন এ খবর।

রাখি জানান, ১৮ মে শনিবার তাঁর অস্ত্রোপচার হবে। তাঁর স্বাস্থ্যসংক্রান্ত যাবতীয় খবর রিতেশই দেবেন।

রাখি আরও জানান, একবার তাঁর অস্ত্রোপচার হয়ে গেলে টিউমারের আকার দেখাবেন সকলকে। অস্ত্রোপচারের ক’দিন আগেই  রক্তচাপ থাকায় ও  অন্য বেশ কিছু পরীক্ষার জন্যে তাকে হাসপাতাল ভর্তি হতে হয়েছে । জীবনে অনেক বাধাবিপত্তি পেরিয়েছেন। রাখির বিশ্বাস, এই কঠিন সময়ও তিনি উতরে যাবেন।

Advertisement

রিতেশ  জানান, রাখির অবস্থা হয়েছে রাখাল ছেলের গল্পের মতো। সে এখন সত্যিই অসুস্থ কিন্তু কিছু মানুষ এটি বিশ্বাস করতে চাইছেন না।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

বলিউডে স্বজনপোষণ নিয়ে যা বললেন জাহ্নবী

Published

on

জাহ্নবী কাপুর

বলিউডের অন্দরে স্বজনপোষণ প্রসঙ্গে আলোচনা-সমালাচেনা অনেক। তারকাদের সন্তান বা আত্মীয়দের ইন্ডাস্ট্রিতে প্রবেশ নিয়ে ব্যঙ্গ করা হয় প্রায়শই। তবে অনেক তারকার সন্তান বা তারকার আত্মীয়, নিজেদের অভিনয়ের দক্ষতার জেরেই স্বজনপোষণের সিলমোহর লাগাতে দেন না নিজেদের গায়ে। কোনও রকম ফিল্মি ব্যাকগ্রাউন্ড ছাড়াই ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেদের জায়গা পাকা করে ফেলেছেন এমন অভিনেতা-অভিনেত্রীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়।

জাহ্নবী কাপূরকে স্বজনপোষণ নিয়ে বিদ্রূপ করলেন রাজকুমার রাও! সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে ছোটবেলার একটি ঘটনা তুলে ধরলেন অভিনেত্রী। স্কুলে গানের অনুষ্ঠানে জাহ্নবীর সামনে রাখা মাইকটি বন্ধ রাখা হয়েছিল অনুষ্ঠানের আগে। জাহ্নবীর গানের গলা ভালো নয় বলে, সচেতন ভাবেই এই ব্যবস্থা করা হয়েছিল। ঘটনাটি শুনে রাজকুমার প্রশ্ন তোলেন, ‘তা হলে তোমাকে ওই গানের অনুষ্ঠানে রাখা হয়েছিল কেন? অনুষ্ঠানে অংশ নিতেই তো মানা করে দিতে পারত।’

মজা করে জাহ্নবী উত্তরে বলেন, ‘অবশ্যই স্বজনপোষণের কারণে। এই কারণেই তো অনুষ্ঠানে রেখেছিল আমাকে।’ জাহ্নবীর কথা শেষ না হতেই রাজকুমার বলে ওঠেন, ‘তা হলে তো ঠিকই আছে। জীবনে এই ভাবেই যদি আরও অনেক ‘মাইক’ বন্ধ করে দিতে পারতাম!’

জাহ্নবীর পাল্টা প্রশ্ন, ‘তুমি কি বিদ্রূপ করলে আমাকে?’ অভিনেতা তার পরে জানান, জাহ্নবীকে আক্রমণ করে কথাটা বলেননি তিনি।

‘মিস্টার ও মিসেস মাহি’ ছবিতে জুটি বেঁধেছেন তারা। চলতি মাসে ৩১ তারিখে মুক্তি পাবে ছবিটি। এর আগে ‘রুহি’ ছবিতে এই জুটির দেখা মিলেছিল।

Advertisement

জেএইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত