Connect with us

ঢাকা

রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় চিরনিদ্রায় শায়িত স্কোয়াড্রন লিডার আসিম

Avatar of author

Published

on

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীতে বিমান বাহিনীর প্রশিক্ষণ বিমান বিধ্বস্ত হয়ে নিহত পাইলট স্কোয়াড্রন লিডার আসিম জাওয়াদকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে। নানার কবরেই চিরনিদ্রায় শায়িত হন এ অভিজ্ঞ যুদ্ধবিমান চালক।

শুক্রবার (১০ মে)  বিকেল ৩টার দিকে মানিকগঞ্জ জেলা শহরের সেওতা কবরস্থানে নানা মরহুম মোহাম্মদ রউফ খানের কবরে আসিম জাওয়াদকে দাফন করা হয়।

জানা যায়, দুপুর ১২ টার দিকে চট্রগ্রামের আনুষ্ঠানিকতা শেষে দুপুরে নিহতের মরদেহ বহনকারী বিমানবাহিনীর একটি হেলিকপ্টার মানিকগঞ্জের শহীদ মিরাজ-তপন স্টেডিয়ামে অবতরণ করে। সেখানেই স্কোয়াড্রন লিডার আসিম জাওয়াদকে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

পরে দুপুর ২টার দিকে শহীদ মিরাজ-তপন স্টেডিয়ামে জুমার নামাজের পর পাইলট আসিম জাওয়াদের তৃতীয় জানাজা সম্পন্ন হয়। এর পর লাশবাহী গাড়িতে করে মরদেহ সেওতা কবরস্থানে নেওয়া হয়। সেখানে আনুষ্ঠানিকতা শেষে নানা মরহুম মোহাম্মদ রউফ খানের কবরে দাফন করা হয় এই পাইলটকে।

ছেলের কফিনবন্দি দেখে কান্নায় ভেঙে পরেন মা নিলুফা খানমসহ স্বজনরা।

Advertisement

এদিকে স্কোয়াড্রন লিডার  আসিম জাওয়াদের মরদেহ শেষবারের মতো এক নজর দেখতে সকাল থেকেই স্টেডিয়ামে ভিড় করতে থাকেন মানিকগঞ্জের নানা শ্রেণি-পেশার মানুষসহ তার স্বজনরা। আসিমের মরদেহ বহনকারী বিমান বাহিনীর হেলিকপ্টার করে তার বাবা আমানউল্লাহ, স্ত্রী অন্তরা আক্তার ও দুই সন্তানসহ স্বজনরা সেখানে নামেন। এ সময় সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

আই/এ

Advertisement

ঢাকা

ফের মেট্রোরেলের পিলারে ট্রাকের ধাক্কা

Published

on

মেট্রোরেল

রাজধানী ঢাকার আগারগাঁওয়ে একটি ড্রাম্প ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের পি-৩৬৪ নম্বর পিলারে আঘাত করেছে। বাস ও মাটি ভর্তি ড্রাম্প ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার (২৫ মে) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কাফরুল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মনির হোসেন।

তিনি বলেন, গতকাল দিবাগত রাতে আগারগাঁওয়ে বাস ও একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। পরে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের একটি পিলারে ধাক্কা দেয়। ঘটনার পর পরই ট্রাকচালক ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় বাস চালক ও হেল্পার আহত হয়েছেন। তারা বর্তমানে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গেলো ৯ এপ্রিল দুপুর ২টার দিকে আগারগাঁও বিমান যাদুঘরের সামনে দুই বাসের রেষারেষিতে সেফটি পরিবহনের একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মেট্রোরেলের ৭৪ নং পিলারে সজোরে ধাক্কা দেয়। এ দুর্ঘটনায় বাসের ১০ জন যাত্রী আহত হন। ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই বাস থেকে নেমে পালিয়ে যান চালক ও হেলপার।

কেএস/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনের মৃত্যু

Published

on

দুর্ঘটনা

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পৌলী এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় একটি কাভার্ডভ্যানের চালক ও হেলপারের মৃত্যু হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

শনিবার (২৫ মে) সকালে কালিহাতী উপজেলার পৌলী এলাকায় ব্রিজের দক্ষিণ পাশে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ওসি মীর মোহাম্মদ সাজেদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ঢাকা-উত্তরবঙ্গ মহাসড়কের পৌলী ব্রিজের দক্ষিণ পাশে ঢাকাগামী একটি কাভার্ডভ্যান একটি লরির পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে কাভার্ডভানের সামনের অংশটি দুমড়ে মুচড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই কাভার্ডভ্যানের চালক ও হেলপার নিহত হন। দুর্ঘটনার ফলে ঢাকাগামী লেনে কিছুটা যানজট হলে তাৎক্ষণিক সেটি স্বাভাবিক করেন পুলিশ।

কেএস/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ঢাকা

কনে দেখা নিয়ে মারামারি, একাই বাড়ি ফিরলেন বর

Published

on

কনে,-বৌ

বিয়ে বাড়িতে বউ দেখা নিয়ে বর ও কনেপক্ষের লোকজনের মধ্যে বিরোধের জেরে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দুই পক্ষের অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন। এরপর বউ রেখে একাই বাড়ি ফিরলেন বর।

শুক্রবার (২৪ মে) ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার কাইচাইল ইউনিয়নের মধ্য কাইচাইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতদের স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, উপজেলার চর যশোরদী ইউনিয়নের নাগারদিয়া গ্রামের মিরান তালুকদারের ছেলে শাহ আলমের সঙ্গে গত দুই মাস আগে একই উপজেলার মধ্য কাইচাইল গ্রামের পান্নু মিয়ার মেয়ে বৃষ্টি আক্তারের বিয়ে সম্পন্ন হয়। শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ের আয়োজন করা হয়। বর পক্ষের আত্নীয়স্বজন কনে দেখা নিয়ে কনে পক্ষের সঙ্গে কথা-কাটাকাটিতে জড়িয়ে পরে। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ৫ জনের মতো আহত হয়েছে। পরে কনে বৃষ্টি আক্তারকে রেখেই বরযাত্রীসহ ফিরে যান বর শাহ আলম।

নগরকান্দা থানার ওসি মোহাম্মদ আমিনুর রহমান বলেন, বিয়ে বাড়িতে কনে দেখা নিয়ে দুই পক্ষের আত্মীয়স্বজনের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ করেননি, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত