Connect with us

বাংলাদেশ

বিশ্বের সাথে খাদ্যমন্দা বাংলাদেশেও এসেছে : প্রধানমন্ত্রী

Published

on

২০২৩-এ সারাবিশ্বে দুর্ভিক্ষের সময়, কিন্তু বাংলাদেশ যেন এই দুর্ভিক্ষ কবলিত না হয়, তাই আমাদের নিজেদের ভূমিতে নিজেদের খাদ্য উৎপাদন করে নিজেদের সঞ্চয় করে এবং কৃচ্ছ্রতাসাধন করে চলতে হবে। আমি আশা করি সবাই সেভাবে চলবেন। আমাদের যে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা, সেটা অব্যাহত থাকবে। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) সকালে সাভার সেনানিবাসের সিএমপিসি অ্যান্ড এস প্যারেড গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৭১ মেকানাইজড ব্রিগেড ও মেকানাইজড ইউনিটগুলোর পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। এ সময় গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘গণতান্ত্রিক সরকারের ধারাবাহিকতা আছে বলেই দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বিশ্বে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ ও স্যাংশনের (নিষেধাজ্ঞা) কারণে উন্নত দেশগুলো হিমশিম খাচ্ছে এবং সেখানে খাদ্যমন্দা দেখা দিচ্ছে। সেখানে বাংলাদেশেও একই অবস্থা। তারই আঘাত বাংলাদেশে এসে পড়েছে। তারপরেও আমরা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ। তবে আমরা যুদ্ধ চাই না। সকলের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রেখে চলতে চাই।’

Advertisement

সরকারপ্রধান বলেন, ‘এমনভাবে দেশকে গড়ে তুলবো, যাতে বিশ্বে কেউ বাংলাদেশকে হেয় করতে না পারে। এছাড়া দুর্যোগ থেকে বাংলাদেশ যেন হেফাজতে থাকে সেই কামনা করেন।’

শেখ হাসিনা বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন অফ বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে এক কোটি পরিবারকে স্বল্পমূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, আমার দৃঢ় বিশ্বাস সেনাবাহিনীর সকল সদস্য মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা ও পরিপূর্ণ অনুগত থেকে কঠোর অনুশীলন, পেশাগত দক্ষতা ও কর্তব্যনিষ্ঠার সমন্বয়ে নিষ্ঠার সাথে দেশের সেবায় কাজ করে যাবেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আবহমান কাল থেকেই যুদ্ধের ময়দানে জাতীয় মর্যাদার প্রতীক ‘পতাকা’ বহন করার রীতি প্রচলিত আছে। পতাকা হল জাতির স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, সম্মান এবং মর্যাদার প্রতীক। তাই পতাকার মান রক্ষা করা সকল সৈনিকের পবিত্র দায়িত্ব।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে পুনরায় সরকার গঠনের পর প্রযুক্তি জ্ঞানসম্পন্ন যুগোপযোগী সামরিক বাহিনী গঠনের লক্ষ্যে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করে বাস্তবায়ন করছি। আমরা ‘ফোর্সেস গোল-২০৩০’ বাস্তবায়নের মাধ্যমে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর আধুনিকায়ন, সম্প্রসারণ ও উন্নয়ন করছি।

Advertisement

তিনি বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে নির্মমভাবে হত্য্যা করার পর  বাংলাদেশের বিজয়ের গৌরবজ্জ্বল ইতিহাস মুছে যায়। একের পর এক সেনাবাহিনীতে ক্যু হতে থাকে। সামরিক বাহিনীর অফিসার সৈনিকদের নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। লাশ গুম করে দেয়া হয়।

তিনি বলেন, এখনও সেদিন গুম হওয়াদের স্বজনহারারা কেঁদে বেড়াচ্ছে সেই বেদনা নিয়ে। ইনডেমনিটি অর্ডিনেন্স জারি করে জাতির পিতার হত্যার বিচারের পথ বন্ধ করে খুনীদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরী দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়।

তিনি বলেন, আমি আশা করি, জাতীয় নিরাপত্তা ও ঝুঁঁকি মোকাবেলায় এই মেকানাইজড ইউনিটসমূহের সংযোজন এক নতুন মাত্রা যোগ করবে ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

তাসনিয়া রহমান

 

Advertisement

আর্কাইভ

শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯ 

জাতীয়

পোস্তগোলা-সেতু পোস্তগোলা-সেতু
জনদুর্ভোগ16 mins ago

৩য় দিনের মতো যান চলাচল বন্ধ পোস্তগোলা সেতুতে

সংস্কার কাজ শুরু হওয়ার ৩য় দিনের মতো রাজধানীর পোস্তগোলা সেতুর ওপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। রাজধানীতে প্রবেশে ও বের...

সড়ক দুর্ঘটনা সড়ক দুর্ঘটনা
ঢাকা19 mins ago

রাজধানীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ৩

রাজধানীর দক্ষিণখানের আসিয়ান সিটি এলাকায় মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। নিহত তিনজন একই মোটরসাইকেলে ছিলেন। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) রাত...

জাতীয়36 mins ago

৭৫ এর পর ক্ষমতা জনগণের হাতে নয়, ক্যান্টনমেন্টে বন্দি হয় : প্রধানমন্ত্রী

পঁচাত্তরের পর ক্ষমতা জনগণের হাতে নয়, ক্যান্টনমেন্টে বন্দি হয়ে যায়। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক...

মাদকবিরোধী মাদকবিরোধী
অপরাধ1 hour ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও...

সড়ক দুর্ঘটনা সড়ক দুর্ঘটনা
দুর্ঘটনা3 hours ago

বাস-কাভার্ডভ্যানের সংঘর্ষে ২ গাড়িচালক নিহত

নরসিংদীর পলাশে যাত্রীবাহী বাস এনা পরিবহনের সঙ্গে মালবাহী কাভার্ডভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই গাড়িচালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ৬ জন...

আফরিন আফরিন
জাতীয়3 hours ago

আজ ঢাকা আসছেন মার্কিন উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আফরিন

যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়াবিষয়ক উপসহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী আফরিন আক্তার ঢাকা সফরে আসছেন আজ। দু’দেশের সম্পর্ক এগিয়ে নেয়ার বিষয়ে আলোচনা করতে...

অপরাধ14 hours ago

মসজিদে নববীর ইমাম পরিচয়ে প্রতারণা, ১৯ জনকে গ্রেপ্তার সিআইডির

সৌদি আরবের পবিত্র মসজিদে নববীর ইমামের পরিচয়ে প্রতারণা করা একটি চক্রের ১৯ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।...

জাতীয়14 hours ago

‘স্বাস্থ্যসেবার পরিধি গ্রাম পর্যায়ে পৌঁছাতে কাজ করছি’

স্বাস্থ্যসেবা শুধু শহর কেন্দ্রিক নয়, এর পরিধি একেবারে গ্রাম পর্যায়ে পৌঁছে দিতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সেটাই চান। আমরা স্বাস্থ্যসেবার...

জাতীয়15 hours ago

‘আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া সম্ভব নয়’

বাংলাদেশ ১২ লাখের বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে। প্রতি বছর ৩৫ হাজার নতুন রোহিঙ্গা শিশু জন্মগ্রহণ করে। আমাদের পক্ষে আর কোনো...

জাতীয়15 hours ago

‘অবৈধ মজুতদাররা বিএনপির দোসর’

অবৈধভাবে পণ্য মজুত করে যারা সংকট তৈরি করে তারা দেশের শত্রু ও বিএনপির দোসর। তারা শেখ হাসিনাকে উৎখাত করতে চায়।...

Advertisement
স্বামী
চট্টগ্রাম13 mins ago

ফ্যানে ঝুলছিলো স্বামীর মরদেহ, বিছানায় স্ত্রীর

পোস্তগোলা-সেতু
জনদুর্ভোগ16 mins ago

৩য় দিনের মতো যান চলাচল বন্ধ পোস্তগোলা সেতুতে

সড়ক দুর্ঘটনা
ঢাকা19 mins ago

রাজধানীতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ৩

আওয়ামী লীগ30 mins ago

‘পাঁচ বছরে ৯ বার বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে বিএনপি’

জাতীয়36 mins ago

৭৫ এর পর ক্ষমতা জনগণের হাতে নয়, ক্যান্টনমেন্টে বন্দি হয় : প্রধানমন্ত্রী

বৃষ্টি
আবহাওয়া59 mins ago

দেশের চার বিভাগে বৃষ্টির আভাস

মাদারীপুরে-ইন্দোনেশিয়ার-মেয়ে
ঢাকা59 mins ago

প্রেমের টানে মাদারীপুরে ইন্দোনেশীয় তরুণী

মাদকবিরোধী
অপরাধ1 hour ago

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫

রোজকার-ডায়েট
লাইফস্টাইল1 hour ago

মধ্যবয়সে পৌঁছতেই পরিবর্তন আনুন রোজকার ডায়েটে

পিটিআই
আন্তর্জাতিক2 hours ago

ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে ইমরানের পিটিআই

অপরাধ6 days ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

ব্যারিস্টার-সৈয়দ-সায়েদুল-হক-সুমন
আওয়ামী লীগ2 weeks ago

‘আমি ফেসবুকের এমপি ঠিকই, ফসল হিসেবে তুলেছেন প্রধানমন্ত্রী’

ওবায়দুল-কাদের
জাতীয়3 weeks ago

বাংলাদেশ কারো সঙ্গেই যুদ্ধে জড়াতে চায় না : কাদের

এশিয়া4 weeks ago

হামাসের ৮০ ভাগ টানেল অক্ষত, ঘুম হারাম ইসরায়েলের!

মঈন-খান
বিএনপি1 month ago

প্রতিহিংসার রাজনীতির শিকার হয়েছিলেন কোকো: মঈন খান

ফিচার2 months ago

শেখ হাসিনা-খালেদা জিয়াকে গ্রেপ্তার করেও ঠেকানো যায়নি যে নির্বাচন (ভিডিও)

প্রধানমন্ত্রী.-সাকিব-আল-হাসান
আওয়ামী লীগ2 months ago

এইবারও ইলেকশনে ছক্কা মেরে দিও: সাকিবকে প্রধানমন্ত্রী

৭ম-জাতীয়-নির্বাচন
জাতীয়2 months ago

‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে প্রথম নির্বাচন’

জাতীয়2 months ago

৫ম জাতীয় নির্বাচন: প্রথমবারের মতো নারী প্রধানমন্ত্রী পায় বাংলাদেশ

জাতীয়2 months ago

তৃতীয় জাতীয় সংসদ যে কারণে ভেঙে দিতে বাধ্য হন এরশাদ

সর্বাধিক পঠিত