Connect with us

বাংলাদেশ

বিয়ের চার মাস পরেই নয়নতারার সন্তানের জন্ম

Published

on

গেলো রোববার যমজ পুত্রসন্তানের মা-বাবা হয়েছেন অভিনেত্রী নয়নতারা ও পরিচালক ভিগনেশ। বিয়ের মাত্র চার মাস পরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই সুখবর জানিয়ে ভক্তদের চমকে দিয়েছিলেন ভিগনেশ শিবান। নয়নতারা ও ভিগনেশ দীর্ঘ সাত বছর প্রেম করার পর গেলো ৯ জুন ভারতের মহাবলীপুরমের শেরাটন পার্ক রিসোর্টে বিয়ে করেন।

বিয়ের কয়েক মাস পর সন্তান জন্ম দিয়েছিলেন অনেক তারকাই। কিন্তু বিপাকে পড়তে হচ্ছে এই দম্পতিকে। কয়েক দিন আগেই গডফাদার ছবির প্রচারে নয়নতারাকে দেখে অন্তঃসত্ত্বা মনে হয়নি, বেবিবাম্পও দেখা যায়নি। অনেক ভারতীয় সংবাদমাধ্যম যদিও খবর করেছে, সারোগেসি পদ্ধতিতে সন্তান জন্ম দিয়েছেন এই দম্পতি। তবে নয়নতারা ও শিবান এ বিষয়ে কিছু জানাননি। বিয়ের পর এত দ্রুত কীভাবে মা হওয়া সম্ভব, সাধারণ ভক্তদের মতো তামিলনাড়ু সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একই প্রশ্ন। তারাও জানতে চায় কীভাবে সন্তান জন্ম দিয়েছেন এই তারকা দম্পতি। প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে রীতিমতো তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে তারা।  

তামিলনাড়ু সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মা সুব্রামানিয়ান এ প্রসঙ্গে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, রাজ্য সরকার বিষয়টি নিয়ে নয়নতারা ও ভিগনেশের কাছে ব্যাখ্যা চাইবে। তারা কি আসলেই সারোগেসি পদ্ধতিতে সন্তান নিয়েছেন কি না। তিনি আরও জানান, মেডিকেল সার্ভিসেস অধিদপ্তর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত পরিচালনা করবে।

চলতি বছরের শুরুতেই ভারতে সারোগেসি পদ্ধতি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গেলো জানুয়ারি মাসে এ বিষয়ে দেশটির পার্লামেন্টে বিল পাস হয়েছে। বিলে বলা হয়েছে, যেসব দম্পতি শারীরিকভাবে সন্তান ধারণে অক্ষম, তাঁরাই কেবল এই পদ্ধতি অবলম্বন করতে পারবেন। এ ছাড়া ৩৫ থেকে ৪৫ বছরের যেসব নারী বিধবা ও বিচ্ছেদ হয়েছে, তাঁরা এই পদ্ধতিতে মা হতে পারবেন।

এর আগে অনেক তারকা দম্পতি সারোগেসি পদ্ধতিতে সন্তান জন্ম দিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও নিক জোনাস দম্পতি, শাহরুখ খান, শিল্প শেঠি, করণ জোহরসহ অনেকেই।

Advertisement

 

বিপ্লব আহসান 

Advertisement

জাতীয়

ঈদের পর নতুন সময়সূচিতে চলবে মেট্রোরেল

Published

on

পবিত্র ঈদুল আজহার দিন বন্ধ থাকবে মেট্রোরেল। এরপরই নতুন সময়সূচিতে চলবে মেট্রোরেল।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকেলে রাজধানীর ইস্কাটনে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) কার্যালয়ে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে মেট্রোরেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, ঈদুল আজহার পর সরকারি অফিসের নতুন সময়সূচি অনুযায়ী মেট্রোরেল চলাচলের শিডিউলেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। তারতম্য আনা হয়েছে পিক, অফপিক আওয়ারে। এতে সুবিধা পাবেন অফিসগামী যাত্রীরা।

তিনি আরও বলেন, ঈদে মেট্রোরেলে পশুর চামড়া ও মাংস পরিবহন করা যাবে না।

টিআর/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আইন-বিচার

৮ দিনের রিমান্ডে আওয়ামী লীগ নেতা মিন্টু

Published

on

সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণের মামলায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুর ৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) তাকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার মাহফুজুর রহমান। শুনানি শেষে ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তোফাজ্জল হোসেন তার এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে ধানমন্ডি থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে ডিবি পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে এ ঘটনায় তার সম্পৃক্ততা পাওয়ায় এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এর আগে গত ২৩ মে সৈয়দ আমানুল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ভূঁইয়া, ফয়সাল আলী সাজী ওরফে তানভীর ভূঁইয়া ও সিলিস্তি রহমানকে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। দুই দফায় তাদের ১৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। তারা তিনজনই ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। বর্তমানে তারা কারাগারে রয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে ভারতে যান এমপি আনার। ওঠেন পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। পরদিন চিকিৎসক দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন তিনি। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন আনোয়ারুল আজীম। এরপরও খোঁজ মেলে না তিনবারের এই সংসদ সদস্যের। ২২ মে হঠাৎ খবর ছড়ায়, কলকাতার পার্শ্ববর্তী নিউটাউন এলাকায় সঞ্জীবা গার্ডেনস নামে এক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে আনোয়ারুল আজীম খুন হয়েছেন। ঘরের ভেতর পাওয়া গেছে রক্তের ছাপ। তবে ঘরে মেলেনি মরদেহ।

Advertisement

এ ঘটনায় ২২ মে ঢাকার শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা করেন তার মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

আইন-বিচার

আওয়ামী লীগ নেতা মিন্টু আদালতে, ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন

Published

on

সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যার উদ্দেশ্যে অপহরণের মামলায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুর ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) তাকে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন ডিবি পুলিশের সিনিয়ার সহকারী কমিশনার মাহফুজুর রহমান। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এ রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে ধানমন্ডি থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে ডিবি পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তার সম্পৃক্ততা পাওয়ায় এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গেলো (১২ মে) চিকিৎসার জন্য ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ থেকে চুয়াডাঙ্গার দর্শনার গেদে সীমান্ত দিয়ে ভারতে যান এমপি আনার। ওঠেন পশ্চিমবঙ্গে বরাহনগর থানার মণ্ডলপাড়া লেনে গোপাল বিশ্বাস নামে এক বন্ধুর বাড়িতে। পরদিন ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর থেকেই রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ আনোয়ারুল আজীম। বুধবার (২২ মে) হঠাৎ খবর ছড়ায়, কলকাতার পার্শ্ববর্তী নিউটাউন এলাকায় বহুতল সঞ্জীবা গার্ডেনস নামে একটি আবাসিক ভবনের বিইউ ৫৬ নম্বর রুমে আনোয়ারুল আজীম খুন হয়েছেন। ঘরের ভেতর পাওয়া গেছে রক্তের ছাপ।

এর আগে গেলো (২৩ মে) সৈয়দ আমানুল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ভূঁইয়া, ফয়সাল আলী সাজী ওরফে তানভীর ভূঁইয়া ও সিলিস্তি রহমানকে এ মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়। দুই দফায় তাদের ১৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। তারা তিনজনই ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। বর্তমানে তারা কারাগারে রয়েছেন।

Advertisement

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত