Connect with us

এশিয়া

দ্রুততম সময়ে হংকংয়ের নারীর এভারেস্টে ওঠার রেকর্ড

Published

on

হিমালয় পর্বতমালার সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে আরোহনে নতুন রেকর্ড করেছেন হংকংয়ের সাং ইয়েন হাং নামে এক নারী। এ পর্যন্ত এভারেস্টে ওঠা নারী পর্বতারোহীদের মধ্যে স্বল্পতম সময়ে ওই পর্বতের শীর্ষে ওঠার রেকর্ড এখন তার দখলে। গেল সপ্তাহে এই ঘটনা ঘটেছে।

ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা আট হাজার ৮৪৮ দশমিক ৮৬ মিটার। মাত্র ২৫ ঘণ্টা ৫০ মিনিটে এই পর্বতের শীর্ষে পৌঁছাতে সক্ষম হন সাং ইয়েন হাং।

নেপাল সরকারের এভারেস্ট বেস ক্যাম্প বিভাগের কর্মকর্তা জ্ঞানেন্দ্র শ্রেষ্ঠ জানান, আমাদের কাছে আসা তথ্য অনুযায়ী, গেল শনিবার দুপুর ১টা ২০ মিনিটে পর্বতারোহণ শুরু করেন ওই নারী। শীর্ষদেশে পৌঁছান পরের দিন ৩টা ১০ মিনিটে। পরে আমরা যাচাই করে জেনেছি, ঘটনাটি সত্য।

এর আগে নারী পর্বতারোহী হিসেবে দ্রুততম সময়ে এভারেস্টের ওঠার রেকর্ড ছিল নেপালের ফুঞ্জো ঝাংমু লামার। তিনি ৩৯ ঘণ্টা ৬ মিনিটে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতের শীর্ষে উঠেছিলেন।

তবে জ্ঞানেন্দ্র জানিয়েছেন, এখন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির জন্য সাং ইয়েন হাংকে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ এবং এ বিষয়ক আবেদন করতে হবে। কারণ, আরোহীদের পর্বতারোহণ বিষয়ক সনদ দিলেও রেকর্ড বিষয়ক সনদ দেয় না নেপাল সরকার।

Advertisement

এক সময় স্কুল শিক্ষক ছিলেন ৪৪ বছর বয়সী সাং ইয়েন হাং। তিনি তার বন্ধু ও পরিচিত মহলে আডা নামেও পরিচিত। তবে তার পর্বতারোহণের দিকে অদম্য ঝোঁক থাকায় একসময় শিক্ষকতা ছেড়ে এই ক্ষেত্রে মনোযোগ দিতে শুরু করেন।

২০১৭ সালে প্রথমবার মাউন্ট এভারেস্টের শীর্ষে ওঠেন সাং ইয়েন হাং। এরপর আরো একবার বিশ্বের সর্বোচ্চ এই পর্বত জয় করেন তিনি। চলতি বছরের পর্বতারোহণ ছিল তার তৃতীয় দফা অভিযান।

বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির কারণে গেল বছর কোনো পর্বতারোহীকে এভারেস্টে ওঠার অনুমতি দেয়নি নেপাল সরকার। তবে আর্থিক সংকট তীব্র হতে থাকে দক্ষিণ এশিয়ার পর্যটন নির্ভর দেশটিতে। চলতি বছর শর্তসাপেক্ষে ৪০৮ জন পর্বতারোহীকে এভারেস্টে আরোহণের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। নেপালের সরকারি তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত এভারেস্টের শীর্ষে উঠতে পেরেছেন ৩৫০ জন পর্বতারোহী।

 

এসএন

Advertisement
Advertisement

এশিয়া

সৌদিতে চালু হলো চালক বিহীন উড়ন্ত ট্যাক্সি

Published

on

এবারের হজে যাত্রীদের পরিবহনে চালক বিহীন উড়ন্ত ট্যাক্সির উদ্বোধন করেছে সৌদি আরব। পবিত্র নগরী মক্কায় যাত্রীদের পরিসেবায় এই ইলেকট্রিক উড়ন্ত ট্যাক্সি ব্যবহৃত হবে। এর মাধ্যমে জরুরি ভিত্তিতে মেডিকেল উপকরণ সরবরাহ করা হবে। এছাড়া পাঠানো হবে পণ্য।

দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমের (এসপিএ) প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) আরব নিউজের প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

সৌদির ট্রান্সপোর্ট ও লজিস্টিক সার্ভিসেস মন্ত্রী সালেহ বিন নাসের আল-জাসের বলেন, বিশ্বে এই প্রথম এ ধরনের উড়ন্ত ট্যাক্সির লাইসেন্স দিয়েছে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ।

বুধবার (১২ জুন) এ যানটি উদ্বোধন করা হয়। এটি উদ্বোধনের সময় সিভিল এভিয়েশনের জেনারেল প্রেসিডেন্ট আব্দুল আজিজ আল দুয়াইলেজ, ট্রান্সপোর্ট ও লজিস্টিক সার্ভিসেস মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী রুমিয়াহ আল-রুমিসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় তারা চালকবিহীন উড়ন্ত ট্যাক্সির উড্ডয়ন প্রত্যক্ষ করেন।

Advertisement

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী সালে বিন নাসের আল জাসের বলেন, আগামী দিনের যোগাযোগের যানবাহন উদ্বোধন করা হলো। এটি পরিবেশ বান্ধব এবং এতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা যুক্ত করা হয়েছে।

নতুন এই যানবাহন উদ্বোধনের ফলে যাত্রী পরিবহনে সময় কমবে। এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে মেডিকেল সুবিধা এবং পণ্য সরবরাহ করা যাবে। এ বছর হজ যাত্রীদের সেবায় প্রযুক্তি সম্বলিত ৩২ সুবিধা যুক্ত করার মধ্যে এই এয়ার ট্যাক্সি অন্যতম।

টিআর/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

জম্মু-কাশ্মীরে সেনা ঘাঁটিতে হামলা, পাঁচ সেনাসহ আহত ৬

Published

on

ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের দোদারের একটি সেনা ঘাঁটিতে হামলা চালিয়েছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। এতে পাঁচ সেনা ও একজন বিশেষ পুলিশ কর্মকর্তা (এসপিও) আহত হয়েছেন।

বুধবার (১২ জুন) রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির দেয়া প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, এই নিয়ে গত তিনদিনে কাশ্মীরে তিনবার সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে। তিন দিন আগে রিয়াসিতে তীর্থযাত্রীদের বহনকারী একটি বাসে গুলি চালায় সন্ত্রাসবাদীরা। ওই সময় বাসচালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি একটি গিরিখাদে পড়ে যায়। এতে ৯ জন নিহত হন, যাদের সবাই তীর্থযাত্রী ছিলেন। আর দোদারে হামলার কয়েক ঘণ্টা আগে কাথুয়ায় বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় একজন নিহত ও দুইজন আহত হন।

জম্মু জোনের পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিচালক আনন্দ জৈন, দোদার চত্তরগোলার সেনা ঘাঁটিতে গভীর রাতে পুলিশ এবং রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের একটি যৌথ দলের ওপর গুলি ছোড়ে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। এরপর নিরাপত্তা বাহিনী এবং বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়।

টিআর/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

ঘরের টাকা চুরি করায় ছেলেকে হত্যা করলেন মা

Published

on

মাত্র ৯ বছর বয়সেই মায়ের অবাধ্য হয়েছে সন্তান। পড়াশোনা ঠিকমতো করে না আবার ঘর থেকে করে টাকা চুরি। মায়ের অশান্তির কারণ হয়ে ওঠায় নিজের সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করলেন মা। এ ঘটনায় ওই মা কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১১ জুন) ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য ত্রিপুরার আগরতলায় ঘটনাটি ঘতে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, অভিযুক্ত ওই নারীর নাম সুপ্রভা বাল। তিনি তার এই ছেলের সঙ্গে একাই থাকতেন। অভিযুক্ত সুপ্রভা তার দায় স্বীকার করেছেন এবং হত্যাকাণ্ডের  পর পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে তাকে তার ছেলের মরদেহের কাছে বসে থাকতে দেখে।

পুলিশ জানায়, ওই নারী একটি নির্মাণ সাইটে দিনমজুর হিসেবে কাজ করেন। তার স্বামী নিখোঁজ এবং তার মেয়েও বিবাহিত। আর তাই তিনি নিজের ছেলের সঙ্গেই থাকতেন এবং তাকে লালন-পালন করতেন।

অপরাধ স্বীকার করে ওই নারী বলেন, ছেলের এসব কর্মকাণ্ডের কারণে তিনি কাজ করতে যেতে পারতেন না বা শান্তিতে থাকতেও পারতেন না। তাই তিনি তাঁর সন্তানকে হত্যা করেছেন এবং এর জন্য জেলে যেতেও তিনি প্রস্তুত।

Advertisement

প্রসঙ্গত, পুলিশ তার বাড়ি থেকে এক টুকরো দড়ি এবং একটি বাঁশের লাঠি উদ্ধার করেছে যেগুলো হত্যায় ব্যবহৃত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আই/এ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত