Connect with us

ছাত্র-শিক্ষক

ইবির শেখ হাসিনা হল প্রভোস্টকে অব্যাহতি

Avatar of author

Published

on

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে নবীন ছাত্রী ফুলপরীকে রাতভর নির্যাতনের ঘটনায় হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট হলের প্রভোস্ট পদ থেকে অধ্যাপক ড. শামসুল আলমকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তার জায়গায় হলের জ্যেষ্ঠ আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক ড. আহসানুল হককে নতুন প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

আজ বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া অভিযুক্ত ছাত্রীদের বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের বিষয়ে আগামী শনিবার সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

উপ-উপাচার্য বলেন, হাইকোর্ট থেকে যে নির্দেশনা পেয়েছি সেই অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট হলের প্রভোস্টকে প্রত্যাহার করেছি। হলের জ্যেষ্ঠ আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক ড. আহসানুল হককে সাময়িকভাবে হল চালানোর জন্য বলা হয়েছে। এ ছাড়া হাইকোর্টের নির্দেশানুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এদিকে আজ দায়িত্ব অবহেলা এবং ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় অভিযুক্তদের সহযোগিতার অভিযোগ এনে উচ্চ আদালত থেকে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্টকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিতে নির্দেশ দেন।

বুধবার বিচারপতি জে বি এম হাসান ও রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। গতকাল মঙ্গলবার ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় ও হাইকোর্টের নির্দেশে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন হাইকোর্টে উপস্থাপন করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

Advertisement

প্রসঙ্গত, গেলো ১২ ফেব্রুয়ারি রাতে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের গণরুমে ডেকে রাত ১১টা থেকে রাত ৩টা পর্যন্ত নবীন ছাত্রী ফুলপরী খাতুনকে বিবস্ত্র করে মারধর ও শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সানজিদা চৌধুরী অন্তরা ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে। নির্যাতনের পরদিন ভয়ে ক্যাম্পাস থেকে পালিয়ে যান ওই ছাত্রী।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

ছাত্র-শিক্ষক

ঈদের দিন কালো পতাকা হাতে শিক্ষকদের বিক্ষোভ

Avatar of author

Published

on

পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতার দাবিতে বরিশালে কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন বেসরকারি স্কুল-কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরা।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল)  সকালে  নগরীর ফকিরবাড়ি রোড থেকে মিছিল বের হয়ে অশ্বিনী কুমার দত্ত টাউন হলের সামনে সমাবেশের মধ্যে দিয়ে শেষ হয় বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি বরিশাল শাখার সভাপতি মহসিন উল ইসলাম ও বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের বরিশাল জেলা শাখার আহ্বায়ক রেজাউল করিম।

শিক্ষক নেতারা বলেন, ঈদের আগেও পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতার দাবিতে মানববন্ধন, স্মারকলিপি দিয়ে দাবির কথা সরকারের কাছে তুলে ধরেছেন বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা। কিন্তু এরপরও ঈদুল ফিতরে বেসরকারি শিক্ষকদের মাত্র ২৫ শতাংশ উৎসব ভাতা দেওয়া হয়েছে। তাই ঈদের দিন রাস্তায় কালো পতাকা নিয়ে নামতে বাধ্য হয়েছেন তারা।

শিক্ষক নেতারা আরও বলেছেন, দেশের শিক্ষাব্যবস্থার ৯৮ শতাংশ পরিচালনা করেন বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা। মানবসম্পদ বিকাশে ভূমিকা রাখা এই ৫ লাখের বেশি বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা মাত্র ২৫ শতাংশ উৎসব ভাতা, এক হাজার টাকা বাড়ি ভাড়া এবং ৫০০ টাকা চিকিৎসা ভাতা পেয়ে আসছেন। এতে একজন শিক্ষকের ন্যূনতম জীবনমান নির্বাহ করা অসম্ভব। মানবসম্পদ উন্নয়ন ছাড়া স্মার্ট বাংলাদেশ কল্পনা করা যায় না।

প্রসঙ্গত, আগামী ঈদুল আজহায় যাতে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীরা পূর্ণাঙ্গ ভাতা পেতে পারেন, সেজন্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে ঈদের দিন এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ক্যাম্পাস

অবন্তিকার বাড়িতে জবির তদন্ত কমিটি

Avatar of author

Published

on

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থী ফাইরুজ সাদাফ অবন্তিকার আত্মহত্যার ঘটনায়  অবন্তিকার বাড়ি কুমিল্লায় গিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্ত কমিটি। সেখানে অবন্তিকার মায়ের সঙ্গে দীর্ঘ আড়াই ঘণ্টা বৈঠক করেন তারা।

কথা বলেছেন পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গেও। এসময় তারা আত্মহত্যার স্থানও পরিদর্শন করেন।

শুক্রবার (২২ মার্চ) সকাল ১০টায় তদন্ত কমিটির সদস্যরা কুমিল্লা নগরীর বাগিচাগাঁওয়ে অবন্তিকার বাসায় যান। বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন তদন্ত কমিটির প্রধান ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন।

কমিটির প্রধান জানান, অবন্তিকার বিভিন্ন বিষয়ে তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করেছেন তাঁরা। তদন্তের প্রয়োজনে তাঁরা পুলিশ ও অভিযুক্তদের সঙ্গেও কথা বলার চেষ্টা করবেন। তাদের কাছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কিছু তথ্য চাইবেন।

অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন বলেন, আড়াই ঘণ্টা ধরে তারা অবন্তিকার মায়ের সঙ্গে কথা বলেছেন। এ ঘটনা সম্পর্কে অবন্তিকার মা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যা জানেন সবই তাঁরা শুনেছেন। পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গেও কথা হয়েছে।

Advertisement

তিনি বলেন, তদন্তে যেসব তথ্য বেড়িয়ে এসেছে সে বিষয়ে তদন্তের স্বার্থে এ মুহুর্তে তাঁরা কিছু বলবেন না। তদন্তের কাজ চলছে।  যত দ্রুত সম্ভব তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দেয়ার চেষ্টা করবেন তাঁরা।

অবন্তিকার মা জানান, তদন্ত কমিটি সকল তথ্য নিয়েছে।  ওনারা যা যা জানতে চেয়েছেন সকল তথ্য তিনি দিয়েছেন। তাকে ন্যায় বিচার পাওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন জবি তদন্ত কমিটি।

উল্লখ্যে, তদন্ত কমিটির দলের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষক ও একজন সহকারী প্রক্টর ছিলেন।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ছাত্র-শিক্ষক

যা লেখা ছিলো আত্মহত্যা করা সেই জবি শিক্ষার্থীর ফেসবুক পোস্টে

Avatar of author

Published

on

অবন্তিকা,-জবি-শিক্ষার্থীর-আত্মহত্যা

ফাইরুজ অবন্তিকা নামের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এক শিক্ষার্থী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যা চেষ্টার আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে লম্বা এক পোস্টে আত্মহত্যার জন্য সহপাঠী আম্মান সিদ্দিকী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলামকে দায়ী করেন।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) রাত ১০টার দিকে কুমিল্লা সদরের নিজ বাসায় গলায় ফাঁস নেন ফাইরুজ অবন্তিকা। পরে তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পাঠকদের উদ্দেশ্যে সেই শিক্ষার্থী ফেসবুক পোস্ট হুবহু তুলে ধরা হলো, “আমি যদি কখনো সুইসাইড করে মারা যাই তবে আমার মৃত্যুর জন্য একমাত্র দায়ী থাকবে আমার ক্লাসমেট আম্মান সিদ্দিকী, আর তার সহকারী হিসেবে তার সাথে ভালো সম্পর্ক থাকার কারণে তাকে সাপোর্টকারী জগন্নাথের সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম। আম্মান যে আমাকে অফলাইন অনলাইনে থ্রেটের উপর রাখতো সে বিষয়ে প্রক্টর অফিসে অভিযোগ করে ও আমার লাভ হয় নাই। দ্বীন ইসলাম আমাকে নানান ভাবে ভয় দেখায় আম্মানের হয়ে যে আমাকে বহিষ্কার করা ওনার জন্য হাতের ময়লার মতো ব্যাপার। আমি জানি এখানে কোনো জাস্টিস পাবো না। কারণ দ্বীন ইসলামের অনেক চামচা ওর পাশে গিয়ে দাঁড়াবে। এই লোককে আমি চিনতাম ও না। আম্মান আমাকে সেক্সুয়ালি এবিউজিভ কমেন্ট করায় আমি তার প্রতিবাদ করলে আমাকে দেখে নেয়ার জন্য দ্বীন ইসলামের শরণাপন্ন করায়। আর দ্বীন ইসলাম আমাকে তখন প্রক্টর অফিসে একা ডেকে নারীজাতিয় গালিগালাজ করে। সেটা অনেক আগের ঘটনা হলেও সে এখনো আমাকে নানাভাবে মানহানি করতেসে বিভিন্ন জনের কাছে বিভিন্ন কথা বলে। আর এই লোক কুমিল্লার হয়ে কুমিল্লার ছাত্র কল্যাণের তার ছেলেমেয়ের বয়সী স্টুডেন্ট দের মাঝে কী পরিমাণ প্যাঁচ ইচ্ছা করে লাগায় সেটা কুমিল্লার কারো সৎসাহস থাকলে সে স্বীকার করবে। এই লোক আমাকে আম্মানের অভিযোগ এর প্রেক্ষিতে ৭ বার প্রক্টর অফিসে ডাকায় নিয়ে ” খানকি তুই এই ছেলেরে থাপড়াবি বলসস কেনো? তোরে যদি এখন আমার জুতা দিয়ে মারতে মারতে তোর ছাল তুলি তোরে এখন কে বাঁচাবে? ”

Advertisement

আফসোস এই লোক নাকি ঢাবির খুব প্রমিনেন্ট ছাত্রনেতা ছিলো। একবার জেল খেটেও সে এখন জগন্নাথের প্রক্টর। সো ওর পলিটিকাল আর নষ্টামির হাত অনেক লম্বা না হলেও এতো কুকীর্তির পরও এভাবে বহাল তবিয়তো থাকে না এমন পোস্টে। কোথায় এই লোকের কাজ ছিল গার্ডিয়ান হওয়া আর সো কিনা শেষমেশ আমার জীবনটারেই শেষ না হওয়া পর্যন্ত মুক্তি দিলো না
আমি উপাচার্য সাদোকা হালিম ম্যামের কাছে আপনি এই প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক হিসেবে আপনার কাছে বিচার চাইলাম।
আর আমি ফাঁসি দিয়ে মরতেসি। আমার উপর দিয়ে কী গেলে আমার মতো নিজেকে এতো ভালোবাসে যে মানুষ সে মানুষ এমন কাজ করতে পারে। আমি জানি এটা কোনো সলিউশন না কিন্তু আমাকে বাঁচতে দিতেসে না বিশ্বাস করেন। আমি ফাইটার মানুষ। আমি বাঁচতে চাইসিলাম! আর পোস্ট মর্টেম করে আমার পরিবারকে ঝামেলায় ফেলবেন না। এমনিতেই বাবা এক বছর হয় নাই মারা গেছেন আমার মা একা। ওনাকে বিব্রত করবেন না। এটা সুইসাইড না এটা মার্ডার। টেকনিক্যালি মার্ডার। আর আম্মান নামক আমার ক্লাসমেট ইভটিজার টা আমাকে এটাই বলছিল যে আমার জীবনের এমন অবস্থা করবে যাতে আমি মরা ছাড়া কোনো গতি না পাই। তাও আমি ফাইট করার চেষ্টা করসি। এখন দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে সহ্য ক্ষমতার।”

অবন্তিকার স্ট্যাটাস-1

অবন্তিকার স্ট্যাটাস-2

 

 

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

গর্ভবতী মহিলা গর্ভবতী মহিলা
বাংলাদেশ10 mins ago

গরমে গর্ভবতীদের পেট ফেঁপে যেতে পারে, যা করনীয়

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে সারা দেশ। আর এমন তাপদাহ পরিস্থিতিতে একটু উল্টোপাল্টা খাবার খেলে যে অচিরেই পেট ফেঁপে যাবে, তা তো...

দুর্ঘটনা23 mins ago

টোলপ্লাজায় অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারকে ট্রাকের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১৪

ঝালকাঠির গাবখান সেতুর টোল প্লাজায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ জনে। নিহত ১৪ জনের মধ্যে ৭ জন পুরুষ,...

পররাষ্ট্রমন্ত্রী পররাষ্ট্রমন্ত্রী
জাতীয়37 mins ago

জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিবিএনজে চুক্তি অনুমোদন এবং মহাসাগরের জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল বরাদ্দের জন্য বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ। গ্রিসের...

জাতীয়40 mins ago

ইরান-ইসরায়েল হামলা : প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতির নির্দেশ

ইরান-ইসরায়েল হামলার সম্ভাব্য প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতির ঘটনা প্রবাহের দিকে সংশ্লিষ্টদের...

জাতীয়1 hour ago

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা

তৃতীয় ধাপের ১১২টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এসব উপজেলা পরিষদে আগামী ২৯ মে নির্বাচন অনুষ্ঠিত...

জনদুর্ভোগ1 hour ago

জলাবদ্ধতা নিরসনে নতুন প্রকল্প ডিএসসিসির

আশা করি এবার আর জলাবদ্ধতা থাকবে না। নিউমার্কেট এলাকার জন্য নতুন প্রকল্প নিয়েছি। নিউমার্কেট এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসনে নতুন প্রকল্প গ্রহণ...

নির্বাচন-কমিশন নির্বাচন-কমিশন
জাতীয়3 hours ago

উপজেলা নির্বাচনে ৩য় ধাপের তফসিল ঘোষণা

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ধাপের তফসিল ঘোষণা করছেন নির্বাচন কমিশন। বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে দ্বিতীয়...

দুর্ঘটনা3 hours ago

ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ১২

ঝালকাঠিতে ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে ১২ নিহত হয়েছেন। সিমেন্টবাহী ওই ট্রাকের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কয়েকটি গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পাশে চলে যায়।...

জাতীয়4 hours ago

তেজগাঁওয়ে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

জামালপুরের তারাকান্দি থেকে ছেড়ে আসা ঢাকা অভিমুখী যমুনা এক্সপ্রেসের একটি ট্রেন রাজধানীর তেজগাঁওয়ে লাইনচ্যুতের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় উদ্ধার কার্যক্রম...

দুর্ঘটনা4 hours ago

ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ১১

ঝালকাঠিতে ট্রাক-প্রাইভেটকার-অটোরিকশার সংঘর্ষে ১১ নিহত হয়েছেন। সিমেন্টবাহী ওই ট্রাকের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কয়েকটি গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে রাস্তার পাশে চলে যায়।...

Advertisement
শিল্পী
বিনোদন21 seconds ago

শিল্পীদের নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা

গর্ভবতী মহিলা
বাংলাদেশ10 mins ago

গরমে গর্ভবতীদের পেট ফেঁপে যেতে পারে, যা করনীয়

সালমান-খান,-রাখি
বলিউড23 mins ago

সালমানের জন্য কেঁদেই চলেছেন রাখি

দুর্ঘটনা23 mins ago

টোলপ্লাজায় অটোরিকশা ও প্রাইভেটকারকে ট্রাকের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ১৪

প্রিয়াঙ্কা
বিনোদন23 mins ago

শুটিং ফ্লোর থেকে রক্তাক্ত ছবি পোস্ট প্রিয়াঙ্কার!

পররাষ্ট্রমন্ত্রী
জাতীয়37 mins ago

জীববৈচিত্র্য পুনরুদ্ধারে তহবিল চেয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয়40 mins ago

ইরান-ইসরায়েল হামলা : প্রভাব মোকাবিলায় প্রস্তুতির নির্দেশ

ঝলমলে
লাইফস্টাইল43 mins ago

৪০-এর পরেও ত্বক ঝলমলে থাকবে যেভাবে

জাতীয়1 hour ago

তৃতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা

খুলনা1 hour ago

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক7 days ago

বিড়াল বাঁচাতে গিয়ে একই পরিবারের ৫ জন নিহত

সৌদি-পতাকা
আন্তর্জাতিক6 hours ago

ইরান-ইসরায়েল প্রসঙ্গে অবস্থান স্পষ্ট করলো সৌদি

বাংলাদেশ4 days ago

ইসরাইল থেকে সরাসরি ঢাকায় বিমানের অবতরণ- যা জানা গেলো

ডাকসুর-সাবেক-ভিপি-নুরুল-হক
আইন-বিচার2 days ago

নুরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি

ফায়ার-সার্ভিস
জাতীয়5 days ago

নিয়ন্ত্রণে এসেছে বাড্ডার আগুন

দেশজুড়ে4 days ago

যুবকের পায়ুপথ থেকে বের করা হলো ৬ ইঞ্চি ডাব

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: ভূমধ্যসাগরে ঢুকলো রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইরানে পাল্টা হামলার বিষয়ে যা জানালো বাইডেন

বাংলাদেশ7 days ago

যাত্রীদের মারধরে নয়, চালক-কন্ডাক্টরের মৃত্যু হয় যেভাবে

আন্তর্জাতিক3 days ago

ইসরাইলে ইরানের হামলা: প্রতিক্রিয়া জানালো ভারত ও চীন

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়3 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল3 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি4 weeks ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল1 month ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

অপরাধ2 months ago

ডিবিতে যে অভিযোগ দিলেন তিশার বাবা

সর্বাধিক পঠিত