Connect with us

এশিয়া

স্ত্রী-শ্যালিকা ও ৩ শিশুসন্তানকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ফাঁসি

Avatar of author

Published

on

হত্যা

স্ত্রী, শ্যালিকা এবং নিজেরই ৩ শিশুসন্তানকে হত্যায় দোষী সাব্যস্ত ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিলেন ভারতের কর্ণাটক হাইকোর্ট। আদালতের পর্যবেক্ষণ, নজিরবিহীন এই হত্যাকাণ্ড। দুই তরুণীর পাশপাশি দশ বছরের কম বয়সি তিন শিশুকে নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে আসামি। সেকথা মাথায় রেখেই চরম শাস্তি দিলেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত বাইলুরু থিপাইয়া পেশায় দিনমজুর। বারো বছরের দাম্পত্যের পর স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক আছে বলে তার সন্দেহ হয়। যুগলের চার সন্তান রয়েছে। যদিও থিপাইয়া দাবি করেন, এর মধ্যে একটি সন্তান তার। স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্কের জেরে বাকি সন্তানদের জন্ম হয়েছে। এই নিয়েই চরম অশান্তি শুরু হয় পরিবারে। ২০১৭ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি বচসার পর মেজাজ হারিয়ে ধারাল চপার দিয়ে স্ত্রী এবং শ্যালিকাকে উপরে হামলা চালায় থিপাইয়া। কুপিয়ে হত্যা করে তাদের। এরপর দশ বছরেরও কম বয়সি নিজেরই তিন শিশুসন্তানকে হত্যা করেন।

হত্যাকাণ্ডের মামলা ওঠে নিম্ন আদালতে। একাধিক প্রামাণ্য নথি এবং ৩৬ জন সাক্ষীর জবানবন্দির ভিত্তিতে ২০১৯-এর ৩ ডিসেম্বর মৃত্যুদণ্ড হয় দোষী সাব্যস্ত বাইলুরু থিপাইয়ার। ফাঁসির আদেশ দেন বিচারক। এরপর কর্ণাটক হাইকোর্টে আবেদন করেন থিপাইয়া। যদিও সেখানেও বদলাল না রায়। গেলো বছর ২২ নভেম্বর শুনানি সমাপ্ত হলেও সাজা ঘোষণা স্থগিত রেখেছিল আদালত। শনিবার বিচারপতি সুরজ গোবিন্দরাজ এবং জি বাসবরাজা চরম শাস্তি ঘোষণা করলেন।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

এশিয়া

পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গাড়িতে বিস্ফোরণ, নিহত ৫ সেনা

Published

on

পাকিস্তানে স্থানীয় সময় শুক্রবার (২১ জুন) আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময় সেনা বাহিনীর একটি গাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে ৫ সেনা নিহত হয়েছেন।

দেশটির সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। বিবৃতিতে সেনাবাহিনী জানিয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনীর একটি গাড়িতে একটি বিস্ফোরক ডিভাইস থেকে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে পাঁচ সাহসী বীর প্রাণ হারিয়েছেন। খবর বার্তা সংস্থা এএফপির।

তবে এখনো পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী শুক্রবারের ওই হামলার দায় স্বীকার করেনি। যদিও বেশ আগে থেকেই ওই এলাকায় সবচেয়ে সক্রিয় জঙ্গি গোষ্ঠী তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি), নিরাপত্তা বাহিনীকে লক্ষ্য করে নিয়মিত হামলা চালিয়ে আসছে।

এদিকে ২০২১ সালে তালেবান আফগানিস্তানে ক্ষমতায় বসার পর থেকেই পাকিস্তানে হামলার ঘটনা বেড়ে গেছে। পাকিস্তান ইনস্টিটিউট ফর কনফ্লিক্ট অ্যান্ড সিকিউরিটি স্টাডিজ-এর তথ্য মতে, গেলো বছর পাকিস্তানে ২৯টি আত্মঘাতী হামলায় মোট ৩২৯ জন নিহত হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুতে একই ধরনের হামলায় একই প্রদেশের লাকি মারওয়াত জেলায় ছয়জন সেনা সদস্য এবং এক সেনা কর্মকর্তা নিহত হন। সে সময় একটি উন্নত বিস্ফোরক ডিভাইস দিয়ে হামলা চালানো হয়।

Advertisement

জিএমএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

গাজায় রেড ক্রিসেন্ট অফিসের সামনে ইসরায়েলের হামলা, নিহত ২২

Published

on

আন্তর্জাতিক মানবিক সহায়তা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল কমিটি অব রেড ক্রিসেন্টের (আইআরআইসি) দপ্তরের কাছে গোলা হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে নিহত হয়েছেন অন্তত ২২ জন, আহত হয়েছেন আরও ৪৫ জন। নিহতদের সবাই ওই কার্যালয় চত্বরের আশপাশে আশ্রয় নিয়েছিলেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় এই গোলা হামলা ঘটেছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে আইআরআইসি।

বিবৃতিতে বলা হয়, এ হামলায় আইসিআরসি কার্যালয়ের কাঠামো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই কার্যালয় চত্বরের আশপাশে শত শত বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনি আশ্রয় নিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে অনেকে আমাদের সহকর্মীও ছিলেন। হতাহতদের রেড ক্রিসেন্ট ফিল্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) সংক্ষিপ্ত এক বিবৃতিতে দাবি করেছে এই হামলা ইসরায়েলি সেনাবাহিনী ঘটায়নি। তবে একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, ঘটনাটি তদন্ত করছে আইডিএফ।

গেলো ৭ অক্টোবর ইসরায়েলি ভূখণ্ডে হামাস যোদ্ধাদের অতর্কিত হামলার পর ওই দিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে আইডিএফ, যা এখনও চলছে। আইডিএফের গত আট মাসের অভিযানে গাজায় নিহত হয়েছেন প্রায় ৩৮ হাজার ফিলিস্তিনি। এই নিহতদের শতকরা ৫৬ ভাগ নারী ও শিশু।

Advertisement

অন্যদিকে, গেলো ৭ অক্টোবরের হামলায় হামাস যোদ্ধাদের গুলিতে ইসরায়েলে নিহত হয়েছিলেন ১ হাজার ২০০ জন।

জেএইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

এশিয়া

বিষাক্ত মদ্যপানে ২৯ জনের মৃত্যু

Published

on

ভারতের তামিলনাড়ুতে বিষাক্ত মদপানে কমপক্ষে ২৯ জন মারা গেছেন। এছাড়া ৬০ জনেরও বেশি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির দেয়া প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের তামিলনাড়ুর কাল্লাকুরিচি জেলায় বিষাক্ত মদপানের পর কমপক্ষে ২৯ জন মারা গেছেন। এছাড়া ৬০ জনেরও বেশি মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে রাজ্য সরকার বলেছে, ২৬ জনের পান করা দেশি মদের প্যাকেট থেকে নমুনা নিয়ে ফরেনসিক করা হয়েছে এবং সেখানে বিষাক্ত মিথানলের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

দেশটির মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্ট্যালিন নিহতদের প্রতি সমবেদনা ও তাদের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন।

Advertisement

তিনি বলেন, কাল্লাকুড়িতে বিষাক্ত মদ খেয়ে মানুষের মৃত্যুর খবর শুনে আমি মর্মাহত ও ব্যথিত হয়েছি। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

কল্লাকুড়ির জেলা কালেক্টর এমএস প্রশান্ত জেলার সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসারতদের অবস্থা পর্যবেক্ষণে গিয়েছেন।

টিআর/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত