Connect with us

বিনোদন

বয়স একটা সংখ্যামাত্র: সানি লিওন

Avatar of author

Published

on

সানি লিওন

বলিউডে নাকি নায়িকাদের বয়স বাড়লে চলে না। বয়সই নির্ধারণ করে দেয়, পর্দায় কী ধরনের কাজ তারা পাবেন। তবে কাজ পাওয়ার সঙ্গে বয়সের এই সম্পর্কের কথা বেমালুম উড়িয়ে দিলেন অভিনেত্রী সানি লিওন। গত মাসে ৪২ বছরে পড়েছেন তিনি। তবে আদৌ কি বয়স হয়েছে সানির? নিজেই খোলসা করলেন সে কথা।

আগে বেশ কিছু অভিনেত্রী বলিউডে এই সমস্যা নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন। একটু বয়স হয়ে গেলেই মনের মতো কাজ পাননি তারা। সানি কিন্তু এ সব নিয়ে ভাবিত নন। তার মনে হয়, প্রত্যেকেরই অভিনব কিছু করার সুযোগ রয়েছে, নিজেদের দক্ষতা কাজে লাগিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে পারেন তারা।

ঠাট্টা করে সানি নিজের বয়স উল্টে নিয়ে বলেন, “উইকিপিডিয়া আর অন্যান্য ওয়েবসাইট দেখাচ্ছে যে, আমার বয়স ৪২ হল। কিন্তু আসলে আমি এ বছর ২৪- এ পড়লাম।”

বয়স নিয়ে ব্যাপক চর্চা হয় বলিউডে। বিনোদন দুনিয়ায় কাজ করলে কি যৌবন ধরে রাখাটাই মূল? সে বিষয়ে অভিনেত্রীর বক্তব্য, “আমরা এমন একটা দুনিয়ায় কাজ করি, যেটা রোজ বদলায়। নতুন নতুন প্ল্যাটফর্মে নতুন নতুন চরিত্রের প্রয়োজন হয় রোজ। যে ভাবে নিজেকে উপস্থাপন করা হবে, তার উপরেই পরবর্তী কালে কেমন কাজ আসবে সেটা নির্ভর করছে।”

সানির দাবি, বেশ কিছু ভাল চরিত্রে, বেশ কিছু ভাল শো-তে তো বলিউডের বিশিষ্ট এবং বয়স্ক অভিনেতারা করছেন। দর্শক ভালবেসে দেখছেন। কারণ পর্দায় চরিত্র অনুযায়ী অভিনয়ই আসল, বয়স নয়।

Advertisement

সানি লিওন

সানি তার অভিনয় জীবন শুরু করেছিলেন ২০১২ সালে। ‘জিসম ২’ দিয়ে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। এরপর ‘হেট স্টোরি ২’, ‘এক পহেলি লীলা’, ‘মস্তিজাদে’-র মতো ছবিতে কাজ করেছেন তিনি।

তার কাছে বয়স একটা সংখ্যামাত্র। সানি বললেন, “আমি আমার বাবা-মার মতো বয়স নিয়ে চিন্তা করি না। বাবা-মা আমার বয়সে ভাবতেন, কত বুড়িয়ে গিয়েছেন তারা! আমি এ সব পাত্তা দিই না। অনেক উৎসাহ-উদ্দীপনা আছে আমার।”

ভাল করে খাওয়াদাওয়া করেন, শরীরচর্চা করেন। পরিবার থেকেই বেঁচে থাকার রসদ পান বলে জানান সানি। ভাল ভাল কাজ করার সুযোগ পেয়েছেন বলেও নিজেকে ভাগ্যবতী ভাবেন সানি। তাঁর হাতে এখন অনেক কাজ। অনুরাগ কাশ্যপের পরিচালনায় ‘কেনেডি’-তে শেষ দেখা গিয়েছে সানিকে। কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছিল ছবিটি।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

ঢালিউড

বিয়ে করলেন অভিনেত্রী নাদিয়া, বর কে চেনেন?

Published

on

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সালহা খানম নাদিয়া বিয়ে করেছেন। শুক্রবার (২১ জুন) পারিবারিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিয়ে করেন তিনি। অভিনেত্রীর বরের নাম সালমান আরাফাত। তিনি একজন নাট্যশিল্পী বলে জানা গেছে।

শুক্রবার রাতে বিয়ে সম্পন্নের খবরটি সামাজিক মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন অভিনেত্রী নিজেই। এদিন বেশ কয়েকটি ফেসবুক পোস্টে বিয়ের একাধিক ছবি পোস্ট করেন নাদিয়া। এ সময় নাদিয়া, তার বর সালমান ও তাদের পরিবারের সবাইকে এক আনন্দঘন মুহূর্তে ক্যামেরাবন্দি হতে দেখা যায়।

প্রথমে বিয়ের মঞ্চে বরের মুখোমুখি বসে থাকার একটি ছবি শেয়ার করে নাদিয়া লিখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ!’ একইভাবে নাদিয়ার বরও দুজনের ছবিটি শেয়ার করে লিখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ।’

ছবিতে বর-কনে দুজনকেই একেবারে সাদা পোশাকে দেখা গেছে। দুই পরিবারের সদস্য ছাড়া শোবিজের কারো উপস্থিতি চোখে পড়েনি।

তবে ছবি পোস্ট করা মাত্রই অভিনন্দনের বার্তায় ভাসছেন নাদিয়া। গোলাম সোহরাব দোদুল, নওশীন, আলমগীর নিলয়, ইমতিয়াজ বর্ষণ, সানজু জনসহ শোবিজের বহু মানুষ শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন নাদিয়া ও সালমানকে।

Advertisement

এসআই/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

প্রিয়াঙ্কার উপর রেগে গিয়ে যে কাণ্ড ঘটিয়েছিলেন সালমান খান!

Published

on

বলিউডের প্রখ্যাত নির্মাতা ও প্রযোজক কারান জোহারের ‘দোস্তানা’ সিনেমার আইটেম গানে নাচার পর থেকেই  ‘দেশি গার্ল’ তকমা পান সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। কিন্তু বলিউডের ভাইজান তা মানতে নারাজ। প্রিয়াঙ্কা নয়, তাঁর চোখে আসল ‘দেশি গার্ল’ হলেন কারিনা কাপুর। ‘মুঝসে শাদি কারোগি’ এবং ‘সালামে ইশক’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন সালমান ও প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু দু’জনের নাকি ঠিকঠাক বনিবনা হয়নি। যে কারণে পরবর্তীতে প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে আর জুটি বাঁধতে দেখা যায়নি সালমানকে।

তবে সালমানের একটি মন্তব্যে প্রকাশ্যে আসে দু’জনের সম্পর্কের অবনতির কথা। ২০১১ সালে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সালমান মন্তব্য করেন, ‘কারিনা কাপুরই আসল দেশি গার্ল’। এর থেকেই বিতর্কের শুরু। প্রিয়াঙ্কাকে বিঁধতেই কি এই মন্তব্য করেছিলেন ভাইজান!

সেই সময় প্রিয়াঙ্কার ঘনিষ্ঠসূত্র সংবাদমাধ্যমের কাছে জানিয়েছিলেন, সালমানের এই মন্তব্যে অসন্তুষ্ট হয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলেছিলেন, ‘সালমানের মন্তব্য প্রিয়াঙ্কা মোটেই ভাল ভাবে নিচ্ছেন না। এটাই প্রথম ঘটনা নয়। তবে প্রিয়াঙ্কা এসবের মধ্যে থাকতে চান না।’

তবে পরে তাঁদের মধ্যে সমস্যা মিটেছে বলেও শোনা যায়। সালমানের ‘ভারত’ ছবিতে অভিনয় করার কথা ছিল প্রিয়াঙ্কার। কিন্তু সব ঠিক হয়ে গেলেও শেষ মুহূর্তে সরে আসেন অভিনেত্রী। ঠিক কী কারণে তিনি পিছিয়ে গিয়েছিলেন, তা নিয়েও জল্পনা হয় বিস্তর। শেষ মুহূর্তে ছবি থেকে প্রিয়াঙ্কার সরে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে পরিচালক আলি আব্বাস জাফর ‘অপেশাদার আচরণ’ বলে মন্তব্য করেছিলেন।

উল্লেখ্য, কারিনা কাপুরের সঙ্গে সালমান বেশ কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার মধ্যে ‘কিউ কি’, ‘বডিগার্ড’, ‘বাজরাঙ্গি ভাইজান’ অন্যতম।

Advertisement

এসআই/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

বলিউড

ক্যাটরিনা কখনও অভিনয়ই করেনি: রণবীর কাপুর!

Published

on

দীর্ঘদিন প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন বলিউড তারকা রণবীর কাপুর ও ক্যাটরিনা কাইফ। যদিও একটা সময় পর সেই সম্পর্ক ভেঙে যায়। পরে রণবীর সংসার বাঁধেন আলিয়া ভাটকে নিয়ে, অন্যদিকে ক্যাটরিনা গাঁটছড়া বাঁধেন ভিকি কৌশলের সঙ্গে। তবে সম্পর্কের দূরত্ব থাকলেও প্রাক্তন প্রেমিকার সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন রণবীর।

সম্পর্ক ভাঙার পরপরই পরিচালক অনুরাগ বসুর ‘জাগ্গা জাসুস’ ছবিতে জুটি বেঁধে কাজ করেছিলেন রণবীর-ক্যাটরিনা। সেই ছবির প্রচারের সময় এক সাক্ষাৎকারে ক্যাটরিনার সামনেই তার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে কথা বলেন রণবীর কাপুর।

ওই সাক্ষাৎকারে রণবীরকেই জিজ্ঞাসা করা হয় ক্যাটরিনার অভিনয় সম্পর্কে। তখন সামনে থাকা ক্যাটরিনাকে শুনিয়েই মন্তব্য করেন রণবীর। অভিনেতা বলেছিলেন, ক্যাটরিনাকে কখনও অভিনয় করতেই দেখেননি তিনি। এমনকি রণবীর এটাও বিশ্বাস করেন না যে, ক্যাটরিনা আদৌ কখনও অভিনয় করেছেন।

সেদিন রণবীর কথাটি পরোক্ষে বলেছিলেন ক্যাটরিনাকে। অভিনেত্রীর পাশে বসেই তিনি মন্তব্য করেন, ‘আমি কি কখনও ওভার অ্যাকটিং করেছি? আমার মনে হয় না, ক্যাটরিনাও কখনও এটা করেছে। মনে হয়েছে ও কোনও অভিনয়ই করেনি।’

রণবীর যে ঠাট্টা করেছিলেন তা বুঝতে বেশি সময় লাগেনি ক্যাটরিনার। রণবীরকে উলটো প্রশ্ন করেন, ‘কী বলতে চাইছো তুমি?’

Advertisement

তখন রণবীর উত্তর দেন, ‘আমি বলতে চেয়েছি, তুমি এত ভাল অভিনয় করেছো যে মনেই হয়নি তোমায় আলাদা করে অভিনয় করতে হয়েছে। জিন্দেগি না মিলেগি দোবারা’ ছবিতেও তুমি খুব ভালো অভিনয় করেছিলে।’

তবে ‘জাগ্গা জাসুস’-এর সেটেও নাকি প্রাক্তন যুগলের মধ্যে মনোমালিন্য লেগেই থাকতো। কিন্তু দুজনেই চেষ্টা করতেন পর্দার সামনে পেশাদার অভিনয় করার।

এসআই/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত