Connect with us

লাইফস্টাইল

খাবারে যে নিয়ম না মানলে অসুস্থ থাকবেন আজীবন

Avatar of author

Published

on

অসুস্থ

বয়স ৪০ পেরোতেই শরীর ভিতর থেকে কমজোরি হয়ে পড়তে শুরু করে। কম বয়সের মতো চনমনে ভাব থাকে না। অল্প পরিশ্রমেই তখন ক্লান্ত লাগে। সেই সঙ্গে নানা ক্রনিক সমস্যা ধীরে ধীরে বাসা বাঁধতে শুরু করে। ওজন বেড়ে যাওয়ারও ঝুঁকি থাকে। তাই চল্লিশের পর নিজের প্রতি বাড়তি যত্ন নেয়া জরুরি। এই সময় থেকে নিয়ম মেনে চলতে না পারলে বয়সকালে নানা রকমের সমস্যা দেখা দিতে শুরু করবে। বয়স যাই হোক, সুস্থ থাকতে খাওয়াদাওয়ার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কী খাচ্ছেন, তার উপর অনেকাংশ নির্ভর করে স্বাস্থ্যের হাল কেমন থাকবে। ৪০-এর পর খাওয়াদাওয়ায় পরিবর্তন আনা জরুরি। কতটা বদল আনলে ৪০-এর পরে সুস্থ থাকা সম্ভব?

১) অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া একেবারেই বন্ধ করতে হবে। বিশেষ করে বাইরের খাবারে সোডিয়াম, চিনি, লবণের পরিমাণ অনেক বেশি থাকে। একটা বয়সের পরে এগুলি শরীরে প্রবেশ করলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক, টাইপ ২ ডায়াবিটিসের ঝুঁকি থাকে।

২) ফাইবার, মিনারেলস, ভিটামিন আছে এমন খাবার বেশি করে খেতে হবে। ভিতর থেকে সুস্থ থাকতে এই উপাদানগুলি শরীরে পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকা জরুরি। এগুলির অভাবে নানা অসুখ বাসা বাঁধতে পারে শরীরে।

৩) ৪০ পার হওয়ার পর থেকে পেটের নানা গোলমাল লেগেই থাকে। গ্যাস জমে জমে আরও অনেক রোগের ঝুঁকি বাড়ে। তাই অন্ত্রের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে ভরসা রাখতে নিয়ম মেনে চলতেই হবে।

৪) ফল, শাকসবজি বেশি করে খেতে হবে। কারণ এই খাবারগুলিতে ভিটামিন, ফাইবার, মিনারেলস যথেষ্ট পরিমাণে রয়েছে। এগুলি সার্বিক ভাবে যত্ন নেয় শরীরের। বাড়িয়ে তোলে প্রতিরোধ ক্ষমতা।

Advertisement

৫) শাকসবজি, ফলমূল ছাড়াও বাদাম, নানা ধরনের শস্যতেও ভিটামিন, মিনারেলস রয়েছে ভরপুর পরিমাণে। চল্লিশের পর হার্টের রোগের ঝুঁকি কমাতে এগুলি খাওয়া জরুরি। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও বাদাম, শস্য খাওয়া জরুরি।

Advertisement

লাইফস্টাইল

পাউডার ব্যবহারেও বাড়তে পারে ঘামাচি

Avatar of author

Published

on

ঘামাচি,-গরম,

গরমের মৌসুমে ত্বকে সবচেয়ে বেশি যে সমস্যা লক্ষ্য করা যায় তা হল ঘামাচি, র‌্যাশ।  মূলত অতিরিক্ত তাপমাত্রা, রোদের তেজ, জ্বালাপোড়া আবহাওয়া- এসবের কারণেই আমাদের ত্বকে এই হিট- র‌্যাশের সমস্যা দেখা যায়। যাদের ত্বক তুলনায় সেনসিটিভ, তাদের ক্ষেত্রে গরমকালে এ জাতীয় বেশি লক্ষ্য করা যায়। অনেকেই র‌্যাশের জ্বালাভাব, চুলকানি, ঘামাচির ফলে হওয়া অস্বস্তি এড়াতে ত্বকে পাউডার ব্যবহার করে থাকেন। অনেক সময় পরপর কয়েকদিন বেশি মাত্রায় পাউডার ব্যবহার করা হলে আপনার ত্বক কিছুটা রুক্ষ, শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

তাই গরমের দিনে হওয়া ঘামাচি, র‌্যাশ এইসব সমস্যা দূর করার জন্য রইলো কিছু ঘরোয়া টিপস-

অতিরিক্ত পাউডার ব্যবহারে বাড়তে পারে ঘামাচি

গরমকালে অতিরিক্ত ঘাম হয় আমাদের। সেই ঘাম সবসময় ধুয়ে পরিষ্কার করা কিংবা গোসল করা সম্ভব হয় না। অথচ ওই অবস্থায় যদি সাময়িক আরামের জন্য আপনি ঘামাচির অংশে পাউডার দিয়ে দেন তাহলে ত্বকের পোরসগুলির মুখে ঘাম এবং পাউডার জমে গিয়ে সমস্যা আরও বাড়তে পারে। তাই ঘাম ভালভাবে না ধুয়ে অর্থাৎ গোসল না করে যখন তখন ঘামাচির অংশে পাউডার দেয়া ঠিক নয়। অতএব আগে নিজে পরিষ্কার হয়ে নিন, ঘাম ধুয়ে ফেলুন, তারপর ব্যবহার করুন পাউডার।

ঘামাচি দূর করার ক্ষেত্রে বরফ খুবই কার্যকরী

শরীর যে অংশে ঘামাচি দেখা দিয়েছে সেখানে বরফ পানি বা বরফের টুকরো আলতো হাতে ঘষে নিতে পারেন। কয়েকদিন এই অভ্যাস বজায় রাখতে পারলে উপকার পাবেন। আর বরফ দেওয়ার ফলে যে জ্বালাভাব কিংবা চুলকানি হয় ঘামাচির ক্ষেত্রে, সেটা কমবে। এক্ষেত্রে বরফের সঙ্গে যদি পুদিনা পাতা দেওয়া যায় তাহলে দ্রুত উপকার পাবেন। ঠান্ডাভাব অনুভূত হবে ঘামাচির অংশে। পুদিনা পাতা পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে প্রথমে। তার মধ্যে দিতে হবে বরফ। কিছুক্ষণ পাতা ভিজিয়ে রাখার পর পানি থেকে পাতা তুলে নিয়ে ওই পানি দিয়ে ঘামাচি হওয়া জায়গা ভালভাবে ধুয়ে নিতে হবে। এর ফলে উপকার পাবেন। তবে ঠান্ডা লাগার ধাত থাকলে বরফ দেয়ার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

অ্যালোভেরা জেল

ত্বকের জন্য অ্যালোভেরা জেল সবসময়েই খুব উপকারি উপকরণ। যে অংশে ঘামাচি দেখা গিয়েছে সেখানে অ্যালোভেরা জেল লাগাতে পারেন। এর ফলে উপকার পাবেন। ঘামাচি এবং চুলকানি, দুটো সমস্যাই কমবে। তাছাড়া ওই ঘামাচি হওয়া অংশে জ্বালাভাব কমে ঠান্ডা অনুভূতি পাবেন আপনি।

Advertisement

ত্বকের যাবতীয় ইনফেকশন, অ্যালার্জি এড়াতে চাইলে ভরসা রাখুন ওটমিলে

গরমের মরশুমে ওটমিল বাথ নিতে পারেন। নাম শুনে অবাক হলেও, এটা খুবই সহজ কাজ। গোসলের পানিতে ওটসের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। তারপর সেই পানি দিয়ে গোসল করুন। এর ফলে ত্বকে স্ক্রাবিংও হয়ে যাবে। তার ফলে ঝরে যাবে ডেড স্কিন সেল বা ত্বকের মরা কোষ। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ইনফেকশন দূর হবে।

গোসলের পানিতে থাকুক নিমপাতা, কর্পূর এবং লবঙ্গ

কিছুটা নিমপাতা, সামান্য কর্পূর এবং কয়েকটি লবঙ্গ পানিতে দিয়ে তা ভালভাবে ফুটিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণ গোসলের পানিতে মিশিয়ে তারপর সেই পানি দিয়ে গোসল করুন। ঘামাচি দূর হবে অল্প সময়েই। এছাড়াও কোনও হিট-র্যাশ হয়ে থাকলে তার থেকেও মুক্তি পাবেন। ত্বকের মধ্যে চুলকানি, জ্বালাভাব দেখা দিলে সেই সমস্যাও কমবে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

লাইফস্টাইল

গরমের দিনেও অন্দরমহল ঠাণ্ডা রাখবেন যেভাবে

Avatar of author

Published

on

অন্দরমহল

তীব্র দাবদাহে বাইরে বেরোলেই হাঁসফাঁস অবস্থা। তাই খুব প্রয়োজন না থাকলে বাইরে বের হতে মন চায় না। তবে বাইরের উষ্ণতার আঁচ যেন বাড়িতে না পড়ে, সে দিকেও খেয়াল রাখতে হবে। ঘর ঠান্ডা রাখতে হলে কিন্তু বুদ্ধি করে অন্দরসজ্জায় সামান্য বদল করতে হবে। মৌসুম ভেদে অন্দরসজ্জাতেও আনতে হবে বদল। গরমের দিনে কীভাবে বাড়ি সাজাবেন, জেনে নিন কয়েকটি উপায়।

গ্রীষ্মকালের জন্য কী ভাবে ঘর সাজাবেন?

১) সবার আগে ঘরের পর্দা বদলে ফেলতে হবে। মোটা কাপড়ের পর্দা নয়, গরমের দিনে পর্দার কাপড় হতে হবে একেবারে ফুরফুরে। এই সময় হালকা রঙের সুতির পর্দা এবং তার সঙ্গে মানানসই সাদা নেটের পর্দা দিয়েই ঘর সাজাতে পারেন। অথবা ফুলেল প্রিন্টের পর্দা রাখতে পারেন পছন্দের তালিকায়। তবে দিনের বেলা জানলা বন্ধ করে রাখাই ভাল।

২) গ্রীষ্মের মেজাজের সঙ্গে মিলিয়ে হালকা হালকা রঙের চাদর, কুশনের ঢাকা, বালিশের ঢাকা কিনতে পারেন। হালকা গোলাপি, কমলা, আকাশি নীল কিংবা সাদার উপর হালকা নকশা করা কোনও জিনিস বেশ মানাবে। এ ছাড়া বাটিক কিংবা বাগরু প্রিন্টের চাদর বিছানায় পাততে পারেন।

৩) গ্রীষ্মের মৌসুমে বাড়িতে বেশি করে গাছ লাগাতে হবে। আর অন্দরে রাখার মতো গাছ বেশ কয়েকটি রাখলে ঘরও ঠান্ডা থাকবে। এই সময়ে অন্দরসজ্জায় নানা রকমের ফুলের ব্যবহার করতে পারেন। জারবেরা, লিলির মতো ফুল দিয়ে সাজিয়ে ফেলতে পারেন ঘর, এতে ঘরে রঙিন ছোঁয়া বাড়বে। এ ছাড়া জুঁই, বেল, রজনীগন্ধার মতো ফুল দিয়ে ঘর সাজালে সুবাস ছড়িয়ে যাবে ঘরে। গন্ধের জন্য বিভিন্ন রকম এসেনশিয়াল অয়েলও ব্যাবহার করতে পারেন।

Advertisement

৪) টেবিল হোক বা সোফা, গরমে ব্যবহার করুন সুতির ঢাকা, ক্রুশের ঢাকা কিংবা উজ্জ্বল রঙের চাদর। ঘরে হাওয়া খেলবে। আসবাবপত্রের জন্য যেন জানলাগুলি ঢেকে না যায়, সে দিকেও নজর রাখতে হবে। সন্ধ্যাবেলা জানলা খুললেই যেন ফুরফুরে হাওয়া আসতে পারে, সে দিকটাও দেখতে হবে। দেওয়ালেও সাজেও রঙিন ছবি, ওয়াল হ্যাঙ্গিং ব্যবহার করতে পারেন।

৫) মেঝের কার্পেটটিও এ বার গুটিয়ে রাখতে পারেন। তার বদলে মাদুর কিনতে পারেন। মাটিতে বিছিয়ে দিন সেটি। ঘর হালকা দেখাবে। ভিতরে ঢুকলে মনও ফুরফুরে হবে।

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

রূপচর্চা

তীব্র দাবদাহে ত্বকের যত্নে সাথে রাখুন এই ৫ প্রসাধনী

Avatar of author

Published

on

গরমে-ত্বকের-যত্ন

সারাদেশের তাপমাত্রার পারদ ছাড়িয়েছে ৪০ ডিগ্রি। বাইরে বেরোলেই ঝলসে যাচ্ছে চোখমুখ। সেই সঙ্গে ঘামে ভিজে চুপচুপে হয়ে যাচ্ছে শরীর। এই তীব্র দহনেও বাড়ি থেকে বেরোতে হচ্ছে অনেককেই। নিয়মিত অফিস যেতে হচ্ছে।

চিকিৎসকেরা ব্যাগে একটা পানির বোতল রাখার কথা বলছেন। তবে শুধু শরীর নয় পাশাপাশি খেয়াল রাখতে ত্বকেরও। আর এ কারণে সঙ্গে রাখতে হবে প্রয়োজনীয় কিছু প্রসাধনী। যা দিয়ে খানিকটা হলেও তাপপ্রবাহের সঙ্গে লড়াই করা সম্ভব হবে।

ফুট স্প্রে

রোদচশমা পরে, মাথা সহ মুখে ওড়না জড়িয়ে, ছাতার তলায় আশ্রয় নিয়ে ত্বকের খেয়াল তো রাখছেন। এদিকে গরমে পায়েরও যে ক্ষতি হচ্ছে, সে কথা মাথায় থাকে না। ঘাম জমে পায়ের পাতায় সংক্রমণ হতে পারে। তেমনই পায়ের পাতার ত্বকও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। তাছাড়া পা ঘেমে দুর্গন্ধ তো আছেই। সেক্ষেত্রে ফুট স্প্রে ব্যবহার করুন। উপকার পাবেন।

ফেস-মিস্ট,-ত্বকের-যত্ন

ফেস মিস্ট

গরমে ঘেমে মুখ তেলেতেলে হয়ে যায়। ফলে চটচট ভাব দূর করতে সব সময় মুখ ধুতে ইচ্ছা করে। আবার অত্যাধিক রোদে ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে গিয়ে জ্বালা করে। ত্বকের আর্দ্রতা কমে যা। তাই ব্যাগে রেখে দিন ফেস মিস্ট। প্রয়োজনে মুখে স্প্রে করে নিন। ত্বক তরতাজা দেখাবে।

অ্যালোভেরা জেল

গরমে ব্যাগে অ্যালোভেরা জেল না রাখলেই নয়। ত্বক একটু শুষ্ক হয়ে গিয়েছে মনে হলেই মেখে নিন। তাছাড়া রোদে পোড়া, র‌্যাশ, ব্রণ— গরমের যে কোনও সমস্যায় ত্বকের জ্বালা ভাব কমিয়ে ঠান্ডা রাখতে পারে অ্যালোভেরা জেল। তাই ব্যাগে অবশ্যই এটা রাখুন।

Advertisement

অ্যালোভেরা জেল

সানস্ক্রিন

গরমের অত্যন্ত প্রয়োজনীয় প্রসাধনী। বাইরে বেরোনোর আগে ত্বকে সানস্ক্রিন লাগাবেন তো বটেই। তবে সঙ্গেও রাখতে ভুলবেন না। রোদের ক্ষতিকারক প্রভাব থেকে ত্বক সুরক্ষিত রাখতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা জরুরি।

সুগন্ধি

বাইরে বেরোলেই ঘামে ভিজে যাচ্ছে শরীর। ঘাম জমে দুর্গন্ধও হচ্ছে। ঘাম এবং দুর্গন্ধের অস্বস্তি কাটাতে সুগন্ধি ব্যবহার করতে ভুলবেন না। বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় তো মেখে আসবেন বটেই। তবে সঙ্গেও রাখতে হবে।

 

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জাতীয়

খারকিভে রকেট হামলা খারকিভে রকেট হামলা
বাংলাদেশ7 mins ago

আবারও ইসরাইলের তাণ্ডব

গাজার উত্তরাঞ্চলে আবারও হামলা চালিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। এসব এলাকা থেকে বেশ কিছুদিন আগে বেশির ভাগ স্থলসেনা প্রত্যাহার করে নিয়েছিলো ইসরাইল।...

নির্বাচন-কমিশন নির্বাচন-কমিশন
জাতীয়38 mins ago

চতুর্থ ধাপে উপজেলা নির্বাচনের ভোট ৫ জুন

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের চতুর্থ ও শেষ ধাপের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।  তফসিল অনুযায়ী এ ধাপে ৫৫ উপজেলায় আগামী...

জাতীয়1 hour ago

উপজেলা নির্বাচনে ২৬ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে ২৬ প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। এদের মধ্যে সাতজন চেয়ারম্যান, ৯ জন ভাইস চেয়ারম্যান ও...

অপরাধ2 hours ago

আলী আকবর খানকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে যা বললেন ডিবি হারুন

সার্টিফিকেট বাণিজ্যে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের সদ্য সাবেক চেয়ারম্যান আলী আকবর খানকে বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তিনি কোনো প্রশ্নের সদুত্তর...

জাতীয়4 hours ago

ঢাকা ছাড়লেন কাতারের আমির

কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি দুই দিনের সফর শেষে ঢাকা ছাড়লেন৷ মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো....

হাইকোর্ট হাইকোর্ট
আইন-বিচার5 hours ago

ইউপি চেয়ারম্যানরা পদে থেকেই উপজেলা নির্বাচন করতে পারবেন

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা পদত্যাগ না করেই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন বলে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) এ...

জাতীয়5 hours ago

বান্দরবানের তিন উপজেলার ভোট স্থগিত: ইসি সচিব

বর্তমানে বান্দরবানের থানচি, রোমা ও রোয়াংছড়ি উপজেলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দায়িত্ব পালন করছে। এই জন্য এ তিন উপজেলার নির্বাচন স্থগিত। জানিয়েছেন...

জিজ্ঞাসাবাদের-জন্য-ডিবি-কার্যালয়ে-কারিগরি-বোর্ডের-সাবেক-চেয়ারম্যান জিজ্ঞাসাবাদের-জন্য-ডিবি-কার্যালয়ে-কারিগরি-বোর্ডের-সাবেক-চেয়ারম্যান
জাতীয়6 hours ago

ডিবি কার্যালয়ে কারিগরি বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান

কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের সনদ জালিয়াতির ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কার্যালয়ে ডাকা হয়েছে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের সদ্য সাবেক...

গ্যাসের-চুলা গ্যাসের-চুলা
জনদুর্ভোগ7 hours ago

বুধবার ১২ ঘণ্টা গ্যাস বন্ধ থাকবে যেসব এলাকায়

গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি মেরামত কাজের জন্য বুধবার (২৪ এপ্রিল) সাভারের বিভিন্ন এলাকায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) এক...

জাতীয়7 hours ago

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন কাতারের আমির, চুক্তি-সমঝোতা সই

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ঢাকায় সফররত কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির উপস্থিতিতে দুই দেশের মধ্যে ৫টি চুক্তি...

Advertisement
ব্যারিস্টার-সুমন
আইন-বিচার2 days ago

বেনজীরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে যা বললেন ব্যারিস্টার সুমন

প্রধানমন্ত্রী-শেখ-হাসিনা
জাতীয়4 weeks ago

গায়ের চাদর না পুড়িয়ে বউদের ভারতীয় শাড়ি পোড়ান: প্রধানমন্ত্রী

ফুটবল4 weeks ago

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে ব্রাজিল কোচ জানালেন এটা মাত্র শুরু

টুকিটাকি1 month ago

জিলাপির প্যাঁচে লুকিয়ে আছে যে রহস্য!

অর্থনীতি1 month ago

বাজারে লেবুর সরবরাহ বেশি, তবুও দাম চড়া

রেশমা
বাংলাদেশ1 month ago

রাজধানীতে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার কিশোরীর ঠিকানা খুঁজছে পুলিশ

হলিউড1 month ago

নীল দুনিয়ায় অভিনেত্রী সোফিয়ার রহস্যজনক মৃত্যু

ফুটবল2 months ago

জামালকে ঠিকঠাক বেতন দেয়নি আর্জেন্টাইন ক্লাব

টুকিটাকি2 months ago

রণবীরের ‘অ্যানিম্যাল’ দেখে শখ, মাইনাস ২৫ ডিগ্রিতে বসলো বিয়ের আসর

অর্থনীতি2 months ago

গরুর মাংসের দাম কেজি প্রতি পৌনে ৬ লাখ টাকা!

সর্বাধিক পঠিত