Connect with us

জনদুর্ভোগ

ডেঙ্গু বিরোধী অভিযানে ৩ লাখ টাকা জরিমানা, আটক ২

Published

on

ডেঙ্গু বিরোধী অভিযান

ডেঙ্গু বিরোধী অভিযানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় রাজধানীর মনিপুরী এলাকায় নির্মাণাধীন দুই বাড়ির মালিককে ৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। এ সময় জরিমানা না দেওয়ায় দু’জনকে আটক করা হয়। আটক দু’জনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

শনিবার (১৫ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত মিরপুর পীরেরবাগের ৬০ ফুট সড়ক এলাকায় চলে এ অভিযান। উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার. জে. জোবায়দুর রহমানের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

ব্রিগে. জেনা. মো. জোবায়দুর রহমান বলেন, মানুষকে সচেতন করতেই এ আজকে তারা বেশ কয়েকটি বাড়ি পরিদর্শন করেছেন। এরমধ্যে পশ্চিম মনিপুর শেখ আব্দুল হাই সড়কের নির্মাণাধীন দু’বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা পাওয়া গেছে। এজন্য একটি বাড়িকে এক লাখ ও অপর আরেকটি বাড়িকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। টাকা না দেওয়ায় দু’জনকে আটক করা হয়। যদি এ জরিমানা কেউ না দেয় তাহলে তাদের তিন থেকে ছয় মাসের কারাদণ্ড হবে। এছাড়াও রাস্তা দখল করে নির্মাণ সামগ্রী রাখায় সেগুলো জব্দ করে নিলামে ১ লাখ ৬৮,৭৫০ টাকা বিক্রি করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তাদের উদ্দেশ্য মানুষকে কষ্ট দেওয়া নয়। এডিস মশার বিষয়ে মানুষকে সচেতন করাই তাদের লক্ষ্য। পরবর্তীতে যদি কেউ এডিস মশার বিষয়ে সচেতন না হয় তাহলে তাদের অর্থদণ্ড ও জেলে দেয়া হবে। আবারও রাস্তায় কেউ নির্মাণ সামগ্রী রাখলে তাৎক্ষণিক নিলামে বিক্রি করা হবে।

Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

জনদুর্ভোগ

রাজশাহীর সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ

Published

on

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারাদেশে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার প্রতিবাদ ও কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে রেললাইন অবরোধ করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শিক্ষার্থীরা। এতে রাজশাহীর সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকেল ৫টার দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টেশন বাজার সংলগ্ন রেললাইন অবরোধ করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। এর আগে বিভিন্ন হল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। সেখান থেকে বিশাল মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক ও হল প্রদক্ষিণ করে স্টেশন বাজারের রেলপথে জড়ো হন তারা।

এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘আমার ভাইয়ের রক্ত কেন? প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আমার বোনের রক্ত কেন? চট্টগ্রাম-কুমিল্লায় রক্ত কেন? প্রশাসন জবাব চাই, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘আমার ভাইয়ের রক্ত বৃথা যেতে দেব না,’ ‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে,’ ‘লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে’ ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।

এছাড়াও ‘মুক্তিযুদ্ধের মূলকথা, সুযোগের সমতা’, ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার’, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে’, ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’, ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’ ইত্যাদি স্লোগানে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশন বাজার।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী রাকিব হোসেন গণমাধ্যমে বলেন, আমাদের ভাইদের কী দোষ ছিল। আমরা শুধু আমাদের যৌক্তিক অধিকার নিয়ে কথা বলেছিলাম। কিন্তু আজকে পুলিশ আমার ভাইদের শরীর থেকে রক্ত ঝড়িয়েছে। আমাদের দাবি বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আমরা উঠবো না।

Advertisement

এএম/

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জনদুর্ভোগ

রাজধানীতে জলাবদ্ধতা, ৬ ঘণ্টায় রেকর্ড ১৩০ মিলিমিটার বৃষ্টি

Published

on

রাজধানীতে মুষলধারে বৃষ্টির প্রভাবে বিভিন্ন এলাকার রাস্তা ডুবে গেছে। রাস্তাগুলো জলমগ্ন হওয়ায় অনেক এলাকায় যানবাহন চলছে ধীরগতিতে । কোনো কোনো এলাকায় যান চলাচল একেবারেই বন্ধ হয়ে গেছে। জলমগ্নতার ফলে পুরো মহানগর জুড়ে স্থবিরতা সৃষ্টি হয়েছে। স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। নগরবাসীর পড়েছে প্রচণ্ড দুর্ভোগে।

আজ শুক্রবার (১২ জুলাই) ছুটির দিন থাকায় স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীসহ বেশির ভাগ চাকুরে নাগরিকদের ঘর ছাড়ার প্রয়োজনীয়তা নেই। তবে জীবিকা ও নানা প্রয়োজনে যারা পথে নেমেছেন তারা প্রচণ্ড দুর্ভোগে পড়েছেন। মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তা আরও অন্তত তিন থেকে পাঁচ দিন পর্যন্ত থাকবে। তবে আগামীকাল থেকে অতিমাত্রার সক্রিয়তা কমে আসবে। এর ফলে কাল থেকে মাঝে মাঝে হালকা আবা মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হলেও এমন ভারী বর্ষণ হবে না বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

আজ সকাল ছয়টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঢাকায় ছয় ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ১৩০ মিলিমিটার। আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, এটা চলতি বর্ষা মৌসুমের স্বাভাবিক অবস্থায় রাজধানীতে এক দিনে সর্বোচ্চ বৃষ্টি। এখন বৃষ্টির বেগ কমে এলেও পুরোপুরি থামেনি। অনেক এলাকায় থেকে থেকে বর্ষণ হচ্ছে।

আবহাওয়া বিভাগের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজধানীসহ প্রায় সারা দেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে কক্সবাজারে ৩০৯ মিলিমিটার। এ ছাড়া সন্দ্বীপে বৃষ্টি হয়েছে ২১৯ মিলিমিটার,সীতাকুণ্ডে ১০২ মিলিমিটার।

আবহাওয়া অফিস জানায় মৌসুমী বায়ু এখন অতিমাত্রায় সক্রিয় থাকার কারণেই এই ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। এই মৌসুমী বায়ুর অক্ষ ভারতের পাঞ্জাব,হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ এবং ভারতের আসাম হয়ে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। বাংলাদেশ ও বঙ্গোপসাগরে মৌসুমি বায়ু বেশিমাত্রায় সক্রিয় থাকায় উপকূল এলাকাতে অতি ভারী বৃষ্টি হয়েছে। দেশের ঢাকা, রংপুর, রাজশাহী,খুলনা ও বরিশাল অঞ্চলে বৃষ্টির পরিমাণ বেড়ে চলেছে।

Advertisement

আবহাওয়া বিভাগের আবহাওয়াবিদ মো. তরিফুল নেওয়াজ কবির গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, নিয়ম অনুসারে প্রতি তিন ঘণ্টা পর পর বৃষ্টিপাতের পরিমাপ করা হয়। ভোর ছয়টা থেকে সকাল নয়টা পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে ৬০ মিলিমিটার। পরের তিন ঘণ্টায় পরিমাণ আরও বেড়েছে। সকল নয়টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে ৭০ মিলিমিটার। সব মিলে ছয় ঘণ্টায় বৃষ্টির পরিমাণ রেকর্ড ১৩০ মিলিমিটার। তবে ঘূর্ণিঝড় রোমেলের সময় গত ২৭ মে রাজধানীতে একদিনে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছিল ২২৪ মিলিমিটার। সেটি মৌসুমের স্বাভাবিক বৃষ্টি নয়, তা ছিল ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবজনিত বৃষ্টি।

আবহাওয়াবিদ মো. তরিফুল নেওয়াজ কবির বলেন, সারা ঢাকাতেই আজ ভোর থেকে মৌসুমের স্বাভাবিক ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। আজ বৃষ্টি পুরোপুরি থেমে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। থেকে থেকে ভারী থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি ঝরতেই থাকবে রাজধানী জুড়ে।

উল্লেখ্য, প্রচণ্ড বৃষ্টিতে রাজধানী বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়ায় অনেক সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, ফকিরেরপুল, নয়াপল্টন, বায়তুল মোকাররম, তোপখানা রোড,মৎস্যভবন, কারওয়ানবাজার, শান্তিনগর, মালিবাগ মোড়, আরামবাগ ,প্রগতি সরণী,নিউমার্কেট, ধানমন্ডির রাপা প্লাজা, মিরপুরে রোকেয়া সরণি, পুরোনো ঢাকার দয়াগঞ্জ মোড়, বংশাল, নিমতলীর টোয়েনবি সার্কুলার রোড জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

এএম/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

জনদুর্ভোগ

১০ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না যেসব এলাকায়

Published

on

গ্যাসের চুলা

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে। গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি প্রতিস্থাপন কাজের জন্য সাময়িকভাবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

বুধবার (১০ জুলাই) এক বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

বার্তায় জানানো হয়, গ্যাস পাইপলাইনের জরুরি প্রতিস্থাপন কাজের জন্য বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মোট ১০ ঘণ্টা কলাবাগান, কাঁঠালবাগান, পূর্ব রাজাবাজার, গ্রিন রোড ও পান্থপথ এলাকায় বিদ্যমান সকল শ্রেণির গ্রাহকের গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে।

এছাড়া, আশেপাশের এলাকায় গ্যাসের স্বল্পচাপ বিরাজ করতে পারে। গ্রাহকদের সাময়িক অসুবিধার জন্য তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

এএম/

Advertisement
পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত