Connect with us

আইন-বিচার

অবৈধ মজুতের আইনের খসড়া, শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

Published

on

খসড়া

অবৈধভাবে খাদ্যপণ্য মজুতের নতুন আইনের খসড়া করেছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যদণ্ড রেখে খাদ্যদ্রব্যের উৎপাদন, মজুত, স্থানান্তর, পরিবহন, সরবরাহ, বিতরণ ও বিপণন (ক্ষতিকর কার্যক্রম প্রতিরোধ) আইন, ২০২২ এর নতুন খসড়াটি করেছে মন্ত্রণালয়। খসড়াটি খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে সবার মতামত নিচ্ছে খাদ্য মন্ত্রণালয়।

আইনের খসড়ায় বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি সরকার নির্ধারিত পরিমাণের বেশি খাদ্যদ্রব্য মজুত করলে বা মজুত সংক্রান্ত সরকারের কোনো নির্দেশনা অমান্য করলে মৃত্যুদণ্ড বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

তবে শর্ত থাকে যে, এ অপরাধে অভিযুক্ত ব্যক্তি যদি প্রমাণ করতে পারেন যে, তিনি আর্থিক বা অন্য কোনো লাভের উদ্দেশ্য ছাড়া মজুত করেছিলেন, তাহলে সর্বোচ্চ ৩ মাস কারাদণ্ড এবং অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন বলে নতুন খসড়ায় উল্লেখ করা হয়।

এর আগে গেলো বছরের ১৮ এপ্রিল এ আইনের খসড়া নীতিগত অনুমোদন দেয় সরকারের সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী ফোরাম মন্ত্রিসভা। তখন এ আইনের সর্বোচ্চ শাস্তি ৫ বছরের কারাদণ্ড বা ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডের প্রস্তাব করা হয়েছিল।

সম্প্রতিকালে চাল, পেঁয়াজ, তেলসহ বিভিন্ন ধরনের খাদ্যপণ্যের অবৈধ মজুতের মাধ্যমে ইচ্ছামতো দাম বাড়িয়ে ক্রেতাদের ভোগান্তিতে ফেলছেন এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী। বিব্রত হচ্ছে সরকার। এ প্রেক্ষাপটে কঠোর আইন করার উদ্যোগ নেয় খাদ্য মন্ত্রণালয়।

Advertisement

কিন্তু খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ভেটিংয়ের সময়ে দেখা গেছে অপরাধ দমনে বর্তমান প্রেক্ষাপটে এ শাস্তি পর্যাপ্ত নয়। তাই সংশ্লিষ্ট সবার মতামত নিয়ে আইনের খসড়াটি ফের করা হচ্ছে। এরপর এটি মন্ত্রিসভায় পাঠানো হবে। মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিলে এটি সংসদে যাবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে খাদ্য সচিব মো. ইসমাইল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, মন্ত্রিসভায় যেটি অনুমোদন দেয়া হয়েছিল সেই আইনের খসড়ায় সংশোধন আছে। সেই বিষয়ে মানুষের মতামত নেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, মন্ত্রিসভায় অনুমোদনের পর যখন আইনটি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়, তখন মনে হয়েছে যে উদ্দেশ্যে আইনটি করা হচ্ছে, সেই উদ্দেশ্য থেকে কিছুটা দূরে আছেন তারা। তাই আইনের খসড়া করে তা ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠাবেন। আইন মন্ত্রণালয় থেকে ফিরে আসলে নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য আইনটি মন্ত্রিসভা বৈঠকে অনুমোদনের জন্য পাঠানো হবে। আইনটি দীর্ঘমেয়াদী এবং ইফেকটিভ হওয়ার কথা। এ কারণেই তারা সময় নিয়ে এগুচ্ছেন। কারণ এ আইন অনেক মানুষকে প্রভাবিত করবে এবং জনগণকে স্বস্তি দেবে। এজন্য তারা চাচ্ছেন আইনটি যাতে যথোপযুক্ত হয়।

নতুন এ আইন হলে ‘ফুড (স্পেশাল কোর্ট) অ্যাক্ট, ১৯৫৬’ ও ‘দ্য ফুডগ্রেইনস সাপ্লাই (প্রিভেনশন অব প্রিজুডিশিয়াল অ্যাকটিভিটি) অর্ডিন্যান্স ১৯৭৯’ বাতিল হয়ে যাবে।

উৎপাদন বা বিপণন সংক্রান্ত অপরাধ ও দণ্ডের বিষয়ে বলা হয়েছে, যদি কোনো ব্যক্তি কোনো অনুমোদিত জাতের খাদ্যশস্য থেকে উৎপাদিত খাদ্যদ্রব্যকে ওই ধরনের জাতের উপজাত পণ্য হিসেবে উল্লেখ না করে ভিন্ন বা কাল্পনিক নামে বিপণন করেন, খাদ্যদ্রব্যের মধ্য থেকে কোনো স্বাভাবিক উপাদান সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে অপসারণ করে বা পরিবর্তন করে উৎপাদন করেন বা বিপণন করেন বা খাদ্যদ্রব্যের সঙ্গে মানবস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর কৃত্রিম উপাদান মিশিয়ে উৎপাদন করেন বা বিপণন করেন-তবে সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড বা সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হতে হবে।

Advertisement

খসড়া আইনে আরও বলা হয়, সরকার খাদ্যদ্রব্য সংগ্রহকালে সরকারি গুদামে রাখা খাদ্যদ্রব্য বৈধ বা অবৈধভাবে সংগ্রহ করে, দেশে উৎপাদিত খাদ্যদ্রব্যের পরিবর্তে আমদানিকরা খাদ্যদ্রব্য বা সরকারি গুদামের পুরনো বা বিতরণ করা সিল বা বিতরণ করা হয়েছে এমন চিহ্নযুক্ত খাদ্যদ্রব্য ভর্তি বস্তা বা ব্যাগ সরকারি গুদামে সরবরাহ করলে সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড বা ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

কোনো ব্যক্তি খাদ্য অধিদপ্তরের বিতরণ করা সিল বা বিতরণ করা হয়েছে এমন চিহ্নযুক্ত সিল ছাড়া সরকারি গুদামের খাদ্যদ্রব্য ভর্তি বস্তা বা ব্যাগ বিতরণ, স্থানান্তর, কেনাবেচা করলে সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড বা ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন বলে খসড়ায় উল্লেখ করা হয়।

এতে আরও বলা হয়, কোনো ব্যক্তি খাদ্যদ্রব্যের উৎপাদন, মজুত, স্থানান্তর, পরিবহন, সরবরাহ, বিতরণ ও বিপণন সম্পর্কিত কোনো মিথ্যা তথ্য বা বিবৃতি তৈরি, মুদ্রণ, প্রকাশ, প্রচার বা বিতরণ করলে সর্বোচ্চ ৫ বছরের কারাদণ্ড বা ১০ লাখ টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ড পেতে হবে।

খাদ্যদ্রব্য বিশেষ আদালতে

খসড়া আইনে বলা হয়, অপরাধের বিচারের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক আদালত থাকবে, যার নাম হবে খাদ্যদ্রব্য বিশেষ আদালত।

Advertisement

ফৌজদারি কার্যবিধিতে যা কিছুই থাকুক না কেন সরকার সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে পরামর্শক্রমে সরকারি গেজেটে প্রজ্ঞাপন দিয়ে প্রথম শ্রেণির জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত বা মেট্রোপলিটন এলাকার জন্য মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতকে খাদ্যদ্রব্য বিশেষ আদালত হিসাবে নির্ধারণ করতে পারবে। একাধিক আদালত নির্ধারণ করা হলে প্রত্যেকটি আদালতের জন্য স্থানীয় অধিক্ষেত্র নির্দিষ্ট করবে বলেও খসড়া আইনে উল্লেখ করা হয়।

জাতীয়

চুরি চুরি
অপরাধ58 mins ago

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে চুরি, আটক দুই

বাগেরহাটে রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে চুরির ঘটনা ঘটেছে। কেন্দ্রের তামার তার চুরি করে নিয়ে যাওয়ার সময় দুই যুবককে আটক করেছে আনসার...

চুরি চুরি
জাতীয়2 hours ago

বাংলাদেশ পুলিশ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করেছে: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ পুলিশ দেশের অভ্যন্তরীণ শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন এবং আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ দমন,...

চুরি চুরি
আইন-বিচার3 hours ago

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যথেষ্ট প্রয়োজনীয়তা রয়েছে: আইনমন্ত্রী

প্রকৃত অপরাধী থেকে পুলিশ ও আইনপ্রণেতাদের দুই ধাপ এগিয়ে থাকতে হবে। কারণ আইনকে পাশ কাটিয়ে কিভাবে অপরাধ করা যায় তারা...

চুরি চুরি
আইন-বিচার3 hours ago

বিএনপি-আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে দুই দফায় হট্টগোল

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের বর্ধিত সভায় বিএনপি ও আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। আজ শনিবার (২৮ জানুয়ারি)...

চুরি চুরি
করোনা ভাইরাস5 hours ago

দেশে করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১০

সবশেষ হিসাব অনুযায়ী দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গেলো ২৪ ঘণ্টায় একজন মারা গেছে। এ সময়ে নতুন করে ১০ জনের দেহে...

চুরি চুরি
অপরাধ6 hours ago

পাঁচ কোটি টাকার পণ্যসহ গ্রেফতার ৭ চোর

নারায়ণগঞ্জ বন্দর এলাকা থেকে সংঘবদ্ধ চোরচক্রের ৭ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র্যা ব-৪। এ সময় তাদের কাছ থেকে প্রায় ৫ কোটি...

বিচারপতি বিচারপতি
দেশজুড়ে7 hours ago

মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করাই আমাদের মূল লক্ষ্য: প্রধান বিচারপতি

মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। বছরের পর বছর ধরে বিচারপ্রার্থীরা আদালতে ঘুরতে থাকলে বলবে- দেশে বিচার নাই। এর...

চুরি চুরি
আন্তর্জাতিক7 hours ago

জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে যাচ্ছেন ৪৬০ পুলিশ কর্মকর্তা

বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশগুলোতে অংশ নিচ্ছেন জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে। পর্যায়ক্রমে বাড়ছে অংশগ্রহণ। পুলিশ সদস্যরা উজ্জ্বল...

চুরি চুরি
জাতীয়7 hours ago

ডেনমার্কে কোরআন অবমাননার ঘটনায় বাংলাদেশের তীব্র নিন্দা

ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেনে পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআন অবমাননার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ। শ‌নিবার (২৮ জানুয়ারি) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে...

চুরি চুরি
জাতীয়7 hours ago

ভারত গরু না দিলেই কৃতজ্ঞ থাকবো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পোল্ট্রি নয়, আমরা গবাদিপশুতেও এগিয়ে আছি। আমি যত বারই ভারত সফর করি, সেখানকার সরকার বলে তোমাদের গরু দেবো না। আমি...

Advertisement

আর্কাইভ

January 2023
MTWTFSS
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031 
চুরি
ক্রিকেট32 mins ago

চট্টগ্রামকে হারিয়ে শীর্ষ স্থান ধরে রাখলো ম্যাশরা

চুরি
অপরাধ58 mins ago

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রে চুরি, আটক দুই

চুরি
ফুটবল1 hour ago

আর্সেনালে দীর্ঘ চুক্তিতে যাচ্ছেন মার্টিনেল্লি

চুরি
রংপুর1 hour ago

কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা

চুরি
রাজশাহী2 hours ago

রাজশাহীতে ইতিহাসে সবচেয়ে বড় সমাবেশ হবে: কাদের

চুরি
রাজশাহী2 hours ago

উৎসব মুখর পরিবেশে সরস্বতী পুজার বিসর্জন

চুরি
জাতীয়2 hours ago

বাংলাদেশ পুলিশ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করেছে: প্রধানমন্ত্রী

চুরি
ক্রিকেট2 hours ago

ম্যাশদের বিপক্ষে চট্টগ্রামের বড় সংগ্রহ

চুরি
আইন-বিচার3 hours ago

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের যথেষ্ট প্রয়োজনীয়তা রয়েছে: আইনমন্ত্রী

চুরি
রাজশাহী3 hours ago

বগুড়ায় হিরো আলমের প্রচারে নায়িকা মুনমুন

চুরি
রাজশাহী3 hours ago

বগুড়ায় হিরো আলমের প্রচারে নায়িকা মুনমুন

চুরি
আওয়ামী লীগ4 hours ago

বিএনপির সন্ত্রাসের কারণে নতুন প্রজন্ম রাজনীতি করতে চায় না: শেখ পরশ

চুরি
রাজনীতি7 hours ago

পদত্যাগ করুন, অন্যথায় পালানোর পথ পাবেন না : মির্জা ফখরুল

চুরি
জাতীয়7 hours ago

ভারত গরু না দিলেই কৃতজ্ঞ থাকবো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

একাধিকবার
অপরাধ8 hours ago

লাদেনের সঙ্গে ফখরুলের একাধিকবার দেখা হয়: ডিএমপি

চুরি
এশিয়া10 hours ago

স্বর্ণের প্রলেপে মিললো ৪৩০০ বছরের পুরোনো মমি

চুরি
আওয়ামী লীগ2 days ago

প্রতিদিনই কর্মসূচি থাকবে আওয়ামী লীগের : কাদের

চুরি
আওয়ামী লীগ2 days ago

আওয়ামী লীগকে রাজপথে দেখে ভীত বিএনপি : তথ্যমন্ত্রী

চুরি
এশিয়া3 days ago

ফ্লাইওভার থেকে টাকার বৃষ্টি!

চুরি
জাতীয়4 days ago

‘এখনই প্রয়োজন নেই, সেগুলোতে ব্যয় করবো না’

সর্বাধিক পঠিত

প্রধান সম্পাদক : সৈয়দ আশিক রহমান

সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয়: বেঙ্গল টেলিভিশন লিমিটেড , ৪৩৭ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা-১২০৫
ফোন : 01878-184154, ই-মেইল : contact.bayannotv@gmail.com
© 2022 bayanno.tv