Connect with us

ফুটবল

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ ষোলোতে ইংল্যান্ড

Avatar of author

Published

on

চলতি কাতার বিশ্বকাপের নকআউট পর্বের টিকিট পেতে হলে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প ছিল না ওয়েলসের সামনে। অন্যদিকে ইংল্যান্ডেরও শেষ ষোলো নিশ্চিত ছিল না। যার কারণে দুই দলের ম্যাচটি বেশ রোমাঞ্চকর হবে বলে ধারণা করা হচ্ছিল। প্রথমার্ধে ইংলিশদের গোলবঞ্চিত করে অঘটনের স্বপ্ন দেখছিল গ্যারেথ বেলরা। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে মার্কাস রাশফোর্ডের জোড়া গোল ও ফিল ফোডেনের একটিতে ৩-০ গোলে ওয়েলসকে উড়িয়ে দিয়েছে হ্যারি কেইনের দল। এই জয়ে ‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়েই নকআউট পর্ব নিশ্চিত করল সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়ামে ওয়েলসকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে ইংল্যান্ড।

ইংলিশদের হয়ে জোড়া গোল করেছেন মার্কাস র্যাবশফোর্ড। বাকি একটি গোল করেছেন ফিল ফোডেন। কিন্তু বারবার সুযোগ মিসের খেসারত দিয়েছে ইংল্যান্ড। নিখুঁত ফিনিশিংয়ের অভাবে গোলের দেখা পায়নি রাশফোর্ড-কেইনরা।

ম্যাচের ২৪তম মিনিটে ওয়েলসের ডি-বক্সের একটু সামনে থেকে সামনে থাকা রাশফোর্ডকে নিখুঁত এক পাস দেন কেইন। তবে গোলরক্ষক ওয়ার্ডকে একা পেয়েও গোল করতে পারেননি তিনি। পরে ৩৫তম মিনিটে ডি-বক্সের মধ্যে বল পান ম্যানসিটির তরুণ তারকা ফোডেন। তবে তার বাঁ পায়ের জোরালো শট গোলপোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। যার কারণে প্রথমার্ধে গোলশূন্য অবস্থাতেই থাকতে হয়েছে দুই দলকেই।

তবে বিরতি থেকে ফিরে দুই মিনিটেই জোড়া গোল আদায় করে নেয় ইংল্যান্ড। ৫০তম মিনিটে ফ্রি কিক পায় ইংল্যান্ড। রাশফোর্ডের ডান পায়ের জোরালো শট বাম দিকের কোনাকুনি দিয়ে ওয়েলসের জালে জড়িয়ে যায়। গোলরক্ষককে হতভম্ব করে সমর্থকদের উল্লাসে মাতান এই তারকা।

Advertisement

তার ঠিক পরের মিনিটেই রাশফোর্ডের কাছে নিজেদের ডিফেন্সে বল হারায় ওয়েলসের খেলোয়াড়রা। এগিয়ে আসা সেই বল ইংলিশ অধিনায়ক কেইন পেয়েই বাম দিকে বাড়িয়ে দেন ফোডেনের কাছে। দারুণ এক ক্রসে তার শট খুঁজে নেন জালের দেখা।

দুই গোলে এগিয়ে থাকা ইংল্যান্ডকে তার ১৭মিনিট পরে আবারও গোলের দেখা পাইয়ে দেন পুরো ম্যাচে দুর্দান্ত দেখা রাশফোর্ড। ৬৮তম মিনিটে ডান দিকে একাই ডি বক্সে ডুকে দুজনকে ফাঁকি দিয়ে নিখুঁত শটে ওয়েলসের জালে বল জড়ান রাশফোর্ড।

রাশফোর্ডের জোড়া গোলের সুবাদে বিশ্বকাপের মঞ্চে ১০০ গোলের মাইলফলক অর্জন করে ইংল্যান্ড। তবে শেষদিকে আর গোলের দেখা না পেলে ৩-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ১৯৬৬ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

ফলে নকআউট পর্বের শেষ ষোলোতে ‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ সেনেগালের বিপক্ষে মাঠে নামবে। আগামী ৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায় অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি।

 

Advertisement
Advertisement
মন্তব্য করতে ক্লিক রুন

মন্তব্য করতে লগিন করুন লগিন

রিপ্লাই দিন

ফুটবল

ইউরোতে গোল্ডেন বুট জিতবেন কে বা কারা

Published

on

সর্বোচ্চ গোলদাতার হাতে ওঠে গোল্ডেন বুটের পুরস্কার। চলতি ইউরোতে কার হাতে উঠবে এই পুরস্কার, তা নিয়ে এখন জল্পনাকল্পনা চলছে। টুর্নামেন্টের শেষ সময় ঘনিয়ে এসেছে। স্পেন বা ইংল্যান্ড; যেকোনো এক দলের হাতে উঠবে শিরোপা। আর এই দুই দলের দুই খেলোয়াড়ের ঝুলিতে আছে ৩ টি করে গোল। একজন স্পেনের দানি অলমো, অন্যজন ইংল্যান্ডের হ্যারি কেইন।

শুধু এই দুই ফুটবলার ৩ গোল নিয়ে শীর্ষে আছেন এমন নয়। টুর্নামেন্টে আরও ৪ জন তিনটি করে গোল করেছেন। জানা যায়, এবারের ইউরোতে যৌথভাবে কোন খেলোয়াড় যদি গোল তালিকার শীর্ষে থাকে- সেক্ষেত্রে একাধিক ব্যক্তি পুরস্কৃত হবেন।

অলমো ও কেইন বাদেও ৩ গোল করেছেন এমন আরও ৪ জন ফুটবলার হলেন; নেদারল্যান্ডসের কডি গাকপো, জার্মানির জামাল মুসিয়ালা, জর্জিয়ার জর্জেস মিকাউতাদজে, স্লোভাকিয়ার ইভান শরাঞ্জ।

তবে গোল্ডেন বুট জেতার ক্ষেত্রে অলমো ও কেইনের সম্ভাবনা যে সবচেয়ে বেশি তা বলাই বাহুল্য। কারণ এই দুই খেলোয়াড় ফাইনাল ম্যাচ খেলবেন। ফলে যে কেউ এক বা একাধিক গোলও দিতে পারেন। এমন হলে গোল্ডেন বুটের সমীকরণ আরও সহজ হয়ে যাবে।

রবিবার (১৪ জুলাই) দিবাগত রাত ১ টায় ইউরোর ফাইনালে মাঠে নামবে স্পেন ও ইংল্যান্ড।

Advertisement

 

এম/এইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ফুটবল

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তির কারাদণ্ড

Published

on

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিংবদন্তি প্যাট্রিস এভরাকে ১২ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ফৌজদারি আদালত। এই সাবেক ফুটবলারের বিরুদ্ধে তার পরিবার ও দুই সন্তানকে পরিত্যাগ করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

শুধু কারাদণ্ড নয়, স্ত্রীর মানসিক ক্ষতি ও আদালত ব্যয়ের জন্যও এভরাকে জরিমানা করা হয়েছে দুই হাজার ইউরো। এই শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করেছেন এভরা। জানা যায়, ২০২১ সালের ১ মে থেকে ২০২৩ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর সময়কালীন স্ত্রী সন্তানদের পরিত্যাগ করেন ম্যান ইউনাইটেডের সাবেক এই ডিফেন্ডার।

এমন অবস্থায় এভরার আইনজীবী জানাচ্ছেন, দক্ষিণ ফ্রান্সে এভরা তার স্ত্রীকে একটি ফ্ল্যাট, সুইমিংপুল সহ একটি বাড়ি এবং ব্যয় নির্বাহের জন্য ২০ লাখ ইউরো দিয়েছেন। যে অর্থ ফেরত দিবেন না বলেও জানিয়েছেন এভরার স্ত্রী।

এখন এভরার আপিল নিয়ে কাজ শুরু করবে আদালত।

 

Advertisement

এম/এইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

ফুটবল

কোপার ব্যবস্থাপনা নিয়ে ক্ষোভ ঝাড়লেন কানাডা কোচ

Published

on

কোপা আমেরিকার আর মাত্র দুইটি ম্যাচ বাকি। একটি ফাইনাল, অন্যটি তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচ। এরমধ্যে নানা বিতর্ক আর আলোচনা তৈরি হয়ে গেছে। দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল নিয়ে বেশ আগে থেকেই নানা সমালোচনা ছিল। বিশেষ করে নিরাপত্তার বিষয়টি সবসময় প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে আসছে এই টুর্নামেন্টে। এবারের আয়োজনও কোনো ব্যতিক্রম তৈরি করতে পারেনি।

এবারের কোপা আমেরিকা অনুষ্ঠিত হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে। যেসব মাঠে ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হচ্ছে, সেই মাঠগুলো নিয়েও বিভিন্ন আপত্তি দেখা যায়। দর্শকরা খেলা উপভোগ করতে গিয়ে এসব খেয়াল করতে পারেন। মাঠে বড় বড় ঘাসের উপস্থিতি, যা একজন খেলোয়াড়কে কখনোই স্বস্তিতে পারফর্ম করতে দেবে না।

কোপার এই শেষ সময়ে এসে দলগুলোর কোচ নিজেদের ক্ষোভ ঝাড়ছেন। উরুগুয়ে কোচ মার্সেলো বিয়েলসা, কানাডা কোচ জেসি মার্শ আছেন এই তালিকায়। কোচ বিয়েলসা মাঠ নিয়ে বেশ সমালোচনা করে কথা বলেছেন। এর আগে আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি এই একই বিষয় নিয়ে কথা বলেন। জানা যায়, তখন নাকি কনমেবল থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়- মাঠ নিয়ে কথা না বলতে। এসব কথাও তুলে আনেন বিয়েলসা।

আর কানাডা কোচ মার্শের মুখে এসেছে ব্যবস্থাপনা নিয়ে নানা অভিযোগ। মার্শ বলেন, ‘টুর্নামেন্ট জুড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমরা অনেক বর্ণবাদী আচরণ পেয়েছি। আমাদের সঙ্গে এমন ব্যবহার করা হয়েছে, যেন আমরা দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিক। অথচ আমি, আমরা নিজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে চেয়েছি।’

মার্শ জানান, অনেক কিছুই কানাডার বিপক্ষে যাবে, এসব জেনেই তারা খেলতে নামবে।

Advertisement

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ব্যাংক অব আমেরিকা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রোববার সকাল ৬ টায় উরুগুয়ে ও কানাডা মুখোমুখি হবে।

 

এম/এইচ

পুরো পরতিবেদনটি পড়ুন

সর্বাধিক পঠিত